আজঃ শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

তিন দিনে আ.লীগের ২৯৯৫ ফরম বিক্রি, আয় সাড়ে ১৫ কোটি টাকা

প্রকাশিত:সোমবার ২০ নভেম্বর ২০23 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ নভেম্বর ২০23 | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন ফরম বিক্রির তৃতীয় দিনে ৭০৯টি আবেদন ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এতে আয় হয়েছে ৩ কোটি ৫৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। তিন দিনে বিক্রি ২ হাজার ৯৯৫টি ফরম। আয় হয়েছে সাড়ে ১৫ কোটি টাকা।

আজ সোমবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তৃতীয় দিনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান দলের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই ফরম বিক্রি করা হয়।

বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, আজ সরাসরি ৭০৯টি ও অনলাইনে ২৪টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, প্রথম দিন ১ হাজার ৭৪টি ফরম বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে সরাসরি ফরম বিক্রি হয়েছে ১ হাজার ৬০টি, আর অনলাইনে বিক্রি হয়েছে ১৪টি।

এবার আওয়ামী লীগ প্রতিটি দলীয় ফরমের দাম প্রায় দ্বিগুণ করে নির্ধারণ করেছে ৫০ হাজার টাকা। সে হিসাবে, প্রথম দিন ৫ কোটি ৩৭ লাখ টাকার ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এই টাকা মেঘনা ব্যাংকে দলীয় অ্যাকাউন্টে জমা হবে।

দ্বিতীয় দিনে ১ হাজার ২১২ আবেদন ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এর মধ্যে সরাসরি ১ হাজার ১৮০টি এবং অনলাইনে বিক্রি হয়েছে ৩২টি ফরম। এতে মোট আয় হয়েছে ৬ কোটি ৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরাসরি ৫ কোটি ৯০ লাখ টাকা আর অনলাইনে ১৬ লাখ টাকা।


আরও খবর
রবিবার হরতাল-অবরোধ দিচ্ছে না বিএনপি

বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩




চট্টগ্রামকে এগিয়ে নিতে যুক্তরাজ্যের সহযোগিতা চাইলেন চসিক মেয়র

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

চট্টগ্রামের চার সমস্যা সমাধান আর বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে যুক্তরাজ্যের সহযোগিতা চেয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার টাইগারপাস্থ চসিক কার্যালয়ে যুক্তরাষ্ট্রের হাইকমিশনার সারাহ কুকের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে মেয়র বলেন, চট্টগ্রামের বাণিজ্য সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে লজিস্টিকস সক্ষমতা বাড়াতে অবকাঠামো খাতে ব্যাপক বিনিয়োগ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতোমধ্যে লন্ডনের টেমস নদীর তলদেশের মতো কর্ণফুলী নগরীর তলদেশে টানেল চালু হয়েছে। পাশাপাশি আড়াই হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করে পুরো শহরের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানো হচ্ছে। জলাবদ্ধতা নিরসণে চলছে দশ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প। এই ব্যাপক বিনিয়োগের ফলে চট্টগ্রাম বৈদেশিক বিনিয়োগের একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। যুক্তরাজ্য এই সোনালী সুযোগকে কাজে লাগাতে চট্টগ্রামে বিনিয়োগ করলে বেশ লাভবান হবে।

বর্তমানে পরিবর্তিত জলবায়ুর প্রেক্ষিতে জলবদ্ধতা, পয়:নিষ্কাশন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আর অবকাঠামো এ চারটি খাতকে প্রাধান্য দিচ্ছি আমি। যুক্তরাজ্য এ চারটি খাতের উন্নয়নে বিনিয়োগ করে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়াতে পারে। যুক্তরাজ্যের অর্থনৈতিক সহায়তার পাশাপাশি প্রযুক্তিগত জ্ঞান আর অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আমি নান্দনিক চট্টগ্রাম গড়তে চাই।

