আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

দুই মাসের বিদ্যুৎ-পানি ও গ্যাস বিল মওকুফের আবেদন

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ মে ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান মহামারি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার কারণে দেশে চলছে লকডাউন। ফলে বন্ধ হয়ে গেছে দেশের প্রায় মানুষের আয় রোজগার। এমন পরিস্থিতিতে সরকারের নির্বাহী আদেশে দুই মাসের বিদ্যুৎ, পানি ও গ্যাস বিল মওকুফ চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও ন্যাশনাল লইয়ার্স কাউন্সিলের চেয়ারম্যান এসএম জুলফিকার আলী জুনু।

সোমবার (০৩ মে) জনস্বার্থে তিনি এ আবেদন করেন।

আবেদনে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনি দেশের মানুষের অভিভাবক ও নির্বাহী প্রধান। দেশে বর্তমানে করোনার সংক্রমণ ও মহামারিতে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে ও অসংখ্য মানুষ মারা যাচ্ছেন। জনগণকে করোনার সংক্রমণ ও মহামারি থেকে রক্ষায় আপনি ও আপনার সরকার জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় সারা দেশে গত ৫ এপ্রিল থেকে লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছেন। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ১৮ দফা স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত দিক নির্দেশনাও দিয়েছে।

দেশে লকডাউন চলছে। মৃত্যুহার ও করোনায় আক্রান্তের হারও কিছুটা কমে এসেছে। দীর্ঘ লকডাউনে মধ্যবিত্ত ও নিন্নবিত্ত মানুষের আয় রোজগার প্রায় শূন্যের কোটায় চলে এসেছে। এর মধ্যে চলছে পবিত্র রমজান মাস, সামনে ঈদ। পরিবার পরিজন ও সন্তানদের নিয়ে জীবিকা নির্বাহে মানুষকে হিমশিম খেতে হচ্ছে। আয় রোজগার না থাকায় নির্দিষ্ট সময়ে বাসা ভাড়া দিতে না পারায় সমাজের অনেক সম্মানিত পেশার শিক্ষিত লোকজনদের অপমানিত হতে হচ্ছে। লকডাউনে আয় রোজগার না থাকায় দেশের অনেক মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত লোকজন যথাসময়ে বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানির বিলের টাকা নিয়মিত পরিশোধ করতে না পারায় সংযোগ বিচ্ছিন্নের আশঙ্কায় রয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী আপনার একটি নির্বাহী আদেশে দেশের মানুষ কিছুটা শান্তিতে থাকতে পারে। তাই করোনার মহামারি ও দীর্ঘ লকডাউনের বিষয় বিবেচনা করে জনস্বার্থ ও জনদুর্ভোগ বিবেচনায় বেসরকারি পর্যায়ের দুই মাসের পানি, বিদ্যুৎ ও গ্যাস বিল মওকুফ করে দেওয়ার নির্বাহী নির্দেশনা জারি করতে আপনার মহানুভবতা কামনা করছি।


আরও খবর



ফের কোম্পানিগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফের নোয়াখালীর কোম্পানিগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার অনুসারী ও উপজেলা আ.লীগের কমিটির অনুসারীদের মধ্যে এ সংঘর্ষ ঘটে। এ ঘটনায় কাদের মির্জার ছেলে তাশিক মির্জাসহ উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছ।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) বিকেল সোয়া ৪টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ থানার সামনে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহতদের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ অন্যান্য ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

বিস্তারিত আসছে...


আরও খবর



ওজন ও মেদ কমাবে চাল কুমড়া

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | ১১৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চাল কুমড়া একজি সবজি, তরকারি হিসেবে খাওয়া ছাড়াও এ সবজি দিয়ে মোরব্বা, হালুয়া, পায়েস ও বড়ি তৈরি করা হয়ে থাকে।

শুধু চাল কুমড়াই নয় এর কচি পাতা ও ডগা শাক হিসেবে খাওয়া হয়। চাল কুমড়াতে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন, খনিজ, শর্করা ও ফাইবার পাওয়া যাওয়ায় এটি শরীরের জন্য দারুণ উপকারী। নিয়মিত চাল কুমড়া খেলে যেসব উপকারিতা মিলবে।

১. চাল কুমড়াতে অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল উপাদান থাকায় এটি পেট এবং অন্ত্রের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া দূর করতে সাহায্য করে। এটি গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল সংক্রমণ বা আলসার রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করে। এটি পাকস্থলীতে তৈরি হওয়া অ্যাসিড দূর করতে সাহায্য করে।

২. চাল কুমড়া মানসিক রোগীদের জন্য ওষুধ হিসেবে কাজ করে, কারণ এটি মস্তিষ্কের নার্ভ ঠান্ডা রাখে। এ জন্য চাল কুমড়াকে ব্রেইন ফুড বলা হয়।

৩. প্রতিদিন চাল কুমড়ার রস খেলে যক্ষ্মা রোগের উপসর্গ কেটে যায়। চাল কুমড়া রক্তপাত বন্ধ করতে সাহায্য করে।

৪. চাল কুমড়া শরীরের ওজন ও মেদ কমাতে অনেক উপকারী। এটি রক্তনালিতে রক্ত চলাচল সহজ করে। চাল কুমড়া অধিক ক্যালরি যুক্ত খাবারের বিকল্প হিসেবেও খাওয়া যায়।

৫. মুখের ত্বক এবং চুলের যত্নেও চাল কুমড়ার রস অনেক সাহায্য করে। চাল কুমড়ার রস নিয়মিত চুল ও ত্বকে মাখলে চুল চকচকে হয় এবং ত্বক সুন্দর হয়। ত্বকে বয়সের ছাপ প্রতিরোধ করতেও চাল কুমড়া সাহায্য করে।

