আজঃ শনিবার ০২ মার্চ 2০২4
শিরোনাম

যথাসময়ে আইএমএফের ঋণের তৃতীয় কিস্তি পাওয়া যাবে: অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল বা আইএমএফের দেয়া বেশিরভাগ টার্গেটই পূরণ করায় সংস্থাটির দেয়া ঋণের তৃতীয় কিস্তি বাংলাদেশ সময় মতোই পাবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের একথা বলেছেন তিনি। এর আগে বাংলাদেশে আইএমএফের  আবাসিক প্রতিনিধি জায়েন্দু দে এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত কানাডিয়ান হাইকমিশনার লিলি নিকলসের সঙ্গে বৈঠক করেন।

মাহমুদ আলী বলেন, আএমএফ যেসব টার্গেট দিয়েছিলো তার বেশিরভাগই আমরা পূরণ করতে পেরেছি। আইএমএফ এর পরীক্ষায় আমরা পাস করেছি। আরেকটা টিম আসবে। তৃতীয় কিস্তি ঋণের টাকাও যথাসময়ে পাওয়া যাবে, আশা প্রকাশ করেন অর্থমন্ত্রী।

আইএমএফের কাছ থেকে ৪ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার ঋণ নিচ্ছে বাংলাদেশ। ওই ঋণের প্রথম কিস্তির ৪৭ কোটি ৬২ লাখ ডলার বাংলাদেশ পায় গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে। আর ডিসেম্বরে আসে দ্বিতীয় কিস্তির ৬৮ কোটি ৯৮ লাখ ডলার।

এদিকে দেশের দুর্বল ব্যাংকগুলোকে সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত বা মার্জ করার বিষয়ে একমত অর্থমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী।

তিনি বলেন, দুর্বল ব্যাংককে সবল ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করা ভালো। এ বিষয়ে আমাদের দুটি আইডিয়া আছে। দু-একটা ব্যাংক এমন আছে তারা একেবারেই কাজই করতে পারছে না। তাদের শক্তিশালী ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করাই ভালো।

দেশের দুর্বল ব্যাংকগুলোকে সংস্কার করে সবল কোনো ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত করার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর এই পদক্ষেপ বাস্তবায়নে ব্যাংকগুলোকে প্রস্তুতও থাকতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

অর্থমন্ত্রী জানান, উন্নত অর্থনীতিতে দেশগুলোতে একীভূতকরণ অহরহই হচ্ছে। তবে এখানে তা করতে সময় দিতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের তৎপরতা থাকলেও এই বিষয়ের বাস্তবায়ন সময় সাপেক্ষ। অর্থ মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে এখনো উদ্যোগ নেয়নি বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


আরও খবর
এক মাসে রিজার্ভ বাড়ল ৬৩ কোটি ডলার

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




হিংসায় জ্বলছে সন্দেশখালি, এক্স হ্যান্ডলে সরব নুসরাত

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

জমি, ভেড়ি দখল! নারী নির্যাতন! একের পর এক নালিশের পাহাড়! গত ৫২ দিন ধরে শিরোনামে সন্দেশখালি। গ্রামবাসীদের ক্ষোভের আগুনে জ্বলছে গ্রামের পর গ্রাম। অশান্তি নিয়ে ফের মুখ খুললেন তারকা সাংসদ নুসরাত জাহান।

এক্স হ্যান্ডলে নুসরাত লেখেন, একজন মহিলা এবং জনপ্রতিনিধি হিসাবে আমি সবসময় আমার দলের নির্দেশিকা মেনেই চলি। এবং জনসেবা করারই চেষ্টা করি। সন্দেশখালিতে ইতিমধ্যে মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। সাধারণ মানুষের স্বার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাপনাও করা হয়েছে। আমরা কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নই। সুসময় কিংবা দুঃসময়, আমি আমার সংসদীয় এলাকার মানুষদের সঙ্গে আছি। আমি বিশ্বাস করি রাজ্য সরকার এবং প্রশাসনের উপর সকলের বিশ্বাস রয়েছে। যেটা ভুল তার নিন্দা অবশ্যই করুন। তবে আমাদের একে অপরকে নিশানা করা ঠিক নয়। আসুন সকলে মিলে শান্তি ফেরানোর চেষ্টা করি। শান্তি ফেরানো এবং সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করাই আমাদের প্রধান লক্ষ্য। বাকি কে কি বলল কিছু যায় আসে না। আমি আগেও বলেছি, আবার বলছি রাজনীতি করবেন না।

