আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

দিনাজপুরে পিঠা উৎসব শুরু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনাজপুর থেকে মনজিদ আলম শিমুল

শীতের আমেজকে আরো আনন্দময়ী করে তুলতে দিনাজপুরে শুরু হয়েছে ঐতিহ্যবাহী হরেক রকম পিঠা পুলির সমারোহ নিয়ে ৩দিন ব্যাপী পিঠা উৎসব। অনলাইন ফেসবুক গ্রুপ গার্লস অব হ্যাভেন এর আয়োজন করে।  বৃহস্পতিবার দুপুরে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে এ উৎসবের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি প্রেসক্লাব সভাপতি স্বরূপ বক্সী বাচ্চু। 

গার্লস অব হ্যাভেনের অ্যাডমিন সাদিয়া খানের সভাপতিত্বে ও মডারেটর পিংকি তানিয়ার সঞ্চালনে বিশেষ অতিথি ছিলেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার হিরু, সাংবাদিক কংকন কর্মকার, দিনাজপুর ল্যাব এইড ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ব্রাঞ্জ ম্যানেজার সেলিম আক্তার চৌধুরী, সাংবাদিক রাকিুবল ইসলাম।

চিতা পিঠা, ভাপা পিঠা, খেজুর পিঠা, গাজর পিঠা, নুনিয়া পিঠা, তেল পিঠা, নারিকেল পিঠাসহ এ উৎসবে ১৫টি স্টলে স্থান পেয়েছে উদ্যোক্তাদের বাহারি রকমের পিঠাপুলির বৈচিত্র। এই উৎসবে আসার দর্শনাথীরা নানা ধরনের পিঠা ক্রয় করে আনন্দ উৎসব করছে।

সাদিয়া খান জানান, উৎসবে মূল লক্ষ্য হলো উদ্যোক্তারা এই শীত মৌসুমে নিজ নিজ বাড়ীতে শীতের নানা ধরনের পিঠা তৈরী করছেন এবং তা অনলাইনে বিক্রি করে জনগণকে শীতের আমেজকে আরো আনন্দময়ী করে তুলছেন এবং উদ্যোগক্তারা অর্থনৈতিকভাবে স্বালম্বি হচ্ছেন।

তিনি বলেন উৎসবের প্রথম দিন থেকেই ভিন্নধর্মী ও বাহারিরকমের পিঠাপুলি ও মুখরোচক খাবারের কালেকশন নিয়ে হাজির হওয়া স্টলগুলোতে দর্শনাথী ও ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করা যাচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: দিনাজপুর

আরও খবর



পদত্যাগ করলেন সুদানের প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক পদত্যাগ করেছেন। স্থানীয় সময় রোববার সামরিক শাসনবিরোধী বিক্ষোভে হতাহতের পর রাতে এক টেলিভিশন ভাষণে তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দেন। আবদাল্লাহ হামদোক বলেন, সুদানের গণতন্ত্রে উত্তরণের জন্য একটি নতুন চুক্তির প্রয়োজন ছিল, যেটি আমরা করেছিলাম।

তবে চুক্তি অনুযায়ী প্রাপ্ত দায়িত্ব আমি ফিরিয়ে দিচ্ছি। আমি প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করছি। দেশের নেতৃত্বের জন্য অন্য কোনো পুরুষ বা নারীকে সুযোগ করে দিচ্ছি, যিনি ক্রান্তিকাল অতিক্রম করে সুদানকে একটি বেসামরিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিণত করার পথে বাকি কাজটুকু সম্পন্ন করতে পারেন।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, রোববার রাজধানী খার্তুমে কয়েক হাজার মানুষ সেনাশাসনবিরোধী বিক্ষোভ শুরু করেন।

এ সময় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা প্রথমে টিয়ার গ্যাস এবং পরে অতর্কিত গুলি চালায়। এতে মাথায় গুলিবিদ্ধ এক তরুণ নিহত হন। এ ছাড়া পার্শ্ববর্তী শহর ওমদুরমানেও বিক্ষোভে গুলি চালায় দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। 

এ সময় বুকে গুলিবিদ্ধ হয়ে আরেকজনের মৃত্যু হয়। কিন্তু সেনাশাসনের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে রাস্তায় নামেন সাধারণ মানুষ। এখনও পর্যন্ত সহিংসতায় প্রাণ গেছে অন্তত ৫৬ জনের।

গত ২৫ অক্টোবর দেশটির শীর্ষ রাজনৈতিক নেতাদের বন্দি করে ক্ষমতা দখল করেন জেনারেল ফাত্তাহ আল-বুরহান। প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোককে গৃহবন্দি ও বেশ কয়েকজন মন্ত্রীকে গ্রেফতারের পাশাপাশি দেশব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন তিনি।

