আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

চলতি মাসে এলপি গ্যাসের মূল্য ঘোষণা আজ

প্রকাশিত:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

ভোক্তাপর্যায়ে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলপিজি) নতুন মূল্য নির্ধারণের ঘোষণা হবে আজ। রোববার (৩ ডিসেম্বর ) দুপুর তিনটায় নতুন দর ঘোষণা করবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।

সংস্থাটি আমদানিকৃত পণ্যটির মূল্য নির্ধারণের কাজ করে থাকে। এর আগে নভেম্বর মাসে এলপি গ্যাসের দাম ১ হাজার ৩৬৩ টাকা থেকে ১৮ টাকা বাড়িয়ে ১ হাজার ৩৮১ টাকা নির্ধারণ করেছিল বিইআরসি।

তাছাড়া বেসরকারি এলপিজির রিটেইলার পয়েন্টে ভোক্তাপর্যায়ে মূসকসহ মূল্য প্রতি কেজি ১১৫ টাকা ৯ পয়সায় সমন্বয় করা হয়। এছাড়া রেটিকুলেটেড পদ্ধতিতে তরল অবস্থায় সরবরাহকৃত বেসরকারি এলপিজির ভোক্তাপর্যায়ে মূসকসহ মূল্য প্রতি কেজি ১১১ টাকা ২৬ পয়সায় সমন্বয় করা হয়।

পাশাপাশি ভোক্তাপর্যায়ে অটোগ্যাসের দাম মূসকসহ প্রতি লিটারের মূল্য ৬৩ টাকা ৩৬ পয়সায় সমন্বয় করা হয়েছিল।


আরও খবর
২৪ দিনে প্রবাসী আয় ১৮ হাজার কোটি টাকা

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নান্নু আউট, প্রধান নির্বাচক হলেন আশরাফ হোসেন লিপু

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

গত ডিসেম্বরেই জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ জাতীয় দলের নির্বাচক প্যানেলের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল। আগে থেকেই গুঞ্জন ছিল, প্রধান নির্বাচকের পদে নান্নুর সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করবে না বিসিবি। সেটিই সত্যি হলো। তার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন না করে এই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে আরেক সাবেক ক্রিকেটার গাজী আশরাফ হোসেন লিপুকে।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) মিরপুরের শের-ই-বাংলায় বিসিবির বোর্ড সভা শেষে নান্নুর জায়গায় লিপুর নাম ঘোষণা করেন বিসিবি সভাপতি ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন।

নান্নুর নেতৃত্বে গত নির্বাচক প্যানেলে ছিলেন হাবিবুল বাশার সুমন ও আব্দুর রাজ্জাকও। এর মধ্যে বাদ পড়েছেন সাবেক অধিনায়ক সুমন। তার বদলে জায়গা হয়েছে হান্নান সরকারের। তবে নতুন প্যানেলেও থাকছেন সাবেক স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক।

নতুন নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু এর আগেও বিসিবির বিভিন্ন দায়িত্ব সামলেছেন। বিসিবির সাবেক পরিচালক তিনি। এছাড়া ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান এবং বিপিএল গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব সামলেছেন তিনি।


আরও খবর
হাথুরুসিংহেকে ‘শোকজ’ করবেন পাপন!

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




খুবই অস্বাস্থ্যকর বায়ু নিয়ে ঢাকা আজ দ্বিতীয়

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ঢাকার বাতাসের মান আজ খুব অস্বাস্থ্যকর হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। সেই সঙ্গে দূষণ মাত্রার দিক থেকে তালিকায় ঢাকার অবস্থান দ্বিতীয়। শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা ২২ মিনিটে বায়ুর মান পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্সের (আইকিউএয়ার) সূচক থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

তালিকার শীর্ষে অবস্থান করা দিল্লির বায়ুর মানের স্কোর হচ্ছে ২২৩ অর্থাৎ সেখানকার বায়ু খুবই অস্বাস্থ্যকর পর্যায়ে রয়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ঢাকা। শহরটির স্কোর হচ্ছে ২০৩ অর্থাৎ এখানকার বায়ুর মানও খুব অস্বাস্থ্যকর। সূচকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তানের করাচি এবং শহরটির স্কোর হচ্ছে ২০২। এর অর্থ দাঁড়ায় সেখানকার বায়ুর মানও খুব অস্বাস্থ্যকর

১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে হলে বাতাসের মান 'সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর', ১৫০ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে অস্বাস্থ্যকর বলে মনে করা হয়।

২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে 'খুব অস্বাস্থ্যকর' বলা হয়, ৩০১+ একিউআই স্কোরকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।

বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের ৫টি বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে। সেগুলো হলো- বস্তুকণা (পিএম১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ ও ওজোন (ও৩)।

দীর্ঘদিন ধরে বায়ু দূষণে ভুগছে ঢাকা। এর বাতাসের গুণমান সাধারণত শীতকালে অস্বাস্থ্যকর হয়ে যায় এবং বর্ষাকালে কিছুটা উন্নত হয়।

