আজঃ শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

খালাতো বোনকে বিয়ে না করতে পেরে পরীক্ষার্থীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
শাকিল মোল্লা, রাজবাড়ী

Image

রাজবাড়ীতে খালাতো বোনকে বিয়ে না করতে পেরে অভিমানে নাঈম খান নামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নের চাঁদপুরে এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত নাঈম খান ওই এলাকার মান্নান খানের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, নাঈমের সঙ্গে তার খালাতো বোনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ছেলের পক্ষ থেকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হলে মেয়ের বাড়ি থেকে না করে দেয়। এ নিয়ে নাঈম তার মায়ের সঙ্গে সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়ায়। একপর্যায়ে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সে তার নিজ রুমে গিয়ে কাপড় দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস নেয়। পরবর্তীতে নাঈমের মা রুমে গিয়ে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক নাঈমকে মৃত ঘোষণা করে।

নাঈমের বাবা মান্নান খান বলেন, নাঈম শিশু থাকতে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে এবং সে সময় থেকেই তিনি ছেলেকে মানুষ করেছেন। ৭ম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় মোটরসাইকেলের লোভ দেখিয়ে ওর মা নাঈমকে নিয়ে যায়। এরপর দুইবার মোটরসাইকেল এক্সিডেন্ট করে নাঈম। তারপর অনেকে রাগারাগি করে মোটরসাইকেল বিক্রি করিয়েছেন এবং ছেলেকে নিজের কাছে রাখার চেষ্টা করেছেন। গতবছর এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে এক বিষয়ে ফেল করে নাঈম।

এ বিষয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের নার্সিং সুপারভাইজার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, হাসপাতালে আনার আগেই রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

রাজবাড়ী সদর থানার এসআই আবুল হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সে আত্মহত্যা করেছে। গলায় ফাঁস নেওয়ার চিহ্ন রয়েছে। ময়নতদন্তের রিপোর্ট পাবার পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এরপরই বিস্তারিত বলতে পারব। তবে এ বিষয়ে পুলিশের তদন্ত চলছে।


আরও খবর



দেশে কোভিড-১৯ এর নতুন জেএনওয়ান সাব-ভ্যারিয়েন্ট সনাক্ত : শারফুদ্দিন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Image

বাংলাদেশে কোভিড-১৯ এর নতুন জেএনওয়ান ((JN.1) সাব-ভ্যারিয়েন্ট সনাক্ত হয়েছে। আজ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনোম সিকোয়েন্সিং গবেষণার প্রধান পৃষ্ঠপোষক (সুপারভাইজার) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ এই তথ্য জানান। এই রিপোর্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান গবেষণার ফলাফল।

এসময় করোনা জেনোম সিকোয়েন্সিং বিএসএমএমইউ এর গবেষকবৃন্দ, সুপারভাইজার উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ, প্রধান গবেষক জেনোটিক্স এন্ড মলিকিউলার বায়োলজি ও এনাটমি বিভাগের চেয়ারম্যান ডা. লায়লা আনজুমান বানু, করোনা জেনোম সিকোয়েন্সিং এর সাথে যুক্ত গবেষণা টিম এর অন্যান্য সদস্যবৃন্দ-ডা. মোঃ মহিউদ্দিন মাসুম, ডা. শারমিন আক্তার সুমি, ডা. শরদিন্দু কান্তি সিনহা, সোয়েব হোসেন, শ্যামল চন্দ্র বিশ্বাস, করোনা জেনোম সিকোয়েন্সিং বিএসএমএমইউ এর সাথে যুক্ত অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের গবেষণা টিম এর সদস্যবৃন্দ অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হোসেন, অধ্যাপক ডা. জাহিদ হাসান, বাডাস কোভিড-১৯ প্রকল্প উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, কোভিড-১৯ এর জেনোম সিকোয়েন্সিং গবেষণার উদ্দেশ্য এর জেনোমের গঠন উন্মাচন ও পরিবর্তনের ধরণ এবং বৈশ্বিক কোভিড-১৯ ভাইরাসের জেনোমের সাথে এর আন্তঃসর্ম্পক বের করা, ভাইরাসের বিবর্তনীয় সম্পর্ক, রোগের উপসর্গ, রোগের তীব্রতা, তুলনামূলক হাসপাতাল অবস্থানের মেয়াদকালে এবং  বাংলাদেশী কোভিড-১৯ জেনোম ডাটাবেস তৈরি করা। ২৯ জুন ২০২১ থেকে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের উপর এই গবেষণা চলমান। গবেষণায় প্রায় এক হাজার পাচঁশত কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগীর ন্যাযোফ্যারিনজিয়াল সোয়াব স্যাম্পল থেকে নেক্সট জেনারেশন সিকোয়েন্সিং এর মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের জেনোম সিকোয়েন্সিং করা হয়।

