আজঃ শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১
শিরোনাম

কঙ্গোতে জাতিসংঘের গাড়িবহরে হামলা, ইতালির রাষ্ট্রদূত নিহত

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭১জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
লুকা আত্তানাসিও ও সেনা জাতিসংঘ মিশন মনুস্কোর একটি গাড়ির বহরে ভ্রমণ করছিলেন। সন্ত্রাসীরা গুলি চালালে রাষ্ট্রদূত ও তার সঙ্গে থাকা সামরিক পুলিশের মৃত্যু হয়

কঙ্গোয় জাতিসংঘের গাড়িবহরে হামলায় দেশটিতে নিযুক্ত ইতালির রাষ্ট্রদূত লুকা আত্তানাসিও নিহত হয়েছেন। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ১০টার দিকে পূর্বাঞ্চলীয় কানিয়ামাহোরো শহরের কাছে তাদের গাড়িবহরে হামলা হয় বলে ইতালির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, লুকা আত্তানাসিও ও সেনা জাতিসংঘ মিশন মনুস্কোর একটি গাড়ির বহরে ভ্রমণ করছিলেন। সন্ত্রাসীরা গুলি চালালে রাষ্ট্রদূত ও তার সঙ্গে থাকা সামরিক পুলিশের মৃত্যু হয়।

ইতালির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটের তথ্যানুসারে, রাষ্ট্রদূত অ্যাটানসিও ২০১৭ সালে কঙ্গোতে ইতালির মিশন প্রধান ছিলেন। ২০১৯ সালে তাকে রাষ্ট্রদূত করা হয়।

Share

পশ্চিমবঙ্গে ভোট শুরু ২৭ মার্চ, হবে ৮ দফায়

শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১

সৌদি বাদশাহর সঙ্গে যে কথা হল বাইডেনের

শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১




তালিকা মিললো আড়াই হাজার স্বাধীনতাবিরোধীর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৩২জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাধীনতাবিরোধীদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা চেয়ে চিঠি দেয়ার পর এখন পর্যন্ত দুই হাজার ৫০৪ জনের তালিকা পাওয়া গেছে। জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও যুদ্ধকালীন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডাররা এ তথ্য দিয়েছেন। এর মধ্যে বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে ৮৯৭ জন এবং বৃহত্তর রংপুর জেলা থেকে ১৬০৭ জনের নাম পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ১৮তম বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।

বৈঠকের কার্যপত্র থেকে জানা যায়, এর আগে সংসদীয় কমিটি রাজাকার ও স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকা এখন পর্যন্ত যতটুকু পাওয়া গেছে, তা অবিলম্বে গেজেট আকারে প্রকাশের সুপারিশ করে। এর প্রেক্ষিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব (কাউন্সিল অফিসার) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন স্বাক্ষরিত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, স্বাধীনতাবিরোধী রাজাকার, আলবদর, আল-শামস ও শান্তি কমিটির সদস্যদের সঠিক ও পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রণয়নের লক্ষ্যে একটি উপকমিটি গঠন করা হয়েছে।উপ-কমিটির কাছ থেকে তালিকা পাওয়া গেলে প্রাপ্ত তালিকাসহ যাচাই-বাছাইপূর্বক গেজেট আকারে প্রকাশের অনুরোধ জানিয়ে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের কাছে পাঠানো হবে।

বৈঠকে শেষে সংসদীয় কমিটির সভাপতি ও সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান জাগো নিউজকে বলেন, যাচাই-বাছাই অনির্দিষ্টকাল চলতে পারে না এবং এটাকে নিয়মিতকরণ বলে সংজ্ঞায়িত করে প্রক্রিয়াটি দ্রুত সম্পন্নের সুপারিশ করা হয়। এছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা সেবা বৃদ্ধির লক্ষ্যে শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং ঔষধ কেনার প্রয়োজনীয় অর্থ বৃদ্ধির ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কমিটি সুপারিশ করে।

