আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

বুস্টার ডোজে ফাইজারের বদলে মডার্না দেওয়ার নির্দেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সারাদেশে করোনাভাইরাসের টিকার বুস্টার ডোজে ফাইজারের বদলে মডার্নার টিকা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। শুধুমাত্র স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের জন্য এবং যারা প্রথম ডোজ ফাইজার পেয়েছিলেন, তাদের দ্বিতীয় ডোজের জন্য ফাইজারের টিকা সংরক্ষণ করতে হবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। বুধবার সারাদেশের টিকাদান কেন্দ্রগুলোতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমে দেশের সকল পর্যায়ে ভ্যাকসিনপ্রাপ্তি সাপেক্ষে তৃতীয় ডোজ হিসেবে ফাইজারের পরিবর্তে মডার্নার কোভিড-১৯ টিকা প্রদানের জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হল।

এক্ষেত্রে ফাইজার কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন শুধুমাত্র স্কুল ও কলেজগামী অর্থাৎ ১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের জন্য দুই ডোজ এবং যারা প্রথম ডোজ হিসেবে ফাইজার ভ্যাকসিন পেয়েছেন তাদের জন্য দ্বিতীয় ডোজ সংরক্ষণের বিষয়ে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।

গত ২৮ ডিসেম্বর সারাদেশে করোনাভাইরাসের টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

যাদের বয়স ৬০ বছরের বেশি এবং যারা কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামনের সারিতে আছেন, তাদের করোনাভাইরাসের টিকার বুস্টার ডোজ দেওয়া হচ্ছে। টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ছয় মাস পরে তারা বুস্টার ডোজ বা তৃতীয় ডোজ নিতে পারবেন।

যে আগে যে হাসপাতাল থেকে দুই ডোজ টিকা নিয়েছেন, সেই হাসপাতাল থেকে তার মোবাইলে বুস্টার ডোজের তারিখ জানিয়ে এসএমএস পাঠানো হচ্ছে। সেই কেন্দ্রে নির্ধারিত দিনে গিয়ে তৃতীয় ডোজ নিতে হচ্ছে।

দেশে এখন প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ হিসেবে ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা, সিনোফার্ম এবং সিনোভ্যাকের টিকা দেওয়া হচ্ছে। তবে বুস্টার ডোজ হিসেবে ফাইজার, মডার্না অথবা অ্যাস্ট্রাজেনেকা দেওয়ার সুপারিশ করেছে ন্যাশনাল ইমিউনাইজেশন টেকনিক্যাল কমিটি-নাইট্যাগ।


আরও খবর
করোনায় ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৪৮২৮

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




শেয়ারবাজারে মূল্যসূচকে লেনদেনে ধীরগতি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নতুন বছরের প্রথম দুই কার্যদিবস ঊর্ধ্বমূখী থাকার পর তৃতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) লেনদেনের শুরুতে শেয়ারবাজারে মূল্যসূচকের নিম্নমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে লেনদেনে ধীরগতি দেখা যাচ্ছে।

প্রথম ঘণ্টার লেনদেনে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১০ পয়েন্টের ওপরে পড়ে গেছে। আর লেনদেন হয়েছে তিনশ কোটি টাকার কম।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পাশাপাশি অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) প্রথম ঘণ্টার লেনদেনে সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে দাম কমার তালিকায় নাম লিখিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট।

এর আগে বছরের প্রথম দুই কার্যদিবস শেয়ারবাজারে মূল্য সূচকের উত্থান হয়। এতে দুদিনেই ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১২৫ পয়েন্ট বেড়ে যায়।

এ পরিস্থিতিতে বছরের তৃতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার ডিএসইতে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার মাধ্যমে। ফলে লেনদেনের শুরুতে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ৩ পয়েন্ট বেড়ে যায়।

তবে পরের মিনিটেই সূচক ঋণাত্মক হয়ে পড়ে। এরপর প্রথম ঘণ্টার লেনদেনে সূচক কয়েকবার ওঠা-নামা করলেও সূচক ঋণাত্মক থেকে যায়।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বেলা ১১টা ১০ মিনিটে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের তুলনায় ১৪ পয়েন্টে কমেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক কমেছে ১১ পয়েন্ট। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ৩ পয়েন্ট কমেছে।

এসময় পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ১৩৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৬৩টির। আর ৬৪টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ২৯২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৮ পয়েন্ট কমেছে। লেনদেন হয়েছে ৫ কোটি ১৬ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ১২৮ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৫৫টির, কমেছে ৫৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৯টির।

 


আরও খবর
শেয়ারবাজারে বড় দরপতন

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২

দাম বেড়েছে ১৩৭ কোম্পানির শেয়ারের

রবিবার ২৩ জানুয়ারী ২০২২




কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে কাজ করবেন স্টিভ রোডস

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ২৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২০১৯ সালে বিশ্বকাপের পর বাংলাদেশের দায়িত্ব ছেড়ে যখন যাচ্ছেন স্টিভ রোডস, তখন গিয়েছিলেন খানিকটা নিরবে-নিভৃতেই। তার প্রায় আড়াই বছর পর সেই রোডস যখন আবারও ফিরেছেন বাংলাদেশে, তখনও আলোড়ন পড়ল না তেমন। তবে এবার বাংলাদেশের কোচ হিসেবে নয়, জায়গা বদলে গেছে তার, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে কাজ করবেন তিনি।

পরিবর্তন আছে তার ভূমিকাতেও। আগেরবার তিনিই ছিলেন সর্বেসর্বা, মাশরাফি-সাকিবদের কোচ ছিলেন তিনি। এবার ভূমিকা বদলে যাচ্ছে তার। এখানে তিনি কাজ করবেন পরামর্শক হিসেবে। জানিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের একটি সূত্র।

কুমিল্লার হয়ে কাজ করতে রোডস বাংলাদেশে পা রেখেছেন ১৫ জানুয়ারি। তবে তখন তার ভূমিকা কী হবে এ বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। জাতীয় দলের সাবেক এই কোচকেই কি অবশেষে নিজেদের প্রধান কোচ করে নিচ্ছে? এমন গুঞ্জনও ছড়াচ্ছিল বেশ।

তবে অবশেষে জানা গেল, কোচ নয়, কুমিল্লায় রোডসের ভূমিকা হবে পরামর্শকের। দলটির কোচ হিসেবে আগে থেকেই আছেন স্থানীয় কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। তার সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করবেন ইংলিশ এই কোচ। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের একটি সূত্র ঢাকাপোস্টকে জানিয়েছে, স্টিভ রোডস গত পড়শু ঢাকায় পা রেখেছেন। তিনি দলের সঙ্গে কনসাল্ট্যান্ট হিসেবে কাজ করবেন।

বাংলাদেশ দলের হেড কোচ হিসেবে ২০১৮ সালের জুনে দায়িত্ব নিয়েছিলেন রোডস। অধরা বহুজাতিক টুর্নামেন্টের শিরোপাটা তার অধীনেই অর্জন করে বাংলাদেশ। সঙ্গে উইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজে জেতার কীর্তিও ছিল তার ঝুলিতে। তবু ২০১৯ বিশ্বকাপে ব্যর্থতার জেরে রোডসকে বরখাস্ত করে বিসিবি।

 

নিউজ ট্যাগ: স্টিভ রোডস

আরও খবর
মাঠে ফিরছেন মাশরাফি, বোলিংয়ে ঢাকা

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




পাকিস্তানে দুর্নীতি ও যৌন অপরাধ বাড়ছে : ইমরান খান

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, সমাজে দুই ধরনের অপরাধ বাড়ছে। এর একটি হলো দুর্নীতি। অন্যটি যৌন অপরাধ। বিভিন্ন বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে গতকাল রোববার বৈঠক করেন ইমরান খান। সেই বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি।

