আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

ভারতে রেকর্ড দাবদাহে আকাশ থেকে পড়ছে পাখি

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে বইছে তীব্র দাবদাহ, বিশেষ করে গুজরাটে। কমে গেছে পানির উৎস। সেখানে পানি শূন্যতায় ভুগছে পাখিরা। এমন পরিস্থিতিতে প্রতিদিন আকাশ থেকে উড়ন্ত পাখি মাটিতে পড়ছে। রাজ্যটির উদ্ধারকর্মীরা এরই মধ্যে কয়েকডজন পাখি উদ্ধার করেছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এক প্রতিবেদনে তথ্য জানানো হয়। কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে উষ্ণ গ্রীষ্মে দক্ষিণ এশিয়ার বড় অংশ শুকিয়ে যাচ্ছে। এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আগুন ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে সতর্ক করেছেন।

আহমেদাবাদের অলাভজনক জীবদয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দ্বারা পরিচালিত একটি পশু হাসপাতালের চিকিৎসকারা বলেছেন, গত কয়েক সপ্তাহে তারা হাজার হাজার পাখির চিকিৎসা করেছেন। তাছাড়া উদ্ধারকারীরা প্রতিদিন আকাশের বেশি ওপরে উড়ে এমন কয়েক ডজন পাখি নিয়ে আসছেন বলেও জানান তারা।

মনোজ ভাবসার বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে চলতি বছরের পরিস্থিতি বেশি খারাপ। এই সময়ে প্রচণ্ড তাপদাহে আক্রান্ত পাখির সংখ্যা ১০ শতাংশ বেড়েছে। মনোজ এক দশকেরও বেশি সময় ধরে পাখিদের উদ্ধার করছেন ও ট্রাস্টের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছেন।

গুজরাটের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারণে হিট স্ট্রোক ও অন্যান্য তাপ-সম্পর্কিত রোগের জন্য হাসপাতালগুলোতে বিশেষ ওয়ার্ড স্থাপনের পরামর্শ দিয়েছেন।

নিউজ ট্যাগ: ভারত

আরও খবর



ছাত্রদলের ঢাকা মহানগরের ৮টি ইউনিটে নতুন কমিটি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সংগঠনের সুপার ইউনিট খ্যাত আটটি ইউনিটের কমিটি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। মঙ্গলবার (১০ মে) ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনকুল শ্রাবণ ও সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ জুয়েল নতুন কমিটিগুলো ঘোষণা করেন।

এই ৮ টি ইউনিট হলো- ঢাকা মহানগর উত্তর ও পশ্চিম, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, সরকারি তিতুমীর কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, তেজগাঁও কলেজ ও সরকারি বাঙলা কলেজ।

* ঢাকা মহানগর উত্তর: সভাপতি মো. মেহেদী হাসান রুয়েল, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. রাজিব হোসেন, সহ-সভাপতি মো. সালাউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. রাসেল বাবু, যুগ্মসম্পাদক মো. মনিরুল ইসলাম (মনির), রবিউল ইসলাম রবি ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাগর আহমেদ বাবু।

* ঢাকা মহানগর পশ্চিম: সভাপতি আবুল কালাম আজাদ নাসির, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. তরিকুল ইসলাম রানা, সহ-সভাপতি গোলাম মাওলা গোলাপ, সাধারণ সম্পাদক জুয়েল হাসান রাজ, যুগ্মসম্পাদক মো. মঞ্জুরুল হাসান ইফাত ও আতিক মোহাম্মদ হাবীব চৌধুরী এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রবিন খান।

* শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়: সভাপতি আহমেদুল কবীর তাপস, সিনিয়র সভাপতি তারিকুল ইসলাম তারিক, সাধারণ সম্পাদক বি.এম. আলমগীর কবীর, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আব্দুস সামাদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ হোসেন।