এসময় যুক্তরাষ্ট্রের হাইকমিশনার সারাহ কুক বলেন, নগরায়নের যেসব সমস্যা চট্টগ্রাম মোকাবিলা করছে তাতে সহায়তা দিতে ইউএনডিপি যে প্রকল্প গ্রহণ করেছে তার অন্যতম প্রধান দাতা যুক্তরাজ্য। যুক্তরাজ্যের প্রতিষ্ঠান ইউনিলিভার বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ করদাতা প্রতিষ্ঠান। চট্টগ্রামের ইউনিলিভারের  এক কারখানাই  ৯০০ জন লোকের সরাসরি কর্মসংস্থান এবং আরো প্রায় ২০ হাজার লোকের পরোক্ষ জীবিকার যোগান দিচ্ছে।

আমরা বাংলাদেশে যুক্তরাজ্যের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো আরো কোন কোন খাতে বিনিয়োগের মাধ্যমে লাভবান হতে পারে তা খুঁজছি।  যুক্তরাজ্যের আরো অনেক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে বিশেষ করে চট্টগ্রামে শিল্প কারখানা গড়তে চায়। এক্ষেত্রে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ব্রিটিশ ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগে আস্থা বাড়াবে।

সভায় চট্টগ্রামে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মেয়র রেজাউল মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের পক্ষে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি দেশ স্বাধীন হওয়ার পর দ্রুত কমনওয়েলথের সদস্যপদ প্রদান করায় যুক্তরাজ্যের সরকার ও জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ভবিষ্যতেও সহযোগিতার এ ধারা চলমান থাকবে বলে আশা ব্যক্ত করেন।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুহম্মদ তৌহিদুল ইসলাম,  মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম, ঢাকাস্থ ব্রিটিশ হাইকমিশনের দ্বিতীয় সচিব (রাজনৈতিক) ব্রায়োনী কর, বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ বিষয়ক পরিচালক ড্যান পাশা।

নিউজ ট্যাগ: চট্টগ্রাম

আরও খবর



গাজায় নিহতের সংখ্যা ছাড়াল ১২ হাজার

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

গাজায় গত ৭ অক্টোবরের পর থেকে ইসরাইলের নির্বিচার হামলায় প্রাণহানির সংখ্যা ১২ হাজার ছাড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার সরকারি মিডিয়া অফিসের মহাপরিচালক ইসমাইল থাওয়াবতা। খবর আল-জাজিরার।

ইসমাইল থাওয়াবতা বলেন, গাজার স্বাস্থ্য ব্যবস্থার পতনের কারণে কয়েকদিন ধরে নিহতের সংখ্যা আপডেট করা হয়নি।

তিনি জানান, ধ্বংসস্তূপের নিচে এখনো এক হাজার ৮০০ শিশুসহ তিন হাজার ৭৫০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। চিকিৎসক, নার্স ও প্যারামেডিক মিলিয়ে অন্তত ২০০ জন নিহত হয়েছেন। সেই সঙ্গে সিভিল ডিফেন্স দলের ২২ সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন>> যুক্তরাষ্ট্রে হাসপাতালে হামলা, বন্দুকধারীসহ নিহত ২

ইসমাইল থাওয়াবতা জানান, ইসরাইলের হামলায় ৫১ সাংবাদিক ও গণমাধ্যম প্রতিনিধি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৩০ হাজারেরও বেশি, যাদের ৭৫ শতাংশই নারী ও শিশু।

প্রায় ২৫টি হাসপাতাল ও ২৫০ চিকিৎসাসেবাকেন্দ্র বন্ধ হয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি জানান, কমপক্ষে ৫৫টি অ্যাম্বুলেন্স ধ্বংস হয়েছে। ৯৫ হাজারেরও বেশি সরকারি স্থাপনা বিধ্বস্ত হয়েছে।

ইসমাইল থাওয়াবতা আরও জানান, ইসরাইলি বাহিনী কমপক্ষে ৫৭টি মসজিদ সম্পূর্ণ গুঁড়িয়ে দিয়েছে এবং ১৬৫টি মসজিদ আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। চার্চ ধ্বংস হয়েছে কমপক্ষে তিনটি।


