আজঃ শুক্রবার ১৪ জুন ২০২৪
শিরোনাম

আজকের রাশিফল ২২ ডিসেম্বর ২০২২

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ডিসেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ডিসেম্বর 20২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজকের রাশিফল এর ওপর চোখ রেখে শুরু করুন আপনার দিন। রাশিফল হল জ্যোতিষ শাস্ত্রের একটি অন্যতম অঙ্গ। বহু মানুষ রাশিফলের দিকে নজর রেখেই পদক্ষেপ নেন জীবনে। কারণ, রাশিফলই আপনাকে জানিয়ে দিতে পারে গোটা দিনের এক সামগ্রিক ছবি। পাশাপাশি, জীবনে চলার প্রতিটি পদক্ষেপে আপনার ভাগ্যের চাকা কোন দিকে ঘুরছে সে সম্পর্কেও আঁচ পেতে পারেন আপনি। এছাড়াও, সতর্ক হওয়া যায় আসন্ন বিপদ থেকেও। তাই, জেনে নিন কেমন যাবে আপনার দিনটি:

মেষ রাশি: আপনার পরিবারের প্রতি আজ সঠিক সময় দিন। কোনো অপ্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে আজ অর্থব্যয় হবে। ব্যক্তিগত সম্পর্কগুলি আজ সংবেদনশীল এবং ঝুঁকিপূর্ণ হবে। আপনি কর্মক্ষেত্রে আজ একটি দুর্দান্ত খবর পেতে পারেন। আপনার কাছে আজ কিছুটা অবসর সময় থাকবে। যদিও, সেটি আপনি একাকী কাটাতে ভালোবাসবেন। অর্ধাঙ্গিনীর কোনো আচরণে আজ আপনি বিব্রত হবেন।

বৃষ রাশি: আপনি আজ এমন একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হওয়ার সুযোগ পাবেন, যা আপনাকে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্যে নিয়ে আসবে। আপনার স্বাস্থ্য আজ সুন্দর থাকবে। কোনো দীর্ঘস্থায়ী রোগ আজ আপনাকে বিরক্ত করতে পারে। যার কারণে আপনাকে হাসপাতালে গিয়ে প্রচুর অর্থব্যয়ও করতে হবে। কর্মক্ষেত্রে সব কাজ তৎপরতার সাথে করুন। জীবনসঙ্গীর সাথে আজ দুর্দান্ত সময় কাটবে।

মিথুন রাশি: যাঁরা চাকরির জন্য বাড়ি থেকে দূরে থাকেন আজকে তাঁরা নিজের সব কাজ শেষ করে সন্ধ্যেবেলায় কোনো পার্ক বা নির্জন জায়গায় সময় কাটাতে পছন্দ করবেন। আজ আকষ্মিকভাবে অর্থের আগমন ঘটবে। অফিস থেকে সব কাজ শেষ করে তাড়াতাড়ি বেরিয়ে আপনি আজ নিজের পছন্দের কোনো কাজ করতে পারেন। এমন মানুষদের সাথে কথা বলুন যাঁদেরকে বিশ্বাস করা যায়। প্রেমের জন্য দিনটি ভালো।

কর্কট রাশি: সন্ধ্যে নাগাদ আজ বাড়িতে অতিথিরা আসতে পারেন। পাশাপাশি, তাঁদের সাথে একটি দুর্দান্ত সময় কাটবে। স্বাস্থ্যের দিক থেকে আজকের দিনটি অত্যন্ত ভালো। আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে সম্পন্ন হওয়া ভ্রমণ আজ লাভজনক প্রমাণিত হবে। যাঁরা অর্থ ধার নিয়ে আর ফেরত দিতে চান না তাঁদেরকে এড়িয়ে চলুন। কর্মক্ষেত্রে দুর্দান্ত দিন কাটবে।

