আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

যেভাবে রান্না করবেন মেজবানি মাংস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ১০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অনেকে মেজবানি মাংস খুব পছন্দ করেন। চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী খাবার হওয়ায় বাইরের শহরগুলোর অনেকেই এটা রান্না করতে পারেন না। কেউ কেউ মনে করেন, মেজবানি মাংস রান্না করা কঠিন কাজ। মোটেও না, দেখে নিন কত সহজে মেজবানি মাংস রান্না করা যায়।

উপকরণ

গরুর মাংস- দেড় কেজি (হাড় ও চর্বিসহ), সরিষার তেল- আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি- ১ কাপ, টমেটো- ২টি (মাঝারি করে কাটা), কাঁচামরিচ- কয়েকটি, গরম মসলার গুঁড়া- ১ চা চামচ

মেজবানি মসলা তৈরির উপকরণ

আস্ত জিরা- ১ টেবিল চামচ, সাদা সরিষা- ১/২ টেবিল চামচ, ধনিয়া- ১ টেবিল চামচ, মৌরি- ১/২ টেবিল চামচ, শুকনো মরিচ- কয়েকটি, মেথি- ১ চা চামচ, জয়ত্রী- ছোট ২টি, জয়ফল- ১টি, রাঁধুনি- ১ চা চামচ, পোস্তদানা- ১ টেবিল চামচ

মাংস মাখানোর মসলা তৈরির জন্য

লাল মরিচ গুঁড়া- ২ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া- ১/২ টেবিল চামচ, এলাচ- কয়েকটি, কালো এলাচ- ১টি, তারা মৌরি- ১টি, লবঙ্গ- ৫টি, দারুচিনি- ২টি (মাঝারি), গোলমরিচ- ১৫টি, তেজপাতা- ২টি, লবণ- ১ টেবিল চামচ, আদা-রসুন বাটা- ৩ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা- ৪ টেবিল চামচ, বাদাম বাটা- ২ টেবিল চামচ, সরিষার তেল- ২ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি

পোস্টদানা বাদে মেজবানি মসলা তৈরির উপকরণগুলো সব একটি শুকনা প্যানে অল্প আঁচে চুলায় টেলে নিন। টালা মসলার সঙ্গে ১ টেবিল চামচ পোস্তদানা দিয়ে সব একসঙ্গে ব্লেন্ড করুন।

একটি বড় বাটিতে মাংস নিন। মেজবানি মসলা ও মাংস মাখানোর মসলা সব দিয়ে মেখে নিন মাংস। চুলায় প্যান বসিয়ে সরিষার তেল গরম করুন। তেল গরম হলে পেঁয়াজ কুচি লাল করে ভেজে নিন। পেঁয়াজ লাল হয়ে গেলে টমেটো কুচি দিয়ে ভাজুন একসঙ্গে। টমেটো নরম হয়ে গেলে মাখিয়ে রাখা মাংস দিয়ে দিন প্যানে।

ভালো করে নেড়েচেড়ে প্যান ঢেকে দিন। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। মাঝে দুই-একবার নেড়ে দিতে হবে। মাংস ভালোভাবে কষানোর পর ২ কাপ পানি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন প্যান। চুলার আঁচ কমিয়ে দিন। প্রায় ৪০ মিনিট অপেক্ষা করুন মাংস সেদ্ধ হওয়ার জন্য।

মাংস সেদ্ধ হয়ে গেলে গরম মসলার গুঁড়া ও কয়েকটি আস্ত কাঁচামরিচ দিয়ে নেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম।



আরও খবর
চুমুতে যে উপকারিতা রয়েছে

বুধবার ০৭ জুলাই ২০২১




সাকিব-মিরাজের ঘূর্ণিতে ২৭৬ রানে অলআউট জিম্বাবুয়ে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | ১২৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লাঞ্চে যাওয়ার আগে জিম্বাবুয়ের স্কোর ছিল ২ উইকেটে ২০৯ রান। প্রথম সেশনে যে প্রতিরোধ ভাঙা দুষ্কর মনে হচ্ছিল, দ্বিতীয় ও তৃতীয় সেশনে সেটিই হয়ে গেলো ভঙ্গুর! বাংলাদেশের দারুণ বোলিংয়ে ২৭৬ রানেই শেষ হয়েছে জিম্বাবুয়ের প্রথম ইনিংস। তাতে ৪৬৮ রান করা বাংলাদেশ লিড পেয়ে গেলো ১৯২ রান!