৬.চাল কুমড়োর বীজ গ্যাস্ট্রিক রোগ নিরাময়ে ভূমিকা রাখে। কোষ্ঠকাঠিন্য, পেট ফাঁপা এবং প্রস্রাব কোনও কারণে অনিয়মিত হয়ে গেলে চাল কুমড়া খেলে উপকার পাওয়া যায়।


আরও খবর



মঠবাড়িয়ায় শিশু হত্যার অভিযোগে বাবা ও সৎ মাসহ গ্রেপ্তার ৩

প্রকাশিত:শনিবার ০১ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ মে ২০২১ | ১২৬জন দেখেছেন
মনিরুল ইসলাম, মঠবাড়িয়া

Image

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় হানজালা নামের ৫ বছরের এক শিশুকে হত্যার অভিযোগে প্রধান আসামী সৎ মা শাহানা বেগম (৩০) বাবা নুর নবী জুয়েল (৩৫) ও চাচা বেল্লাল (৩৬) কে গ্রেপ্তার করেছে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ। শনিবার সকালে নিহত হানজালার নানী হাসি বেগম মঠবাড়িয়া থানায় এ হত্যা মামলাটি দায়ের করেন। থানা পুলিশ আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে চট্টগামের ইপিজেড এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃত জুয়েল পৌর শহরের ৩ নং ওয়ার্ডের স্লুইজ গেইট এলাকার ইউসুব মোল্লার ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই শিশিুটির মা-বাবার বিচ্ছেদ হবার পরে নানীর কাছে বড় হওয়া শিশু হানজালাকে গত ১৪ এপ্রিল বেড়াতে নিয়ে যায় সৎ মা শাহানা বেগম। পরে শিশুটিকে অমানুষিক নির্যাতন করেন তার সৎ মা। আহত শিশুটিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল প্রেরণ করেন। শিশুটির বাবা ও সৎ মা বরিশাল না নিয়ে গোপনে হাসপাতাল সড়কের মা ও শিশু ক্লিনিকে ভর্তি করে। ক্লিনিকেও শিশুটির অবস্থার অবনতি ঘটলে পরে সেখান থেকে ১৫ এপ্রিল সকালে শিশু হানজালাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত্যু ঘোষণা করেন। এদিকে এম্বুলেন্সে করে শিশুটির লাশ গভীর রাতে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সামনে ফেলে রেখে পাষন্ড বাবা ও সৎ মা পালিয়ে যায়।

মঠবাড়িযা থানার ওসি মাসুদুজ্জামান বলেন, শিশুটির পাষন্ড বাবা, সৎ মা ও চাচাকে শনিবার সকালেই গ্রেপ্তার করা করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: হত্যা মঠবাড়িয়া

আরও খবর



আলেমের মুখোশধারীদের গ্রেপ্তার করছে সরকার : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21 | ১১১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সরকার কোনো ভালো মানুষকে গ্রেপ্তার করছে না, আলেমের মুখোশধারীদের গ্রেপ্তার করছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ ।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাজধানীতে সরকারি বাসভবন থেকে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা ও এটুআই আয়োজিত 'ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে স্থানীয় সাংবাদিকদের ভূমিকা' শীর্ষক অনলাইন কর্মশালা উদ্বোধনে এ মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আলেমের মুখোশ পড়ে সহিংসতা চলায় তারা কখন ভালো কাজ করতে পারে না। সরকার কোনো আলেম বা ধর্মীয় নেতাকে গ্রেপ্তার করছে না, দুষ্কৃতিকারীদের গ্রেপ্তার করছে। যে সমস্ত দুষ্কৃতিকারী ২৬ থেকে ২৮ মার্চ সমগ্র দেশে তান্ডব চালিয়েছে, নিরীহ মানুষের ঘরবাড়ি-সহায়-সম্পত্তি, যানবাহন জ্বালিয়ে দিয়েছে, ভূমি অফিসে আগুন দিয়ে সাধারণ মানুষের জমির দলিলপত্র পুড়িয়েছে, ফায়ার স্টেশন-রেল স্টেশনে হামলা করে ক্ষতি করেছে এবং যারা মানুষের ওপর আক্রমণ চালিয়েছে, তাদের এবং তাদের নির্দেশদাতাদের সরকার গ্রেপ্তার করছে।

তিনি আরও বলেন, কোনো ভালো আলেম এসব অপরাধের সাথে যুক্ত ছিলো না, আলেমের মুখোশধারীরাই এসবে যুক্ত এবং সরকার তাদেরকেই গ্রেপ্তার করছে।


আরও খবর



৭ বছরের রেকর্ড তাপমাত্রায় পুড়ছে দেশ

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ এপ্রিল ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সারাদেশেই চলছে তাপপ্রবাহ। তাপমাত্রা বাড়তে বাড়তে তা ভেঙেছে গত ৭ বছরের রেকর্ড। রবিবার (২৫ এপ্রিল) দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে ৪১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০১৪ সালের পর যশোরের তাপমাত্রাই দেশে সর্বোচ্চ। ঢাকায় তাপমাত্রা ছিল ৩৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আট বছরের মধ্যে ঢাকায় এদিন ছিল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

মূলত রাজশাহী, যশোর, কুষ্টিয়া এবং খুলনা অঞ্চলের ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এ ছাড়া রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু অঞ্চলসহ ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, রংপুর, সিলেট ও বরিশাল বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

সোমবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে দিনের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। রাতের তাপমাত্রা থাকবে

অপরিবর্তিত। অন্যদিকে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। সোম ও মঙ্গলবার আবহাওয়ার অবস্থা সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

আগামী পাঁচ দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে এই সময়ের শুরুতে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।


আরও খবর