কোভিড-১৯ সংক্রমণ হ্রাস হওয়া সত্বেও, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা গুরুত্বপূর্ণ বৈশ্বিক প্যান্ডেমিক হিসেবে ভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্সিং প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছিলেন। এই সময়ে আমরা করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট এর বিভিন্ন সাব-ভ্যারিয়েন্ট পেয়ে আসছি। বিশ্ব স্বাস্থ্য এই বছরের শুরুতে নতুন সাব-ভ্যারিয়েন্ট JN.1 এর কথা জানায়। এর পরিপ্রেক্ষিতে জানুয়ারি মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত প্রাপ্ত কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগীর  স্যাম্পল নিয়ে জেনোম সিকোয়েন্সিং করা হয়। আমাদের গবেষণায় আমরা মোট তিন জন রোগীর দেহে JN.1 সাব-ভ্যারিয়েন্ট JN.1 ; JN.1 ;১৮ এবং JN.1 .১১.১১) সনাক্ত করা হয়।

JN.1  সাব-ভ্যারিয়েন্ট এর উপসর্গগুলি অন্যান্য রূপগুলির মতোই যেমন জ্বর সর্দি, গলা ব্যথা, মাথা ব্রথা এবং হালকা গ্রাস্ট্রেইনটেস্পাইনাল লক্ষণগুলি দেখা গিয়েছে। রোগীদের উপসর্গ মৃদু হলেও দীর্ঘমেয়াদে এর প্রভাব জানার জন্য গবেষণা চালিয়ে যাবার বিকল্প নেই। JN.1   সাব-ভ্যারিয়েন্ট দ্বারা আক্রান্ত রোগীদের এক জনের দেশের বাইরে থেকে আসার ইতিহাস রয়েছে।

পর্যবেক্ষণে দেখা যাচ্ছে যে, নতুন JN.1 সাব-ভ্যারিয়েন্ট আক্রান্ত রোগের লক্ষণের তীব্রতা কম। সকল JN.1 সাব-ভ্যারিয়েন্ট আক্রান্ত রোগীর কমপক্ষে দুই ডোজ ভ্যাকসিন দেয়া ছিলো। তৃতীয়বারের মতো আক্রান্ত হয়েছে এরকম রোগীরও JN.1   সাব-ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া গেছে। মৃদু উপসর্রে কারণে JN.1 সাব-ভ্যারিয়েন্ট রোগীদের থেকে দ্রুত সংক্রমন সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। JN.1 সাব-ভ্যারিয়েন্টএ আক্রান্তদের তুলনামূলক কম উপসর্গ হয় এবং হাসপাতালে ভর্তির সম্ভাবনা কম। প্রত্যেক করোনা ভাইরাস ভ্যারিয়েন্ট বিপদজনক এবং তা মারাত্মক অনুস্থতা এমনকি মৃত্যুও কারণও হতে পারে। পাশাপাশি ভাইরাসের নিয়মিত মিউটেশনের আমাদের প্রচলিত স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে ঝুকিপূর্ণ করতে পারে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সরকার ইতোমধ্যে আড়াই রেকাটি ডোজ টিকা সংগ্রহ নিশ্চিত করেছে। ২০২৪ ও ২০২৫ সালে ঝুকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীকে চতুর্থ ডোজ হিসেবে এসব টিকা দেওয়া হবে। তাই করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে ও টিকা গ্রহণ করতে হবে।

এদিকে জেনোম সিকোয়েন্সিং গবেষণার ২০২৪ সালের নতুন ফলাফল প্রকাশ অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, তেতুল খেলে ডায়াবেটিস কমে, জলপাইয়ের অনেক উপকারিতা রয়েছে। কচুর লতি, ডুমুর, আনারসের মাথা এরকম অনেককিছু নিয়ে গবেষণা হচ্ছে। স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে ধূমপান, অতিরিক্ত লবণ খাওয়া, চিনি খাওয়া এড়িয়ে চলতে হবে। ব্যায়াম অবশ্যই করতে হবে। মানসিক চাপ মুক্ত থাকতে হবে। করোনা ভাইরাস শেষ হয়ে যায়নি। বাঁচতে অবশ্যই মুখে মাস্ক পড়তে হবে। যারা এখনো করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয় নি তারা উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে। তারা অবশ্যই যেনো টিকা গ্রহণ করেন।

