আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

যে ৫ খাবার ভুলেও প্রেশার কুকারে রাঁধবেন না

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রেশার কুকারে অনেক তাড়াতাড়ি রান্না হয়। তবে কয়েকটি জিনিস প্রেশারে না রান্না করাই ভাল।

সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি হয়ে গিয়েছে। এ দিকে অফিসে বেরোনোর তাড়াও রয়েছে। এই পরিস্থিতি বেশি কিছু রান্না করার সময়ও থাকে না। তখন ভরসা প্রেশার কুকার। পেট ভরাতে চটজলদি কিছু একটা বানিয়ে ফেলতে প্রেশার কুকার ছাড়া উপায় নেই। চাল, ডাল, নুন, তেল, হলুদ একসঙ্গে দিয়ে চাপিয়ে দিলেই তৈরি হয়ে যায় খিচুড়ি বা ওই জাতীয় বহু পদ। তবে অনেক খাবার আছে যেগুলি প্রেশার কুকারে রান্না করা একেবারেই ঠিক নয়। এতে সেই খাবারগুলির পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

কোন ধরনের খাবার প্রেশার কুকারে রান্না করবেন না?

১) দুগ্ধজাত খাবার:

দুধ দিয়ে তৈরি কোনও খাবার প্রেশার কুকারে রান্না না করাই ভাল। প্রেশার কুকারে রান্না করলে তার স্বাদও ঠিক থাকে না। যাবতীয় পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

২) ডিম:

তাড়াহুড়োয় অনেকেই ডিম প্রেশার কুকারে সেদ্ধ করে নেন। ডিম সেদ্ধ করতে গিয়ে বেশি তাপমাত্রার প্রয়োজন হয়। তাই ডিম খোলা পাত্রে সেদ্ধ করাই সবচেয়ে ভাল। এতে ডিম ফেটে যাওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। ডিম সেদ্ধ হল কি না তা বুঝতেও প্রেশার কুকারের চেয়ে বড় কোনও পাত্র ব্যবহার করাই ভাল।

৩) শাকসব্জি:

সব্জির মধ্যে অনেক পুষ্টিগুণ থাকে। সেই জন্যেই প্রেশার কুকারে রান্না করা উচিত নয়। এতে সব্জিতে থাকা ভিটামিন, খনিজ, এবং অন্যান্য পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়। শাকসব্জি সব সময় কড়াইতে রান্না করাই ভাল। দেরি হলেও স্বাদ ও পুষ্টিগুণ বজায় থাকবে।

৪) ভাত:

তাড়াতাড়ি হয়ে যাবে বলে অনেকেই ভাতও প্রেশারে রান্না করেন। প্রেশার কুকারে রান্না করা ভাত শরীরের পক্ষে একেবারেই ভাল নয়। প্রেশার কুকারে ভাত রাঁধলে শরীরে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।। এতে ফ্যান ঝরানো যায় না। ফ্যান ভাতের সঙ্গেই মিশে থাকে। এর ফলে ওজন বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

৫) মাছ:

 মাছ এমনিতে খুব তাড়াতাড়ি রান্না হয়ে যায়। প্রেশারে মাছ রাঁধলে বেশি সেদ্ধ হয়ে যায়। মাছ বেশি সেদ্ধ হলে স্বাদও চলে যায়। নষ্ট হয়ে যায় পুষ্টিগুণও। তাই মাছ রান্না করুন কড়াইয়ে।

এই খাবারগুলো এখন থেকে আর প্রেশার কুকারে রান্না করবেন না। দ্রুত ডাল বা মাংস সেদ্ধ করতে এটি ব্যবহার করতে পারেন। 


