আজঃ বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

মামলা করতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে যাচ্ছেন নুসরাত?

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনা তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনকে। ৮ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মুনিয়ার মৃত্যুকে হত্যাকাণ্ড এবং ধর্ষণ বলে অভিযোগ করেন তাঁর বোন নুসরাত তানিয়া। ট্রাইব্যুনাল এই মামলা তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছে পিবিআইকে।

মনোজ কুমার মজুমদারের নেতৃত্বে পিবিআই পুলিশের তদন্তকারী সংস্থা গুলোর মধ্যে আলাদা একটা আভিজাত্যমন্ডিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে ইতিমধ্যে স্বীকৃতি পেয়েছে। অনেক জটিল মামলার তদন্ত করে এই সংস্থাটি ইতিমধ্যে প্রশংসা কুড়িয়েছে এবং পুলিশের অন্যতম প্রশংসিত একটি সংগঠন হিসেবে এটি ইতিমধ্যে জনগণের কাছে স্বীকৃত হয়েছে।

পিবিআই ইতিমধ্যে মামলা তদন্তের প্রাথমিক কাজকর্ম শুরু করেছে বলে পিবিআই সূত্রে জানা গেছে। এই মামলা তদন্তে পিবিআই পাঁচটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে এগুচ্ছে বলে পিবিআই সূত্রে জানা গেছে। যে পাঁচটি বিষয় সামনে রেখে পিবিআই মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করবে তার মধ্যে রয়েছে:

১. পোস্টমর্টেম রিপোর্ট: যেকোনো একটি মৃত্যুর বড় উপজীব্য সাক্ষ্য হলো পোস্টমর্টেম রিপোর্ট। মুনিয়ার মৃত্যুর পোস্টমর্টেম রিপোর্টটি পিবিআই প্রথমে খতিয়ে দেখবে এবং প্রয়োজনে চিকিৎসকের সঙ্গে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট নিয়ে কথা বলবে। পোস্টমর্টেম রিপোর্টের উপর ভিত্তি করেই একটি মামলার তদন্ত এগুবে। ইতিমধ্যে, যে পোস্টমর্টেম রিপোর্ট দেয়া হয়েছে তাতে মুনিয়ার আত্মহত্যার কথা বলা হয়েছে। সেখানে হত্যার কোনো আলামত পাওয়া যায়নি বলেই উল্লেখ করা হয়েছে। সে বিবেচনায় পোস্টমর্টেম রিপোর্টটি পিবিআই আবার নতুন করে নিরীক্ষা করবে বলে জানা গেছে।

২. ভিডিও ফুটেজ: মুনিয়ার মৃত্যুর আগে এবং পরে মুনিয়ার ফ্লাটে কারা গিয়েছিল সেই সংক্রান্ত ভিডিও ফুটেজগুলো পিবিআই পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে। মুনিয়ার মামলার যদি হত্যাকাণ্ডের ন্যূনতম উপজীব্য বিষয় থাকে তাহলে অবশ্যই ভিডিও ফুটেজে মুনিয়ার বাসায় কারা গেছে তার একটি চিহ্ন-প্রমাণ থাকবে এবং এখানে যে ৮ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে সে ৮ জনের কাউকে না কাউকে এই ঘটনাস্থলে যাওয়ার প্রমাণ থাকতে হবে এবং সেই প্রমাণটি যদি না করা যায় তাহলে যাদেরকে অভিযুক্ত করা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ টিকিয়ে রাখা অসম্ভব হয়ে পড়তে পারে।

৩. ঘটনার পারিপার্শ্বিকতা: মুনিয়ার মৃত্যুর ঘটনার পারিপার্শ্বিকতা নিয়ে পিবিআই তদন্ত করবে। বিশেষ করে সংশ্লিষ্টদের কর্মতৎপরতা গুলো বিচার করবে। কোন বিচারে কিভাবে নুসরাত ঘটনাস্থলে আসলেন এবং কীভাবে তিনি মামলা করলেন সে বিষয়টিও পিবিআই বিচার-বিশ্লেষণ করবে বলে পিবিআইয়ের দায়িত্বশীল সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছে।