বাংলাদেশের ৪৬৮ রানের পর দ্বিতীয় দিনের শেষভাগে প্রভাব বিস্তারের পর আজও (শুক্রবার) দাপট দেখাতে থাকে স্বাগতিক ব্যাটসম্যানরা। অনেক চেষ্টার পর ব্রেন্ডন টেলরকে ফেরানো গেছে, তবে সেটা ছিল জিম্বাবুয়ে অধিনায়কের উপহার। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে উইকেট বিলিয়ে দিয়েছেন দুর্দান্ত খেলতে থাকা টেলর। প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে টেলর ৯২ বলে খেলে যান ৮১ রানের ঝলমলে ইনিংস, যাতে ছিল ১২ বাউন্ডারির সঙ্গে ১ ছক্কার মার।

তৃতীয় দিনের লাঞ্চে যাওয়ার আগে দারুণ সময় কাটানো জিম্বাবুয়ের স্কোর ছিল ৬৭ ওভারে ২ উইকেটে ২০৯ রান। কিন্তু দ্বিতীয় সেশনে আর ধৈর্য পরীক্ষায় সফল হতে পারেনি স্বাগতিকরা।

হারারে টেস্টে দ্বিতীয় সেশনে জিম্বাবুয়ের তিনটি উইকেট তুলে নিতে পেরেছিল বাংলাদেশ। দুটি নেন সাকিব ও একটি তাসকিন। এর পরেও এক প্রান্ত আগলে ব্যাটিং করছিলেন অভিষিক্ত ওপেনার তাকুদযাওয়ানাশে কাইতানো। তৃতীয় সেশনের শুরুতে মনে হচ্ছিল সেঞ্চুরিটাও পেয়ে যাচ্ছেন। তাকে ৮৭ রানে ঘূর্ণিবলে পরাস্ত করে সাজঘরে ফিরিয়েছেন মেহেদী মিরাজ।

তার ভালো লেন্থের বল ফ্লিক করতে গিয়ে লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি হয়েছেন কাইতানো। ৩১১ বল খেলা এই ওপেনারের ইনিংসে ছিল ৯টি চার। কাইতানোকে ফিরিয়ে জিম্বাবুয়ের মূল প্রতিরোধটাই ভেঙে দিয়েছেন মিরাজ। তার পর একে একে ফেরান তিরিপানো, নিয়ুচি ও মুজারাবানিকেও। তাতে দারুণ শুরু করা জিম্বাবুয়ে শেষ দিকে পড়ে যায় ফলোঅন শঙ্কায়। শেষ পর্যন্ত অবশ্য সেই বাধা ডিঙানো গেছে। সাকিব শেষ উইকেটে এনগারাভাকে তালুবন্দি করালে প্রথম ইনিংসে স্বাগতিকরা অলআউট হয় ২৭৬ রানে।

অথচ এমন দৃশ্য ভাবা যায়নি দিনের প্রথম সেশনেও। জিম্বাবুয়ের প্রতিরোধ ভাঙা যাচ্ছিল না। টেলর উইকেট বিলিয়ে দেওয়ার পর আবারও ধৈর্য পরীক্ষা নিতে থাকে জিম্বাবুইয়ানরা। অভিষিক্ত কাইতানোর সঙ্গে জুটি গড়তে থাকেন আরেক অভিষিক্ত ডিওন মায়ার্স। দ্বিতীয় সেশনে ৪৯ রান করা এই জুটিটিই ভেঙে দেন সাকিব। উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিরাজের তালুবন্দি হন মায়ার্স (২৭)।

ব্যাট হাতে হতাশ করা সাকিব ঝলসে উঠেন তাতে। নতুন বল নেওয়ার পর নতুন ব্যাটসম্যান টিমিসেন মারুমাকেও আর থিতু হতে দেননি। লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে তুলে নেন আরেকটি উইকেট। ১৭ বল খেলা মারুমা বিদায় নেন রানের খাতা খোলবার আগেই।

পরে তো ভালো লেন্থের বলে নতুন নামা রয় কায়াকেও পরাস্ত করেন তাসকিন। অফস্টাম্পে পড়া বল খোঁচা মারতে গিয়ে লিটন দাসের গ্লাভসবন্দি হয়েছেন কায়া (০)। যা ছিল তাসকিনের ইনিংসের প্রথম উইকেট। এই তিন উইকেট পতনের পরই এলোমেলো হয়ে যায় জিম্বাবুয়ের ব্যাটিং।

ব্যাট হাতে ব্যর্থ হওয়া সাকিব ৮২ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। আর মিরাজ ৮২ রানে নিয়েছেন ৫টি। ৪৬ রানে একটি শিকার তাসকিন আহমেদের।


আরও খবর



যশোরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৭, শনাক্ত ৮৬

প্রকাশিত:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যশোর প্রতিনিধি:

যশোরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের। নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮৬ জনের।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ড আরিফ আহম্মেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলার ৪২৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৮৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

