আজঃ সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১০ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
মোঃ রাসেল আহমেদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

Image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৬ আসনের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে হয়েছে। যাচাই-বাছাইয়ে ৫৫ জন প্রার্থীর মধ্যে ১০ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষনা করেছে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা। রবিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ শাহগীর আলমের সভাপতিত্বে এ বাছাই কার্যক্রম চলে। এতে বিভিন্ন দলের প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী ও তাদের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। যাচাই-বাছাইয়ে আওয়ামীলীগ মনোনীত সকল প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়। তবে বাতিল হয়েছে আওয়ামীলীগের ৬ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে ৪ বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী সদ্য বহিস্কৃত বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা সৈয়দ এ.কে একরামুজ্জামানের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে।

যাদের মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে তারা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনের আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী এ. টি. এম মনিরুজ্জামান সরকার ও রোমা আক্তার, ওয়ার্কার্স পার্টির প্রার্থী মোহাম্মদ বকুল হুসেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর-বিজয়নগর) আসনের আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ফিরোজুর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ জহিরুল হক চৌধুরি, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ কাজী জাহাঙ্গীর। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪ (কসবা-আখাউড়া) আসনের বাংলাদেশ কংগ্রেস এর মনোনীত প্রার্থী বজলুর রহমান মিলন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ (নবীনগর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ মোস্তাক এবং আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী নজরুল ইসলাম ভুইয়া। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ (বাঞ্ছারামপুর) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী সফিকুল ইসলাম। তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে দাখিল করা সকল মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনে মনোয়নপত্র বৈধ ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় সৈয়দ এ. কে. একরামুজ্জামান বলেন, 'নাসিরনগরের মানুষ পরিবর্তন চায়। এই পরিবর্তন এবং এলাকার উন্নয়নের জন্য যা যা করা প্রয়োজন- আমি তাই করব। জয়ের ব্যাপারে আমি আশাবাদী।'

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ার পর ফিরোজুর রহমান বলেন, 'বাছাইয়ের সময় আমাকে জানানো হয়েছে একজন ভোটার স্বাক্ষরের কথা অস্বীকার করছেন। তবে আমাকে কথা বলার সুযোগ দেওয়া হয়নি। আপীল করতে বলা হয়েছে। আমি আইনের সর্বোচ্চ পর্যায় পর্যন্ত যাবো।'

জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটানিং কর্মকর্তা মো: শাহগীর আলম জানান, জমা দেয়া ভোটার স্বাক্ষর অবৈধ, আয়কর জমা না দেয়াসহ আবেদনে ত্রুটির কারণে তাদের মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষনা করা হয়েছে। তারা নির্বাচন কমিশনে ৫ থেকে ৯ ডিসেম্বরের মধ্যে আপিল করতে পারবেন।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




৩৮৪ স্কোরে ঢাকার বাতাস আজ ‘বিপজ্জনক’

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বিশ্বজুড়ে বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা আইকিউ এয়ারের তথ্য অনুযায়ী রবিবার (০৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার বাতাসের মান দুর্যোগপূর্ণ বা বিপজ্জনক। এদিন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ৩৮৪ স্কোর নিয়ে বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ঢাকা।

একইসময়ে ৪২০ স্কোর নিয়ে দূষিত বায়ুর শহরের তালিকার প্রথম স্থানে রয়েছে পশ্চিম আফ্রিকার দেশ ঘানার আক্রা। ১৯৭ স্কোর নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পাকিস্তানের করাচি। এরপর ১৮২ স্কোর নিয়ে চার নম্বরে ভারতের মুব্বাই ও ১৭৯ স্কোর নিয়ে শীর্ষ পাঁচে আছে ভারতের ‍দিল্লি।

সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (আইকিউ) এয়ার দূষিত বাতাসের শহরের এ তালিকা প্রকাশ করে। প্রতিদিনের বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা একিউআই স্কোর একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটুকু নির্মল বা দূষিত, সে সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং তাদের কোনো ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হতে পারে কি না, তা জানায়।

তথ্যমতে, একিউআই স্কোর শূন্য থেকে ৫০ ভালো হিসেবে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ মাঝারি হিসেবে গণ্য করা হয়। আর সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। ১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়।

একইভাবে একিউআই স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে থাকলে খুব অস্বাস্থ্যকর এবং স্কোর ৩০১ থেকে ৪০০ এর মধ্যে থাকলে ঝুঁকিপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়। বায়ুদূষণ গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে। এটা সব বয়সী মানুষের জন্য ক্ষতিকর। তবে শিশু, অসুস্থ ব্যক্তি, প্রবীণ ও অন্তঃসত্ত্বাদের জন্য বায়ুদূষণ খুবই ক্ষতিকর।


