আজঃ বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

জবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল হোসেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৪৩০জন দেখেছেন

Image

জবি প্রতিনিধি:

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ৩০৮ ভোট পেয়ে সভাপতি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এরপর বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা শেষে আনুষাঙ্গিকভাবে নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটি-২০২২ দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন।

নির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন জামালপুর জেলা সদরের ঐতিহ্যবাহী পাথালিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে এমএসএস -এ প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান ও বি.এস.এস. (সম্মান) প্রথম শ্রেণিতে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন। তিনি কানাডার কালর্টন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স অব সোশ্যাল ওয়ার্ক (এম.এস.ডব্লিউ) এবং উইলফ্রিড লরিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচ.ডি ডিগ্রী সম্পন্ন করেন। পিএইচডি গবেষণার জন্য তিনি IDRC (International Development Research Centre, Canada) থেকে মর্যাদাপূর্ণ Doctoral Research Award লাভ করেন।

এছাড়াও তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সোশ্যাল সায়েন্স রিসার্চ এন্ড ট্রেনিং এর পরিচালক হিসেবে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় থেকে গবেষণা মুঞ্জরিপ্রাপ্ত হয়ে 'জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকাণ্ড পরবর্তী সশস্ত্র প্রতিবাদকারী যোদ্ধাগণের বর্তমান অবস্থা' শীর্ষক প্রকল্পের গবেষণা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালে ১৯৯০ সালে কবি জসীম উদ্দিন হল সংসদে ছাত্রলীগ থেকে শফি-হায়দার প্যানেলে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন করেন।

তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল থেকে মনোনীত হয়ে ২০১৪-১৫ সেশনে শিক্ষক সমিতির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি নীলদলের কার্যনিবার্হী পরিষদের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন এশিয়াটিক সোসাইটি, বাংলা একাডেমি ও বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনীর সদস্য এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট, ঢাকাস্থ জামালপুর সমিতির আজীবন সদস্য হিসেবে কাজ করছেন।


আরও খবর



সংসদে করোনা টিকা কেনার হিসাব প্রকাশ সমীচীন নয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়ে করোনার টিকা কেনার খরচ প্রকাশ করা হলেও জাতীয় সংসদে এ খাতে ব্যয়ের হিসাব প্রকাশ করতে চাননি স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেছেন, নন-ক্লোজার এগ্রিমেন্টের মাধ্যমে ভ্যাকসিন কেনার কারণে সংসদে অর্থ খরচের হিসাব প্রকাশ করা সমীচীন হবে না। সর্বোচ্চ প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে সততা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করে টিকা কেনা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে জামালপুর-১ আসনে সরকারি দলের সাংসদ আবুল কালাম আজাদের প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ দাবি করেন। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে প্রশ্নটি উত্থাপিত হয়।

আবুল কালাম আজাদ তাঁর প্রশ্নে কতসংখ্যক টিকা সংগ্রহ করা হয়েছে, সেটার পাশাপাশি এর জন্য কত টাকা খরচ হয়েছে তা জানতে চান।

জবাবে মন্ত্রী জানান, ২১ কোটি ১৭ লাখ ৩০ হাজার ডোজ টিকা কেনা হয়েছে। এর মধ্যে চীন থেকে নেওয়া হয়েছে ৭ কোটি ৭০ লাখ ডোজ সিনোফার্মা, ৭ কোটি ৫১ লাখ ডোজ সিনোভ্যাক, ভারত থেকে ৩ কোটি কোভিশিল্ড এবং কোভ্যাক্সের আওতায় এসেছে ২ কোটি ৯৭ লাখ ২০ হাজার সিনোফার্মা।

মন্ত্রী বলেন, চীন, ভারত ও কোভ্যাক্স থেকে সর্বোচ্চ প্রতিযোগিতামূলক মূল্যে সততা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করে ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে। আইন মন্ত্রণালয়, অর্থ বিভাগ, সিসিজিপি ও প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন সাপেক্ষে টিকা কেনা হয়েছে। নন-ক্লোজার এগ্রিমেন্টের মাধ্যমে ভ্যাকসিন কেনার কারণে সংসদে অর্থ খরচের হিসাব প্রকাশ করা সমীচীন হবে না।