আরও খবর
‘আম’ চিনুন তারপর কিনুন

বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২




ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল প্রকাশ

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ২৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০২০ সালের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হয়েছে। সোমবার (১৬ মে) রাত ৮টা থেকে পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন ও কলেজওয়ারি ফলাফল www.nu.ac.bd/results- ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের পরিচালক আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ পরীক্ষায় ১ লাখ ৭১ হাজার ১৯৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেন। এদের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১ লাখ ৪৯ হাজার ৬০৭ জন। গড় পাসের হার ৮৭ দশমিক ৯ শতাংশ। এ ফলাফল সম্পর্কে কোনো পরীক্ষার্থীর আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে ফলাফল প্রকাশের এক মাসের মধ্যে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে লিখিতভাবে জানাতে হবে। এরপর আর কোনো আপত্তি বা অভিযোগ গ্রহণযোগ্য হবে না।


আরও খবর



জব্দকৃত স্বর্ণ স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা দেবে চট্টগ্রাম কাস্টম

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবৈধ আমদানি অথবা চোরাচালানের মাধ্যমে আমদানিকৃত স্বর্ণবারসহ স্বর্ণালংকার আটকের ঘটনা প্রায় দেখা যায়; যা পরবর্তী সময়ে রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা হয়। রাষ্ট্রের যেই সংস্থা আটক করুক না কেন, এসব স্বর্ণের শেষ গন্তব্য হয় বাংলাদেশ ব্যাংকে। তবে দীর্ঘদিন ধরে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ চট্টগ্রাম এলাকায় আটককৃত স্বর্ণ বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে অস্থায়ীভাবে জমা দেয়া হলেও তা স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দেয়া হয়নি। এবার এসব স্বর্ণ স্থায়ীভাবে ঢাকার জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস।

সূত্রে জানা যায়, কাস্টম ও বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কর্তৃক আটককৃত এবং রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্তকৃত স্বর্ণবার ও স্বর্ণালংকার স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দান এবং বিষয়টি ঝুঁকিপূর্ণ ও স্পর্শকাতর হওয়ায় এ কার্যক্রমে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সহায়তা ও পরিবহন কাজে হেলিকপ্টার ব্যবহারের অনুমতির জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালকে অনুরোধ করার জন্য চট্টগ্রাম কাস্টম কমিশনার এনবিআর চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছে।

ওই চিঠিতে বলা হয়, দীর্ঘদিন ধরে শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ চট্টগ্রাম এলাকায় আটককৃত স্বর্ণ বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে অস্থায়ীভাবে জমা দেয়া হলেও তা স্থায়ীভাবে বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দেয়া হয়নি। বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে অস্থায়ীভাবে জমাকৃত স্বর্ণবার ও স্বর্ণালংকার ১৮টি লট/জিআর ভুক্ত এক হাজার ৭৭৩ পিস স্বর্ণবার প্রতিটি ১০ তোলা হিসেবে ১৭ হাজার ৭৩০ তোলা বা ২০৬ কেজি ৮০ গ্রাম এবং ৮০ গ্রাম স্বর্ণালংকারের (চেইন ১৮টি ও কানের দুল আট জোড়া) ইনভেন্ট্রি চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস ইতোমধ্যে শেষ করেছে। ইনভেন্ট্রিকৃত এসব স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য ১১৫ কোটি টাকা। এসব অস্থায়ীভাবে জমাদানকৃত স্বর্ণ বাংলাদেশ ব্যাংকে স্থায়ীভাবে জমাদান করলে তা সরকারের রাজস্ব আহরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। একই সঙ্গে চিঠিতে কমিশনার চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস, কাস্টম গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর অথবা জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের প্রতিনিধি সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করার পরামর্শ দেন।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস গ্রুপ ৮-বি ও কাস্টোডিয়ান শাখার দায়িত্বে থাকা এবং উক্ত কাজের সমন্বয়কারী এন্ট্রি মানি লন্ডারিং বিশেষজ্ঞ উপ-কমিশনার নূর-উদ্দিন মিলন বলেন, চট্টগ্রাম এলাকায় যেসব স্বর্ণ জব্দ বা উদ্ধার করা হয়, সেগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে জমা দেয়া হয়। আমাদের ধরণা ছিল, বাংলাদেশ ব্যাংকের যে কোনো শাখায় জমা দিলেই হয়। যার রাষ্ট্রের অনুকূলে চলে যাবে। কিন্তু ব্যাপারটা এমন নয়। বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রাম শুধু কাস্টোডিয়ান মাত্র, তারা এ স্বর্ণ কোনো কাজে লাগাতে পারবে না। ফলে শতকোটি টাকা অধিক মূল্যে এসব স্বর্ণ রাষ্ট্রের কোনো উপকারে আসছে না।