জানা গেছে, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশের লক্ষ্যে জেলা ও উপজেলার সংশ্লিষ্ট সবার সমন্বয়ে শিগগিরই চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের সুপারিশ করা হয়। পরবর্তী প্রজন্মকে অবহিত করার উদ্দেশ্যে বঙ্গবন্ধু কর্ণার ও পাঠাগার স্থাপনের পরমর্শ দেয়া হয়েছে।

কমিটির সভাপতি শাজাহান খানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, কাজী ফিরোজ রশীদ ও মোছলেম উদ্দিন আহমদ অংশ নেন। এছাড়া বৈঠকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিভিন্ন সংস্থা প্রধানসহ মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Share



পরিবেশ পদকের জন্য মনোনীত ৬ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
জাতীয় পরিবেশ পদক ২০২০ মনোনয়ন চূড়ান্তকরণের লক্ষ্যে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত পদক সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়

জাতীয় পরিবেশ পদক-২০২০ প্রদানের জন্য তিন ব্যক্তি ও তিন প্রতিষ্ঠানকে চূড়ান্তভাবে মনোনয়ন করা হয়েছে। পরিবেশ সংরক্ষণ ও দূষণ নিয়ন্ত্রণ ক্যাটাগরির ব্যক্তিগত পর্যায়ে পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র (সিআরপি) সাভারের প্রতিষ্ঠাতা ভ্যালেরি অ্যান টেইলর এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে কনকর্ড রেডিমিক্স অ্যান্ড কনক্রিট প্রোডাক্টস লিমিটেড ও কনকর্ড প্রি-স্ট্রেসড কনক্রিট অ্যান্ড ব্লক প্লান্ট লিমিটেড কনকর্ড সেন্টারকে মনোনীত করা হয়েছে।

এছাড়া, পরিবেশগত শিক্ষা ও প্রচার ক্যাটাগরির ব্যক্তিগত পর্যায়ে খ্যাতিমান জলবায়ু পরিবর্তন বিশেষজ্ঞ ড. সালীমুল হক এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনকে (ইএসডিও) পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। পরিবেশ বিষয়ক গবেষণা ও প্রযুক্তি উদ্ভাবন ক্যাটাগরির ব্যক্তিগত পর্যায়ে ড. জহুরুল করিম এবং প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়কে পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ফেব্রুয়ারি) জাতীয় পরিবেশ পদক ২০২০ মনোনয়ন চূড়ান্তকরণের লক্ষ্যে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত পদক সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার, মন্ত্রণালেয়ের সচিব জিয়াউল হাসান, অতিরিক্ত সচিব (পরিবেশ) মো. মনিরুজ্জামান, পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. এ কে এম রফিক আহাম্মদ, বন অধিদফতরের প্রধান বন সংরক্ষক আমীর হোসাইন চৌধুরী, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি এবং কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভাপতির বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, দেশে অনেক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পরিবেশ ও বৃক্ষের কল্যাণে প্রশংসনীয় কাজ করে চলেছেন। অধিকাংশ মানুষ যেখানে সাময়িক ব্যক্তিস্বার্থে নির্বিচারে বৃক্ষ নিধন করে চলেছে, সেখানে ওয়াহিদ আলী সরদারের মতো মানুষ গাছের প্রতি দয়া পরবশ হয়ে হাজার হাজার গাছ থেকে পেরেক ওঠানোর কাজ করছেন।

তিনি আরও বলেন, নীরবে কাজ করে যাওয়া এসব মানুষকে উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে ভবিষ্যতে পুরস্কারের পরিমাণ বাড়ানোর বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

উল্লেখ্য, জাতীয় পরিবেশ পদকপ্রাপ্ত প্রতিটি ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানকে ২২ ক্যারেট মানের ২ তোলা ওজনের স্বর্ণের বাজার মূল্য ও অতিরিক্ত আরও পঞ্চাশ হাজার টাকার চেক, ক্রেস্ট ও সনদপত্র প্রদান করা হবে।