প্রসঙ্গত, গত ৫ জানুয়ারি তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের খোঁজে সন্দেশখালিতে হানা দেয় ইডি। তৃণমূল নেতার দেখা মেলেনি। বাড়িতে তল্লাশিও করতে পারেননি আধিকারিকরা। হামলার শিকার হন তারা। অভিযোগ, শাহজাহানের নির্দেশেই হামলার শিকার হন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। তার পর থেকেই ফাঁকা সাম্রাজ্য। ফেরার তৃণমূল নেতা। তৃণমূল নেতাকে গ্রেপ্তারের দাবিতে ফুঁসছেন গ্রামবাসীরা। ক্ষোভের আগুন দফায় দফায় জ্বলছে সন্দেশখালির একের পর এক গ্রাম। তা নিয়ে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি।

অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে সন্দেশখালিমুখী সিপিএম, কংগ্রেস, বিজেপি প্রতিনিধি দল। যদিও পুলিশি বাধায় কেউই গ্রামে ঢুকতে পারেননি। তবে বেড়মজুর গ্রামে ঘুরে বেড়াচ্ছেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী পার্থ ভৌমিক এবং সুজিত বসুরা। তা সত্ত্বেও গ্রামে দেখা মেলেনি বসিরহাটের সাংসদ নুসরাত জাহানের। এত অশান্তির পরেও সাংসদ কোথায়, তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে প্রশ্নও উঠতে শুরু করে। গত ১২ ফেব্রুয়ারি নীরবতা ভেঙে সন্দেশখালি কাণ্ডে মুখ খোলেন নুসরাত। তার ঠিক ১৩ দিনের মাথায় আবারও সন্দেশখালি ইস্যুতে এক্স হ্যান্ডলে পোস্ট তারকা সাংসদের।


আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মিয়ানমার বিজিপির আরও ১১ সদস্য বাংলাদেশে

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মোহাম্মদ ফারুক, কক্সবাজার

Image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার তুমব্রু সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সঙ্গে বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীর সংঘাতের জেরে বিজিপির আরও ১১ সদস্য বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। এ নিয়ে বিজিপির মোট ১০৬ জন সদস্য বাংলাদেশে আশ্রয়

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর সদর দপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, রবিবার দিনভর বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার তুমব্রু সীমান্তের ওপারে মিয়ানমার অভ্যন্তরে আরাকান আর্মি ও মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশের ( বিজিপি ) মধ্যে গোলাগুলি অব্যাহত ছিল। এতে সংঘর্ষের জেরে রবিবার সকাল থেকে সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বিজিপির ১০৬ জন সদস্য অস্ত্রসহ তুমব্রু সীমান্ত দিয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। পরে তারা বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর কাছে আশ্রয় চাইলে হেফাজতে নেওয়া হয় তাদের।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, বিজিবি তাদের (বিজিপি) নিরস্ত্রীকরণ করে নিরাপদ আশ্রয় দিয়েছে। বিজিপির আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে।

এর আগে সকালে বিজিপির ৯৫ জন সদস্য পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয়।


