আজঃ শনিবার ০২ মার্চ 2০২4
শিরোনাম

দু-একদিনের মধ্যেই শুরু ভারত থেকে আলু আমদানি

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
উপজেলা প্রতিনিধি

Image

দেশের বাজারে আলুর দাম স্বাভাবিক রাখতে আবারও ভারত থেকে আলু আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ সরকার। কয়েকদিনের মধ্যেই দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে ৩২ হাজার মেট্রিক টন আলু আমদানির কার্যক্রম শুরু হবে।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৪টার দিকে হিলি স্থলবন্দরের উদ্ভিদ সংগনিরোধের উপ-সহকারী কর্মকর্তা ইউসুফ আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, স্থলবন্দরের ৫২ জন আমদানিকারক ৩২ হাজার মেট্রিক টন আলু আমদানির অনুমতি পেয়েছেন। তবে এলসি খুলতে কিছু সময় লাগে। খুব শিগগির প্রক্রিয়া শেষ করে ভারত থেকে আলু আমদানি শুরু হবে।

হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারক শাহীনুর রেজা শাহিন বলেন, আমরা হিলির ৫২ জন ব্যবসায়ী ভারত থেকে আলু আমদানির অনুমতি পেয়েছি। শিগগির ভারত থেকে আলু আমদানি করা হবে। তবে শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) থেকে আলু আমদানি হতে পারে। এতে দেশের বাজারে আলুর দাম অনেকটাই কমে যাবে।

এদিকে আজ হিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রকারভেদে দেশি আলু ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: আলু আমদানি

আরও খবর



বিলুপ্তির পথে বাউফলের কুটির শিল্প

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দূর্জয় দাস, বাউফল (পটুয়াখালী)

Image

আধুনিকতার ছোঁয়ায় গ্রামীণ জনপদ থেকে শত শত বছরের ঐতিহ্যবাহী বাঁশ ও বেত শিল্পগুলো বিলুপ্তির দ্বারপ্রান্তে এসে পৌঁছেছে। পরিবেশের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর পরিবারের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় প্লাষ্টিক পণ্য বাজার দখল করায় বাঁশ ও বেতের তৈরি পণ্যের কদর কমে গেছে। ফলে ঐতিহ্য হারাতে বসেছে গ্রামীণ এই কুটির শিল্পটি। প্রয়োজনীয় পুঁজি, বাজারজাতকরণ ও পরিকল্পিত উদ্যোগের অভাবে পটুয়াখালীর বাউফলে কুটির শিল্প প্রায় বিলুপ্তির পথে।

উপজেলার গুটি কয়েক পরিবারের কিছু মানুষ আঁকড়ে রেখেছে এই শিল্পকে। কিন্তু দিন দিন বাঁশ আর বেতের তৈরি বিভিন্ন পন্যের চাহিদা কমে যাওয়ায় ভালো নেই এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত কারিগররা। উৎপাদিত পণ্য সামগ্রী ন্যায্যমূল্য না থাকায় এ শিল্পের সঙ্গে যারা জড়িত তারা আজ পেশা পাল্টাতে শুরু করেছেন।

জানা যায়, বাঁশ-বেত দিয়ে তৈরি হতো গৃহস্থালী ও সৌখিন পণ্যসামগ্রী। বাড়ির পাশের ঝাঁর থেকে তরতাজা বাঁশ-বেত কেটে তৈরি করতেন হরেক রকমের পণ্য। এসব নিজেদের ব্যবহারের পাশাপাশি, বাজারে বিক্রি করে চলতো তাদের জীবন-যাপন।