Share



ফের সমালোচনার শিকার মার্কিন পপস্টার

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফের বিতর্কে আন্তর্জাতিক পপস্টার রিহানা। দিল্লিতে প্রতিবাদরত কৃষকদের সমর্থন করার পর তাঁকে নিয়ে উত্তাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া। এবার তিনি সমালোচিত হয়েছেন তাঁর একটি ছবির জন্য।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি শেয়ার করেছেন রিহানা। সেখানে তাঁকে টপলেস অবস্থায় দেখা গিয়েছে। কিন্তু তাঁর গলায় ঝোলানো গণেশের একটি লকেট। মঙ্গলবার এই ছবি পোস্ট করেছেন রিহানা। আর তারপর থেকেই তিনি সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে। ছবিতে টপলেস অবস্থায় দেখা গিয়েছে তাঁকে। পরনে শুধু রয়েছে একটি শর্টস। কার্যত সেমি ন্যুড পোজে ছবি তুলেছেন মার্কিন পপস্টার। তবে গায়ে পোশাক না থাকলেও রিহানার অ্যাকসেসারিজ ছিল প্রচুর। কানে বড় ঝোলা দুল, হাতে আংটি, ব্রেসলেট। এর পাশাপাশি তাঁর গলায় শোভা পাচ্ছে একটি লম্বা হার। তাতে রয়েছে একটি গণেশের পেনডেন্ট।

আর এই গণেশের লকেটটি নিয়েই শুরু হয়েছে বিতর্ক। নেটিজেনদের অনেকেই দাবি করেছেন রিহানার এই ছবি হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করেছে। যদিও এ নিয়ে রিহানা কিছু বলেননি। কিন্তু তাঁর বিরুদ্ধে সরব নেটিজেনরা।

কিছুদিন আগে দিল্লিতে কৃষি আইনের প্রতিবাদে শামিল হওয়া কৃষকদের সমর্থনে মুখ খুলেছিলেন রিহানা। নিজের টুইটে রিহানা লিখেছিলেন, আমরা এনিয়ে কেন কথা বলছি না? এর উত্তরে কড়া সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাঁকে। কেউ কেউ বলেন, গোটা বিষয়টি না জেনে মন্তব্য করছেন পপস্টার। কেউ আবার রিহানাকে সমর্থনও জানান। তবে তাঁর টুইটের উত্তরে কঙ্গনার টুইট রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়। লেখেন, কেউ এনিয়ে কথা বলছে না। কারণ ওরা কৃষক নয়, ওরা সন্ত্রাসবাদী। ওরা ভারতকে ভাগ করতে চাইছে। যাতে চিন আমাদের খণ্ডিত হয়ে যাওয়া দেশের উপর আধিপত্য বিস্তার করতে পারে ও চাইনিজ কলোনি স্থানপন করতে পারে, যেমনটা আমেরিকা করেছে। তুমি বোকা, চুপচাপ বস। আমরা তোমাদের মতো আমাদের দেশ বিক্রি করব না।

লাল-নীল-গেরুয়া ! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।

নিউজ ট্যাগ: পপস্টার রিহানা
Share

প্রথমবারের মতো একসঙ্গে আলিয়া-অজয়

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১

খোলামেলা লুকে হাজির হলেন সোহিনী

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১




আংশিকভাবে খুলে দেয়া হচ্ছে নিউইয়র্ক সিটির সিনেমা হল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৫৯জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী মাসে আংশিকভাবে খুলে দেয়া হচ্ছে নিউইয়র্ক সিটির সিনেমা হলগুলো। এ নগরীতে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত বিধিনিষেধ শিথিল করার ক্ষেত্রে এটি হচ্ছে আরেকটি পদক্ষেপ। সোমবার গভর্নর অ্যানড্রিউ কোমো এই ঘোষণা দেন।

কোমো বলেন, আগামী ৫ মার্চ থেকে সিনেমা হলগুলোর ২৫ শতাংশ কাজে লাগানো যাবে এবং বাকি অংশ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ফাঁকা রাখতে হবে বা একটি স্ক্রীনে সর্বোচ্চ ৫০ জন সিনেমা দেখতে পারবে। প্রায় এক বছর বন্ধ রাখার পর তারা এসব সিনেমা হল খুলে দিতে যাচ্ছে।