৪. অভিযুক্তদের সংশ্লিষ্টতা: এই মামলায় অভিযুক্তদের কোনরকম সংশ্লিষ্টতা আদৌ আছে কি না বা থাকলে কিভাবে আছে সেটি পিবিআই তদন্ত করে দেখবে। এ সংক্রান্ত যে সমস্ত নথিপত্র কাগজপত্র ইত্যাদি রয়েছে তাও পিবিআই বিবেচনা করবে।

৫. নুসরাতের স্বার্থ: এই মামলায় নুসরাতের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়টি পিবিআই তদন্ত করে দেখবে। প্রথম নুসরাতের মামলা করা, বিভিন্ন জায়গায় নুসরাতের মামলার নিয়ে অতি উৎসাহী কথাবার্তা এবং তাকে সমর্থন দেয়া বিভিন্ন গোষ্ঠীর সঙ্গে নুসরাতের সম্পর্ক কি তা বিচার বিশ্লেষণ করবে।

পিবিআই সূত্র বলছে, যেকোনো একটি মামলায় কেবল অভিযুক্তের ঠিকুজি দেখতে হয় না সঙ্গে সঙ্গে যিনি মামলার বাদী তারও উৎসাহ এবং স্বার্থ দেখতে হয়। বিভিন্ন ব্যক্তি বিভিন্ন স্বার্থে অনেক সময় মামলা করেন আর সেটিও পিবিআই বিচার-বিশ্লেষণ করবে। বিভিন্ন সূত্রগুলো বলছে এই সমস্ত বিচার-বিশ্লেষণ শেষে পিবিআই একটি চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করবে। আর এটি করতে গেলে অনেকেই মনে করছেন যে মামলার বাদী নুসরাত তানিয়া নিজেই এই মামলায় ফেঁসে যেতে পারে। কারণ পিবিআই এই মামলা তদন্ত করবে অত্যন্ত নিরপেক্ষতার সঙ্গে এবং তথ্য-উপাত্ত আলামত সংগ্রহ করেই।

নিউজ ট্যাগ: নুসরাত পিবিআই

আরও খবর
স্বামী হত্যায় স্ত্রীর যাবজ্জীবন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আদালতে হাজির করা হচ্ছে ইভ্যালির রাসেলকে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রথম ম্যাচে দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। প্রথমে নিউজিল্যান্ডকে ৬০ রানে অলআউট করে ম্যাচ জেতে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

শুক্রবার মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

আগের ম্যাচের একাদশে কোনো পরিবর্তন না নিয়েই দ্বিতীয় ম্যাচে মাঠে নেমেছে তারা। ধরে রেখেছে উইনিং কম্বিনেশন।

এ ম্যাচটি বিশেষ ক্যান্সার যোদ্ধাদের উৎসর্গ করার কথা আগেই জানিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বাংলাদেশ ক্যান্সার এইড ট্রাস্টের (ব্যানক্যাট) প্রতি সমর্থন জানিয়ে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে তারা।

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে দুই দলের একাদশ-

বাংলাদেশ : মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ নাঈম শেখ, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান, মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাসুম আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।

নিউজিল্যান্ড: রাচিন রবীন্দ্র, টম ব্লান্ডেল, উইল ইয়াং, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম, টম লাথাম, হেনরি নিকোলস, কোল ম্যাককঞ্চি, ডগ ব্রেসওয়েল, এজাজ প্যাটেল, বেন সিয়ার্স ও হামিশ ব্যানেট


আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




দেড় বছর পর সুন্দরবন ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা উঠল

প্রকাশিত:সোমবার ৩০ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ৩০ আগস্ট ২০২১ | ৬৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফের পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে সুন্দরবন। একই সঙ্গে সব ধরনের মাছ ও কাঁকড়া আহরণের নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নেওয়া হচ্ছে। বুধবার থেকে ভ্রমণের জন্য প্রবেশ করা যাবে সুন্দরবনে।