এদিকে দীর্ঘ বছর ধরে বাংলাদেশ ব্যাংকের চট্টগ্রাম শাখার কাস্টম কর্তৃক আটককৃত স্বর্ণবার ও স্বর্ণালংকার পড়ে আছে। তাই এ স্বর্ণগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় জমা দেয়ার সিদ্ধন্ত হয়েছে। তবে বিষয়টি ঝুঁকিপূর্ণ ও একই দিনে জমাদানের বিধান রয়েছে। তাই উক্ত কাজে র‌্যাব ও র‌্যাবের হেলিকপ্টার চাওয়া হয়েছে। তারপর বাংলাদেশ ব্যাংক স্বর্ণগুলো নিলাম করে সরকারের রাজস্ব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের হিস্যা বুঝিয়ে দেবে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম কমিশনার মো. ফখরুল আলম বলেন, স্বর্ণগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামে পড়ে থাকায় রাষ্ট্র রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাই এগুলো কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ঢাকা শাখায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে চট্টগ্রাম শাখার শুধু ২০৬ কেজি নয়, আর অধিক পরিমাণ স্বর্ণ জমা রয়েছে। মামলা ও আইনি জটিলতা থাকায় সেগুলোর কোনো কার্যক্রম করা যাচ্ছে না। যে স্বর্ণগুলোর কোনো প্রকার আইনি জটিলতা নেই, শুধু সেই স্বর্ণগুলো বাংলাদেশ ব্যাংক ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে। এতে সরকারের রাজস্ব খাতে ১১৫ কোটি টাকা যোগ হবে।

নিউজ ট্যাগ: বাংলাদেশ ব্যাংক

আরও খবর
ফের বাড়লো স্বর্ণের দাম

মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২




মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ল হায়দরাবাদ

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ১৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হারলেই শেষ- এমন সমীকরণ সামনে রেখে মাঠে নেমেছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে মহাগুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে কেন উইলিয়ামসনরা। তাতে গাণিতিক হিসাবে প্লে-অফের আশা বেঁচে থাকলো হায়দরাবাদের। যদিও অনেক সমীকরণ মিললেই কেবল শেষ চারে যাওয়া সম্ভব তাদের।

মঙ্গলবার আইপিএলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে মুম্বাইকে ৩ রানে হারিয়েছে হায়দরাবাদ। আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯৩ রান করে উইলিয়ামসনরা। কঠিন এই লক্ষ্যের পিছে ছুটে ৭ উইকেটে ১৯০ রান করতে পারে মুম্বাই।

শ্বাসরুদ্ধকর এই জয়ে প্লে-অফের আশা গাণিতিক হিসাবে বেঁচে থাকলো হায়দরাবাদের। ১৩ ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে আগের অষ্টম স্থানেই তারা। এখন শেষ চারে থাকলে হলে নিজেদের শেষ ম্যাচে তো জিততেই হবে, একই সঙ্গে প্রার্থনায় বসতে হবে যেন অন্য দলগুলোর ফল তাদের পক্ষে আসে। চারে থাকা দিল্লি ক্যাপিটালস ও পাঁচে থাকা রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর সমান ১৪ পয়েন্ট। অন্যদিকে ছয়, সাত ও আট নম্বরে থাকা যথাক্রমে কলকাতা নাইট রাইডার্স, পাঞ্জাব কিংস ও হায়দরাবাদ প্রত্যেকের পয়েন্ট ১২ করে।

