আজঃ শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩
শিরোনাম

আ.লীগের নির্বাচনী ইশতেহার নিয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি ক্ষমতা এলে দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস হয়ে যাবে। তাই যেমন কুকুর, তেমন মুগুর’— ওই রকম ইশতেহার করতে বললেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকালে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের দলের নির্বাচনী ইশতেহার প্রণয়ন কমিটির প্রথম সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশের গণতন্ত্র রক্ষা করতে হলে শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রাখতে হবে বলে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন জুঁই ফুলের গান গেয়ে লাভ নেই। আমাদের এখন কঠিন সময়। তাই যেমন কুকুর, তেমন মুগুর- ওইরকম ইশতেহার করুন। 

আরও পড়ুন>> প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৭তম জন্মদিন আজ

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ইশতেহার প্রণয়ন কমিটির আহ্বায়ক ড. আবদুর রাজ্জাক সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ও ইশতেহার প্রণয়ন কমিটির সদস্য সচিব ড. সেলিম মাহমুদ, ড. বজলুল হক খন্দকার, অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, ড. শামসুল আলম, ডা. দীপু মনি, অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম, শেখর দত্ত, ড. মাকসুদ কামাল, ড. মাহফুজুর রহমান, অধ্যাপক খায়রুল হোসেন, সাজ্জাদুল হাসান, তারানা হালিম, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, জুনায়েদ আহমেদ পলক, ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল প্রমুখ।


আরও খবর
বাহাউদ্দিন নাছিমকে শোকজ

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩




ওভার ইনভয়েসিংয়ে অর্থ পাচার কমেছে ৯০ শতাংশ : গভর্নর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বাড়তি নজরদারির কারণে ওভার ইনভয়েসিং বা আমদানি করা পণ্যের অতিরিক্ত দাম দেখিয়ে টাকা পাচার কমেছে প্রায় ৯০ শতাংশ। তা ছাড়া হুন্ডি নিয়ন্ত্রণেও চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। এদিকে ক্যাশ ডলার আমদানির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ব্যাংকিং চ্যানেলে বৈধভাবে টাকা পাচারের অন্যতম পথ 'ট্রেড বেসড মানি লন্ডারিং'। ব্যবসার ছদ্মবেশে এ মাধ্যমকে অত্যন্ত নিরাপদভাবে ব্যবহার করে থাকে অপরাধ চক্র। বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইনটেলিজেন্স ইউনিটের (বিএফআইইউ) তথ্যানুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবছরে অতিরিক্ত আমদানি মূল দেখিয়ে সন্দেহজনক লেনদেনের সংখ্যা ছিল ৮ হাজার ৫৭১টি। তার আগের দুই অর্থবছরে ছিল ৭ হাজারের বেশি।

ধারাবাহিকতায় শেষ দুই অর্থবছর ব্যবসার আড়ালে কত টাকা পাচার হয়েছে তার সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই। তবে বছরখানেক ধরে ডলার সংকট বাদ সেধেছে সে পন্থায়। আমদানি-রফতানিতে পণ্যের যৌক্তিক মূল্য যাচাই করতে ব্যাংকগুলোতে নজরদারি বাড়িয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর মাধ্যমে প্রায় ৯০ ভাগ অর্থ পাচার বন্ধ সম্ভব হয়েছে বলে জানান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর। আর হুন্ডি নিয়ন্ত্রণেও সতর্ক বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার বলেন, আমি বিগত ১৫ থেকে ১৬ মাস ধরে যে কাজ করছি, তাতে ওভার ইনভয়েসিং মোটামুটি ৯০ শতাংশ কমিয়ে ফেলেছি। ১০০ ভাগ তো কমানো যাবে না। কিন্তু ৯০ শতাংশ কমিয়ে ফেলেছি। কাজেই আমি আপনাকে বলতে পারি যে ওভার ইনভয়েসিংয়ের মাধ্যমে টাকা পাচার মোটামুটি বন্ধ হয়ে গেছে। এখন যেটি হচ্ছে, সেটি হলো হুন্ডির মাধ্যমে কিছু টাকাপয়সা যাওয়া-আসা করছে। তাই হুন্ডি কীভাবে বন্ধ করা যায়, আমরা সে বিষয়টি নিয়ে কাজ করছি।