আরও খবর



রাজধানীতে ছাদ থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীর লালবাগ থানার আজিমপুর এলাকায় একটি বাসার ছাদ থেকে পড়ে মো. তানভীর হোসেন (২০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সে পেশায় বিকাশের দোকানদার ছিলেন।

গতকাল বুধবার (৬ ডিসেম্বর) রাত পৌনে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে অচেতন অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে আনা হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের বড় ভাই তমাল বলেন, রাতের খাবার খেয়ে আমার ভাই প্রায়ই হাঁটাহাঁটি করত। আজ রাতে বৃষ্টি হওয়ায় সে রাস্তায় না গিয়ে ছাদে হেঁটে যায়। এমন সময় অসাবধানতাবশত নিচে পড়ে গুরুতর আহত হয়। পরে আমরা দ্রুত তাকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসিলে চিকিৎসক জানায় আমার ভাই আর বেঁচে নেই।

তিনি আরও বলেন, আমরা আজিমপুর ভাট মসজিদ এলাকায় নিজেদের বাড়িতে থাকি। আমার বাবার নাম আবুল হোসেন। আমার ছোট ভাই ওই এলাকাতেই মোবাইল বিকাশের দোকান চালাতও।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, মরদেহটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।


আরও খবর
বৃষ্টিতেও ঢাকার বায়ু অস্বাস্থ্যকর

বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩




মুক্তির আগেই ‘ডাঙ্কি’র আয় ১৩২ কোটি টাকা!

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

দীর্ঘ চার বছরের বিরতি ভেঙে পাঠান দিয়ে ফিরেই অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছেন শাহরুখ খান। পাঠান, ও জওয়ান বক্স অফিসে হাজার কোটি টাকার বেশি আয় করেছে। এবার ডানকির পালা। রাজ কুমার হিরানি পরিচালিত এ সিনেমা আগামী ২২ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে। কিন্তু মুক্তির আগেই মোটা অঙ্কের অর্থ আয় করেছে সিনেমাটি।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানিয়েছে, শাহরুখ খান ও পরিচালক হিরানি দুজনেই ডাঙ্কি সিনেমার লাভের অংশীদার। জওয়ান সিনেমার পথে হেঁটেই নন থিয়েট্রিকাল (ওটিটি কিংবা টেলিভিশন চ্যানেল) স্বত্ত্ব মুক্তির আগেই ১০০ কোটি রুপিতে (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৩২ কোটি ৪২ লাখ টাকার বেশি) বিক্রি করেছে। সিনেমাটির টিজার ও গান মুক্তি পেয়েছে। আর তা দেখেই বক্স অফিস বিশ্লেষকরা দাবি করেছেন সিনেমাটি হাজার কোটি রুপির বেশি আয় করবে। 

আরও পড়ুন>> ১০০ কোটির আর্থিক দুর্নীতির মামলায় প্রকাশ রাজকে তলব

টাইমস অব ইন্ডিয়া এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ডাঙ্কি সিনেমার বাজেটও কম। গত কয়েক বছরে শাহরুখের সিনেমার বাজেটের হিসাব দেখলেই তা স্পষ্ট। তার অভিনীত জব হ্যারি মেট সেজল সিনেমার বাজেট ছিল ৯০ কোটি রুপি। রইস সিনেমার বাজেট ছিল ৯০-৯৫ কোটি রুপি। জিরো সিনেমার বাজেট ছিল প্রায় ২০০ কোটি রুপি। পাঠান নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ২৪০ কোটি রুপি এবং জওয়ান সিনেমার বাজেট ছিল ৩০০ কোটি রুপি। আর ডাঙ্কি সিনেমার বাজেট ৮৫ কোটি রুপি। তবে এই বাজেটের মধ্যে তারকাদের পারিশ্রমিক অন্তর্ভুক্ত নেই।

