আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

ভারত থেকে বাংলাদেশে আসা যাত্রীদের মধ্যে করোনা শনাক্ত

প্রকাশিত:রবিবার ০২ মে 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ মে 2০২1 | ১০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
নির্দেশনা অনুযায়ী দেশে ফেরত আসা যাত্রীদের ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হচ্ছে। শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা আগত যাত্রীদের সার্বিক দেখাশোনার জন্য চেকপোস্টের আন্তর্জাতিক টার্মিনালে মনিটরিং

শনিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশে যাত্রী এসেছে ৭০ জন। এদের পাঠানো হয়েছে খুলনার বিভিন্ন হোটেলে। গত ৬ দিনে সবমিলে দেশে ফেরত আসা যাত্রীর সংখ্যা ১ হাজার ২৬ জন। দেশে ফেরত আসা এসব যাত্রীদের মধ্যে করোনা শনাক্ত পাওয়া গেছে ৭ জন। তাদের যশোর সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশি যাত্রীদের চাপে ভরে গেছে বেনাপোলের আবাসিক হোটেল ও মাদরাসা। চাপ সামলাতে শনিবার থেকে দেশে ফেরা যাত্রীদের ৭৫ কিলোমিটার দুরে জেলা সদর নড়াইলের পর এবার নেয়া হচ্ছে খুলনায়।

রবিবার (২ মে) দুপুর ১টার মধ্যে দেশে ফিরেন আরও প্রায় ৮০ জন বাংলাদেশি। এদের বিশেষ ব্যবস্থায় খুলনায় নেয়া হচ্ছে। গতকাল পর্যন্ত দেশে ঢুকেছে ৯৪৬ জন। প্রথম তিনদিনের প্রায় ৬ শতাধিক যাত্রীকে রাখা হয় বেনাপোলের বিভিন্ন আবাসিক হোটেলে। বেনাপোলে পর্যটন মোটেলসহ হোটেলের সংখ্যা ১২। স্থান সংকুলান না হওয়ায় ২৯ তারিখ দেশে ফেরত আসা যাত্রীদের রাখা হয় ঝিকরগাছার গাজীর দরগা মাদ্রাসায়। ৩০ তারিখের যাত্রীদের পাঠানো হয়েছে নড়াইলের বিভিন্ন হোটেলে।

সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী দেশে ফেরত আসা যাত্রীদের ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখা হচ্ছে। শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজা আগত যাত্রীদের সার্বিক দেখাশোনার জন্য চেকপোস্টের আন্তর্জাতিক টার্মিনালে মনিটরিং সেল বসিয়ে দেখা শোনা করছেন।

বেনাপোলের পোর্টভিউ হোটেলের সত্ত্বাধিকারী আলহাজ্ব ওয়াজেদ আলী জানান, আজ থেকে তার হোটেলে অবস্থান নেয়া প্রায় ৫০ জন রোজাদার যাত্রীকে তার পরিবারের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে সন্ধ্যায় ইফতার এবং রাতে সেহরির ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঈদের আগের দিন পর্যন্ত সকল রোজাদার যাত্রীদের খাবার দেয়া অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



এখন লকডাউন নিয়ে অপপ্রচারে নেমেছে বিএনপি : কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১ | ১২১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে অপরাজনীতি করে ব্যর্থ হয়ে বিএনপি এখন লকডাউন নিয়ে অপপ্রচারে নেমেছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার সকালে (১৬ এপ্রিল) ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলটির ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপকমিটি আয়োজিত কয়েকটি সাংবাদিক সংগঠন ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের মাঝে করোনা সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, বিএনপি'র দ্বিচারিতা বক্তব্য মানুষের ঘরে অবস্থানকে নিরুৎসাহিত করতে পারে বলেও মনে করেন। তিনি জানতে চান তাহলে কী বিএনপি চায় না করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসুক?