সিংহ রাশি: আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। তাই, এই দিনটিকে কাজে লাগান। তরুণরা অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে এমন ক্রিয়াকলাপে জড়িত হওয়ার পক্ষে এটি ভালো সময়। আপনি যদি একজন ছাত্র হন এবং বিদেশে পড়াশোনা করতে চান সেক্ষেত্রে আর্থিক সঙ্কট আজ আপনাকে বিরক্ত করতে পারে। আপনি আজ একাকী সময় কাটাতে ভালোবাসবেন। কোনো অংশীদারিত্বে যুক্ত হওয়ার আগে অবশ্যই সতর্ক হন।

কন্যা রাশি: আজ সতর্ক থাকুন, কারণ কেউ আপনার ভাবমূর্তিকে কলঙ্কিত করতে পারে। আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। তাই, এই দিনটিকে কাজে লাগান। আপনার মন ভালো রাখতে আজ কোনো সামাজিক কর্মকান্ডে উপস্থিত থাকুন। কোনো ঝুঁকি বা অপ্রত্যাশিত লাভের মাধ্যমে আজ আর্থিক অবস্থার উন্নতি হতে পারে। আজ আপনি নিজের জন্য যথেষ্ট সময় পাবেন।

তুলা রাশি: অফিস থেকে সব কাজ শেষ করে তাড়াতাড়ি বেরিয়ে আপনি আজ নিজের পছন্দের কোনো কাজ করতে পারেন। বন্ধু এবং আত্মীয়রা আপনাকে আজ সুনজরে দেখবেন। পাশাপাশি, তাঁদের সাথে দুর্দান্ত সময়ও কাটবে। অৰ্থিক দিক থেকে দিনটি ভালো। আজ বেশির ভাগ কাজই আপনার মনের মত করে সম্পন্ন হবে। সবার সাথে আজ ভালোভাবে ভাব-বিনিময় করুন। আপনার ভালোবাসার জীবন আজ সত্যি সত্যিই আপনার জন্যে অসাধারণ একটি চমক নিয়ে আসবে।

বৃশ্চিক রাশি: কোথাও বিনিয়োগ করার আগে আজ অবশ্যই সেই সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজখবর নিন। স্বাস্থ্যসংক্রান্ত সমস্যাগুলি আজ অস্বস্তির কারণ হতে পারে। প্রি়য়জনের কাছে আপনার উপস্থিতি আজ অন্যতম সুন্দর একটি মুহূর্ত গড়ে তুলবে। অংশীদারি প্রকল্পগুলিতে আজ কিছু সমস্যা আসতে পারে। এটি এমন একটি দিন যেখানে ভালো এবং মন্দ উভয় ঘটনাই ঘটবে। বিবাহিতদের জন্য দিনটি ভালো।

ধনু রাশি: কর্মক্ষেত্রে আপনার ধারণাগুলিকে ভালোভাবে উপস্থাপিত করলে আজ আপনি লাভবান হবেন। আপনার মনের মধ্যে আজ ইতিবাচক চিন্তা নিয়ে আসুন। আপনি আজ যথেষ্ট পরিমানে অর্থের অধিকারী হবেন। আজকে আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির সাথে সময় কাটাতে পারবেন। বিবহিতদের জন্য দিনটি ভালো। খেলতে গিয়ে আজ আপনি আঘাত পেতে পারেন। তাই, সতর্ক থাকুন।

মকর রাশি: আপনি আজ কোনো রোমান্টিক ভ্রমণে যেতে পারেন। খেলাধূলার প্রতি আজ আপনি আকৃষ্ট হবেন। আর্থিক দিক থেকে দিনটি ভালো হলেও টাকাপয়সা লাভ আপনার প্রত্যাশামাফিক হবে না। আজ কর্মক্ষেত্রে আপনার কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী আপনার বিরুদ্ধে গভীর চক্রান্ত করতে পারেন। তাই, অবশ্যই সতর্ক থাকুন। বাড়িতে আজ কোনো উৎসব হতে পারে। আজকে আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির সাথে সময় কাটাতে পারবেন।