শেষ ম্যাচের সমীকরণ যাই হোক, হায়দরাবাদ সেই সম্ভাবনা বাঁচিয়ে রাখতে পেরেছে মুম্বাইকে হারিয়ে। সব হারানো মুম্বাইয়ের পক্ষে ছিল ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের ম্যাচটি। ১২ বলে তাদের দরকার ছিল ১৯ রান। কিন্তু ১৯তম ওভারে ভুবনেশ্বর কুমার উইকেটসহ মেডেন নিলে ম্যাচ চলে যায় হায়দরাবাদের পক্ষে। শেষ ওভারে ফজলহক ফারুকী চেষ্টা করলেও কাজে আসেনি।

ওপেনিংয়ে রান পেয়েছে মুম্বাই। রোহিত শর্মা ৩৬ বলে ২ চার ও ৪ ছক্কায় করেন ৪৮ রান। ইশান কিশান ৩৪ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় করেন ৪৩ রান। টিম ডেভিডের ঝড়ো ব্যাটে তৈরি হয়েছিল তাদের জয়ের সম্ভাবনা। এই ব্যাটার ১৮ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় খেলেন ৪৬ রানের ঝড়ো ইনিংস।

দুর্দান্ত বল করেছেন উমরান মালিক। এই পেসার ৩ ওভারে ২৩ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। ভুবনেশ্বর ও ওয়াশিংটন সুন্দর নেন একটি করে উইকেট।

এর আগে ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা রাহুল ত্রিপাঠির ঝড়ো ৭৬ রানে বড় স্কোর গড়ে হায়দরাবাদ। এই ব্যাটার তার ৪৪ বলের ইনিংসটি সাজান ৯ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায়। এছাড়া নিকোলাস পুরান ২২ বলে ৩৮ ও প্রিয়াম গর্গ ২৬ বলে করেন ৪২ রান।মুম্বাইয়ের রমনদীপ সিং ৩ ওভারে মাত্র ২০ রান খরচায় নেন ৩ উইকেট।


আরও খবর



আকস্মিক ইউক্রেন সফরে মার্কিন ফার্স্ট লেডি

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | ৩২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন এক অঘোষিত সফরে ইউক্রেন গেছেন। রুশ আগ্রাসনে বিধ্বস্ত ইউক্রেনের প্রত্যন্ত একটি ছোট শহরে যান তিনি। সিএনএন জানায়, সেখানে একটি স্কুল ভবনের অস্থায়ী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া বাস্তুচ্যুত মানুষদের দেখতে গিয়ে ইউক্রেনের ফার্স্ট লেডি ওলেনা জেলেনস্কার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন জিল বাইডেন। স্কুলের ওই শিবিরে ৪৮ জন শিশুসহ আশ্রয় নিয়ে আছে ইউক্রেইনীয়রা।

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরুর পর থেকে ওলেনাকে জনসম্মুকে দেখা যায়নি। তার সঙ্গে দেখা করে জিল বলেন, আমি মা দিবসে ইউক্রেনে আসতে চেয়েছিলাম। আমরা ভেবেছি এই ‍যুদ্ধ বন্ধ হওয়া দরকার সেটি ইউক্রেনের জনগণকে দেখানোটা গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি আরও বলেন, এই ‍যুদ্ধ নৃশংস। যুক্তরাষ্ট্রের জনগণ ইউক্রেনের জনগণের পাশে আছে।” মার্কিন কর্মকর্তারা সিএনএন-কে বলেছেন, ইউক্রেনের ফার্স্ট লেডি ওলেনা রাশিয়ার আগ্রাসনের শুরুর দিকে জিল বাইডেনকে চিঠি দিয়েছেন এবং সম্প্রতি কয়েকসপ্তাহে তার সঙ্গে চিঠি চালাচালি করেছেন।

এবার জিল বাইডেনের সাক্ষাৎ পাওয়ার পর ওলেনা বলেন, প্রথমত এ যুদ্ধের মধ্যে, যখন প্রতিদিনই সামরিক তৎপরতা চলছে, বোমা পড়ছে, সাইরেন বাজছে, এমন একটি সময়ে সাহস নিয়ে ইউক্রেনে আসার জন্য আমি আপনাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।