আধুনিক প্রযুক্তির দাপটে আর প্লাস্টিকের তৈরী বিভিন্ন রং  বেরঙের  এর আর্কষনীয় ডিজাইনের  দ্রব্য সামগ্রী বের হাওয়ায়  এখন আর কেউ বাঁশের তৈরি সামগ্রী ব্যবহার করেনা। এক দিকে যেমন ব্যবহারকারীর অভাব, অন্যদিকে বাঁশের স্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণ বাঁশ শিল্পীরা তাদের পৈত্রিক   পেশা  ছড়ে দিয়ে অন্য পেশায় চলে যাছেন। হাতেগোনা কয়েকজন শিল্পী অনেকটা নিরুপায় হয়ে এ পেশায় টিকে থাকার জন্য প্রাণপণ চেষ্টা চালিয় যাছেন। এককালে কুলা, খাঁচা, চালনি, চাটাই, ডোল, ঝুড়ি,  ডালা, ওর,  প্রভৃতি  বাঁশজাত পণ্যর বাউফল উপজেলা ছাড়াও পার্শ্ববর্তী এলাকায় ব্যাপক চাহিদা ছিল।  বিগত কয়েক বছর ধরে এ শিল্প বিরাজ করছে চরম মন্দা। ফলে এ শিল্পের ওপর নির্ভরশীল লোকজন বেকার হয়ে মানবতর জীবনযাপন করছে।

কুটির শিল্পের সাথে জড়িতরা জানান, আমরা কুটির শিল্পের কাজ করতে একটা বাঁশ কিনতে হয় একশ টাকা দিয়া। বাজারে গেলে সেই দাম পাইনা। আগের মত হাজি ঢালা চলেনা, আমাগো সংসার চলেনা কষ্ট হয়। তারপরেও আমরা কুটির শিল্প টিকিয়ে রাখছি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. বশির গাজী বলেন, উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন কুটির শিল্পের যে সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র রয়েছে সেগুলো নিয়ে আমরা কাজ করছি। কুটির শিল্পে অনেকই কাজ করে তাদের অনেকের লোনের সমস্যা, ক্যাশের সমস্যা আমরা উপজেলা প্রশাসনে একটি প্রকল্প নিয়েছি তাদের প্রশিক্ষন দিবো এবং তাদের লোনের ব্যবস্থা করব ।    

সচেতন মহলের দাবী, কুটির শিল্পকে ধংসের হাত থেকে রক্ষা করা দরকার। এ শিল্প বাঙালি সংস্কৃতির একটা বড় অংশ। তাই এ পেশার সঙ্গে যারা এখনো জড়িত রয়েছেন তাদের পরিবারে ভিত্তিকে ব্যাংক ঋণের ব্যবস্থা গ্রহণ ও তাদের পেশার উন্নয়নে সরকারের সহায়তা করা উচিত।

নিউজ ট্যাগ: কুটির শিল্প

আরও খবর



ট্রান্সকম গ্রুপের পাঁচ কর্মকর্তার জামিন বাতিল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

বাংলাদেশের ট্রান্সকম গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত লতিফুর রহমানের ছোট মেয়ে শাযরেহ হকের করা মামলায় গ্রুপটির পাঁচ কর্মকর্তার জামিন বাতিল করা হয়েছে। গত রোববার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তিন মামলায় তাঁদের জামিন বাতিল করেন।

সোমবার ওই পাঁচ কর্মকর্তার আইনজীবী জামিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

জামিন বাতিল হওয়া পাঁচ কর্মকর্তা হলেন ট্রান্সকম গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক (করপোরেট অ্যাফেয়ার্স-আইন) মো. ফখরুজ্জামান ভূঁইয়া, পরিচালক (করপোরেট ফাইন্যান্স) কামরুল হাসান, পরিচালক (করপোরেট ফাইন্যান্স) আবদুল্লাহ আল মামুন, সহকারী কোম্পানি সচিব মোহাম্মদ মোসাদ্দেক ও ব্যবস্থাপক (কোম্পানি সেক্রেটারি) আবু ইউসূফ মো. সিদ্দিক।

সম্পত্তিসংক্রান্ত বিরোধের জেরে করা এই তিন মামলায় গত শুক্রবার পাঁচজনকেই রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে জামিন দিয়েছিলেন মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শান্তা আক্তার। জামিন আদেশের শর্ত হিসেবে রোববার প্রত্যেকের পাসপোর্ট আদালতে দাখিল করতে বলা হয়। তবে পাসপোর্ট দাখিল না করায় আদালত ওই পাঁচজনের জামিন বাতিল করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

গত বৃহস্পতিবার লতিফুর রহমানের ছোট মেয়ে শাযরেহ হক বাদী হয়ে গুলশান থানায় ৩টি মামলা করেন। এসব মামলায় কোম্পানির শেয়ার ও অর্থসম্পদ নিয়ে প্রতারণামূলক বিশ্বাস ভঙ্গ ও জালিয়াতির অভিযোগ আনা হয়েছে।