পাকিস্তানের পত্রিকা দ্য ডনের খবরে বলা হয়েছে, তরুণদের বিশ্বাস, ধর্ম ও নৈতিক মূল্যবোধের ওপর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে যে আঘাত হানা হচ্ছে, তা থেকে রক্ষার উপায় খুঁজতে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এ বৈঠকে ইমরান খান বলেন, আমাদের সমাজে যৌন অপরাধ ব্যাপক হারে বাড়ছে। এর মধ্যে রয়েছে ধর্ষণ, শিশুদের যৌন হয়রানি। এর এক শতাংশের খবর পাওয়া যায়। ন্যাশনাল রেহমাতুল-লিল-আলামিন অথরিটি এ সংলাপের আয়োজন করেছিল।

ইমরান খান বলেন, যৌন অপরাধের বিরুদ্ধে সমাজের লড়াই করতে হবে। দুর্নীতি ক্ষেত্রেও একই পদক্ষেপ নিতে হবে। সমাজে দুর্নীতিবাজদের অগ্রহণযোগ্য করে তুলতে হবে। কিন্তু হতাশার বিষয় হলো আমাদের নেতারা যখন দীর্ঘদিন ধরে দুর্নীতি করে, তখন এই দুর্নীতি গ্রহণযোগ্য হয়ে যায়।

এদিক আলোচনা সভায় বিশেষজ্ঞরা ইঙ্গিত দিয়েছেন, মুসলিম দেশগুলোকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। আধুনিকায়নের যে নেতিবাচক প্রভাবগুলো রয়েছে, সেগুলোর মোকাবিলা করতে এই দেশগুলোকে এক হয়ে কাজ করতে হবে।

এ আলোচনায় অংশ নিয়েছিলেন জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক সাইয়্যেদ হোসেন নাসর। তিনি বলেন, এই সময় তরুণদের জন্য অনিশ্চিত ও বিপজ্জনক।


আরও খবর
সৌদি আরবে প্রতি ঘণ্টায় ৭ ডিভোর্স

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




শামীম ওসমানের প্রার্থী তৈমূর: আইভী

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আইভী বলেন, ২০১৬ সালে শামীম ওসমান ধানের শীষের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন; নৌকার বিরুদ্ধে ধানের শীষে সিল মেরেছেন

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, তৈমূর আলম খন্দকার গডফাদার শামীম ওসমান ও সেলিম ওসমানের প্রার্থী। তিনি বিএনপিরও প্রার্থী নন, জনতারও প্রার্থীও নন; শামীম ওসমান তাকে প্রার্থী করেছেন। উনি বিএনপির প্রার্থী হলে ধানের শীষেই নির্বাচন করতেন।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরে বন্দরের ২৪ নং ওয়ার্ডের দেউলি চৌরাপাড়া এলাকায় নির্বাচনি প্রচারণায় গিয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

আইভী বলেন, ২০১৬ সালে শামীম ওসমান ধানের শীষের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন; নৌকার বিরুদ্ধে ধানের শীষে সিল মেরেছেন। উনি ১৯৯৬ সালে নাজমা রহমানের নৌকা কেড়ে নিয়েছেন; তার ভাইয়ের পক্ষে লাঙলের হয়ে ব্যালট বাক্স লুট করেছেন। উনি কেমন আওয়ামী লীগ করেন? কিসের আওয়ামী লীগ করেন? উনি সুবিধাবাদী।

তিনি বলেন, আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে গডফাদাররা, মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে অপশক্তি, আনাগোনা শুরু হয়েছে সন্ত্রাসীদের। যেভাবে আমরা আগে এসব অপশক্তিকে দমন করেছি সেভাবে আবারও এই দন্তবিহীন বাঘকে, হাতিকে দমন করতে চাই; সন্ত্রাসীদের দমন করতে চাই। আমার পাশে আসুন। গতকাল বন্দরে প্রচারণা চালিয়েছেন তৈমূর আলম খন্দকার। সেলিম ওসমানের জাতীয় পার্টির চারজন চেয়ারম্যান তার সঙ্গে ছিলেন। এতে প্রমাণিত হয় সারা নারায়ণগঞ্জে যে গুঞ্জন ছিল যে তৈমূর আলম খন্দকার গডফাদার শামীম ওসমানের ক্যান্ডিডেট, গতকাল তা প্রমাণিত হয়েছে।  