ওলেনা আরো বলেন, আমরা আপনার সমর্থন উপলব্ধি করতে পারি এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেনের নেতৃত্বকে অনুধাবন করতে পারি। তবে আমরা এটিও বিশেষভাবে উল্লেখ করতে চাই যে, মাদার্স ডে (মা দিবস) আমাদের জন্য একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রতীকী দিবস। কারণ, এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ দিনে আমরা আপনাদের ভালোবাসা এবং সমর্থনকেও অনুভব করতে পারছি।” সফরকালে স্কুলের ওই উদ্বাস্তু শিবিরেই দুই ফার্স্ট লেডির মধ্যে এক ঘণ্টার বৈঠক হয়েছে।


আরও খবর



করোনা: একদিনে শনাক্ত আরও ৬ লাখ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন প্রায় দুই হাজার মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে প্রায় ৬ লাখে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে যুক্তরাজ্য। প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে জার্মানি, কানাডা, ব্রাজিল, ফিনল্যান্ড, ইতালি ও রাশিয়া। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫১ কোটি ৯৬ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬২ লাখ ৮৪ হাজার।

শুক্রভার (১৩ মে) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৯৩৪ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে চার শতাধিক। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬২ লাখ ৮৪ হাজার ৩৮৪ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৯২ হাজার ৯৫৪ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ২২ হাজার। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১ কোটি ৯৬ লাখ ৪৩ হাজার ২৮২ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ৬৫২ জন এবং মারা গেছেন ১৭৯ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৫৬ লাখ ৬৫ হাজার ৯১০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৩৭ হাজার ৬২৮ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে যুক্তরাজ্য। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৮৪ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ৪৫৮ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ২১ লাখ ৫৯ হাজার ৬১৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৭৬ হাজার ৭০৮ জন মারা গেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮১ হাজার ৯০০ জন এবং মারা গেছেন ২০৭ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ৪০ লাখ ৫৪ হাজার ৬৩৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ২৬ হাজার ৯৪ জন মারা গেছেন।

ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬ হাজার ৪৭ জন এবং মারা গেছেন ৮৪ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৯০ লাখ ৯৭ হাজার ৫৭০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৪৭ হাজার ১৫৯ জন মারা গেছেন। একইসময়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৯২০ জন এবং মারা গেছেন ২১ জন।

রাশিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১১১ জন এবং নতুন করে ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৪ হাজার ৬৫ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮২ লাখ ৪৫ হাজার ৩৯৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৩৫৯ জনের। একইসময়ে থাইল্যান্ডে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজার ১৯ জন এবং মারা গেছেন ৫৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫ হাজার ৮৮৩ জন এবং মারা গেছেন ৬৩ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে পূর্ব এশিয়ার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৭৬ লাখ ৯৪ হাজার ৬৭৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ২৩ হাজার ৫৫৪ জন মারা গেছেন। গত একদিনে ফিনল্যান্ডে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ৯৭৩ জন এবং মারা গেছেন ১৩৪ জন।

ইতালিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ হাজার ৩১৭ জন এবং মারা গেছেন ১৩০ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৬৯ লাখ ৫৪ হাজার ৭৮৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৬৪ হাজার ৯৭৬ জন মারা গেছেন। একইসময়ে জাপানে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৫ হাজার ৭৪০ জন এবং মারা গেছেন ৪১ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৩৬ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২১ হাজার ৩৪৪ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ৬ লাখ ৩৯ হাজার ১২৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬৪ হাজার ৭০০ জনের।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ১৮৭ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৩১ লাখ ১৬ হাজার ৬০০ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৪ হাজার ১৮১ জন।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় অস্ট্রেলিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ হাজার ৩১৪ জন এবং মারা গেছেন ৫৫ জন। একই সময়ে কানাডায় নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৮৬৫ জন এবং মারা গেছেন ১৭৭ জন। গ্রিসে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৭৮২ জন এবং মারা গেছেন ২০ জন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর