আজঃ শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪৮ লাখ ৬৪ হাজার

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৩৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৮৫ হাজার ৮৯৫ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৭৫ হাজার

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৪৮ লাখ ৬৪ হাজারের বেশি মানুষ। একইসঙ্গে শনাক্ত হয়েছেন ২৩ কোটি ৮৬ লাখের উপরে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সাড়ে ৬ হাজারের বেশি মানুষ। একই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে পৌনে চার লাখের গণ্ডি।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। অন্যদিকে দৈনিক মৃত্যুতে এরপরই রয়েছে রাশিয়া।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬ হাজার ৬৭৮ জন।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৮৫ হাজার ৮৯৫ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৭৫ হাজার।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ৪৭৮ জন এবং মারা গেছেন ১ হাজার ৪৬৫ জন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে রাশিয়া। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ৯৭৩ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২৮ হাজার ১৯০ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৭৬ জন এবং নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৭ হাজার ৩৫৯ জন।

এদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২২৯ জন এবং নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ২১ জন।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত‌্যু

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

ডেঙ্গু: আরও ১২৩ জন হাসপাতালে

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১




শাহরুখের ছেলের বান্ধবী কে এই মুনমুন ?

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৬১৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পার্টি থেকে আরিয়ানের সঙ্গেই গ্রেপ্তার হয়েছেন মুনমুন। তাঁর স্যানিটারি প্যাডে লুকিয়ে রাখা ছিল মাদক। শাহরুখের ছেলের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব নিয়েও কথা উঠেছে ভারতীয় নানা সংবাদমাধ্যমে। কে এই মুনমুন? কী করেন তিনি?

জানা গিয়েছে, ধনার্ঢ্য ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে মুনমুন। পেশায় মডেল। পেশার সূত্রেই বলিউড তারকাদের সঙ্গেও তাঁর ওঠাবসা। গুরু রান্ধাওয়া, অর্জুন রামপালের মতো বলিউড তারকা রয়েছেন সেই তালিকায়। ইনস্টাগ্রামেও বেশ জনপ্রিয় মুনমুন। সেখানে তাঁর অনুসারীর সংখ্যা দশ হাজারেরও বেশি।

নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) এর জিজ্ঞাসাবাদে মাদক নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন মুনমুন। সোমবার আরিয়ানের সঙ্গেই আদালতে তোলা হয় তাঁকে। তাদেরকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত এনসিবি হেফাজতে রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এনসিবির দাবি, জুতো থেকে শুরু করে চোখের লেন্সের বাক্সে লুকানো ছিল আরিয়ানদের মাদক। আরিয়ানদের কাছ থেকে পাওয়া গেছে ১৩ গ্রাম কোকেন, ৫ গ্রাম এমডি, ২১ গ্রাম চরস, ও এমডিএমএর ২২ টি পিল এবং নগদ এক লক্ষ তেত্রিশ হাজার টাকা। একাধিক ধারায় মামলা করা হয়েছে আরিয়ানের বিরুদ্ধে। নারকোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস ১৯৮৫ আইনের ৮সি, ২৭, ২২ নম্বর ধারা, এছাড়া এমডিএমএ ও এক্সট্যাসি আইনের  অন্তর্গত ১৪(১), ১৪ (বি), ২০(বি) ধারায় মামলা করা হয়েছে আরিয়ানের বিরুদ্ধে।

এনসিবির সূত্রে জানা গেছে, আরিয়ান খান এবং আরবাজ মার্চেন্ট এনসিবিকে সঠিকভাবে বলছেন না যে, কে তাদের মাদক সরবরাহ করতেন? আরবাজ বলছেন যে গোয়ার একজন মাদক সরবরাহকারী তাকে মাদক সরবরাহ করত। মুনমুন জানান, আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে একটি পাঁচতারা হোটেলের কাছে একজন মাদক ব্যবসায়ী তাকে কিছু মাদকদ্রব্য দিয়েছিলেন। কিন্তু সঠিক নাম কেউই বলছেন না। জেরা করার জন্য সোমবার আরবাজ ও আরিয়ানের বিশেষ বন্ধু শ্রেয়স নায়ারকে গ্রেপ্তার করতে পারে এনসিবি।

শনিবার রাতে এক মাদক পার্টি থেকে শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান সহ আটজনকে আটক করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। আরিয়ানের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য সেবন ও মাদক কেনা বেচার গুরুতর অভিযোগ এনেছে এনসিবি। দীর্ঘ ১৬ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর বাজেয়াপ্ত করা হয় আরিয়ানের ফোন। খতিয়ে দেখা হয়, শেষ কয়েকদিন কার কার সঙ্গে ফোনে ও হোয়াটস অ্যাপে কথা বলেছেন আরিয়ান।

এরপরই আরিয়ান খান, আরবাজ মার্চেন্ট ও মুনমুন ধামেচা, নুপূর সারিকা, ইশমিত সিং, মোহক জয়সওয়াল, বিক্রান্ত চোকার, গোমিত চোপড়াকে গ্রেপ্তার করে এনসিবি। রবিবার আদালতে আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানশিণ্ডে জানান যে এই পার্টিতে যাওয়ার টিকিটও ছিল না আরিয়ানের কাছে, তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এমনকি আরিয়ানের কাছে কোনও মাদকদ্রব্য ছিল না। তাই তাঁকে গ্রেপ্তার করাই ভুল, বলে দাবি করেন আইনজীবী।