নিউজ ট্যাগ: কোভিড-১৯

আরও খবর



সিনথীয়ার পাশে নরসিংদীর জেলা প্রশাসক

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নরসিংদী প্রতিনিধি

Image

স্কুল শিক্ষকের মেয়ে নিসাফাত সুলতানা সিনথীয়াকে মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পরও পড়াশোনার খরচ নিয়ে দুশ্চিন্তা দেখা দিয়েছিল। তবে নরসিংদীর জেলা প্রশাসকের কল্যাণে প্রাথমিকভাবে সেই শঙ্কা দূর হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসক ও  জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ড. বদিউল আলম ভর্তির খরচ বাবদ ২০ হাজার টাকা দিয়েছেন।

নরসিংদীর বেলাবো উপজেলার পোড়াদিয়া ইউনিয়নের মোগা গ্রামের গোলাম রব্বানী সাভারের একটি কিন্ডারগার্টেনে চাকরি করেন। তার মেয়ে নিসাফাত সুলতানা সিনথীয়া। ২০২০ সালে সিনথীয়া স্থানীয় পোড়াদিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও ২০২২ সালে বিপিএটিসি স্কুল ও কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পেয়ে এইচএসসি পাস করেন। ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার মেধাতালিকায় ৪০৬৬ তম স্থান নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন তিনি।

জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ড. বদিউল আলম বলেন, আমি গণশুনানিতে সিনথীয়ার কথা জানতে পারি। তাৎক্ষণিক তার মেডিকেলের ভর্তির যাবতীয় খরচ আমি দিয়েছি। ভবিষ্যতেও তার পড়াশোনার জন্য জেলা প্রশাসন পাশে থাকবে।

নিউজ ট্যাগ: নরসিংদী

আরও খবর



ঘরের মাঠে হারল ম্যানইউ, ব্যবধান কমাল সিটি

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ম্যানচেস্টার সিটির কঠিন পরীক্ষা নিল বোর্নমাউথ। শেষ পর্যন্ত যদিও ফিল ফোডেনের একমাত্র গোলে ১-০ ব্যবধানে জয় নিয়ে ফিরল পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা।

শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) প্রতিপক্ষের মাঠে এ জয়ে শীর্ষে থাকা লিভারপুলের সঙ্গে ব্যবধান কমাল সিটি। ২৪তম মিনিটে হলান্ডের কোনাকুনি শট ঝাঁপিয়ে ঠেকালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি গোলরক্ষক, আলগা বল পেয়ে অনায়াসে জালে জড়ান ফোডেন।

লিগে ২৬ ম্যাচে ১৮ জয় ও ৫ ড্রয়ে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে সিটি। এক ম্যাচ কম খেলা লিভারপুল ৬০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে।

অন্য ম্যাচে ঘরের মাঠ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফুলহামের কাছে ২-১ গোলে হেরেই বসেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। লিগে টানা চার ও সব মিলিয়ে টানা পাঁচ জয়ের পর হারল এরিক টেন হাগের দল।

ম্যাচের নির্ধারিত সময় শেষের তখন বাকি আর এক মিনিট। হারতে বসা ম্যাচে দলকে পথ দেখালেন হ্যারি ম্যাগুইয়ার। আশার সঞ্চার হলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড শিবিরে। কিন্তু শেষরক্ষা হলো না। শেষ সময়ে আরেকটি গোল করে দারুণ জয় ছিনিয়ে নিল ফুলহ্যাম। তিনটি গোলই হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধে। ক্যালভিন ব্যাসির গোলে পিছিয়ে পড়ার পর সমতা টানেন ম্যাগুইয়ার। শেষ সময়ে ব্যবধান গড়ে দেন অ্যালেক্স আইওবি।

এই হারে প্রতিযোগিতার রেকর্ড চ্যাম্পিয়নদের শীর্ষ চারে থেকে লিগ শেষ করার আশায় বড় চোট লাগল। লিগ টেবিলের চতুর্থ স্থানে থাকা অ্যাস্টন ভিলার চেয়ে ৮ পয়েন্টে পিছিয়ে পড়ল ইউনাইটেড।