শনাক্তের হার প্রায় ২০.১৪ শতাংশ। নতুন করে সাত জনের মৃত্যু হয়েছে। যশোর জেনারেল হাসপাতালে সাত জন করোনায় মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে যশোর জেনারেল হাসপাতালের রেড জোনে আজ ভর্তি রয়েছেন ১০০ জন। ইয়েলো জোনে আছেন ২৭ জন। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে ১৮,৮২৩ জন, সুস্থ্য হয়েছেন ১৪২৭২ জন, করোনা পজেটিভ রোগী মারা গেছে ৩৫১ জন।

যশোর সদর উপজেলায় পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে ৩১ জন, কেশবপুরে ১ জন, ঝিকরগাছায় ১৭ জন, অভয়নগরে ১৬ জন, মনিরামপুরে ৯ জন, বাঘারপাড়ায় ৩ জন, শার্শায় ৩ জন, চৌগাছা উপজেলায় ৬ জন নতুন করে শনাক্ত হয়েছে।


আরও খবর



ইরাক যুদ্ধের সমাপ্তির ঘোষণা : জো বাইডেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ জুলাই ২০২১ | ৮১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইরাকে যুদ্ধের দায়িত্ব সমাপ্ত করার ঘোষণা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এর ফলে ১৮ বছর ধরে চলা এই সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধের সমাপ্তি টানতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। খবর এএফপি ও এনডিটিভির।

গতকাল সোমবার (২৬ জুলাই) ওয়াশিংটন সফররত ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-কাজেমির সঙ্গে সাক্ষাতে হোয়াইট হাউসে এ ঘোষণা দিয়েছেন বাইডেন। ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বরের পর ইরাকে আর কোনো মার্কিন সেনা যুদ্ধের ভূমিকা পালন করবে না বলে সাক্ষাতের পর দুই নেতা এক যৌথ বিবৃতিতে ঘোষণা দেন।

যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা করে বাইডেন বলেন, ২০২১ সাল শেষে মার্কিন সেনারা ইরাকি সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ ও সহযোগিতা করার দায়িত্ব পালন করবে, কিন্তু তারা সরাসরি কোনো যুদ্ধে অংশ নেবে না।

আমেরিকা সফরে যাওয়ার আগে বাগদাদে প্রধানমন্ত্রী কাজেমি বলেছিলেন, তার দেশে আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের এখন আর কোনো প্রয়োজন নেই। তবে আইএসবিরোধী যুদ্ধ ও আমাদের সেনাদের প্রস্তুতির বিষয়ের জন্য একটি বিশেষ সময়সীমা প্রয়োজন। ইরাকে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় দুই হাজার ৫০০ সেনা মোতায়েন রয়েছে।

এএফপি বলছে, ইরাকে আইএসের বড় ধরনের বোমা হামলার এক সপ্তাহ পর তাদের এই বৈঠক হচ্ছে। যদিও বাগদাদ প্রায় তিন বছর আগে ঘোষণা দিয়েছে, ইরাকে আইএস পরাজিত হয়েছে। তবে বাস্তবে দেশটিতে এখনও আইএস সক্রিয়।

উল্লেখ্য, ইরাকি প্রধানমন্ত্রী কাজেমি গত রোববার রাতে এমন সময় আমেরিকা পৌঁছান যখন তার দেশ থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে ইরাকি পার্লামেন্টে পাস হওয়া আইন এখনও বাস্তবায়ন করা হয়নি।


আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




জুলাই মাসেই সর্বোচ্চ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত, হাসপাতালে ২২৮৬

প্রকাশিত:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০১ আগস্ট ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যেই দেশে ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাব ভয়ঙ্কর হয়ে উঠছে। জুলাই মাসেই এই বছরের সর্বোচ্চ সংখ্যক ডেঙ্গু রোগী পাওয়া গেছে। শুধু জুলাই মাসেই ২ হাজার ২৮৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আর তাদের ৯৯ শতাংশই ঢাকায়।

এদিকে, শনিবার (৩১ জুলাই) নতুন করে ১৯৬ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন, যাদের মধ্যে ১৯৪ জনই ঢাকার আর ঢাকার বাইরের ২ জন। গত ১ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের দেওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে এসব জানা যায়।

তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, ২৫ জুলাই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১০৫ জন। তাদের মধ্যে ঢাকায় ১০২ জন, বাইরের জেলায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৩ জন। এরপর ২৬ জুলাই ১২৩ জন, তাদের মধ্যে ঢাকায় ১২০ জন এবং বাকি ৩ জন ঢাকার বাইরে। ২৭ জুলাই ১৪৩ জন, ঢাকায় ১৪২ জন এবং ঢাকার বাইরে ১ জন। ২৮ জুলাই ১৫৩ জন, এরমধ্যে ঢাকায় ১৫০ জন এবং বাকি ৩ জন ঢাকার বাইরে।