* ঢাকা কলেজ: সভাপতি শাহিনুর রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন রাসেল, সহ-সভাপতি আতিকুর রহমান রাসেল, ইব্রাহিম কার্দি, পিয়াল হাসান, সিরাজউদ্দিন বাবু, মেসকাত হোসেন তয়ন, সাধারণ সম্পাদক জুলহাস মৃধা, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী, যুগ্মসম্পাদক শাহাবউদ্দিন ইমন, আবু রাসেল ভূঁইয়া, মাহফুজুর রহমান খান, মাহিবুর রহমান টিপু ও মামুনুর রহমান মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক বোরহান উদ্দিন ইসরাক, প্রচার সম্পাদক ইমরান হোসেন রাজ এবং দপ্তর সম্পাদক তানভীর আহমদ মাদবর।

* সরকারি তিতুমীর কলেজ: সভাপতি আরিফুর রহমান এমদাদ, সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহফুজুর রহমান লিপকন, সহ-সভাপতি‌ আরিফুল ইসলাম মোল্যা, সেলিম রেজা, জসিম উদ্দিন মুন্সি রানা, সাধারণ সম্পাদক ইমাম হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক কাজী সাইফুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক মিরাজ আল ওয়াসী, রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ ও শাহিন আল মাহমুদ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হামদে রাব্বি আকরাম।

* কবি নজরুল সরকারি কলেজ: সভাপতি সাইদুর রহমান সাইদ, সিনিয়র সভাপতি ইরফান আহমেদ ফাহিম, সহ-সভাপতি রোমান আহমেদ, মুজিবুল হক রিপন, মো. শামিম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক কাওসার হোসেন, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক কে এম সিরাজুল ইসলাম, যুগ্মসম্পাদক লিখিল চন্দ্র শ্রাবণ, কামরুল ইসলাম কানন, শওকত হোসেন সৈকত ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নাজমুল হাসান।

* তেজগাঁও কলেজ: সভাপতি মো. ফয়সাল দেওয়ান, সিনিয়র সহ-সভাপতি শামীম পালোয়ান, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল সোহাগ, তরুন মোর্শেদ, সাধারণ সম্পাদক মো. বেলাল হোসেন খান, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক এইচ এম মুনকির হোসেন সাগর, যুগ্মসম্পাদক মো. সেলিম হোসেন, সাদ্দাম হোসেন অনিক, হাসান মাহমুদ, এস আই জুয়েল শিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াছিন ভূঁইয়া, প্রচার সম্পাদক মোহাম্মাদ আলী ও দপ্তর সম্পাদক নাজমুল হাসান নাঈম।

* সরকারি বাঙলা কলেজ: সভাপতি ইব্রাহিম হোসেন বিপ্লব, সিনিয়র সভাপতি মোকলেছুর রহমান, সহ-সভাপতি প্রদিপ কুমার হাওলাদার, তারিকুল ইসলাম তারেক, তানভীর মাহমুদ পাপ্পু, হাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মো. বেল্লাল হোসেন সোহাগ, সিনিয়র যুগ্মসম্পাদক মেহেদী হাসান মিলন, যুগ্মসম্পাদক মেহেদী হাসান সালাম, সোহাগ মাহমুদ, রিয়ান জোয়াদার, মো. শরীফুল ইসলাম শ্রাবণ ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল রেজা।

নতুন কমিটিগুলোকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি কেন্দ্রে জমা দিতে বলা হয়েছে।


আরও খবর



জাতীয় মসজিদে ঈদ জামাতে মুসল্লিদের ঢল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৩ মে ২০২২ | ৪১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে পবিত্র ঈদুল ফিতরের জামাতে মুসল্লিদের ঢল নেমেছে।মঙ্গলবার ফজরের নামাজের পর রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মুসল্লিরা ঈদুল ফিতরের দুই রাকাত ওয়াজিব নামাজ পড়তে জাতীয় মসজিদে আসতে থাকেন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বায়তুল মোকাররম ও এর আশপাশের এলাকা মুসল্লিদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে।

বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত সকাল ৭টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও মসজিদে প্রবেশে সাড়ে ৬টার দিকেই মুসল্লিদের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। দক্ষিণ গেইট দিয়ে লাইন ধরে আর্চওয়ের ভেতর দিয়ে মুসল্লিরা মসজিদে প্রবেশ করেন।