২০১৯ সালের মার্চ মাসে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ঢাকার বায়ু দূষণের তিনটি প্রধান উৎস হলো- ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলো।


আরও খবর
ছুটির দিনেও ঢাকার বায়ু ‌‘অস্বাস্থ্যকর’

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




এক মাসে পোশাক থেকেই এলো ৫ বিলিয়ন ডলার

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

অর্থনীতিতে সুখবর দিয়েই শুরু হয়েছে ২০২৪ সালের জানুয়ারি মাস। এ মাসে বৈদেশিক মুদ্রা আহরণে অন্তত তিনটি রেকর্ড হয়েছে। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সর্বশেষ প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সদ্য বিদায়ী জানুয়ারি মাসে প্রায় ৫ বিলিয়ন ডলারের (৪.৯৭ বিলিয়ন) পোশাক রফতানি করেছে বাংলাদেশ। পোশাক রফতানির ইতিহাসে একক মাস হিসেবে এটাই সর্বোচ্চ। রফতানিতে যে নেতিবাচক প্রবণতা ছিল, সেটা কাটিয়ে ইতিবাচক ধারায় ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া একক মাস হিসেবে জানুয়ারিতে দেশে ২ দশমিক ১০ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে।

ইপিবির তথ্য অনুযায়ী, ২০২৩ সালের জানুয়ারির তুলনায় চলতি বছরের জানুয়ারিতে ১২ দশমিক ৪৫ শতাংশ বেশি পোশাক রফতানি হয়েছে। এ প্রসঙ্গে বিজিএমইএর মুখপাত্র ও পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল বলেন, একটি খুশির খবর হলোএকক মাস হিসেবে পোশাক রফতানিতে এই প্রথম ৫ বিলিয়ন ডলারের একটি মাইলফলক স্পর্শ করেছে এই খাত। তিনি উল্লেখ করেন, বাংলাদেশের জন্য ইতিবাচক দিকটি হলোআমরা ধীরে ধীরে আমাদের পণ্যে বৈচিত্র্য আনতে সক্ষম হচ্ছি এবং অত্যাধুনিক আইটেমগুলোর দিকে এগিয়ে যাচ্ছি, যা আয় বৃদ্ধিতে প্রতিফলিত হচ্ছে।

পোশাক বিক্রির মধ্যে দিয়ে পুরো রফতানি খাতে রেকর্ড করেছে বাংলাদেশ। ইপিবির তথ্য বলছে, আগের সব রেকর্ড ভেঙে সদ্য বিদায়ী জানুয়ারিতে বাংলাদেশের মোট রফতানি ৫ দশমিক ৭২ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে যা ১১ দশমিক ৪৫ শতাংশ বেশি। এর আগে একক মাস হিসেবে সর্বোচ্চ রফতানি হয়েছিল গত বছরের ডিসেম্বরে, যার পরিমাণ ছিল ৫ দশমিক ৩৭ বিলিয়ন ডলার।

ইপিবির তথ্য বলছে, চলতি অর্থবছরের (জুলাই-জানুয়ারি) এই সাত মাসে তৈরি পোশাক রফতানি করে বাংলাদেশের আয় হয়েছে ২৮ দশমিক ৩৬ বিলিয়ন ডলার। ২০২২-২৩ অর্থবছরের একই সময়ে পোশাক রফতানি করে আয় হয়েছিল ২৭ দশমিক ৪১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। অর্থাৎ সাত মাসের হিসাবে রফতানি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩ দশমিক ৪৫ শতাংশ।

ইপিবি বলছে, অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে নিটওয়্যার পোশাক রফতানি হয়েছে ১৬ দশমিক ১৭ বিলিয়ন ডলার, যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ বেশি। অবশ্য ধীরে ধীরে বাংলাদেশের ওভেন পোশাক রফতানি কমে যাচ্ছে। এই সাত মাসে ওভেন পোশাক রফতানি হয়েছে ১২ দশমিক ১৮ বিলিয়ন ডলারের। অর্থাৎ আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় রফতানি আয় কমছে ২ দশমিক ২০  শতাংশ।

এদিকে সার্বিকভাবে পোশাক রফতানির ক্রয়াদেশ বাড়তে শুরু করেছে। তৈরি পোশাক মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ গার্মেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) তথ্য অনুযায়ী, গত অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর এই তিন মাসে ক্রয়াদেশ বেড়েছে ৬ দশমিক ৫৯ শতাংশ। এতে রফতানিকারকদের মধ্যে আশার সঞ্চার হয়েছে। শুধু তাই নয়, প্রচলিত বাজারের ওপর অতি নির্ভরতাও কাটতে শুরু করেছে। রফতানিতে নতুন বাজারের হিস্যাও বাড়ছে। এতে তৈরি পোশাক শিল্পে লেগেছে নতুন এক রূপান্তরের ঢেউ। দেশের অর্থনীতিতে এর ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বলে আশা রফতানিকারকদের।