সুদানিদের বিক্ষোভ ও বৈশ্বিক চাপের মুখে গত ২২ নভেম্বর ক্ষমতাচ্যুত সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোককে স্বপদে ফিরিয়ে আনেন দেশটির সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান।

দেশটির সেনাপ্রধানের সঙ্গে ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক সরকারের চুক্তিও হয়। তবে বেসামরিক সরকারকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেওয়া হচ্ছে না অভিযোগ তুলে দেশটিতে এখনও সামরিক শাসনবিরোধী বিক্ষোভ করছেন সুদানিজরা।

এরই মধ্যে রোববার ২ জানুয়ারি রাতে সুদানের প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন আবদাল্লাহ হামদোক। ক্ষমতায় ফেরার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই পদত্যাগ করলেন তিনি। পদত্যাগের ঘোষণা দেওয়া এক ভাষণে তিনি বলেন, আমি দায়িত্ব ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি এবং প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিচ্ছি।

উল্লেখ্য, সুদানে তিন দশক ধরে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতায় ছিলেন ওমর আল-বশির। ২০১৯ সালে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে দীর্ঘদিনের প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশির ক্ষমতাচ্যুত হন।

তার পর বেসামরিক ও সামরিক নেতারা দেশটিতে গণতন্ত্র ফেরাতে ক্ষমতা ভাগাভাগির চুক্তি করেন। অক্টোবরের অভ্যুত্থানের নেতা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহান দাবি করেছেন সুদান এখনও বেসারিক শাসনে ফিরে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

২০২৩ সালের জুলাইতে পরিকল্পনা অনুযায়ী নির্বাচন হবে বলেও জানান তিনি। তবে বিক্ষোভকারীরা বলছেন তারা সেনাবাহিনীকে বিশ্বাস করেন না।


আরও খবর
সৌদি আরবে প্রতি ঘণ্টায় ৭ ডিভোর্স

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




দাবি না মানলে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার হুশিয়ারি রাশিয়ার

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিজেদের নিরাপত্তা রক্ষায় কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। এ বিষয়ে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো যদি আমাদের দাবি মেনে না নেয় তাহলে আমাদের নিরাপত্তার স্বার্থে যা করার দরকার তাই করা হবে। আমরা যে দাবি বা প্রস্তাব দিয়েছি তা দ্রুত মেনে নিতে হবে। অনন্ত সময়ের জন্য এ বিষয় নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যেতে রাজী নই আমরা।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম রিয়া নোভোসতিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও যুক্তরাষ্ট্রের  প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের মধ্যে ফোনালাপ হওয়ার পর এমন হুশিয়ারি দিয়েছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

গত কয়েকদিন ধরে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বেশ উত্তপ্ত পরিস্থিতি চলছে। কারণ রাশিয়া তাদের প্রতিবেশী দেশ ইউক্রেনের সীমান্তে প্রায় লাখ খানেক সৈন্য মোতায়েন করেছে। ফলে আশঙ্কা করা হচ্ছে ইউক্রেনে আক্রমণ করবে রাশিয়া।

তারা মূলত এটি করছে কারণ ইউক্রেন পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগ দিতে চাচ্ছে ও যুক্তরাষ্ট্র তাদের সামরিক বাহিনীকে রাশিয়ার আরো কাছাকাছি নিয়ে আসছে। এখন ইউক্রেন যদি ন্যাটোর সদস্য হয় তাহলে সেখানে ন্যাটোর সৈন্যরা যেতে পারবে। আর এ বিষয়টিকে নিজেদের নিরাপত্তার হুমকি মনে করছে রাশিয়া।

তাই রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যুক্তরাষ্ট্রকে বলেছেন পশ্চিম ইউরোপে যেন তারা না আগানোর চেষ্টা করে এবং যুক্তরাষ্ট্র এদিকে আসবে না এমন নিশ্চয়তা চেয়েছেন পুতিন। 

এখন রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন যা সিদ্ধান্ত নেয়া দরকার তা যেন খুব দ্রুত নেয়া হয়।  কারণ এরপর নিজেদের নিরাপত্তার জন্য যা করার দরকার তা করবে তারা।



আরও খবর
সৌদি আরবে প্রতি ঘণ্টায় ৭ ডিভোর্স

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২




৩৪ হাজার টাকাসহ আটক নৌকার এজেন্ট, ৩ মাসের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৭৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার পত্তন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলাকালে ৩৪ হাজার টাকাসহ আটক হওয়া মহসিন মিয়া (৩২) নামের এক এজেন্টকে ৩ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার (২৬ ডিসেম্বর) দুপুর পৌনে ১২টায় ওই ইউনিয়নের আদমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের ভেতর থেকে পুলিশ তাকে আটক করে।