রফতানি আয়ের বিষয়ে গভর্নর বলেন, আমাদের পণ্য রফতানির মূল গন্তব্য হচ্ছে ইউরোপ এবং আমেরিকা। সেখানে পণ্য আমদানি অনেক কমে গেছে। তা সত্ত্বেও সেখানে আমাদের বিগত ৪ মাসের প্রবৃদ্ধি সাড়ে ৩ শতাংশের বেশি রয়েছে। তা ছাড়া আমরা আমাদের আমদানিকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি এবং সেটি অনেকটাই কমে এসেছে। এখন আমাদের চলতি হিসাবে উদ্বৃত্ত রয়েছে।

প্রবাসী আয়ের প্রবাহ নিয়ে তিনি বলেন, এর বাইরে রেমিট্যান্স যা আসছে, তা আগের বছরের একই সময়ের প্রায় সমান। চলতি বছর রেমিট্যান্সের হার মাত্র ১ শতাংশ কম রয়েছে। তবে আমরা আশা করি যে এই মাস থেকে এটি বেড়ে যাবে। তার এটি ক্রমেই বাড়তে থাকবে।

ডলার রেটের বিষয়ে তিনি বলেন, আমার সঙ্গে সব ব্যাংকের কথা হয়েছে। তারা রাজি হয়েছে যে তারা প্রতিযোগিতায় যাবে না এবং তারা ন্যায্য দামে থাকবে। তা ছাড়া এখানে সরকার আড়াই শতাংশ প্রণোদনা দেয়। এ ছাড়া ব্যাংকগুলোও রাজি হয়েছে যে তারা নিজেরা তাদের নিজস্ব সামর্থ্য হিসেবে প্রণোদনা দেবে। তাহলে আমার মনে হয়, আমরা যদি সব কটি একসঙ্গে যোগ করি, তাহলে এখন যে দাম, তা মোটামুটি বাজার দরের সমান। তা ছাড়া আমি মনে করি না ডলারের বিপরীতে টাকার মান খুব বেশি পড়ে যাবে। উল্টো ভবিষ্যতে এ মান বাড়তে পারে।

এদিকে দেশের বাইরে চিকিৎসাসহ বিভিন্ন কাজে যেতে বছরে কোটি কোটি ডলার ব্যয় হয়। যার প্রভাবে অস্থির থাকে নগদ ডলারের বাজার। তাই চাপ কমাতে ডলার আমদানি করা হবে বলে জানিয়েছেন গভর্নর।

তিনি বলেন, সংকট যেন না থাকে, মানুষ যেন ক্যাশ পেতে পারেন, তাই আমরা একটি ব্যাংকের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা ডলার আনবে। আরও যদি দু-একটি ব্যাংক আনতে চায়, তাহলে আমরা তাদের অনুমতি দেব। সুতরাং, ক্যাশ ডলারের সংকট যেন না হয়। আর আমরা তো এরই মধ্যে টাকা পে কার্ড করেছি। আগামী বছরের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারির মধ্যে আমরা এটির সঙ্গে রুপি অন্তর্ভুক্ত করতে পারব। ফলে কেউ যখন ভারত যাবে, তখন আর তাকে ক্যাশ ডলার নিয়ে যেতে হবে না। টাকা পে কার্ড নিয়ে ব্যবহারকারী তার যে ১২ হাজার ডলারের কোটা রয়েছে, সেটি সেখানে খরচ করতে পারবেন।

এ ছাড়া বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয়ের পাশাপাশি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে তারল্য সংকট কাটাতে অর্থ সহায়তা এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠায় মনিটরিংয়ে জোর দেয়ার কথাও জানান বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর।