দুই বছর পর বড় কোনো জামাতে অংশ নিয়ে নামাজ আদায়ের জন্য মুসুল্লিদের ছিল বিশেষ প্রস্তুতি। সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে নামাজ আদায় করেছেন।

মুসল্লিদের সারি মাওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়াম ছাড়িয়ে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার পর্যন্ত চলে গেছে। প্রবেশ গেইটে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে তৎপর দেখা গেছে।

বায়তুল মোকাররম মসজিদে ঈদুল ফিতরের ৫টি জামাত হচ্ছে। প্রথম জামাত শুরু হয় সকাল ৭টায়। এতে ইমাম ছিলেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান।

প্রথম জামাত সকাল ৭ টা ২৭ মিনিটে শেষ হয়। প্রথম জামাত চলাকালীন বিপুল সংখ্যক মুসল্লি দক্ষিণ গেটের বাইরে রাস্তায় অপেক্ষা করতে থাকেন।

প্রথম জামাত শেষ হলে মুসল্লিরা দুটি আর্চওয়ে দিয়ে হুড়মুড় করে প্রবেশ করতে থাকেন। মুসল্লিদের চাপে আর্চওয়ের কিছু অংশ ভেঙে পড়ে। একপর্যায়ে আর্চওয়ে দুটি সরিয়ে দেওয়া হয়।

দ্বিতীয় জামাত শুরু হয় সকাল ৮টায়। তৃতীয় জামাত সকাল ৯টায়, চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায়। পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে অনুষ্ঠিত হবে।জামাতে নামাজ আদায়ের পর মুসল্লিদের মোসাফাহা ও কোলাকুলির মাধ্যমে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দেখা গেছে।

বহুদিন পর বড় জামাতে নামাজ পড়তে পারায় মুসুল্লিদের মধ্যে বাড়তি উচ্ছ্বাস কাজ করেছে। আজ স্বাস্থ্যবিধি কিছুটা শিথিল ছিল। অনেকে মাস্ক ছাড়াই জামাতে অংশ নিয়েছেন।  


আরও খবর



সূচকের উত্থানের মধ্য দিয়ে লেনদেন শুরু

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস বুধবার (২০ এপ্রিল) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচকের উত্থানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে লেনদেন। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বুধবার লেনদেন শুরুর এক ঘণ্টা পর অর্থাৎ বেলা ১১টায় ডিএসইর সাধারণ সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৫৬ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৫৮৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ১২ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২২ পয়েন্ট বেড়ে যথাক্রমে ১৪৫৫ ও ২৪৫৮ পয়েন্টে অবস্থান করছিল। এই সময়ের মধ্যে লেনদেন হয়েছে ১৩৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড ইউনিট।

এর আগে দিনের লেনদেন শুরুর প্রথম ১০ মিনিটে ডিএসইএক্স সূচক বাড়ে ২৪ পয়েন্ট। সকাল ১০টা ২০ মিনিটে সূচক আগের অবস্থান থেকে আরও ৫ পয়েন্ট বেড়ে যায়। এরপর সূচকের গতি ঊর্ধ্বমুখী ছিল। সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে সূচক আগের দিনের চেয়ে ৩১ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৫৬১ পয়েন্টে অবস্থান করে।

অপরদিকে লেনদেন শুরুর এক ঘণ্টা পর বেলা ১১টায় চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএএসপিআই সূচক ১০৯ পয়েন্ট বেড়ে ১৯ হাজার ৩৪০ পয়েন্টে অবস্থান করে। এরপরও সূচকের গতি ঊর্ধ্বমুখী ছিল।

এদিন বেলা ১১টা পর্যন্ত সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৬ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এসময়ের মধ্যে মোট ৮১টি কোম্পানির দাম বেড়েছে, কমেছে ৩৫টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টি কোম্পানি শেয়ারের দর।