এই খাতের উদ্যোক্তারা বলছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, যুক্তরাজ্য ও কানাডায় মুদ্রাস্ফীতি কমেছে। এ কারণে পোশাক রফতানির অর্ডার বাড়ছে। তারা বলছেন, আগামী মাসগুলোতে আরও বেশি অর্ডার পাবেন।

বিজিএমইএর তথ্য অনুযায়ী, ইউটিলাইজেশন ডিক্লারেশনের (ইউডি) সংখ্যার ওপর ভিত্তি করে গত তিন মাসে রফতানি আদেশ এসেছে ৬ হাজার ৭৭১টি।‌ গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৬ হাজার ৩৫২টি।

এ প্রসঙ্গে বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, যুক্তরাজ্য ও কানাডায় মুদ্রাস্ফীতি কমেছে। এছাড়া নতুন বাজারের দিকে এগিয়ে চলছি। সার্বিকভাবে চলমান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমাদের প্রতিযোগীদের তুলনায় অর্ডার পাওয়ার ক্ষেত্রে আমরা ভালো অবস্থানে আছি। আগামী দিনে অর্ডার আরও বাড়তে পারে।

এদিকে প্রবাসীরা জানুয়ারিতে দেশে গত সাত মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ ২ দশমিক ১০ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। ২০২৩ সালের একই সময়ের তুলনায় এই অর্থ ৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ বেশি।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ২০২৩ সালের ডিসেম্বরে বাংলাদেশ রেমিট্যান্স হিসেবে ১ দশমিক ৯৮ বিলিয়ন ডলার পেয়েছিল। গত বছরের জুনে দেশে কোনও একক মাসে সর্বোচ্চ ২ দশমিক ১৯ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে।

নিউজ ট্যাগ: পোশাক রফতানি

আরও খবর
২৪ দিনে প্রবাসী আয় ১৮ হাজার কোটি টাকা

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




রোমাঞ্চকর ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে বাঘিনীরা

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের বিপক্ষে জয় পাওয়া বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী ক্রিকেট দল তৃতীয় ম্যাচ জিতে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। রবিবার (২৮ জানুয়ারি) কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শ্বাসরুদ্ধকর এক ম্যাচে ১ রানের জয় পেয়েছে স্বাগতিকরা।

১১৫ রানের লক্ষ্যে নেমে ধীরেসুস্থে এগোতে থাকে শ্রীলঙ্কা। উদ্বোধনী জুটিতে দুই ওপেনার নেথমি পূর্ণা সেনারত্না ও দেওমি বিহঙ্গ বিজেরত্নে যোগ করেন ৫৬ রান। ১১তম ওভারের তৃতীয় বলে বিজেরত্নেকে ফেরান রাবেয়া। ৩৪ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ৩০ রান করেন লঙ্কান ওপেনার।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী দলের অধিনায়ক সুমাইয়া আকতার। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১১৪ রান করেছে বাংলাদেশ। ইনিংসে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেছেন রাবেয়া খান। ৪০ বলের ইনিংসে ৬ চার মেরে অপরাজিত থাকেন বাংলাদেশের এই মিডল অর্ডার ব্যাটার।

শ্রীলঙ্কার বোলারদের মধ্যে ১টি করে উইকেট নিয়েছেন দেওমি বিহঙ্গ বিজেরত্নে, শাসিনি জিমহানি বিজয়ারত্না ও মানুদি দুলানসা নানায়াক্কারা। বাকি ৩ উইকেট হয়েছে রান আউট।

কক্সবাজারে অনূর্ধ্ব-১৯ নারী দলের ত্রিদেশীয় সিরিজে পরশু মুখোমুখি হবে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। একই মাঠে বুধবার পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ। ফাইনালও হবে কক্সবাজারে শুক্রবার।


আরও খবর
হাথুরুসিংহেকে ‘শোকজ’ করবেন পাপন!

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ক্রিকইনফোর বর্ষসেরা বোলিং পারফর্মার মারুফা আক্তার

প্রকাশিত:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ক্রিকইনফোর ওয়ানডের বর্ষসেরা ক্রিকেটারের স্বীকৃতি পেলেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের তারকা মারুফা আক্তার।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডার নাডিন ডে ক্লার্ককে হারিয়ে ২০২৩ সালের বর্ষসেরা নারী বোলিং পারফর্মার বিবেচিত হয়েছেন বাংলাদেশের এই পেসার।

২০২৩ সালে মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে ২৯ রানে তার ৪ উইকেট শিকার ছিল নারী ক্রিকেটের বছর সেরা বোলিং পারফরম্যান্স।

বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৫৩ রানের লক্ষ্য তাড়ায় মারুফার বোলিং তোপে ৩৫.৫ ওভারে ১১৩ রানে থামে ভারত। বৃষ্টি আইনে ভারতের বিপক্ষে ঐতিহাসিক প্রথম জয়ে অসাধারণ বোলিংয়ে ম্যাচসেরা হন মারুফা আক্তার।


আরও খবর
হাথুরুসিংহেকে ‘শোকজ’ করবেন পাপন!

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