বিএনপি নেতারা বলছেন দেশে নাকি গণতন্ত্র নেই এমন অভিযোগের জবাবে ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে কী ভূমিকা পালন করেছে? পদে পদে বাধা সৃষ্টি করে অগণতান্ত্রিক চর্চা করে তারা এখন গণতন্ত্রের ফেরিওয়ালা সেজেছে।

এদেশের গণতন্ত্রকে হত্যা এবং দুর্নীতিকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছিলো বিএনপি উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাওয়ার যে সংগ্রাম তা সর্বস্তরের জনগণের সহযোগিতায় সফল হবে ইনশাআল্লাহ।

তিনি বলেন বিএনপি যতই পেছন থেকে দেশের এগিয়ে যাওয়াকে টেনে ধরে রাখতে চায় কিন্তু সফল হবে না, কারণ জনগণ এখন উন্নয়নমুখী।

জনগণ বিএনপির পশ্চাৎমুখী রাজনীতিকে প্রত্যাখ্যান করে শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও সমৃদ্ধ আগামী বির্নিমাণের রাজনীতির পক্ষে দাঁড়িয়েছে বলেও মনে করেন তিনি।

জনগণের জন্যই রাজনীতি করেন শেখ হাসিনা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তাই জনগণের স্বার্থে কখন কী করতে হবে তা বঙ্গবন্ধু কন্যা ভালই বোঝেন , আর এজন্যই তিনি আজ দেশের জনগণের আস্থার ঠিকানা ও নির্ভরতার বাতিঘর।

দেশকে বিএনপি শূণ্য করাই নাকি সরকারের লক্ষ্য, - বিএনপি নেতাদের এই অভিযোগ নিয়ে কাদের বলেন প্রকৃতপক্ষে বিএনপি শূন্য করা নয়, সরকার চায় বিএনপি সত্যিকার অর্থে একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দলের ভূমিকা পালন করুক।

তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন বিএনপি সহিংসতা, ষড়যন্ত্র আর অপরাজনীতি ছেড়ে জনমানুষের কল্যাণে ইতিবাচক রাজনৈতিক ধারায় ফিরে আসবে।


আরও খবর



ভারতকে রেমডেসিভির দিচ্ছে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩০ এপ্রিল ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা মহামারি মোকাবিলায় ভারতে জরুরি ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রীর অংশ হিসেবে রেমডিসিভিরও পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ। এদিকে বাংলাদেশের ওষুধ ও চিকিৎসা সামগ্রী পাঠানোর ঘোষণায় ধন্যবাদ জানিয়েছে ভারত।

সূত্র জানায়, ভারতে করোনার পরিস্থিতি দ্রুত অবনতি হওয়ায় বাংলাদেশ সরকার সে দেশের মানুষের জন্য জরুরি ভিত্তিতে ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানোর প্রস্তাব দিয়েছে। যার মধ্যে রেমডেসিভিরও রয়েছে। ভারতে এখন প্রচুর রেমডেসিভিরের সংকট রয়েছে। সে কারণে এ ওষুধ পাঠানো হচ্ছে।

এদিকে জরুরি ওষুধ পাঠানোর ঘোষণায় ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছে। ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন টুইটারে জানিয়েছে, করোনার এ সংকটকালে ভারতের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করায় ও সহযোগিতার হাত বাড়ানোর জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ। বাংলাদেশ-ভারত একসঙ্গে এ মহামারি জয় করবে আশা প্রকাশ করা হয়েছে।

ভারতে করোনা অবনতি হওয়ায় বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) বাংলাদেশ সরকার জরুরি সহায়তার ঘোষণা দেয়।


আরও খবর



ত্রিশালে প্রতিবন্ধী স্কুলে ত্রাণ বিতরণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ মে ২০২১ | ৪৩জন দেখেছেন
Image

ত্রিশাল থেকে সারোয়ার জাহান জুয়েল

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় প্রতিষ্ঠিত প্রতিবন্ধী স্কুল পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে ২শত মানুষের মাঝে ঈদ সামগ্রী ত্রাণ বিতরণ করেছেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও পরিচালক কামাল হোসেন।