আরও খবর
মাতৃভূমি সিটির আবাসন মেলার উদ্বোধন

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩

ভারতীয় চালের রপ্তানি মূল্য কমেছে

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩




আমিনবাজারে গ্যাস লাইন লিকেজে বিস্ফোরণ, দগ্ধ ৭

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সাভারের আমিনবাজারে গ্যাস লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে সাত জন দগ্ধ হয়েছেন। এরমধ্যে পাঁচ জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে উপজেলার আমিনবাজার ইউনিয়নের হিজলি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। দগ্ধ অবস্থায় রাত ১২টার দিকে তাদের ঢামেকে নেওয়া হয়।

দগ্ধরা হলেন, মো. রায়হান (২০), মো. হারিস (২০), মো. নাহিদ (২০), মো. জুয়েল (২২), মো. মোনারুল (১৯), মো. আল- আমিন (২২) ও মো. রুবেল (২৫)। তারা সবাই ভাড়া বাসায় থেকে বিভিন্ন কাজ করেন।

উদ্ধারের পর তাদের হাসপাতালে নেওয়া রকিব বলেন, রাত ৯টার দিকে তারা ওই কক্ষে বসে সবাই গল্প করছিলেন। একজন সেখানে সিগারেট খেতে দিয়াশলাই কাঠি জ্বালালে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

তিনি জানান, দুই দিন আগে ওই কক্ষের পাশেই গ্যাসের লাইনে কাজ করা হয়েছিল। কক্ষটিও সারাদিন বন্ধ ছিল। ফলে কক্ষে কোনোভাবে গ্যাস আচ্ছন্ন হয়ে ছিল। আগুন জ্বালাতেই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

সাভার মডেল থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মিলন বলেন, বিস্ফোরণের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। সাত জন দগ্ধ হয়েছে বলে জেনেছি। দুইজন বেশি দগ্ধ হয়েছে। বাকিদের কিছুটা কম। তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


আরও খবর



দলীয় এমপিরা স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেও পদত্যাগ করতে হবে না: ইসি

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

কোনো দলীয় সংসদ সদস্য নির্দলীয়ভাবে বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে হলে তাকে সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করতে হবে না বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) নির্বাচন কমিশনের পরিচালক (জনসংযোগ) মো. শরিফুল আলম এ তথ্য জানান।

ইসি জানিয়েছে, বিভিন্ন গণমাধ্যমে এই মর্মে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে যে কোনো দলীয় সংসদ সদস্য নির্দলীয়ভাবে বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে হলে তাকে সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করতে হবে।

তবে, গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ, ১৯৭২ অনুযায়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে হলে কিছু শর্তসমূহ পরিপালন করতে হবে। সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকার ১ শতাংশ ভোটারের সমর্থন সম্বলিত স্বাক্ষরযুক্ত তালিকা মনোনয়নপত্রের সঙ্গে সংযুক্ত করতে হবে। তবে কোনো স্বতন্ত্র প্রার্থী পূর্বে জাতীয় সংসদের কোনো নির্বাচনে সদস্য নির্বাচিত হলে এই তালিকা দেওয়ার প্রয়োজন হবে না। ফলে দলীয় সংসদ সদস্যদের স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করতে হবে না। দলীয় হোক, নির্দলীয় হোক বা সংরক্ষিত নারী আসনের হোক, সংসদ সদস্য পদে থেকেই তিনি প্রার্থী হতে পারবেন।


আরও খবর
ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মারা গেছেন

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩

ফের শ ম রেজাউল করিমকে চায় ভোটাররা

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩




শ্রমিক বিক্ষোভ থেকে গ্রেপ্তার সবাই বিএনপির অ্যাক্টিভিস্ট : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১২ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

শ্রমিক বিক্ষোভ থেকে গ্রেপ্তার সবাই বিএনপির অ্যাক্টিভিস্ট বলে দাবি করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। রোববার (১২ নভেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পোশাক খাতে অস্থিতিশীলতার জন্য বিএনপি নেতাকর্মীরা দায়ী। ভিডিও ফুটেজে সেই প্রমাণ পাওয়া গেছে। গ্রেপ্তারকৃতরা সবাই বিএনপির অ্যাক্টিভিস্ট। তারাই শ্রমিকদের উসকে দিচ্ছে।