এরপর নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট একরামুল ছিদ্দিক তাকে কারাদণ্ড দেন। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত মহসিন আদমপুর গ্রামের রাসু মিয়ার ছেলে। তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুজ্জামান রতনের নির্বাচনী এজেন্ট ছিলেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মোল্লা মোহাম্মদ শাহীন জানান, ধারণা করা হচ্ছে ওই এজেন্ট কেন্দ্রে ভোটগ্রহণে দায়িত্বরত কাউকে দেওয়ার জন্য টাকা এনেছিলেন। পরে পুলিশ সদস্যরা তাকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কারাদণ্ড দেন।

নবীনগরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট একরামুল ছিদ্দিক জানান, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন আচরণ বিধিমালার ধারা ৩০ অনুযায়ী মহসিনকে ৩ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ব্রাহ্মণবাড়িয়া

আরও খবর



আগামী বছরের এসএসসি পরীক্ষা নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | ৬৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মণি বলেছেন, যদি সম্ভব হয় তাহলে সব বিষয়েই পরীক্ষা নেওয়া হবে। আর যদি একেবারেই সম্ভব না হয়, তাহলে নৈর্বাচনিক বিষয়ে পরীক্ষা হবে। তবে আমরা আশা করছি, সব বিষয়ের পরীক্ষা নিতে পারব।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে নির্ধারিত সময়ের সাড়ে আট মাস পর চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা গত ১৪ নভেম্বর শুরু হয়ে শেষ হয় ২৩ নভেম্বর। অন্য বছরের মতো এবার সব বিষয়ের পরীক্ষা হয়নি। শুধু গ্রুপভিত্তিক (বিজ্ঞান, মানবিক, ব্যবসায় শিক্ষা ইত্যাদি) তিনটি বিষয়ের ওপর সময় ও নম্বর কমিয়ে এ পরীক্ষা হয়। অন্য আবশ্যিক বিষয় ও চতুর্থ বিষয়ের পরীক্ষা হয়নি। এসব বিষয়ে জেএসসি ও সমমান পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে নম্বর দেওয়া হয়।

অপরদিকে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনের আশঙ্কায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু করতে আগামী মার্চ পর্যন্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করার কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী।


আরও খবর



ডমিঙ্গোর বিষয়ে বিসিবির চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করছেন না ওটিস গিবসন। সে হিসেবে বাংলাদেশের দলের বোলিং কোচ হয়ে আর থাকছেন না তিনি। পূর্বের চুক্তি অনুযায়ী চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। 

এদিকে রাসেল ডমিঙ্গোই আপাতত হেড কোচের দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানিয়েছেন বিসিবি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর পাকিস্তানের বিপক্ষে সাম্প্রতিক ব্যর্থতায় রাসেল ডমিঙ্গোর চেয়ার এমনিতেই নড়বড়ে ছিল। গেল বছরের নভেম্বরেই ডমিঙ্গোকে ছাঁটাই করার গুঞ্জন উঠেছিল। নিউজিল্যান্ড সিরিজের পরই তাকে ছেঁটে ফেলা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছিল।

কিন্তু সিরিজটি শেষ হতেই জানা গেল উল্টো খবর। বৃহস্পতিবার বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, হেড কোচ হিসেবে আপাতত রাসেল ডমিঙ্গোই থাকছেন।

২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর ইংলিশ কোচ স্টিভ রোডসকে বিদায় করে ডমিঙ্গোকে হেড কোচের দায়িত্ব দেয় নাজমুল হাসান পাপনের নেতৃত্বাধীন বোর্ড।  প্রাথমিকভাবে চুক্তি ছিল ২ বছরের। 

কিন্তু ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের কাছে টেস্ট হারের হতাশা দিয়ে শুরু হয় ডমিঙ্গো বাংলাদেশ দলের কোচিং ক্যারিয়ার। এরপর দল ভারত ও পাকিস্তান সফরেও কিছুই করতে পারেনি তার অধীনে।

মাঝে করোনার কারণে দীর্ঘ সময় খেলার বাইরে ছিল বাংলাদেশ দল। তবে খেলা মাঠে ফিরলেও ডমিঙ্গোর অধীনে সুদিন ফেরেনি টাইগারদের। দুর্বল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাঠে টেস্ট সিরিজ হার আর নিউজিল্যান্ড সফরে সব ম্যাচ হারের পর ব্যাপক সমালোচনা হয়।

অবশ্য দারুণ কিছু প্রাপ্তিই রয়েছে ডমিঙ্গোর অধীনে। ঘরের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয় আর জিম্বাবুয়ে সফরে দারুণ পারফরম্যান্স করে টাইগাররা।  এরপর মিরপুরে অস্ট্রেলিয়া আর নিউজিল্যান্ডকে হারায় রিয়াদবাহিনী।

 

নিউজ ট্যাগ: রাসেল ডমিঙ্গো

আরও খবর
মাঠে ফিরছেন মাশরাফি, বোলিংয়ে ঢাকা

সোমবার ২৪ জানুয়ারী ২০২২