আরও খবর
ছুটির দিনেও ঢাকার বায়ু ‌‘অস্বাস্থ্যকর’

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বরিশালে যোগ দিচ্ছেন ডেভিড মিলার

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

ফরচুন বরিশালের শক্তি বাড়াতে আসছেন দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ব্যাটসম্যান ডেভিড মিলার। আগামীকাল সকালে তার ঢাকার পৌঁছানোর কথা।

পরশু চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে এলিমিনেটর ম্যাচ দিয়ে প্রথমবারের মতো বিপিএলে খেলতে নামবেন এই বাঁহাতি হার্ড হিটার।

এদিকে ফরচুন বরিশালের স্থানীয় ক্রিকেটাররা আছেন দারুণ ছন্দে। দলের অধিনায়ক ও ওপেনার তামিম ইকবালের ব্যাট হাতে দারুণ সময় কাটছে। বিপিএলের রান সংগ্রাহকদের তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছেন তিনি। ১২ ম্যাচে ১২ ইনিংসে তামিমের রান ৩৯১, গড় ৩২, স্ট্রাইক রেট ১২৬।

বরিশাল দলে তামিম ছাড়াও মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ ও সৌম্য সরকারের মতো অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান আছেন। তাদের পারফরম্যান্সও ভালো।

মুশফিক ১২৩ স্ট্রাইক রেটে করেছেন ৩১৪ রান। সৌম্যর ২৪০ রান (স্ট্রা/রে ১২৯.৭২) ও মাহমুদউল্লাহ রান ২৩০ (স্ট্র/রে ১৩৬)। বরিশালের ব্যাটিং ভরসা স্থানীয় এই চার ব্যাটসম্যানই।

বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বে বরিশাল দল যোগ দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাইল মায়ার্স। টপ অর্ডারে বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের জন্য পরিচিত এই ক্যারিবীয়। নতুন বলে তার সুইং বোলিংও বেশ কার্যকর। আরেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ওবেদ ম্যাকয়ও ভালো করছেন, ৫ ম্যাচ খেলে নিয়েছেন ৯ উইকেট।

তাদের সঙ্গে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১৪৪ স্ট্রাইক রেটের ব্যাটসম্যান মিলারের সংযুক্তি বরিশালকে করে তুলবে আরও শক্তিশালী।


আরও খবর



সংখ্যা নয়, দক্ষ চিকিৎসক তৈরিই মূল লক্ষ্য: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সংখ্যা বাড়ানো নয়, দক্ষ চিকিৎসক তৈরির মূল লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কলাভবনে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, গতকালও বলেছি, আজও বলছি। আমরা সংখ্যায় নয়, দক্ষ চিকিৎসক তৈরি করতে চাই। সেই লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছি।

ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও ভালোভাবে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা জানিয়ে ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, সকালে বের হয়ে আমার বাসার কাছে তেজগাঁও কেন্দ্রে যাই। ওখানকার অবস্থা দেখার পর ঢাবিতে আসলাম। এখানে আসার পর রংপুর, সিলেট, চট্টগ্রাম ও খুলনাসহ দেশের সকল কেন্দ্রের দায়িত্বশীলদের সঙ্গে কথা বলেছি। পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি খুব কৃতজ্ঞ যে, আমার সহকর্মীরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন। আশা করি, তাদের সহযোগিতায় পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সুন্দরভাবে শেষ করতে পারব।

এবারের পরীক্ষায় যত রকমের পূর্ব সতর্কতা দরকার, সব রকমের ব্যবস্থা নেওয় হয়েছে। পরীক্ষায় প্রবেশে আর্চওয়ের ব্যবহার, সকাল ৮টায় প্রবেশ এবং এক মাস আগে কোচিং সেন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে, ফাঁস হওয়া প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে যারা চিকিৎসক হয়েছে, তাদের ব্যাপারে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে- জানতে চাইলে সামন্ত লাল সেন বলেন, আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোনো রকম ছাড় দেওয়া হবে না। কোনো রকম প্রশ্ন ফাঁস বা জালিয়াতি ছাড় দেব না।

বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিষয়টা আদালতে বিচারাধীন, আদালতের রায় প্রাপ্তির পর উপযুক্ত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দেশের ১৯টি কেন্দ্রের ৪৪ স্থানে এবারের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয় সকালে। এর মধ্যে ঢাকায় কেন্দ্র পড়েছে পাঁচটি, ঢাকার বাইরে রয়েছে ১৪টি। সরকারি-বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ মিলিয়ে ৬ হাজার ২৯৫ আসনে এবার ১ লাখ ৪ হাজার ৩৭৪ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় বসেছে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।