তিনি বলেন, কুষ্টিয়ার বিএনপির একজন নেতা কোণাবাড়ীতে এসে শ্রমিকদের উৎসাহ দিচ্ছিল, ঐক্যবদ্ধ করছিল। গ্রেপ্তারকৃতরা শ্রমিকদের জড়ো করছেন। 

আরও পড়ুন>> নির্বাচনী অ্যাপ মনোনয়ন জমা সহজ করবে, আচরণবিধি ভঙ্গ ঠেকাবে: ইসি

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, শ্রমিকদের মজুরি আট হাজার থেকে সাড়ে ১২ হাজার করা হয়েছে। তবে আমরা শুনতে পাচ্ছি, অনেক শ্রমিকের মনে গ্রেড নিয়ে সংশয় রয়েছে। এসব নিশ্চয় আমাদের গার্মেন্টসের মালিকপক্ষ অবশ্যই সমাধান করবে। তবে সমাধানের ক্ষেত্রটি আগুন-ভাঙচুর বা রাস্তা অবরোধ নয়।

তিনি বলেন, শ্রমিকদের আন্দোলনে রাজনীতি ঢুকে পড়েছে। বিএনপির ইন্ধন রয়েছে, অবশ্যই ইন্ধন আছে। আমরা সেটিই বলতে চেয়েছি।


আরও খবর
ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মারা গেছেন

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩

ফের শ ম রেজাউল করিমকে চায় ভোটাররা

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩




নিউমোনিয়ার ঝুঁকি এড়াতে করণীয়

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

শীতে তাপমাত্রার ওঠানামা অনেক বেশি। কোন কোন দিন আবার সারাদিন বৃষ্টি থাকছে। এই রকম আবহাওয়ায় সুস্থ থাকাটা চ্যালেঞ্জর। শীতে অন্য রোগের থেকে নিউমোনিয়া হওয়ার ঝুঁকির পরিমাণটা বেশি। দেখা যায়, বাচ্চাদের নিউমোনিয়া বেশি হয়ে থাকে। এ সময় সংক্রমণের ঝুঁকিও বাড়ে। তাই যতটা সম্ভব সর্তক থাকার চেষ্টা করতে হবে।

নিউমোনিয়া ফুসফুসের সংক্রমণের কারণে হতে পারে। এ রোগ ফুসফুসে পানি জমেও হতে পারে। শুরুতে গুরুত্ব না দিলে পরর্বতীতে বড় ধরণের ক্ষতি হতে পারে। কয়েকটি নিয়ম মেনে চললে নিউমোনিয়া থেকে নিজেদেরকে সুরক্ষিত রাখা যায়।

বার বার হাত ধোঁয়া

যতটা সম্ভব চেষ্টা করতে হবে হাত পরিষ্কার রাখা। বার বার হাত ধোঁয়ার অভ্যাস করুন। হাত ধুতে না পারলেও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা। এছাড়াও, হাত না ধুয়ে কোন কিছু না খাওয়া। খেতে বসার আগে সাবান দিয়ে ভালো ভাবে হাত ধুয়ে নিন।

গরম পোশাক পরুন

যাদের ঠাণ্ডার সমস্যা আছে তারা শীতে সবসময় গরম পোশাক পরে থাকার চেষ্টা করুন। শিশুরা অনেক সময় শরীরে গরম কাপড় বেশিক্ষণ পড়ে থাকতে চাই না তাই তাদের দিকে বিশেষ নজর রাখা উচিত। রাতে বাইরে বের হলেও মাথা ও কান মাফলারে মুড়িয়ে রাখতে চেষ্টা করুন।

স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া

বাজার ভরা শীতকালের নানান শাকসবজি। ফাইবার, ভিটামিন, কার্বোহাইড্রেটে সমৃদ্ধ খাবার শীতে অন্য রোগের সঙ্গে লড়াই করার শক্তি জোগায়। এছাড়াও, ভিটামিন সি আছে এমন খাবার যেমন জলপাই, কমলা, লেবু ইত্যাদি প্রচুর পরিমাণে খেতে হবে। এগুলো একপ্রকার প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে।

 


আরও খবর
জেনে নিন পেঁয়াজের যত অপকারিতা

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩

পেস্ট্রি খাওয়ার দিন আজ

শনিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