আজঃ বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১
শিরোনাম

দেশীয় মাছের প্রজননকাল নিয়ে মৎস্য অধিদপ্তর কাজ করছে : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | ১২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
দেশীয় মাছের প্রজননকাল নিয়ে মৎস্য অধিদপ্তর কাজ করছে। দেশীয় প্রজাতির মাছ সংরক্ষণে নতুন প্রকল্পও বাস্তবায়ন করা হচ্ছে

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব রওনক মাহমুদ বলেছেন, ‍‍দেশীয় প্রজাতির ছোট মাছ রক্ষায় প্রজননকাল নির্ধারণ করে ঐ সময় মাছধরা নিষিদ্ধ করা হবে। তবে নিষিদ্ধকাল হবে স্বল্প সময়ের জন্য। এক্ষেত্রে সবচেয়ে কম সময় মাছ ধরা নিষিদ্ধ করে সবচেয়ে ভালো ফলাফল পেতে হবে। এজন্য একটি কারিগরী কমিটি গঠন করা হবে। তাদের সুপারিশের ভিত্তিতেপ্রয়োজনে উপজেলাভিত্তিক পাইলটিং এর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।দেশীয় প্রজাতির ছোট মাছ সংরক্ষণে সম্মিলিতভাবে কাজ করার বিকল্প নেই। এক্ষেত্রে জনসম্পৃক্ততাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

বুধবার (০৯ জুন) রাজধানীর মৎস্য ভবনে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএফআরআই) আয়োজিত বাণিজ্যিক গুরুত্বসম্পন্ন দেশীয় প্রজাতির ছোট মাছের প্রজননকাল নির্ধারণ ও সংরক্ষণ বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেনমৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস্ আফরোজ এবং সম্মানীয় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেনবাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম। কর্মশালায় অন্যান্যের মধ্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়েরঅতিরিক্ত সচিবশ্যামল চন্দ্র কর্মকার, যুগ্ম সচিব ড. মোঃ মশিউর রহমান, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তরের উপপরিচালক শেফাউল করিম, মৎস্য অধিদপ্তর ও বিএফআরআই-এর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিজ্ঞানীবৃন্দ, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গবেষক এবং মৎস্যজীবী সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটেরপরিচালক ড. এ এইচ এম কোহিনুর।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব আরো বলেন, দেশের মৎস্য খাতের প্রবৃদ্ধি অভাবনীয়। আমরা দেশের যে কয়টি বিষয়ে সফলতার কথা বলি, গর্বের কথা বলি মৎস্য খাত তার মধ্যে অন্যতম। জলাশয় কমে যাওয়াসহ নানা প্রতিকূলতা সত্ত্বেও বর্তমানে দেশে মাছের উৎপাদন প্রায় ৪৬ লক্ষ মেট্রিক টন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস্ আফরোজ বলেন, দেশীয় মাছের প্রজননকাল নিয়ে মৎস্য অধিদপ্তর কাজ করছে। দেশীয় প্রজাতির মাছ সংরক্ষণে নতুন প্রকল্পও বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তাছাড়া জনগণকে সচেতন করতে মাঠ পর্যায়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি মাছের অভয়াশ্রম সংরক্ষণ ও বিএফআরআই উদ্ভাবিত মাছের চাষ প্রযুক্তি ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য মৎস্য অধিদপ্তর কাজ করে যাচ্ছে।

সম্মানীয় অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, দেশীয় প্রজাতির ছোট মাছ অবশ্যই সংরক্ষণ করতে হবে। এজন্য স্থায়ীভাবে মা মাছ সংরক্ষণে বছরব্যাপী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। তা না হলে প্রজননকাল নির্ধারণ করে সাফল্য আসবে না।

সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ বলেন, গবেষণার ফলাফল মাঠে সম্প্রসারণ করা না গেলে গবেষণার কোন মূল্যই নেই। এজন্য বিএফআরআই এর সব গবেষণায় মৎস্য অধিদপ্তরকে সম্পৃক্ত করা হবে। তাছাড়া জনগণকে সম্পৃক্ত করতে না পারলে কোন গবেষণায় সাফল্য পাওয়া যাবে না।

কর্মশালা শেষে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট কর্তৃক প্রকাশিত বিলুপ্তপ্রায় মাছের প্রজনন ও চাষ প্রযুক্তি নির্দেশিকা নামক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব।


আরও খবর



কমলা হ্যারিসের হুঁশিয়ারি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৮ জুন ২০২১ | ১০৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ না করার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন জানায়, তিনি মূলত অভিবাসনে ইচ্ছুক গুয়েতেমালার মানুষকে এ আহ্বান জানিয়েছেন।

দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথমবারের মতো বিদেশ সফরে গুয়েতেমালায় গিয়ে সোমবার (৭ জুন) এ আহ্বান জানান কমলা।

গুয়েতেমালার প্রেসিডেন্ট আলেজান্দ্রো গিয়াম্মাত্তেই-এর সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে কমলা হ্যারিস হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, অবৈধ পথে আসবেন না। কেউই আসবেন না। কেউ অবৈধ পথে প্রবেশ করলে যুক্তরাষ্ট্র আইন প্রয়োগ অব্যাহত রাখার পাশাপাশি সীমান্তে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।

তিনি আরও বলেন, অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা বিপজ্জনক এবং এর মাধ্যমে মূলত পাচারকারীরাই লাভবান হয়ে থাকে।

এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অভিবাসীদের ঢল নিয়ন্ত্রণ করতে ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে দায়িত্ব দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। আর এ দায়িত্ব পালনেই মূলত প্রথমবারের মতো গুয়েতামালা সফরে যান কমলা।


নিউজ ট্যাগ: কমলা হ্যারিস

আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




করোনায় একদিনে আরও ৬৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | ৭৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৬৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ হাজার ৪৬৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ছাড়া দেশে নতুন করে আরও তিন হাজার ৫৭ জন আক্রান্ত হয়েছে। দেশে মোট আট লাখ ৪৮ হাজার ২৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে এক হাজার ৭২৫ জন। এ নিয়ে দেশে মোট সাত লাখ ৮০ হাজার ১৪৬ জন করোনা থেকে সুস্থ হলো।

আজ শনিবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৫২৮টি ল্যাবে ১৬ হাজার ৯৬৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা সংগ্রহ করা হয় ১৬ হাজার ৯৪৭টি। নমুনা শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ০২ শতাংশ।

২৪ ঘণ্টায় নতুন ৬৭ জন মৃত্যুবরণকারীর মধ্যে পুরুষ ৩৪ জন ও নারী ৩৩ জন। এ পর্যন্ত পুরুষ মৃত্যুবরণ করেছে নয় হাজার ৬৫৭ জন ও নারী তিন হাজার ৮০৯ জন। মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ২২ জন ও ষাটোর্ধ্ব ২৭ জন রয়েছেন।

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১১ জন, রাজশাহী বিভাগে আটজন, খুলনা বিভাগে ২৪ জন, সিলেট বিভাগে একজন, রংপুর বিভাগে আটজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন। এ ছাড়া সরকারি হাসপাতালে ৫৭ জন, বেসরকারি হাসপাতালে সাতজন ও বাসায় তিনজন মারা গেছে।

দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। ওই বছরের ১৮ জুন তিন হাজার ৮০৩ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার মধ্যে দিয়ে লাখ ছাড়িয়েছিল করোনার রোগী। সেদিন পর্যন্ত মোট শনাক্ত ছিল এক লাখ দুই হাজার ২৯২ জন। এ ছাড়া দেশে করোনাভাইরাসে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটে গত বছরের ১৮ মার্চ।


আরও খবর
করোনায় আরও ৭৬ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১




গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে ৩ হাজার ২০৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | হালনাগাদ:বুধবার ০২ জুন 2০২1 | ১২১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোভিড ১৯-এর দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত ভারত। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে তিন হাজার ২০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।  এ সময়ে নতুন করে এক লাখ ৩২ হাজার ৭৮৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। 

বুধবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এক লাখ ৩২ হাজার ৭৮৮ জন। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছে দুই কোটি ৮৩ লাখ সাত হাজার ৮৩২ জন।  গত ২৪ ঘণ্টায় তিন হাজার ২০৭ জনসহ মোট মৃত্যু বেড়ে দাঁড়াল তিন লাখ ৩৫ হাজার ১০২ জনে।

করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় লকডাউন আরোপসহ নানা পদক্ষেপ নেয় ভারত সরকার। এতে করে সংক্রমণ ও মৃত্যু কিছুটা কমেছে।  মঙ্গলবার শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ছিল এক লাখ ২৭ হাজার ৫১০ জন। আর মৃত্যুর সংখ্যা ছিল দুই হাজার ৭৯৫ জন।  তবে মঙ্গলবারের তুলনায় বুধবার মৃত্যু এবং সংক্রমণ দুটোই বেড়েছে। এর আগে মে মাসে প্রায় প্রতিদিনই শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ছিল তিন থেকে চার লাখের মধ্যে। কয়েক দিন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ছিল চার লাখেরও বেশি। এ সময় প্রায় প্রতিদিনই  তিন থেকে সাড়ে তিন হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে।


আরও খবর
করোনার ডেল্টা প্লাসে প্রথম মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৪ জুন ২০২১