এ তথ্য নিশ্চিত করে খুলনা অঞ্চলের বন সংরক্ষক মিহির কুমার দে জানান, মন্ত্রিপরিষদ কর্তৃক অনুমোদিত সুন্দরবন ভ্রমণ’ নীতিমালা অনুসরণ করে আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন উন্মুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে। প্রতিটা লঞ্চে ৭৫ জনের বেশি যাত্রী নেওয়া যাবে না। সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। উপযুক্ত স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে। উল্লেখিত নীতিমালা অমান্য করে কোনো ট্যুর অপারেটর অধিক পর্যটক বহন বা পরিবেশ বিঘ্নিত হলে তার বিরুদ্ধে বন বিভাগ আইনগত ব্যবস্থা নেবে।

অপরদিকে ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এম নাজমুল আযম ডেভিড জানান, দীর্ঘদিন ব্যবসা বন্ধ। সংগঠনের নেতারা বন বিভাগের সব নীতিমালা মেনে নিয়েই ব্যবসা পরিচালনা করবেন বলে জানান।

উল্লেখ্য, দেশে করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করলে ২০১৯ সালের ২৬ মার্চ থেকে পর্যটকদের জন্য সুন্দরবন ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে বন বিভাগ। দেড় বছরের অধিক সময় পর আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে সুন্দরবন।


আরও খবর
হৃদয় জুড়াবে মহামায়া কায়াকিং

বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১




সীতার চরিত্রে কারিনার থেকে তিনগুণ বেশি পারিশ্রমিক কঙ্গনার

প্রকাশিত:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খুব শীঘ্রই শুরু হতে চলেছে 'সীতা'র শুটিং। কঙ্গনা সীতার চরিত্রে কারিনা-র থেকে তিনগুণ বেশি পারিশ্রমিক কঙ্গনার!

কিছুদিন আগেই একটি ছবিতে সীতার চরিত্রে অভিনয়ের জন্য ১২ কোটি টাকা পারিশ্রমিক চেয়েছিলেন করিনা কাপুর খান। এরপরই ট্রোল হতে থাকেন নায়িকা। সেই ট্রোলের জবাবে করিনা বলেছেন, নায়কেরা বেশি পারিশ্রমিক চাইলে কেউ কোনও কথা বলে না নায়িকারা বেশি পারিশ্রমিক চাইলেই কেন তাঁকে ট্রোল করা হয়।

অন্যদিকে সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় কঙ্গনা রানাওয়াত জানিয়েছেন যে সীতার চরিত্রে অভিনয় করতে চলেছেন তিনি। ছবির নাম 'সীতা, দ্য ইনকারনেশন'। শোনা যাচ্ছে এই ছবির জন্য তিনি ৩২ কোটি টাকা পারিশ্রামিক নিচ্ছেন কঙ্গনা।

এবার কঙ্গনার ছবি নিয়ে টুইটারে মন্তব্য করে বসলেন কমল আর খান । কঙ্গনার নানা বিষয়ে নানা মতামত নিয়ে বারবারই তাঁর বিরুদ্ধে তোপ দেগে থাকেন কমল। সীতার খবর সামনে আসতেই আবারও কঙ্গনার পারিশ্রমিক নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

সম্প্রতি টুইটারে তিনি লিখেছেন, 'সূত্রের খবর সীতা ছবির জন্য ৩২ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছেন কঙ্গনা। আর এই ছবির হাত ধরেই বলিউডের হায়েস্ট পেড নায়িকা হলেন তিনি। কিন্তু কেন প্রযোজক এই ভুল করলেন? আমার আগামী রিভিউয়ে আমি এই বিষয়ে সমস্ত তথ্য দেব।


আরও খবর
হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আমার পছন্দের পুরুষকে একটু রাফ হতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




আমি পিসিবির এই চুক্তি ফিরিয়ে দিলাম: আমির

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাকিস্তান ক্রিকেট নিয়ে আলোচনা যেন থামছেই না। পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটে চুক্তিতে রাখায় পিসিবির উপর চটেছেন পাকিস্তানের বাঁহাতি পেসার মোহাম্মাদ আমির। জানালেন, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে না ডাকলে ঘরোয়া চুক্তি দিয়ে তাকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে না পাকিস্তান বোর্ড।