২৯ জুলাই ১৯৪ জন, ঢাকায় ১৮১ জন এবং বাইরে ১৩ জন। ৩০ জুলাই ১৭০ জন, ঢাকায় ১৬৪ জন এবং ঢাকার বাইরে ৬ জন। ৩১ জুলাই সারাদেশে মোট ১৯৬ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ঢাকায় ১৯৪ জন এবং বাকি ২ জন ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, সারাদেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে এখন পর্যন্ত ৭৭৭ জন রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে ঢাকাতেই আছেন ৭৪৭ জন। আর বাকি ৩০ জন ঢাকার বাইরে অন্য বিভাগে।

এই বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত ২ হাজার ৬৫৮ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন এবং ছাড়া পেয়েছেন ১ হাজার ৮৭৭ জন। এই বছর এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে ৪ জনের মৃত্যুর তথ্য পর্যালোচনার জন্য রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




কাটাবন মার্কেটের মাছ ও পশু-পাখির জীবন রক্ষার উদ্যোগ : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ জুলাই ২০২১ | ৬৫২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত চলমান বিধি-নিষেধকালে রাজধানীর কাটাবন মার্কেটে বিদ্যমান জীবন্ত শোভাবর্ধক মাছ ও পশু-পাখির জীবন রক্ষার উদ্যোগ নিয়েছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। এ লক্ষ্যে কাটাবন মার্কেটের মাছ ও পশু-পাখির দোকানগুলো চলমান বিধি-নিষেধের মধ্যে প্রতিদিন সকাল ও সন্ধ্যা অন্তত ০২ (দুই) ঘন্টা করে খোলা রাখার ব্যবস্থা গ্রহণে বাংলাদেশ পুলিশকে নির্দেশনা প্রদানের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগে চিঠি দিয়েছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়। 

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউলকরিমের তাৎক্ষণিক নির্দেশে সোমবার (১২ জুলাই) এ সংক্রান্ত চিঠি জারী করেছে মন্ত্রণালয়। কাটাবন মার্কেটের অ্যাকুয়া ও পেটস অ্যাসোসিয়েশন এ বিষয়ে মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশ দেন।

জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবর পাঠানো এ সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধে চলমান বিধি-নিষেধকালে কাটাবন মার্কেটের পশু-পাখি ও মাছের দোকানগুলো সংকটে পড়েছে। দোকানগুলোতে বিদ্যমান জীবন্ত শোভাবর্ধক মাছ ও পশু-পাখিকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য নিয়মিত খাদ্য, পানি ও রোগ প্রতিরোধক টিকা ও ঔষধ সরবরাহ করতে হয়। পাশাপাশি পরিচর্যা এবং পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করাও আবশ্যক। চলমান বিধি-নিষেধের মধ্যে এসকল কার্যক্রম বাধাগ্রস্ত হওয়ায় পশু-পাখি ও মাছ মারা যাচ্ছে। এ প্রেক্ষিতে মাছ ও পশু-পাখির জীবন বাঁচাতে কাটাবন মার্কেটের সংশ্লিষ্ট দোকানগুলো দিনের নির্দিষ্ট সময় খোলা রাখার ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন।

এ বিষয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, কাটাবন মার্কেটে বিদ্যমান বিভিন্ন পোষা প্রাণি ও শোভাবর্ধক মাছের জীবন রক্ষার্থে আমরা চলমান বিধি-নিষেধের মধ্যেও দোকানগুলো প্রতিদিন নির্দিষ্ট একটা সময়ের জন্য খোলা রাখার উদ্যোগ নিয়েছি। এতে পশু-পাখি ও মাছের খাবার দেওয়া, জীবন রক্ষাকারী টিকা ও ঔষধ দেওয়া, আলো-বাতাস প্রবেশের সুযোগ দেওয়া এবং পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার সুযোগ করে দেওয়া সম্ভব হবে। ফলে অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে পশু-পাখি বা মাছ মারা যাবে না। এ বিষয়ে আমাদের সর্বোচ্চ সহানুভূতিশীল হওয়া প্রয়োজন।

উল্লেখ্য, গতবছরও লকডাউনের মধ্যে কাটাবন মার্কেট সরেজমিনে পরিদর্শন করে মাছ ও পশু-পাখির জীবন বাঁচাতে নির্ধারিত সময় দোকান খোলার রাখার উদ্যোগ নিয়েছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।


আরও খবর