তিনটি মামলায় আসামি করা হয়েছে মোট ৮ জনকে। এর মধ্যে রয়েছেন শাযরেহ হকের বড় বোন ও ট্রান্সকম গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সিমিন রহমান; সিমিন রহমানের ছেলে ও ট্রান্সকমের হেড অব ট্রান্সফরমেশন যারেফ আয়াত হোসেন এবং শাযরেহ ও সিমিন রহমানের মা ও ট্রান্সকম গ্রুপের বর্তমান চেয়ারম্যান শাহনাজ রহমান।

ট্রান্সকম গ্রুপটির অধীনে পরিচালিত কোম্পানিগুলোর মধ্যে এসকেএফ ফার্মাসিউটিক্যালস, ট্রান্সকম বেভারেজেস, ট্রান্সকম ডিস্ট্রিবিউশন, ট্রান্সকম কনজিউমার প্রোডাক্টস, ট্রান্সকম ফুডস, ট্রান্সকম ইলেকট্রনিকস, ট্রান্সক্রাফট, মিডিয়াস্টার অন্যতম।


আরও খবর
জজ কোর্ট চত্বরে ককটেল বিস্ফোরণ

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ভারতকে উড়িয়ে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

১৪ বছর পর ও চতুর্থবারের মতো বয়সভিত্তিক আসরের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করলো অস্ট্রেলিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকার বেনোনিতে অনুষ্ঠিত ফাইনালে ভারত অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে ৭৯ রানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে অস্ট্রেলিয়া অনূর্ধ্ব-১৯ দল।

টসে জিতে অস্ট্রেলিয়া আগে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে দাঁড় করায় ২৫৩ রানের সংগ্রহ। যুব বিশ্বকাপ ফাইনাল ইতিহাসে এর চেয়ে বেশি রান করতে পারেনি কোনো দলই। জবাবে ৪৩.৫ ওভারে ১৭৪ রানেই গুটিয়ে যায় ভারত।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৬৪ বলে ৩ চার ও ৩ ছক্কায় সর্বোচ্চ ৫৫ রান করেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত হারজাস সিং। এছাড়া ফিফটির কাছে গিয়েই সাজঘরে ফিরতে হয় হ্যারি ডিক্সন (৪২), হিউ ওয়েইবগেনকে (৪৮)। ৪৩ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ৪৬ রানে অপরাজিত ছিলেন অলিভার পিক।

জবাবে নেমে মাহলি বেয়ার্ডম্যান ও রাফ ম্যাকমিলানের বোলিংয়ে কোনো প্রতিরোধই গড়তে পারেনি ভারত। সর্বোচ্চ ৪৭ রান করেন ওপেনার আদর্শ সিং। শেষ দিকে মুরুগান অভিষেকের ৪২ রান কেবল হারের ব্যবধানই কমিয়েছে। অজিদের হয়ে বেয়ার্ডম্যান ও ম্যাকমিলান দুজনেই শিকার করেন তিনটি করে উইকেট। এছাড়া ক্যালাম ভিডলার নেন দুটি উইকেট।


আরও খবর



চট্টগ্রামকে ভবিষ্যতে সিলিকন সিটিতে রূপান্তরিত করা হবে: পলক

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাহুল সরকার, চট্টগ্রাম ব্যুরো

Image

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, চট্টগ্রামের কোন উদ্ভাবনী তরুণ-তরুণী যদি উদ্যোক্তা হতে চায় তাদের যত ধরনের সেবা লাগবে বর্তমান সরকার তার সবটুকু দিতে প্রস্তুত রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামকে তিনটি উপহার ইতোমধ্যে দিয়েছে, সেগুলো হল ১০০ কোটি ব্যয়ে ১০তলা শেখ কামাল আইটি বিজনেস ইনকিউবেটর সেন্টার, শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার ইনকিউবেশন নির্মান কাজ চলছে, আরেকটা হলো নলেজ পার্ক তৈরি করার জন্য জায়গা নির্বাচন করা হয়েছে। এ কাজগুলো সম্পন্ন হলে চট্টগ্রাম একটি সিলিকন সিটিতে রূপান্তরিত হবে।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) সকালে নগরীর ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে চট্টগ্রাম চেম্বার্স এন্ড কমার্স আয়োজিত ৫ম আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি মেলা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন। বক্তব্য শেষে প্রতিমন্ত্রী বিভিন্ন স্টল পরিদর্শণ করেন এবং বেলুন উড়িয়ে মেলার শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। 