আমির সম্প্রতি বলেছেন আমি যদি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেই না খেলি, তাহলে আমাকে ঘরোয়া চুক্তি দিয়ে কী লাভ? তারা আমাকে এই চুক্তি দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করতে চায়। পিসিবিতে অনেক শিক্ষিত মানুষ আছে কিন্তু তারা যেন অবুঝের মতো আচরণ করছে। এই প্রস্তাব দিয়ে আমাকে তারা নিয়ন্ত্রণে রাখতে চায়।

পাকিস্তান ক্রিকেট থেকে মিসবাহ উল হক ও ওয়াকার ইউনিসের সরে দাঁড়ানোর পরই শুরু সব আলোচনার। তখনই অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন আমির, এমনটা জানাচ্ছিল স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম।

এরপরই এল পিসিবির ঘরোয়া চুক্তিতে তার অন্তর্ভুক্তির ঘোষণা। সম্প্রতি প্রকাশিত তালিকায় দেখা যায়, ক্যাটাগরিতে রাখা হয়েছে তাকে। আমির বোর্ডের এই সিদ্ধান্তের প্রতি ক্ষোভ জানিয়ে বলেন- তারা আমার সঙ্গে যোগাযোগ না করেই কিভাবে আমার নাম কেন্দ্রীয় চুক্তিতে দেয়। নাম দেওয়ার আগে আমার সাথে যোগাযোগ করা প্রয়োজন ছিলো। আমি পিসিবির এই চুক্তি ফিরিয়ে দিলাম।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে অবসরের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছিলেন আমির। নিজের পারফর্ম্যান্স নয়, তার সমস্যাটা যে ছিল পাকিস্তান দলের দুই কোচের সঙ্গে, সেটাও পরিষ্কার করে দিয়েছিলেন তিনি।

নিউজ ট্যাগ: মোহাম্মাদ আমির

আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি: ৭০ হাজার মানুষ পানিবন্দি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২1 | ৫৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুড়িগ্রামের চিলমারী, উলিপুর, রৌমারী, রাজিবপুর ও সদর উপজেলায় ব্রহ্মপুত্রের অববাহিকায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে অন্তত ৭০ হাজার মানুষ।

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, বিকেল ৩টায় ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি পেয়ে চিলমারী পয়েন্টে বিপৎসীমার ৫১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ধরলার পানি কিছুটা কমে সেতু পয়েন্টে বিপৎসীমার ১১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এতে করে ধরলা অববাহিকায় বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলেও অবনতি হয়েছে ব্রহ্মপুত্র অববাহিকার বন্যা পরিস্থিতি। ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় চিলমারী ও উলিপুর উপজেলার ২ শতাধিক চর ও দ্বীপচরের প্রায় ৭০ হাজার মানুষ পানিবন্দি জীবনযাপন করছে।

ভেঙে পড়েছে চরাঞ্চলের যোগাযোগ-ব্যবস্থা। যাতায়াতের দুর্ভোগে বেড়েছে বন্যাকবলিত এলাকার মানুষের। হাতে কাজ না থাকায় বিপাকে পড়েছেন পানিবন্দি মানুষজন। পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে রোপা-আমন, সবজিক্ষেত ও বীজতলা।

হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিএম আবুল হোসেন জানান, আমার ইউনিয়নের প্রায় সাড়ে ৩ হাজার পানিবন্দি পরিবার কষ্টে জীবনযাপন করছে। ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়ে পড়ছে। বন্যার্তদের জন্য চাল বরাদ্দ পেয়েছি। যা শুক্রবার বিতরণ করা হবে।

এদিকে বর্নাতদের জন্য ২৮০ মেট্রিক টন চাল ও ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। যা বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানান জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম।


আরও খবর
কুড়িগ্রামে ৭ দিনের লকডাউন

মঙ্গলবার ১৫ জুন ২০২১