কোমা টুইটার বার্তায় লিখেছেন, এক্ষেত্রে নির্ধারিত আসন, সামাজিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্য ঝুঁকি সংক্রান্ত সাবধানতা বজায় রাখতে হবে।

মহামারি করোনাভাইরাস আমেরিকার এ বাণিজ্যিক রাজধানীতে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ায় গত বছরের ১৭ মার্চ সরকারিভাবে সেখানের সিনেমা হলগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়। নগরীতে এ পর্যন্ত কোভিড-১৯ রোগে প্রায় ২৯ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: সিনেমা হল
Share

প্রথমবারের মতো একসঙ্গে আলিয়া-অজয়

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১

খোলামেলা লুকে হাজির হলেন সোহিনী

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১




গর্ভবতী হতেই নায়িকাকে ডিভোর্স দিলেন ডিরেক্টর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
Share
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নব্বই দশকের আলোচিত চিত্রনায়িকা রঞ্জিতা। তাকে জেদ করে বিয়ে করেছিলেন ফাইট ডিরেক্টর ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম। নায়িকা গর্ভবতী হতেই তাকে ডিভোর্স দিয়েছিলেন তিনি।

তখন বাংলা সিনেমায় মার্শাল আর্টের জোয়ার বইছে। ঘটনাক্রমে একটি সিনেমার ফাইট ডিরেক্টর হিসেবে ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলমকে বাদ দেওয়া হয়। সেই সিনেমার নায়িকা ছিলেন রঞ্জিতা। গুঞ্জন শোনা যায়, তাকে বাদ দেয়ার পেছনে রঞ্জিতার হাত রয়েছে।

এ প্রসঙ্গে রঞ্জিতা বলেন, এফডিসির ৩নং ফ্লোরে ওই সিনেমার শুটিং হচ্ছিল। আমি মেকআপ রুমে ছিলাম। হঠাৎ সেখানে ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম এলেন। তাকে দেখেই বুঝেছিলাম খুব রেগে আছেন। তিনি এসেই আমাকে উদ্দেশ্য করে বললেন, কোন নায়িকার জন্য আমাকে ফাইট ডিরেক্টর থেকে বাদ দেওয়া হলো? মেকআপ রুমে সেদিন নায়ক রুবেলও ছিলেন। রুবেল তখন বললেন, ওস্তাদ প্লিজ মেকআপটা শেষ করতে দেন। শুটিং রানিং।

কিন্তু তাতেও তিনি নরম হচ্ছিলেন না। তখন আমি বলি- হু আর ইউ? আর এতেই তিনি চরম ক্ষিপ্ত হলেন। আমাকে গালি দিয়ে বলেন, এই মেয়ে আমার সঙ্গে ইংলিশ বলে! সেদিন যাওয়ার আগে তিনি বলে যান- রুবেল, আমি এই মেয়েকে একদিন বিয়ে করবো।

মরণ লড়াই সিনেমার মধ্য দিয়ে ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে রঞ্জিতার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু এই প্রেমের পেছনে যে উদ্দেশ্য কাজ করছে সেটি বুঝতে পারেননি রঞ্জিতা। ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম তার জেদ পূরণে রঞ্জিতাকে বিয়ে করেন। এরপর তিনি যখন গর্ভবতী হন, তার চার মাস পর জাহাঙ্গীর রঞ্জিতার বাবা-মা'কে সাফ জানিয়ে দেন- 'আমার জেদ ছিল বিয়ে করা; করেছি। এখন আপনাদের মেয়েকে নিয়ে যেতে পারেন। তারপরই তাদের ডিভোর্স হয়। রঞ্জিতার দাবি, তিনি প্রতারিত হয়েছেন।

Share

প্রথমবারের মতো একসঙ্গে আলিয়া-অজয়

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১

খোলামেলা লুকে হাজির হলেন সোহিনী

শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১