এর আগে গত ৯ জুলাই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়ে করোনা চিকিৎসার ব্যয় জানানো হয়। ওই বিজ্ঞাপনে বলা হয়, ১ কোটি ১ লাখ ৫০ হাজার ডোজ টিকা কেনা হয়েছে (ওই সময় পর্যন্ত)। প্রতি ডোজ ৩ হাজার টাকা হিসাবে এতে মোট ৩ হাজার ৪৫ কোটি টাকা খরচ হয়েছে।



আরও খবর



হাসপাতালে ভর্তি আরো ১২১ ডেঙ্গু রোগী

প্রকাশিত:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ১২১ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এ সময়ের মধ্যে নতুন মৃত্যু নেই। বুধবার (১ ডিসেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু বিষয়ক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন ১২১ জন। এর মধ্যে ঢাকাতে ৩৯ জন এবং ঢাকার বাইরে সারাদেশে ভর্তি হয়েছেন ৮২ জন।

এতে আরও বলা হয়, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে সর্বমোট ৩২১ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি হাসপাতালে ২৪৪ জন এবং অন্যান্য বিভাগে বর্তমানে সর্বমোট ৭৭ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন।

এ বছর ১ জানুয়ারি থেকে ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ২৭ হাজার ৩৪৩ জন। একই সময়ে হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৬ হাজার ৯২৪ জন রোগী। এ যাবৎ ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে ৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।


আরও খবর
করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১




চট্টগ্রামে কেমিক্যাল কারখানায় ভয়াবহ আগুন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামের সাগরিকায় কেমিক্যাল গোডাউনের আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিট ৪৫ মিনিটের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) সকাল ১০টা ৩৫ মিনিটে আগুন লাগে। এরপরই আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিট। পরে আরও ৬টি ইউনিট যুক্ত হয়।

ফায়ার সার্ভিসের উপ-পরিচালক আনিসুর রহমান বলেন, প্রাথমিক অবস্থায় আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি। এখানে বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল ছিল। সেগুলোর বৈধ কাগজ ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

হোমল্যান্ড কেমিক্যালের মালিক শামসুন্নাহার রুমা বলেন, প্রতিষ্ঠানটিতে গ্রিজ তৈরি হতো। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের ঘটনা ঘটতে পারে। আগুনে প্রায় ২ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।


আরও খবর
চট্টগ্রামে পাট গুদামে ভয়াবহ আগুন

বৃহস্পতিবার ০৯ ডিসেম্বর ২০২১




পিরোজপুরে ৪ দিন ধরে নিখোঁজ মাদ্রাসা শিক্ষার্থী রাফি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৬২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পিরোজপুর সদর উপজেলায় ৪ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন এক মাদ্রাসাশিক্ষার্থী। নিখোঁজ মো. রেজওয়ান আহম্মেদ রাফি (১৫) সদর উপজেলার পূর্ব শিকারপুর এলাকার মো. কাবিল হাওলাদারের ছেলে। রাফি ধূপপাশা কেরাতুল হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র।

রাফির বাবা কাবিল হাওলাদার নিখোঁজের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তার ছেলে ২১ নভেম্বর সন্ধ্যায় মাদ্রাসা থেকে বাড়ির উদ্দেশে বের হয়। তার পর থেকে অনেক জায়গায় খোঁজ নিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি বলে জানান রাফির বাবা। পরে পিরোজপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তিনি।

মাদ্রাসার পরিচালক গোলাম মাওলা রসুল বলেন, রাফি প্রায়ই এভাবে বাড়িতে চলে যায়। প্রতিবারের মতো ওইদিন আমার অনুপস্থিতে ছাত্র জিহাদের কাছে বলে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেয় রাফি। ২২ নভেম্বর রাফির বাবা মাদ্রাসায় খোঁজ নিলে আমি বলেছি, রাফি বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে বের হয়েছে।

এদিকে পিরোজপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আ জা মো. মাসুদুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় নিখোঁজ শিক্ষার্থী রাফির বাবা থানায় একটি জিডি করেছেন। পুলিশ নিখোঁজ শিক্ষার্থীর সন্ধানে কাজ করে যাচ্ছে।