ত্রিশাল দরিরামপুর পৌরসভার ৪নং ওর্য়াড প্রতিবন্ধী স্কুল কক্ষে এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী অফিসার  মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন, স্কুলের পরিচালক কামল হোসেন ও স্কুলের শিক্ষক মন্ডলী।

নিউজ ট্যাগ: ময়মনসিংহ

আরও খবর



ন্যায্যমূল্যে খোলা বাজারে চাল ও আটা বিক্রি চলবে

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সরকার ঘোষিত লকডাউনের মধ্যেও স্বল্প আয়ের মানুষের খাদ্যের মৌলিক চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে দেশের বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের শহরগুলোতে ন্যায্যমূল্যে খোলা বাজারে (ওএমএস) চাল ও আটা বিক্রয় কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার সুমন মেহেদী এ তথ্য জানান।

সারাদেশে বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের শহরগুলোতে ৭১৫ জন ওএমএস ডিলারের মাধ্যমে মোট ৭১৫টি বিক্রয় কেন্দ্রে (১০ টি ভ্রাম্যমাণ ট্রাকসহ) ৭৩৩ মেট্রিক টন চাল ও ৭৯৬ মেট্রিক টন আটা বিক্রয় চলমান থাকবে।

উল্লেখ্য, ঢাকা মহানগরে ১০টি ট্রাকের মাধ্যমে প্রতিদিন ৩০ মেট্রিক টন চাল এবং ১২৬টি বিক্রয়কেন্দ্রের মাধ্যমে ১২৪ মেট্রিক টন চাল ও ৬৬ মেট্রিক টন আটা বিক্রয় চলমান থাকবে।

এছাড়া, শ্রমঘন জেলাসমূহে (ঢাকা, গাজীপুর, নারায়নগঞ্জ ও নরসিংদী) ১৫১টি বিক্রয়কেন্দ্রে দৈনিক ডিলার প্রতি ১ মেট্রিক টন চাল ও ২ মেট্রিক টন আটা এবং অন্যান্য মহানগরী এবং জেলা শহরে ৩১১টি বিক্রয়কেন্দ্রে ডিলার প্রতি প্রতিদিন ১ মেট্রিক টন চাল ও ১ মেট্রিক টন আটা বিক্রয় চলমান থাকবে।

শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিন বাদে সপ্তাহে ৬ দিনই এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।


আরও খবর



বেনাপোল স্থলবন্দরে আজ আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ | ১৫৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আজ বুধবার (১৪ এপ্রিল) পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে এ পথে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ। ১৫ এপ্রিল আবার কার্যক্রম চালু হলেও ১৬ এপ্রিল সাপ্তাহিক ছুটিতে বেনাপোল

আজ বুধবার পহেলা বৈশাখের ছুটি থাকায় বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে। তবে বিশেষ ব্যবস্থায় শর্ত সাপেক্ষে দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রী যাতায়াত ব্যবস্থা সচল থাকবে।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি সাজেদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আজ বুধবার (১৪ এপ্রিল) পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে এ পথে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ। ১৫ এপ্রিল আবার কার্যক্রম চালু হলেও ১৬ এপ্রিল সাপ্তাহিক ছুটিতে বেনাপোল ও ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। ১৭ এপ্রিল শনিবার সকাল থেকে পুনরায় স্বাভাবিক নিয়মে বাণিজ্যিক কার্যক্রম সচল থাকবে বলেও জানান তিনি।

ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি কার্তিক চন্দ্র জানান, প্রতিবছরের পহেলা বৈশাখে ভারতের ব্যবসায়ীরা বর্ষবরণ পালন করেন। এদিন ছুটি কাটাতে বন্দরে পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকে। বিষয়টি বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের চিঠির মাধ্যমে জানানো হয়েছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব জানান, সরকারি ও সাপ্তাহিক ছুটিতে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও এ সময় শর্ত মেনে দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্টধারী যাত্রীদের চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।


আরও খবর