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর



নিবন্ধিত সব সোনার দোকানে ইএফডি যন্ত্র বসাতে চিঠি

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বিক্রয়মূল্যের তারতম্য রোধে নিবন্ধিত সব সোনার দোকান বা জুয়েলারি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দ্রুত ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) যন্ত্র বসাতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) চিঠি দিয়েছে ট্যারিফ কমিশন।

সম্প্রতি আসন্ন নতুন অর্থবছরের বাজেটে শুল্ক সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রস্তাব পর্যবেক্ষণ ও সুপারিশ সম্বলিত এ চিঠি এনবিআরকে দিয়েছে কমিশন। যেখানে বাংলাদেশ জুয়েলারি অ্যাসোসিয়েশনের (বাজুস) বিভিন্ন বাজেট প্রস্তাবনাও পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে।

ইএফডি বিষয়ে কমিশনের পর্যবেক্ষণ হলো, অধিকাংশ জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানে ইএফডি না থাকায় বিক্রয়মূল্যে তারতম্য দেখা দিচ্ছে। নিবন্ধনকৃত সব প্রতিষ্ঠানকে দ্রুত ইএফডি সরবরাহ করা হলে ভ্যাট আদায় বাড়বে।

নিজস্ব প্ল্যান্ট স্থাপনের মাধ্যমে স্বর্ণ পরিশোধন শুরুর আগে অপরিশোধিত স্বর্ণে আকরিক ও আমদানি শুল্ক যৌক্তিক করা এবং জুয়েলারি শিল্পে ব্যবহৃত মূলধনী যন্ত্রপাতিতে আমদানি শুল্ক কমানোর সুপারিশ করেছে কমিশন।

এর আগে প্রাক-বাজেট আলোচনায় এনবিআরকে একই প্রস্তাব দেয় বাজুস। তারা জানায়, নিজস্ব প্ল্যান্ট স্থাপন করে সোনা পরিশোধন করা হলে বাংলাদেশ শিল্পায়নের নতুন সেক্টরে প্রবেশ করবে।

বাজেটে বাজুস অপরিশোধিত স্বর্ণ আকরিক কাস্টমস ডিউটি ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১ শতাংশ ও আংশিক পরিশোধিত স্বর্ণের কাস্টমস ডিউটি ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়।


আরও খবর



বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে যত রেকর্ড

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জুন 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

অনেকটা নীরবেই শুরু হলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর। তবে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচটা হয়েছে দুর্দান্ত। বিশ্বমঞ্চে অভিষেকে আইসিসির দুই সহযোগী দেশ যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা বেশ দাপটই দেখিয়েছে। কানাডার ছুঁড়ে দেওয়ার ১৯৫ রানের লক্ষ্য ১৪ বল হাতে রেখেই পেরিয়েছে বিশ্বকাপের আয়োজকরা।

সবমিলিয়ে দেখে নেওয়া যাক রেকর্ডগুলো-

অভিষেকে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ: প্রথমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে নেমে সর্বোচ্চ ১৯৪ রান তুলেছে কানাডা। এর আগে, ২০১৪ আসরে ১৯৩ রান তুলেছিল নেদারল্যান্ডস। ডাচদের সেই রেকর্ড ভেঙে দেয় কানাডা। এরপর লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কানাডিয়ানদের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্র, রান তাড়ায় নেমে ১৯৭ তুলেছে তারা; যা বিশ্বমঞ্চে অভিষেকে সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।

তৃতীয় সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ড: এই ম্যাচে রান তাড়ায় ইতিহাস গড়েছে স্বাগতিক দল। এর আগে, সর্বোচ্চ ১৬৯ রান তাড়া করে জিতেছিল। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে এবার ১৭ দশমিক ৪ ওভারেই কানাডার ছুঁড়ে দেওয়া ১৯৫ রানের লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলেছে তারা।