আরও খবর



ড. ইউনূসের মামলার বিষয়ে সরকারের কোনও হাত নেই: আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
মোঃ রাসেল আহমেদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া

Image

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, স্বাধীন দুর্নীতি দমন কমিশন মামলা করেছে। এখানে সরকারের কোনো হাত নেই বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

ড. ইউনুস তার বিরুদ্ধে মামলার ব্যাপারে জাতিসংঘের উদ্বেগের বিষয়ে শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে আখাউড়া রেলওয়ে স্টেশনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এর আগে তিনি ঢাকা থেকে আন্তঃনগর মহানগর প্রভাতী ট্রেনে সকাল সাড়ে ১০টায় আখাউড়া জংশন স্টেশনে এসে পৌঁছেন।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম জামিনে মুক্ত হয়ে আবারও আন্দোলনে নামার ঘোষণা দিয়েছেন তা কতটুকু কার্যকর হবে সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, সেটা বিএনপি বলতে পারে। তবে আপনারা নির্বাচন দেখেছেন। মানুষের স্বতঃস্ফূর্ততা দেখেছেন। আমার মনে হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে উন্নয়নের কাজ করবেন মানুষ সেদিকেই মনোযোগ দেবেন। বাংলাদেশে গণতন্ত্র আছে, তারা আন্দোলন করতে চেষ্টা করুক।

এর আগে মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাবেয়া আক্তার ও উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কাশেম ভূঁইয়া।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন আখাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-আহ্বায়ক মনির হোসেন বাবুল, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক আব্দুল মমিন বাবুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাব উদ্দিন বেগ শাপলু, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন নয়ন সহ স্টেশনে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




‘অনুমতি পেলে তিন মাসের মধ্যে আসতে পারে ডেঙ্গুর টিকা’

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
স্বাস্থ্য ডেস্ক

Image

অনুমতি পেলে আগামী তিন মাসের মধ্যে ডেঙ্গুর টিকা আসতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আহমেদুল কবির।

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর গুলশান-২ নম্বরের নগর ভবনে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতাধীন এলাকায় এডিস মশা এবং এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গু মোকাবিলায় বছরব্যাপী উত্তর সিটির প্রস্তুতি এবং করণীয় শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

আহমেদুল কবির বলেন, বিভিন্ন বেসরকারি ফার্মাসিটিক্যাল কোম্পানি ডেঙ্গুর টিকার সিড এনেছে। মার্চে ল্যাব রেগুলারিটি পারমিশন পেলেই তিন মাসের মধ্যে আসতে পারে ডেঙ্গুর ভ্যাকসিন।

ডেঙ্গু মোবাবিলা ও কর্মপরিকল্পনা প্রস্তুতি এবং পরামর্শ নিতে আলোচনায় অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহ, নিপসম পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক আহমেদুল কবির, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক অধ্যাপক ড. কবিরুল বাসার, সিডিসি সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ডা. বেনজির আহমেদ, নিপসম কীটতত্ত্ববিদ অধ্যাপক ড. গোলাম সারোয়ার, স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (সিডিসি) অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের আইইডিসিআর বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ডা. তাহমিনা শিরিন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ডা. আবু হোসেন, মো. মোইনুল আহসান, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন কামরুল ইসলাম, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. আনিছুর রহমান মিঞা, বাংলাদেশ রেলওয়ে মহাপরিচালক মো. কামরুল আহসান, জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান।

এছাড়াও রয়েছে বুয়েটের নগর পরিকল্পনাবিদ ইকবাল হাবিব, পিপিডব্লিউ পরিচালক মোহাম্মদ আশরাফ উদ্দিন, পিপিডব্লিউ উপ-পরিচালক সুব্রত কুমার দত্ত, মেট্রোরেল প্রকল্প ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম, এ, এন, ছিদ্দিক, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম, ডিএনসিসি ওয়াড কাউন্সিলর ডাঃ আব্দুল মতিন, ওয়াড কাউন্সিলর দেওয়ান আবদুল মান্নান, রিহাব সাবেক সভাপতি সামসুল ইসলাম আলামিন, আইসিডিডিআরবি বিজ্ঞানী রাশেদুল হক, ডিওএইচএস প্রতিনিধি মেজর শামস আহমেদ জিয়াসহ প্রমুখ।


আরও খবর