আরও খবর
পিরোজপুর মুক্ত দিবস আগামীকাল

মঙ্গলবার ০৭ ডিসেম্বর ২০২১




নাঈমের হত্যাকারীর ফাঁসি চাইলেন মেয়র তাপস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৭১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নটর ডেম কলেজের ছাত্র নাঈম হাসানের হত্যাকারীর বিচারের দাবিসহ ছাত্রদের অন্যান্য দাবির সঙ্গে শুধু একমত পোষণই না, ঘাতক সেই খুনির ফাঁসিও দাবি করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। বৃহস্পতিবার নগর ভবনের সামনে নিহত শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের সমাবেশে এসে তিনি এ কথা বলেন।

মেয়র তাপস বলেন, আমি জানি এই কষ্ট কী। একজন মেধাবী ছাত্র নাঈম আমার এই সিটি করপোরেশন এলাকার সড়কে আমার করপোরেশনের গাড়ি দ্বারা দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে নিহত হবে- সেজন্য আমি রাজনীতিতে আসি নাই। আমার কাছে আমার সন্তানের সুখ, সন্তানের হাসি, সন্তানের ভালোবাসা অনেক অনেক মূল্যবান। আপনারা যে দাবি দিয়েছেন, সেই দাবির সঙ্গে আমি শুধু একমত পোষণই না, শুধু সম্মতিই না- আমি আরও দাবি করি, যেন সেই খুনির ফাঁসি হয়। আমি দাবি করি, এ শহরের সড়কে আর যেন কোনো নাঈমের প্রাণহানি না ঘটে।

তিনি বলেন, আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা করছি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সব জঞ্জাল মুক্ত করব ইনশাআল্লাহ। আমাদের তারপরও আইনের আওতায় থাকতে হয়। আমাদের সরকারি নীতিমালা-নিয়মকানুন মানতে হয়। মেনে চলতে হয়। সেই নিয়মকানুন মেনেই গাড়িচালকের গাড়ি চালানোর দায়িত্ব ছিল। সে সেই দায়িত্ব পালন করেনি। আরেকজন ভাড়াটিয়া গাড়িচালককে দিয়ে গাড়ি চালিয়েছে। সুতরাং সবাইকে শাস্তি ভোগ করতে হবে। যার দায়িত্ব ছিল তাকে আমরা সাময়িক বরখাস্ত করেছি এবং ইনশাআল্লাহ চাকরি থেকে অপসারণ করব। যে চালক গাড়ি চালানো অবস্থায় ছিল সে খুনি। তার সর্বোচ্চ শাস্তি ইনশাআল্লাহ আমরা নিশ্চিত করব। আপনাদের সঙ্গে কণ্ঠে কণ্ঠ লাগিয়ে আমি বলি- সেই খুনির ফাঁসি চাই আমি।

এ সময় আন্দোলনরত ছাত্রদের দাবির পক্ষে সরকারের উচ্চপর্যায়ে অ্যাডভোকেসি করবেন জানিয়ে মেয়র তাপস বলেন, কোনো বহিরাগত যেন ডিএসসিসির কোনো গাড়ি চালাতে না পারে, সেই কঠোর ব্যবস্থা নেব। আপনাদের যে দাবি এসেছে আমি আপনাদের হয়ে সরকারের উচ্চপর্যায় পর্যন্ত আপনাদের পক্ষে অ্যাডভোকেসি করব। সরকারের কাছ থেকে সব দাবি আদায়ের ব্যবস্থা করব। ঢাকা নিরাপদ শহর হবে আমাদের নির্বাচনী ইশতেহার ছিল। নিরাপদ সড়ক করতে আপনাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধে মিলিয়ে কাজ করব।

নাঈমকে নিজের সন্তানতুল্য উল্লেখ করে মেয়র তাপস বলেন, সম্প্রতি আমি আমার সন্তানের সঙ্গে ছুটি কাটিয়ে এসেছি। কিন্তু আসার দিনেই আমি নাঈমকে হারাব সেটা আমি কল্পনাও করতে পারিনি। নাঈম শুধু আপনাদের ভাই না, আপনাদের বন্ধু না- একটি সতেরো বছরের আমার সন্তান।

এ সময় ছাত্রদের দাবি মেনে নাঈমের নামে এ বছরের মধ্যে দক্ষিণ সিটির নিজস্ব অর্থায়নে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের ঘোষণা দেন মেয়র তাপস।

নিউজ ট্যাগ: মেয়র তাপস

আরও খবর