এদিকে রান তাড়ার রেকর্ডে সব মিলিয়ে তৃতীয় স্থানে এটি। সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ২৩০ রান তাড়া করে জিতেছিল ইংল্যান্ড। ২০১৬ আসরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এই কীর্তি গড়ে ইংলিশরা। এর আগে, ২০০৭ বিশ্বকাপে ২০৬ রান তাড়া করে জিতেছিল প্রোটিয়ারা।

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় জুটি: তৃতীয় উইকেট জুটিতে ১৩১ রান তুলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সহ–অধিনায়ক অ্যারন জোন্স ও আন্দ্রিয়েস গুস। তবে বিশ্বমঞ্চে এর আগে আরেকবার তৃতীয় উইকেট জুটিতে এর চেয়ে বেশি রান এসেছে। ২০১৪ বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৫২ রানের জুটি গড়েছিলেন ইংল্যান্ডের ইয়ন মরগান ও অ্যালেক্স হেলস। তবে ২০ ওভারের ফরম্যাটে এটাই যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় রানের জুটি।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ছক্কা: অপরাজিত ৯৪ রানের পথে ১০টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন জোন্স। এই তালিকায় তার সামনে আছেন শুধুই ক্রিস গেইল। ২০১৬ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১১টি ছক্কা মেরেছিলেন ক্যারিবিয়ান এই ইউনিভার্স বস’।

এক ওভারে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান: বিশ্বকাপে এর আগে এক ওভারে সর্বোচ্চ ৩৬ রান দিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের পেসার স্টুয়ার্ড ব্রড। ২০০৭ বিশ্বকাপে তার ওভারে ৬ ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন যুবরাজ সিং। এবার এক ওভারে ৩৩ রান খরচ করেছেন কানাডার জেরেমি গর্ডন।

দ্রুততম ফিফটি: দলের জয়ের দিনে দুর্দান্ত ইনিংস খেলেছেন জোন্স। মাত্র ২২ বলে হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেওয়া এই ব্যাটার শেষ পর্যন্ত ৯৪ রানে অপরাজিত থেকেছেন। যা এই ফরম্যাটে কোনো আমেরিকান ব্যাটারের সবচেয়ে দ্রুততম ফিফটি।


আরও খবর



সবজির বাজারে আগুন, মুরগি-খাসির দামও বেড়েছে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সপ্তাহের ব্যবধানে রাজধানীর বাজারগুলোয় বেড়েছে মুরগি, খাসির মাংস ও সবজির দাম। বিশেষ করে গত দুদিনের ব্যবধানে প্রায় প্রতিটি সবজির দাম ১০-২০ টাকা বেড়েছে। এর জন্য সরবরাহ সংকটকে দায়ী করছেন বিক্রেতারা।

যদিও শুক্রবার (৭ জুন) রাজধানীর কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা যায়, সব ধরনের পণ্যের সরবরাহ স্বাভাবিক আছে। সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ক্রেতারাও ভিড় করছেন বাজার করতে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, বর্তমানে মানভেদে প্রতি কেজি কচুরমুখী ১২০ টাকা, লতি ৬০ টাকা, লম্বা বেগুন ৬০-৮০ টাকা, দেশি গাজর ৭০-৮০ টাকা, চায়না গাজর ১২০ টাকা কাঁঠালের বিচি ৫০-৬০ টাকা, গোল বেগুন ৬০-৮০ টাকা, টমেটো ৯০-১০০ টাকা, ঝিঙ্গা ৫০ টাকা, পটল ৪০-৫০ টাকা, উস্তা ৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৪০ টাকা, শসা ১০০-১২০ টাকা, সজনে ডাটা ১০০ টাকা, বরবটি ৯০-১০০ টাকা, কাঁচা মরিচ ১৬০ টাকা, কাঁকরোল ৯০-১০০ টাকা, চিচিঙ্গা ৬৫-৭০ টাকা, ধুন্দুল ৬৫-৭০ টাকা, কুমড়া ৩০ টাকা, পেঁপে ৭০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতি পিস ফুলকপি ৪০ টাকা, বাঁধাকপি ৩০ টাকা, লেবুর হালি ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