ফাইজারের টিকা দেশে আসছে আজ

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | ১১২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোভ্যাক্সের পক্ষ থেকে ফাইজার বায়োএনটেকের টিকা দেশে আসছে আজ। রবিবার রাতে ফাইজারের এক লাখ ৬২০ ডোজ টিকা দেশে এসে পৌঁছবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক।

তিনি জানান, কোভ্যাক্সের পক্ষ থেকে রোববার রাত ১১টা ২০ মিনিটে কাতার এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ফাইজারের টিকাগুলো দেশে পৌঁছবে। তবে কাদের এবং কবে থেকে এই টিকা দেওয়া হবে, সে বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত হয়নি বলে জানান তিনি।

এর আগে গত ১৯ মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, ২ জুন গ্যাভির কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটি থেকে ফাইজারের অন্তত এক লাখ ৬ হাজার টিকা বাংলাদেশে পাঠাবে।

এদিকে দেশের চতুর্থ টিকা হিসেবে জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন পেয়েছে ফাইজারের টিকা। গত বৃহস্পতিবার ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর মহাপরিচালক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের পক্ষ থেকে গত ২৪ মে স্টিকার ইমারজেন্সি ইউজ অথরাইজেশনের জন্য আবেদন করা হয়। আবেদনের প্রেক্ষিতে অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন দেওয়ার (ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে সিএমসি পার্ট রেগুলারিটি স্ট্যাটাস) পর্যবেক্ষণ করে ২৫ মে পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সির ক্ষেত্রে ওষুধ ইনভেস্টিগেশনাল ভ্যাকসিন এবং মেডিকেল ডিভাইস মূল্য নির্ধারণ কমিটির মতামতের জন্য উপস্থাপন করা হয়। কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে ২৭ মে টিকার অনুমোদন প্রদান করে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ ডিসেম্বর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ফাইজারের টিকা জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন করে। এই টিকা ১২ বছরের উপরের বয়সীদের ব্যবহারের উপযোগী এটি সংরক্ষণ করতে হিমাঙ্কের নিচে ৬০ থেকে ৯০ ডিগ্রি তাপমাত্রা প্রয়োজন হয়। তবে ২ থেকে ৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ৫ দিন সংরক্ষণ করা সম্ভব।

দেশের করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এ নিয়ে চারটি টিকা ইমারজেন্সি ইউজ অথরাইজেশন প্রদান করেছে। প্রথমেই ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্র্যাজেনেকা টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়। পরে জরুরি ব্যবহারের জন্য রাশিয়ার উৎপাদিত টিকা স্পুটনিক-এর অনুমোদন দেওয়া হয়। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর তারপরেই অনুমোদন দেয় চীনের সিনোফার্মের টিকা।


নিউজ ট্যাগ: ফাইজারের টিকা

আরও খবর
করোনায় আরও ৭৬ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ২২ জুন ২০২১




পরীমনির বিরুদ্ধে এবার বনানী ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ২১ জুন 20২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২১ জুন 20২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গুলশান অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগের পর অভিনেত্রী পরীমনির বিরুদ্ধে এবার বনানী ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে।

মাস ছয়েক আগে বনানী ক্লাবে এক তারকা দম্পতি আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে পরীমনি যোগ দেন। তখন তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে ক্লাবে ভাঙচুর চালান।

এ বিষয়ে বনানী ক্লাবের সভাপতি রুবেল আজিজ বলেন, অভিনেত্রী পরীমনি বনানী ক্লাবের সদস্য না। মাস ছয়েক আগে এক তারকা দম্পতির অনুষ্ঠানে বনানী ক্লাবে এসেছিলেন তিনি। সামান্য ঘটনার জের ধরে সেখানে ভাঙচুর চালিয়েছিলেন। অন্য তারকাদের মতো পরীমনিও অতিথি হিসেবে ক্লাবে এসেছিলেন।

তিনি বলেন, বনানী ক্লাবে পরীমনির ভাঙচুরের বিষয়টি ক্লাবের রেজিস্ট্রার খাতায়ও লিখে রাখা হয়েছে। পরীমনির বিষয়ে নানা ঘটনা বেরিয়ে আসার পর ক্লাবের স্টাফরা বিষয়টি আমাদের জানায়। আমরা তাদের কাছ থেকেই জানতে পেরেছি।

এদিকে, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী জানান, বনানী ক্লাব ও গুলশান অল কমিউনিটি ক্লাবের বিষয়টি আমরা জানতে পেরেছি। তবে ক্লাব কর্তৃপক্ষ এখনও কোনো অভিযোগ দেয়নি। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে পুলিশের পক্ষ থেকে তা তদন্ত করে দেখা হবে।


আরও খবর