উন্নয়ন প্রসঙ্গে আইভী বলেন, আমি বন্দরবাসীর জন্য সুখবর দিতে চাই, সেটি হলো কদমরসুল ব্রিজ হয়ে যাবে অচিরেই। কোভিডের জন্য পিছিয়ে গিয়েছিল, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে টেন্ডার হয়ে যাবে। নদীর এপারে আমি প্রচুর পার্ক ও খেলার মাঠ করেছি। আমি রাস্তাঘাট, ড্রেন,খেলার মাঠসহ প্রচুর কাজ করেছি। বন্দরে প্রতিটি ওয়ার্ডে খেলার মাঠ করেছি, অনেক ওয়ার্ডে ২টা মাঠও আছে। আমাকে এবার শীতলক্ষ্যা নদী নিয়ে কাজ করতে হবে। নদীর দুই পাড় বাঁধাই করে দেব।

দলের সমর্থন প্রসঙ্গে আইভী বলেন, আওয়ামী লীগে দ্বন্দ্ব আছে কি না জানি না। সব নেতাকর্মী আমার সঙ্গে। ওয়ার্ড লেভেল পর্যন্ত নেতাকর্মীরা আমার পাশে আছে। একমাত্র তিনি (শামীম ওসমান) দলের বাইরে গিয়ে তার লোকজনকে তৈমূর সাহেবের সঙ্গে দিচ্ছে। হাইকমান্ড কালকে সব দেখেছে। এখানে অনুষ্ঠান হয়েছে, পত্রপত্রিকায়ও খবর এসেছে।

তিনি বলেন, আমি নির্বাচন করি জনতার শক্তিতে। জনতাই আমার শক্তি, দল আমার মনোবল। এসব মিলিয়ে আমি নির্বাচন করি। আমি কোনো গডফাদারের দিকে তাকিয়ে নির্বাচন করি না।

নিউজ ট্যাগ: নারায়ণগঞ্জ

আরও খবর



তীব্র শৈত্যপ্রবাহ দিয়ে শুরু হতে পারে নতুন বছর

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলতি বছরের বাকি দিনগুলোতে আবহাওয়ার তেমন কোনো পরিবর্তনের পূর্বাভাস নেই। তবে নতুন বছর শুরু হতে পারে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ দিয়ে। যা শেষ পর্যন্ত তীব্র শৈত্যপ্রবাহে বিস্তার লাভ করতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

রোববার (২৬ ডিসেম্বর) আবহাওয়া অধিদফতর থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ মো. বজলুর রশিদ বলেন, বছরের শেষ দিকে তাপমাত্রা পরিবর্তনের তেমন কোনো পূর্বাভাস নেই। এছাড়া শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভের কোনো ধরনের আশঙ্কা নেই বছরের শেষ দিনগুলোতে। তেঁতুলিয়া ছাড়া দেশের সব অঞ্চলে আগামী কয়েকদিন ১০-১৬ ডিগ্রির মধ্যে তাপমাত্রা ওঠা-নামা করতে পারে। আর তেঁতুলিয়াতে আগামী কয়েকদিনে তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নামতে পারে।

এছাড়া আগামী ২৮, ২৯ ও ৩০ ডিসেম্বর রাজশাহী এবং রংপুর বিভাগে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে।

নতুন বছরের শুরুতে শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভের সম্ভাবনা আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেহেতু জানুয়ারি মাস সবচেয়ে শীতলতম মাস। সেহেতু ওই মাসে একাধিক শৈত্যপ্রবাহ বিস্তার লাভের সম্ভাবনা রয়েছে। মৃদু শৈত্যপ্রবাহ দিয়ে শুরু হয়ে তা মাঝারি আকার ধারণ করে শেষ পর্যন্ত তীব্র শৈত্যপ্রবাহে বিস্তার লাভ করতে পারে।


আরও খবর