বিক্রেতারা বলছেন, গত দুই দিনের ব্যবধানে প্রায় প্রতিটি সবজির দাম কেজিতে ১০-২০ টাকা বেড়েছে। এর জন্য সরবরাহের ঘটতিকে দায়ী করছেন তারা। মফিজুল ইসলাম নামের এক বিক্রেতা বলেন, গত দুদিন ধরে সবজির দাম বেশি। চাহিদার তুলনায় বাজারে সবজি কম আসছে। তাই সবজির দাম কিছুটা বাড়তি।

জাকির হোসেন নামের আরেক বিক্রেতা বলেন, প্রায় প্রতিটি সবজির দাম কেজিতে ১০-২০ টাকা বাড়ায় সাধারণ মানুষের কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু আমাদের তো কিছু করার নেই। আমরা বেশি দামে সবজি আনলে বেশি দামেই বিক্রি করতে হবে। কেজিতে প্রায় ৪-৫ টাকা বেড়েছে আলুর দামও। বর্তামানে প্রতি পাল্লা (পাঁচ কেজি) আলু ২৭০-২৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। যা কয়দিন আগেও ২৫০ টাকা ছিল।

দাম বাড়ার কারণ হিসেবে কোল্ড স্টোর মালিকদের সিন্ডিকেটকে দায়ী করছেন বিক্রেতারা। চাঁন মিয়া নামের এক বিক্রেতা বলেন, কোল্ড স্টোরগুলো থেকে আলু কম ছাড়া হচ্ছে। এতে বাজারে কম বাজারে সংকট দেখা দিচ্ছে। পাশাপাশি তারা দামও বেশি রাখছে। যার কারণে আমাদের বেশি দামেই বিক্রি করতে হয়।

সবজির দামের এমন ঊর্ধ্বগতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা। কারওয়ান বাজারে বাজার করতে আসা বেসরকারি চাকরিজীবী মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে সবজির দাম অনেকটা বেশি। বলা যায়, সবজির দাম সাধারণ ক্রেতাদের নাগালের বাইরে চলে গেছে। বিক্রেতারা বলছেন, সরবরাহের ঘাটতির কথা। কিন্তু বাজারে কোনো জিনিসের অভাব দেখছি না। আমার মতে, পরিবহন খরচ বাড়ায় বাজারে নিত্য পণ্যের দাম বাড়ছে।

এদিকে গত দুই দিনের ব্যবধানে বেড়েছে ব্রয়লার মুরগি, লাল লেয়ার ও খাসির মাংসের দাম। তবে আগের মতোই আছে গরুর মাংসের দাম।

বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বর্তমানে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি ১৯০-২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা দুদিন আগেও ১৮০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছিল। এছাড়া ৩২০ টাকায় বিক্রি হওয়া লাল লেয়ার মুরগি আজ বিক্রি হচ্ছে ৩৪০ টাকা কেজি দরে। তবে আগের মতোই ৩২০-৩৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে সোনালি মুরগি। সাদা কক বিক্রি হচ্ছে ৩০০-৩২০ টাকায় ও সাদা লেয়ার বিক্রি হচ্ছে ২৯০ টাকায়।

জিয়াউল হক জিয়া নামের এক মুরগি বিক্রেতা বলেন, একে সামনে কোরবানির ঈদ। মুরগির দাম এখন কিছুটা বাড়তি থাকবে। এছাড়া শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় এদিন বাজারে সবকিছুর দাম একটু বেশি থাকে।

বর্তমানে বাজারে প্রতি কেজি খাসির মাংস ১২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। যা কয়দিন আগেও ১১০০ টাকা ছিল। তবে গরুর মাংস আগের মতোই ৭৫০-৭৮০ টাকা ও ছাগলের মাংস ১০০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