আরও খবর
পুঁজিবাজারে সূচকের উত্থান

বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২

বিভিন্ন খাতের শেয়ারের দাম কমেছে

মঙ্গলবার ১৯ এপ্রিল ২০২২




রান্নায় হলুদ বেশি হয়েছে? জেনে নিন করণীয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রান্না করতে গিয়ে অনেক সময় বেশি হলুদ পড়ে যায়। অ্যান্টিবায়োটিক সমৃদ্ধ এই মশলা শরীরের জন্য উপকারী হলেও, রান্নায় অতিরিক্ত পড়ে গেলে নষ্ট হয়ে যেতে পারে স্বাদ। বেশি হলুদ রান্নাকে তিতকুটে করে তোলে। তবে রান্নায় বেশি হলুদ পড়ে গিয়ে থাকলে তা সামাল দিতে হয়।

কোন উপায়ে পাবেন সমাধান?

১) তেজপাতা: রান্নায় যদি বেশি হলুদ পড়ে যায় সে ক্ষেত্রে বাড়িতে থাকা তেজপাতা ম্যাজিকের মতো কাজ করবে। রান্নায় দু’চারটে তেজপাতা ফেলে দিয়ে দু-চার মিনিট ফুটিয়ে নিন। শেষে তেজপাতা ফেলে দিন। রান্নায় অতিরিক্ত হলুদের স্বাদ নিমেষে কমে যাবে।

২) সুপুরি: রান্নায় বেশি হলুদ পড়ে গেলে সুপুরি কার্যকরী হতে পারে। সুপুরিকে দু’টুকরো করে কেটে রান্নায় ফেলে দিলে হলুদের স্বাদ কমবে।

৩) গরমখুন্তি: রান্নায় হলুদের পরিমাণ বেশি হয়ে গেলে তা কমাতে তেজপাতা, সুপুরি তো আছেই। এ ছাড়া আরও একটি চমৎকার কৌশল আছে। লোহার খুন্তিকে গরম করে নিয়ে সেটা ঝোলের মধ্যে পাঁচ মিনিট রেখে দিলেই কেল্লাফতে। রান্না থেকে দ্রুত উধাও হবে হলুদের স্বাদ।


আরও খবর
‘আম’ চিনুন তারপর কিনুন

বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২




দুর্নীতি মামলায় সু চির ৫ বছরের জেল

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ৩৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চিকে দুর্নীতির দায়ে দোষী সাব্যস্ত করেছে জান্তা সরকার। ইয়াংগুনের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফিও মিন থেইনের কাছ থেকে ৬ লাখ ডলার এবং ১১ দশমিক ৪ কেজি সোনা ঘুষ নেওয়ার মামলায় বুধবার তাকে পাঁচ বছরের সাজা দেওয়া হয়েছে। মামলার কার্যক্রম সম্পর্কে ওয়াকিবহাল একটি সূত্রের বরাত দিয়ে বুধবার এ খবর জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ইয়াংগনের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফিও মিন থেইনের কাছ থেকে ৬ লাখ ডলার এবং ১১ দশমিক ৪ কেজি সোনা ঘুষ নেওয়ার মামলায় বুধবার এ রায় এসেছে।

ফিও মিন থেইনকে একসময় সু চির উত্তরসূরী হিসেবে বিবেচনা করা হত। গত বছরের অক্টোবরে দেওয়া সাক্ষ্যে তিনি সু চিকে ঘুষ দেওয়ার কথা স্বীকার করেছিলেন। তবে ওই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন সু চি।

শান্তিতে নোবেলজয়ী মিয়ানমারের নেত্রী সু চির বিরুদ্ধে দুর্নীতির যে ১১টি অভিযোগ এনেছে দেশটির সামরিক জান্তা সরকার, তার মধ্যে প্রথম মামলায় তার সাজার রায় এলো।

এর আগে সামরিক জান্তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভে উসকানি দেওয়া এবং করোনাভাইরাসের বিধিনিষেধ ভঙ্গের অভিযোগে এক মামলায় গত ডিসেম্বরে সু চিকে চার বছরের কারাদণ্ড হয়। পরে তা কমিয়ে দুই বছর করা হয়। এছাড়া অবৈধভাবে ওয়াকিটকি আমদানি ও ব্যবহারের আরেক মামলায় জানুয়ারিতে তাকে চার বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত।


আরও খবর