আরও খবর



‘দ্য ক্রু’-এর মুক্তির তারিখ ঘোষণা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

এবার একসঙ্গে পর্দায় আসছেন বলিউডের গত তিন দশকের জনপ্রিয় তিন অভিনেত্রী টাবু, কারিনা ও কৃতি স্যানন। একতা কাপুরের প্রযোজনায় দ্য ক্রুতে দেখা যাবে এই ত্রয়ীকে। ইতোমধ্যেই আলোচনায় রয়েছে সিনেমাটি। নির্মাতারা জানালেন, এ বছরের ২৯ মার্চেই পর্দায় আসছে দ্য ক্রু।

দ্য ক্রু-এর ঘোষণা করা হয়েছিল ২০২২ সালের নভেম্বরে এবং ভক্তরা তখন থেকেই এটির প্রতীক্ষায় ছিল। কিন্তু শিডিউল জটিলতার কারণে এর নির্মাণ পেছানো হয়। প্রাথমিকভাবে নির্মাতারা জানিয়েছিলেন, ২০২৪ সালের ২২ মার্চ মুক্তি পাবে সিনেমাটি। তবে তা স্থগিত করা হয়েছে।

শুক্রবার (০২ ফেব্রুয়ারি) নির্মাতারা দ্য ক্রু-এর নতুন মুক্তির তারিখ ঘোষণা করে একটি টিজার প্রকাশ করেছেন। টিজারে দেখা গেছে তিন অভিনেত্রীকে যদিও তাদের মুখ দেখানো হয়নি। তবে সিনেমাটির মুক্তির তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে টিজারের মাধ্যমে।

দ্য ক্রু-এ টাবু, কারিনা এবং কৃতি কেবিন ক্রুর চরিত্রে অভিনয় করছেন। টিজারে তারই আভাস পাওয়া গেছে। এই কঠোর পরিশ্রমী নারীরা পেশাগত জায়গায় তাদের সেরাটাই দিতে চান। তবে তাদের জীবন একটি চমকপ্রদ মোড় নেয় যখন তারা অপ্রত্যাশিত এবং মারাত্মক পরিস্থিতিতে পড়ে যা তাদের মিথ্যার জালে জড়িয়ে ফেলে। এভাবেই এগিয়ে যায় গল্প।

টাবু, কারিনা এবং কৃতি গোয়া এবং আবুধাবির বিভিন্ন জায়গায় সম্প্রতি দ্য ক্রু-এর শুট করেছেন। ২০২৩ সালের মে মাসে এর চিত্রগ্রহণ শুরু হয়। বর্তমানে শুটিং শেষ হয়েছে বলে জানা গেছে।

লেখক নিধি মেহরা এবং মেহুল সুরির সাথে যৌথভাবে সিনেমাটি পরিচালনা করবেন রাজেশ কৃষ্ণান। একতা কাপুর এবং রিয়া কাপুর প্রযোজনা করছেন এটি। প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন টাবু, কারিনা কাপুর এবং কৃতি স্যানন। যদিও তাদের চরিত্রের নাম এখনও প্রকাশ করা হয়নি। এছাড়াও রয়েছেন দিলজিৎ দোসাঞ্জ, শাশ্বতা চ্যাটার্জি, রোহিত চেত্রী এবং পূজা ভামরাহ। জনপ্রিয় কমেডিয়ান কপিল শর্মার একটি ক্যামিও উপস্থিতিও থাকবে এতে।


আরও খবর
টেইলর সুইফট ইফেক্টে আক্রান্ত সিঙ্গাপুর

বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মধ্যপ্রদেশে পিকআপ উল্টে নিহত ১৪, আহত ২১

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ভারতের মধ্যপ্রদেশের ডিন্ডোরিতে একটি পিকআপ উল্টে অন্তত ১৪ জন নিহত হয়েছেন। মারাত্মক এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ২১ জন। বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে পুলিশের বরাতে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

পুলিশ জানিয়েছে, গ্রামবাসীদের একটি দল একটি অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেবরি গ্রামে বাড়ি ফিরছিল। পথে ডিন্ডোরি জেলার বাডজার গ্রামের কাছে পিকআপের চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। আহতদের চিকিৎসার জন্য নিকটস্থ কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে ভর্তি করেছেন স্থানীয়রা ও পুলিশ।

এদিকে দুর্ঘটনার পর মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মোহন যাদব নিহতদের পরিবারকে চার লাখ রুপি ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে স্থানীয় প্রশাসনকেও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।


আরও খবর