খাসির মাংসের দাম বাড়ার জন্য কোরবানির ঈদের কথা বলছেন বিক্রেতারা। আব্দুল মোতালেব নামের এক বিক্রেতা বলেন, কয়েকদিন পর ঈদ। এখন কিনতে গেলে যে খাসির দাম ৫০০০ টাকা হওয়া উচিত, সেটি অন্য আরেকজন ৭০০০ টাকায় কিনে নিচ্ছে। যে কারণে খাসির দাম বেশি পড়ছে।

তবে আগের মতোই আছে পেঁয়াজ, রসুন, ডিমের দাম। বর্তমানে বাজারে প্রতি কেজি পাবনার পেঁয়াজ ৮০ টাকা, রাজশাহীর পেঁয়াজ ৭৮-৮০ টাকা, ফরিদপুরের পেঁয়াজ ৭৫-৭৬ টাকা, ভারতীয় পেঁয়াজ ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি হালি লাল ডিম ৫০ টাকা ও সাদা ডিম ৪৮ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। অপরিবর্তিত আছে চালের দাম। প্রতি কেজি মিনিকেট ৬৬-৬৮ টাকা, নাজিরশাইল ৬৫-৮০ টাকা, মোট আটাশ চাল ৫২-৫৩ টাকা, স্বর্ণা (গুটি) ৪৮-৫০ টাকা ও স্বর্ণা (পাইজাম) ৫৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: কারওয়ান বাজার

আরও খবর



বাজেটে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ৬.৭৫ শতাংশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আগামী ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেটে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয়েছে ৬ দশমিক ৭৫ শতাংশ। টাকার অংকে যা ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার ৪১৪ কোটি টাকা।

বৃহস্পতিবার (৬ জুন) অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী জাতীয় সংসদে নতুন বাজেট প্রস্তাব উত্থাপন করেন। সেখানে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য তুলে ধরেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, উচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে দেশের অর্থনীতি বর্তমানে কিছুটা চাপের সম্মুখীন হলেও প্রাজ্ঞ ও সঠিক নীতি কৌশল বাস্তবায়নের ফলে জিডিপি প্রবৃদ্ধিও গতিধারা অব্যাহত রয়েছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে মধ্যমেয়াদে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৭ দশমিক ২৫ শতাংশে পৌঁছাবে।

২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের আকার ৭ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকা। এটি দেশের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ বাজেট। দেশের ইতিহাসে বিশাল এ প্রস্তাবিত বাজেটের ঘাটতি ধরা হয়েছে ২ লাখ ৫১ হাজার ৬০০ কোটি টাকা। প্রস্তাবিত এ বাজেটে অনুদান ছাড়া ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়াবে ২ লাখ ৫৬ হাজার কোটি টাকা। এটি মোট জিডিপির (মোট দেশজ উৎপাদন) ৪ দশমিক ৬ শতাংশ। সরকার অভ্যন্তরীণ ঋণ নেবে এক লাখ ৬০ হাজার ৯০০ কোটি টাকা।


আরও খবর



তৃতীয় দফায় বেনজিরের ৮ ফ্ল্যাট, ৯১ একর জমি ক্রোকের নির্দেশ

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজির আহমেদের পরিবারের সদস্যদের নামে আরও সম্পত্তি ও ফ্ল্যাট জব্দের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার (১২ জুন) ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ আদেশ দেন।

জব্দ হওয়া সম্পদ ও ফ্ল্যাটের মধ্যে- রুপগঞ্জে ২৪ কাঠা জমি, উত্তরায় ৩ কাঠা, বাড্ডায় ৩৯ দশমিক ৩০ জমির ওপর দুটি ফ্ল্যাট, বান্দরবান জেলায় ২৫ একর জমি, স্ত্রী জিসানের নামে আদাবর থানার পিসিকালচার এলাকায় ৬টি ফ্ল্যাট, গুলশানে বাবার কাছ থেকে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি মূলে সম্পত্তিতে ৬ তলা ভবন, সিটিজেন টিভির শেয়ার ও টাইগার এপারেলসের শেয়ার রয়েছে।