আরও খবর



বরিশাল সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচন স্থগিত

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) ২২ নম্বর সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলরের শূন্যপদে উপ-নির্বাচন স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সীমানা জটিলতা নিয়ে নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা থাকায় এই নির্দেশ দেয়া হয়েছে। রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আগামী ৯ মার্চ ওই ওয়ার্ডে উপ-নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। বরিশালের সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ওয়াহিদুজ্জামান মুন্সি জানান, নির্বাচন কমিশনের নির্বাচন পরিচালনা শাখার উপসচিব মাজাহারুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে আগামী ৯ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য বরিশাল সিটি করপোরেশনের ২২ নম্বর ওয়ার্ডের শূন্যপদে উপনির্বাচন স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানান সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ওয়াহিদুজ্জামান মুন্সি।


আরও খবর
শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪




পুনমের মৃত্যু নাটকের জন্য ক্ষমা চাইলো জড়িত এজেন্সি

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

২ ফেব্রুয়ারি, সোশ্যাল মিডিয়ায় মডেল পুনম পাণ্ডের মৃত্যুর খবর ভাইরাল হয়ে যায়। একদিন পর তিনি জানান, মারা যাননি তিনি। জরায়ুর ক্যানসার নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে তিনি এমন কাজ করেছেন বলে সাফাই দেন। এবার পুরো ঘটনার দায় নিয়ে মৃত্যু নাটকের জন্য ক্ষমা চাইলো এজেন্সি।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ক্ষমা চায় ডিজিটাল এজেন্সিটি। পোস্টে লেখা হয়, হটারফ্লাইয়ের সঙ্গে চুক্তি করে আমরা জরায়ুর ক্যানসার নিয়ে সতর্কতা বাড়াতে চেয়েছিলাম, সেখানে পুনম পাণ্ডেকে জড়ানো হয়। আমরা তাই প্রথমেই সবার থেকে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি, বিশেষ করে তাদের থেকে যারা তাদের প্রিয়জনকে ক্যানসারের জন্য হারিয়েছেন বা এই রোগের সঙ্গে লড়াই করেছেন।

আরও লেখা হয়, আমাদের উদ্দেশ্য একটাই ছিল, জরায়ুর ক্যানসার নিয়ে সচেতনতা বাড়ানো। ২০২২ সালে ১ লাখ ২৩ হাজার ৯০৭টি জরায়ুর ক্যানসারের কেস এসেছিল তার মধ্যে ৭৭ হাজার ৩৪৮ জন মারা গিয়েছেন। ব্রেস্ট ক্যানসারের পর জরায়ুর ক্যানসারেই সব থেকে বেশি আক্রান্ত হন ভারতের মধ্যবয়সী নারীরা।

পুনমের এ ধরনের আচরণে ক্ষুব্ধ সবাই। মানুষ তীব্র নিন্দা জানাচ্ছেন বিষয়টিতে। দাবি জানাচ্ছেন তাকে আইনি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে নেয়ার জন্য।


আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ঘুমধুম সীমান্তে অবিস্ফোরিত মর্টার শেল উদ্ধার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বান্দরবান প্রতিনিধি

Image

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকা থেকে অবিস্ফোরিত মর্টার শেল উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সোয়া ১টায় ঘুমধুমের ৫ নম্বর ওয়ার্ড নয়াপাড়া থেকে অবিস্ফোরিত মর্টার শেলটি উদ্ধার করা হয়।

ঘুমধুম পুলিশফাঁড়ি তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ (আইসি) মাহাফুজ ইমতিয়াজ ভুঁইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ঘুমধুম ইউনিয়নের নয়াপাড়া এলাকা থেকে পাওয়া অবিস্ফোরিত মর্টার শেলটি বিজিবি উদ্ধার করে নিয়ে গেছে।

ঘুমধুম ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, আজ দুপুর সোয়া ১টার দিকে আমার ওয়ার্ডের নয়াপাড়া এলাকার ছোট শিশুরা অবিস্ফোরিত মর্টার শেলটি দেখতে পেয়ে বিজিবিকে খবর দেয়। ধারণা করা হচ্ছে মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষীবাহিনী পালিয়ে  বাংলাদেশে বিজিবির কাছে আশ্রয় নিতে আসার সময় রাস্তায় মর্টার শেলটি ফেলে গেছে।


আরও খবর