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে এবং প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে আমাদের দেশে যারা আইটি ফ্রিল্যান্সার আছে তাদের যথাযথ ট্রেনিংনের মাধ্যমে উদ্যোক্তাতে পরিণত করতে হবে। অনেকে আছে যারা গ্রামে, উপজেলায় থেকেও দেশ-বিদেশের অনলাইন মাকের্টপ্লেসে আউটসোর্সিং মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছে। তাদের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে উদ্যোক্তাতে পরিণত করতে পারলে, সেখানে আরো হাজার-হাজার তরুণ-তরুণীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা যাবে।

তিনি আরো বলেন, সিটি কর্পোরেশনে অধীনে চান্দগাওতে চট্টগ্রাম শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকিউভেশন সেন্টার রয়েছে সেখানে ৫ হাজার স্কয়ার ফিটের জায়গাটাকে আমরা স্টার্টআপের জন্য দিয়ে দেব। চিটাগং চেম্বার অব কর্মাস ও আইট ট্রেনিং সেন্টার এর পরিচালক যোগ্যতার ভিত্তিতে বাছাই করে স্টার্টআপের জন্য নির্বাচন করবে। প্রথম ৬মাস সেখানে উদ্যোক্তারা ফ্রিতে অফিস খুলতে পারবে পরে তাদের কর্মদক্ষতার উপর ভিত্তি করে আরো ৬মাস ফ্রিতে কাজ করার সুযোগ পাবে। এছাড়াও সেখানে অন্যান্য সুযোগ সুবিধা থেকে শুরু করে অর্থনৈতিক বিনিয়োগের সুবিধাও সরকার দিয়ে থাকব।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম চেম্বার্স এন্ড কমার্সর সভাপতি ওমর হাজ্জাজ এর সভাপতিত্বে সোসাইটি অব চিটাগং আইটি প্রফেসনাল এর সভাপতি মো. আব্দুল্লাহ ফরিদ, শফোসর কান্ট্রি ম্যানেজার এস. এম মোহসিন, প্রযুক্তি মেলার এডভাইজ শিপন কুমার বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম চেম্বার্স এন্ড কমার্স এর সভাপতি ওমর হাজ্জাজ। এছাড়াও চেম্বাস অব কমার্সের পরিচালকবৃন্দ, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি চট্টগ্রাম শাখার সভাপতি এবং অসংখ্য উদ্যোক্তাসহ প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

তিনদিনব্যাপী আইটি মেলা ১৭-১৯ ফেব্রুয়ারি চলবে, প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পযর্ন্ত চলবে। সবার জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। এখানে দেশি-বিদেশি মিলে মোট ৪০টি কোম্পানির ৬৪টি স্টল বসেছে।


আরও খবর



‘বঙ্গবন্ধু’ অ্যাপ উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারী 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বঙ্গবন্ধু অ্যাপ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) গণভবনে এই অ্যাপের উদ্বোধন করেন তিনি। এ সময় অ্যাপ নির্মাণের সঙ্গে জড়িত সবাইকে বিভিন্ন দিকনির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী ও বাংলাদেশ সৃষ্টির ইতিহাসসমৃদ্ধ অ্যাপটি নির্মাণ করেছে দুর্বার টেকনোলজিস লিমিটেড।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই অ্যাপের মাধ্যমে সহজেই জাতির পিতার বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন সম্পর্কে মানুষের জানার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। সেইসঙ্গে আমাদের মহান স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস জনগণের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার ডিজিটাল প্লাটফর্ম তৈরি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে এস এম ফারুকী হাসান, রাজী মোহাম্মদ ফখরুল, লুৎফুর রহমান, রেজাউল মাকসুদ জাহেদী, লে. কমান্ডার মসিউল, জামিলুর রহমান, মো. সুমন মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর
শপথ নিলেন নতুন ৭ প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