মামলার অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচাল হাফিজুল ইসলাম এ আবেদন করেন। আবেদনে বলা হয়, বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজির আহমেদের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যবহার, বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে নিজ নামে, স্ত্রী জীশান মীর্জা ও কন্যাদের নামে দেশ-বিদেশে শত শত কোটি টাকার জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ করা হয়েছে।

অনুসন্ধানকালে বিশ্বস্তসূত্রে জানা যাচ্ছে, অভিযোগ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা তাদের মালিকানাধীন ও তাদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের নামীয় স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তরের চেষ্টা করছেন। যা করতে পারলে মামলার অনুসন্ধানের ধারাবাহিকতায় মামলা দায়ের, চার্জশিট দাখিল, আদালত কর্তৃক বিচার শেষে সাজা অংশ হিসেবে অপরাধলব্ধ আয় থেকে অর্জিত সম্পত্তি সরকারের অনুকূলে বাজেয়াপ্তকরণসহ সকল উদ্দেশ্যই ব্যর্থ হবে।

তাই অনুসন্ধান শেষে মামলা দায়ের, তদন্ত শেষে চার্জশিট দাখিল, এরপর আদালত কর্তৃক বিচার শেষে সরকারের অনুকূলে বাজেয়াপ্তের সুবিধার্থে তথা সুষ্ঠু অনুসন্ধান ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার স্বার্থে স্থাবর সম্পত্তিসমূহ ক্রোক ও অস্থাবর সম্পত্তি ফ্রিজ করা একান্ত প্রয়োজন। দুদকের পক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর।

এর আগে গত ২৩ ও ২৬ মে দুই দফায় বেনজির আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের ৬২১ বিঘা জমি জব্দের আদেশ দেন আদালত। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি জমির মালিক বেনজিরের স্ত্রী জীশান মীর্জা। তার নামে প্রায় ৫২১ বিঘা জমি খুঁজে পেয়েছে দুদক। বাকি ১০০ বিঘার মতো জমি রয়েছে বেনজির, তার তিন মেয়ে ফারহিন রিশতা বিনতে বেনজির, তাহসিন রাইশা বিনতে বেনজির ও জারা জেরিন বিনতে বেনজির এবং স্বজন আবু সাঈদ মো. খালেদের নামে।

বেনজির আহমেদের স্ত্রী জীশান মীর্জার নামে মাদারীপুরের সাতপাড় ডুমুরিয়া মৌজায় ২৭৬ বিঘা জমি পাওয়া গেছে। ২০২১ ও ২০২২ সালের বিভিন্ন সময় ১১৩টি দলিলে এসব জমি কেনা হয়। দলিলমূল্য দেখানো হয় মোট ১০ কোটি ২২ লাখ টাকা। ৮৩টি দলিলে ৩৪৫ বিঘা জমি জব্দের আদেশ দেন আদালত। যার দলিলমূল্য দেখানো হয়েছিল ১৬ কোটি ১৫ টাকার কিছু বেশি।

এছাড়া বেনজির আহমেদের পরিবারের সদস্যদের নামে গুলশানে যে চারটি ফ্ল্যাট জব্দের আদেশ দেন আদালত। তার মধ্যে তিনটি তার স্ত্রীর নামে এবং একটি ছোট মেয়ের নামে। দুটি ফ্ল্যাটের আয়তন ২ হাজার ৩৫৩ বর্গফুট, দাম ৫৬ লাখ টাকা করে। বাকি দুই ফ্ল্যাটের আয়তন ২ হাজার ২৪৩ বর্গফুট করে, দাম সাড়ে ৫৩ লাখ টাকা করে। চারটি ফ্ল্যাট কেনা হয়েছে একই দিন একই ভবনে। ভবনটির নাম র‍্যানকন আইকন টাওয়ার।

নিউজ ট্যাগ: ড. বেনজির আহমেদ

আরও খবর