নিউজ ট্যাগ: শাহরুখের ছেলে

আরও খবর



নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে এমএসএস

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | ৩২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে স্বেচ্ছাসেবী উন্নয়ন সংস্থা মানবিক সাহায্য সংস্থা (এমএসএস)। প্রতিষ্ঠানটিতে নয়টি ভিন্ন পদের বিপরীতে মোট ৪৫৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনে মাধ্যমে সহজেই আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম

জোনাল ম্যানেজার, ক্লাস্টার ম্যানেজার, এরিয়া ম্যানেজার, শাখা ব্যবস্থাপক, শাখা ব্যবস্থাপক (এমএসএমই), লোন অ্যান্ড সেভিংস অফিসার (এমএসএমই), শাখা হিসাবরক্ষক, কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার, প্রশিক্ষণার্থী কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার।

শিক্ষাগত যোগ্যতা  ও অভিজ্ঞতা

জোনাল ম্যানেজার, ক্লাস্টার ম্যানেজার, এরিয়া ম্যানেজার, শাখা ব্যবস্থাপক, শাখা ব্যবস্থাপক (এমএসএমই), লোন অ্যান্ড সেভিংস অফিসার (এমএসএমই), শাখা হিসাবরক্ষক, কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার, প্রশিক্ষণার্থী কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার।

কর্মস্থল: ঢাকা।

বেতন: জোনাল ম্যানেজার ও ক্লাস্টার ম্যানেজার পদের বেতন ৪৭০০০-৫৫০০০ টাকা,

এরিয়া ম্যানেজার পদের বেতন ৩৮০০০-৪২০০০ টাকা,

শাখা ব্যবস্থাপক পদের বেতন ৩০০০০-৩৬০০০ টাকা,

শাখা ব্যবস্থাপক (এমএসএমই) পদের বেতন ৩০০০০-৪০০০০ টাকা,

লোন অ্যান্ড সেভিংস অফিসার (এমএসএমই) পদের বেতন ২৫০০০-৩০০০০ টাকা,

শাখা হিসাবরক্ষক ও প্রশিক্ষণার্থী কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার পদের বেতন ১৮৪৬৬-১৬৩৩৪,

কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট অফিসার পদের বেতন ২০০০০-২৫০০০ টাকা। ।

আবেদনে প্রক্রিয়া

আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীকে আবেদনপত্র নির্বাহী পরিচালক, মানবিক সাহয্য সংস্থা (এমএসএস), ২৯ পশ্চিম পান্থপথ, ঢাকা-১২০৫, বরাবর পাঠাতে হবে।

আবেদনের শেষ তারিখ : ৩০ অক্টোবর, ২০২১।

নিউজ ট্যাগ: এমএসএস

আরও খবর
পুলিশে এসআই পদে নিয়োগ

শুক্রবার ০৮ অক্টোবর ২০২১




রামেক হাসপাতালে আরও ৫ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গেল ২৪ ঘণ্টায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়।

তবে পাঁচজনই করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। এর আগের দিন হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একজনের মৃত্যু হয়েছিল।

এছাড়া রাজশাহী জেলায় তুলনামূলকভাবে করোনা সংক্রমণের হারও কমে এসেছে। বর্তমানে রাজশাহীতে করোনা সংক্রমণের হার ৪ দশমিক ৩৯ শতাংশ।

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, মৃত পাঁচজনের মধ্যে রাজশাহীর দুজন এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ ও পাবনার একজন করে রোগী ছিলেন। তাদের তিনজন পুরুষ ও দুজন নারী। তারা করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। ভর্তির পর করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহের আগেই তাদের মৃত্যু হয়।

চলতি মাসে এ নিয়ে মোট ১৪৪ জনের মৃত্যু হলো। এর আগে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আগস্টে ৩৬৪ জন, জুলাইয়ে ৫৩১ জন এবং জুনে ৪০৫ জন মারা গেছেন।

শামীম ইয়াজদানী আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ৩০ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১৯ জন। এনিয়ে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ২৪০ বেডের বিপরীতে মোট ভর্তি রোগী আছেন ১১৬ জন।


আরও খবর



সিনহা হত্যা মামলা : পঞ্চম দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১১ অক্টোবর ২০২১ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
এর আগে আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে মামলার ১৫ আসামিকে প্রিজন ভ্যানে করে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আদালতে নেওয়া হয়

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় পঞ্চম দফার দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ২৭তম সাক্ষী সেনাসদস্য সার্জেন্ট জিয়াউর রহমানের সাক্ষ্যগ্রহণের মধ্য দিয়ে আদালতের বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়।

কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম জানিয়েছেন, আজ সিনহা হত্যা মামলায় পাঁচজন সাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করা হয়। এর মধ্যে দুজন সেনাসদস্য, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতালের দুজন কর্মচারী (ডোম) ও একজন পুলিশ কনস্টেবল রয়েছেন।

অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম আরও জানান, গতকাল রোববার পর্যন্ত এ মামলার ২৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। গতকাল এক সেনা কর্মকর্তাসহ ছয়জন সেনাসদস্য সাক্ষ্য দিয়েছেন।

এর আগে আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কক্সবাজার জেলা কারাগার থেকে মামলার ১৫ আসামিকে প্রিজন ভ্যানে করে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আদালতে নেওয়া হয়।

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, গত বছরের ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

এ ঘটনায় সে সময় সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস বাদী হয়ে টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও বাহারছড়া তদন্তকেন্দ্রের সাবেক ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ নয় পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মামলায় প্রধান আসামি করা হয় লিয়াকত আলীকে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে র‌্যাবকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় একটি এবং রামু থানায় আরেকটি মামলা করে। এরপর মেজর সিনহা নিহতের ছয় দিন পর লিয়াকত আলী ও ওসি প্রদীপসহ সাত পুলিশ সদস্য আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে ঘটনায় সংশ্লিষ্টতা পাওয়ার অভিযোগে টেকনাফ থানায় পুলিশের করা মামলার তিন সাক্ষী এবং শামলাপুর চেকপোস্টে ঘটনার সময় দায়িত্ব পালনকারি আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর টেকনাফ থানার সাবেক কনস্টেবল রুবেল শর্মাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। গত ২৪ জুন মামলার অন্য পলাতক আসামি টেকনাফ থানার সাবেক এএসআই সাগর দেব আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

আসামিদের মধ্যে ওসি প্রদীপ ও কনস্টেবল রুবেল শর্মা ছাড়া অন্য ১২ জন আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তদন্ত শেষে গত বছর ১৩ ডিসেম্বর মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা তৎকালীন র‌্যাব-১৫-এর সহকারী পুলিশ সুপার মো. খাইরুল ইসলাম ১৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এতে সাক্ষী করা হয় ৮৩ জনকে।


আরও খবর



টাকা-স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে একসঙ্গে ৩ বান্ধবী উধাও

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | ৮০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর পল্লবীতে কলেজ পড়ুয়া তিন বান্ধবী বাসা থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, স্কুল সার্টিফিকেট ও মূল্যবান সামগ্রী নিয়ে উধাও হয়ে গেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পরিবারের সদস্যরা তাদের খুঁজে পাচ্ছেন না। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

পরিবারের দাবি বিদেশে নেওয়ার প্রলোভনে তাদেরকে নিয়ে গেছে একটি নারী পাচারকারী চক্র। এ জন্য তারা বাসা থেকে অর্থ ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে পালিয়েছে।  

নিখোঁজ তিন শিক্ষার্থী হলেন, কাজী দিলখুশ জান্নাত নিসা, কানিজ ফাতেমা ও স্নেহা আক্তার। তারা সবাই দ্বাদশ শ্রেণির  শিক্ষার্থী।

এর মধ্যে নিসা মিরপুর গার্লস আইডিয়াল ল্যাবরেটরি ইনস্টিটিউট, স্নেহা পল্লবী ডিগ্রি কলেজ ও কানিজ দুয়ারিপাড়া কলেজের শিক্ষার্থী।

এ ঘটনায় নিসার মা মাহমুদা আক্তার শুক্রবার পল্লবী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে যাদের বিবাদী করা হয়েছে, তারা হলেন তরিকুল, রকিবুল ও জিনিয়া। এর মধ্যে জিনিয়া টিকটকের পরিচিত মুখ। আর তরিকুল ও রকিবুল সহোদর। 

অভিযোগে মাহমুদা জানান, তার মেয়ে নিসা ও তার দুই বান্ধবী কানিজ ফাতেমা ও স্নেহাকে বিদেশে নেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ঘরছাড়া করেছে একটি নারী পাচারকারী চক্র। পরিবারের কাউকে কিছু না বলে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল  ৯টায় সবাই নিজ নিজ বাসা থেকে একযোগে বের হয়। বের হওয়ার সময় সবাই বাসা থেকে কয়েক লাখ টাকা, গহনা, স্কুল সার্টিফিকেট ও দামি মোবাইল নিয়ে গেছে।

জান্নাতের বড় বোন আইনজীবী কাজী রওশন দিল আফরোজ বলেন, আমার বোন ও তার বান্ধীদের বিদেশে নেওয়ার প্রলোভন দেখানো হয়েছে। এ জন্য তারা গতকাল প্ল্যানিং করে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে। গতকাল সকালে সবাই কলেজের পোশাক পরে বের হয়েছে। সবার কাঁধে কলেজের ব্যাগ ছিল।

তাদের মহল্লার প্রতিবেশী তরিকুল, রকিবুল ও জিনিয়া এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে দাবি করেন তিনি।

পল্লবী থানার এসআই সজিব খান বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর তরিকুলকে আটক করেছি। তাকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পল্লবী থানার ওসি পারভেজ ইসলাম  বলেন, আমরা এ ব্যাপারে তদন্ত করছি।


আরও খবর
শাহবাগে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১