শাহরুখ খানের সঙ্গে প্রথমবার ডাঙ্কি সিনেমায় কাজ করলেন রাজকুমার হিরানি। সিনেমাটিতে শাহরুখের বিপরীতে অভিনয় করেছেন তাপসী পান্নু। তা ছাড়াও অভিনয় করেছেন দিয়া মির্জা, বোমান ইরানি প্রমুখ।

নিউজ ট্যাগ: শাহরুখ খান

আরও খবর



আবারো কারাগারে সাবেক মেয়র মুক্তি

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

Image

আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলায় টাঙ্গাইল পৌরসভার সাবেক মেয়র সহিদুর রহমান খান মুক্তি আদালতে আত্মসমর্পণের পর আবার কারাগারে গেছেন।

টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত সরকারি কৌঁসুলি মনিরুল ইসলাম খান জানান, মঙ্গলবার দুপুরে সহিদুর টাঙ্গাইল প্রথম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে আদালতের বিচারক মো. মোস্তফা শাহরিয়ার খান তাকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। এর আগে গত ২০ নভেম্বর উচ্চ আদালত থেকে সহিদুর ছয় মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন পেয়ে ২২ নভেম্বর কারামুক্ত হয়েছিলেন।

আদালত সূত্র জানায়, গত ২৬ নভেম্বর আপিল বিভাগের আদেশের তথ্য গোপনসহ সহিদুরের জামিন আবেদন ঘিরে কিছু অসঙ্গতির অভিযোগ তুলে রাষ্ট্রপক্ষ। তার পরিপ্রেক্ষিতে সহিদুরের জামিনাদেশ প্রত্যাহার করেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. রেজাউল হাসান ও বিচারপতি ফাহমিদা কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ওই বেঞ্চ ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সহিদুরকে টাঙ্গাইলের বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছিলেন।

এর আগে আপিল বিভাগ গত ২৭ আগস্ট এক আদেশে সম্ভাব্য ছয় মাসের মধ্যে মামলাটির বিচার কাজ শেষ করতে বিচারিক আদালতে নির্দেশ দেন। এতে তথ্য গোপনের বিষয়টি নজরে এনে শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট আত্মসমর্পণের ওই আদেশ দেন।

গত ২২ নভেম্বর কারামুক্ত হওয়ার পর সহিদুর টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। মঙ্গলবার দুপুরে হুইলচেয়ারে বসে সহিদুর আদালতে আসেন। এ সময় তার বাবা টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সংসদ সদস্য আতাউর রহমান খান এবং তার ভাই সাবেক সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানা তার সঙ্গে ছিলেন।

২০২০ সালের ২ ডিসেম্বর সহিদুর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়ে দেন। মাঝে গত বছর অন্তর্বর্তী জামিন ১৮ দিন কারাগারের বাইরে ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ফারুক আহমেদের গুলিবিদ্ধ লাশ তার কলেজ পাড়ার বাসার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনার তিন দিন পর তার স্ত্রী নাহার আহমেদ বাদী হয়ে সদর থানায় হত্যা মামলা করেন। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে ২০১৪ সালের আগস্টে পুলিশ আনিসুল ইসলাম ও মোহাম্মদ আলী নামের দুজনকে গ্রেফতার করে।

ওই দুজনের দেওয়া স্বীকারোক্তিতে তৎকালীন সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান, তার তিন ভাই টাঙ্গাইল পৌরসভার তৎকালীন মেয়র সহিদুর রহমান, ব্যবসায়ী নেতা জাহিদুর রহমান ও ছাত্রলীগের তৎকালীন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি সানিয়াত খানের জড়িত থাকার বিষয়টি উঠে আসে।

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে গোয়েন্দা পুলিশ আদালতে আমানুর রহমান ও অপর তিন ভাইসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। বর্তমানে মামলাটি সাক্ষ্য গ্রহণ চলছে।


আরও খবর