আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সহজ গ্রুপে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | ১৭৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানে যৌথ ভাবে অনুষ্ঠিত হবে এবারের আসর। ওমানে হবে বাছাই পর্বের ম্যাচগুলো।

রাউন্ড-১ খ্যাত বাছাই পর্ব পার করেই বাংলাদেশকে খেলতে হবে সুপার টুয়েলভ পর্বে। তার আগে আটটি দলকে দুই গ্রুপে ভাগ করে দেয়া হয়েছে রাউন্ড-১ এ।

গ্রুপে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ড ও নামিবিয়া। বি গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গে রয়েছে স্কটল্যান্ড, পাপুয়া নিউগিনি ও ওমান। বলা যায় গ্রুপের তুলনায় বি গ্রুপে বাংলাদেশের তিন প্রতিপক্ষে অনেকটা সহজ দল।

এই দুই গ্রুপের খেলা শেষে সেরা চার দল টিকিট পাবে সুপার টুয়েলভে খেলার। যেখানে গ্রুপে রয়েছে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ। গ্রুপে যোগ দেবে রাউন্ড-১ পর্বের সেরা এ-১ ও বি-২ দল। বি গ্রুপে ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে যোগ দেবে এ-২ ও বি-১ দল।

তবে আইসিসি এখনও বাছাইপর্ব ও মূল পর্বের পূর্ণাঙ্গ সূচি প্রকাশ করেনি। ১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হয়ে ১৪ নভেম্বরে ফাইনাল দিয়ে পর্দা নামবে আসরের।


আরও খবর



মায়ের নিখোঁজ সংবাদ শুনে সাইকেলে ২৩০ কিলোমিটার পথ পাড়ি সন্তানের

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১ | ৫৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মায়ের নিখোঁজ সংবাদ শুনে লকডাউনের মধ্যে ঢাকা থেকে সাইকেল চালিয়ে ২৩০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে বাড়ি পৌঁছেছে ছেলে। টানা ১৪ ঘণ্টা সাইকেল চালানোর পর রবিবার মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লঙ্গুরপাড় গ্রামের বাড়ি ফেরে একমাত্র সন্তান সোহেল আহমেদ (২৮)। আত্মীয়স্বজনের বাড়িসহ সব জায়গায় খোঁজ করেও মায়ের কোনো সন্ধান পাননি সোহেল।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের লংগুরপাড় গ্রামের মানিক মিয়ার স্ত্রী হাজেরা বিবি ওরফে কুঠিল (৪৮)। গত বুধবার রাতে একই গ্রামে অবস্থিত বড় ভাই আসিদ আলির বাড়িতে রাতের খাবার খেয়ে হাজেরা বিবি প্রতিবেশী রকিব মিয়ার বাড়িতে রাত্রি যাপন করেন। বৃহস্পতিবার ভোরে ঘুম থেকে উঠে রকিব মিয়ার স্ত্রীকে চা বানাতে বলে ঘর থেকে বেরিয়ে যান। রকিব মিয়ার স্ত্রী চা বানাতে গেলেও হাজেরা বিবি আর ফেরেননি।

এদিকে সকাল পেরিয়ে দুপুর গড়িয়ে গেলেও হাজেরা বিবি বাড়িতে না ফেরায় হাজেরার নাতিন শাম্মী (১০) বাড়ির পাশেই দাদা আসিদ আলির বাড়িতে গিয়ে দাদির খোঁজ করে। পরে খোঁজ নিয়েও কোনো সন্ধান না পেয়ে আসিদ আলী শুক্রবার বিকালে কমলগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়ারি করেন। সোহেলের খালাতো ভাই সেলিম মিয়া জানান, প্রায় ২০-২৫ বছর আগে একইভাবে সোহেলের পিতা মানিক মিয়া নিখোঁজ হয়েছিলেন। যার সন্ধান এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। কমলগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানা জানান, এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়ারি করা হয়েছে। নিখোঁজ হওয়া গৃহবধূকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।



আরও খবর



খুলনার ৪ হাসপাতালে ২৭ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে খুলনার চারটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সকাল সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার (৯ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত তাদের মৃত্যু হয়। যা এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড। শুক্রবার জেলা সিভিল সার্জন এ তথ্য জানান।

খুলনা করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ১১ জন, গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ জন ও জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে পাঁচজন ও আবু নাসের হাসপাতালে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকালপারসন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় এ হাসপাতালে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৮৫ জন। এর মধ্যে রেড জোনে ১২৬ জন, ইয়োলো জোনে ১৯ জন, আইসিইউতে ১৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৪৬ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৯ জন।

গাজী মেডিকেল হাসপাতালের সত্ত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। বেসরকারি এ হাসপাতালের চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও ১২৯ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ৮ জন ও এইচডিইউতে আছেন ১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৩৬ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২১ জন।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, এ হাসপাতালে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া এ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭১ জন। এর মধ্যে ৩৪ জন পুরুষ ও ৩৭ জন মহিলা। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৩ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৬ জন।

শহীদ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একজনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ৫ জন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন পাঁচজন।


আরও খবর



মেডিক্যাল কলেজ থেকে ২২৫১ চিকিৎসককে হাসপাতালে বদলি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) মহামারি সুষ্ঠুভাবে মোকাবিলা ও জনসেবা নিশ্চিত করার জন্য সরকার মোট এক হাজার ২৫১ জন চিকিৎসককে বিভিন্ন হাসপাতালে সংযুক্তি দিয়ে পদায়ন করেছে।

সোমবার ও মঙ্গলবার (৪ ও ৫ জুলাই) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ বেশ কিছু প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এসব চিকিৎসককে বিভিন্ন হাসপাতালে পদায়ন করা হয়েছে।

পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া এই আদেশ বলবৎ থাকবে। মোট পাঁচটি বিভাগে এসব চিকিৎসককে সংযুক্তি দিয়ে পদায়ন করা হয়। এসব চিকিৎসক করোনা ইউনিটে দায়িত্ব পালন করবেন।

মঙ্গলবারের (৬ জুলাই) মধ্যে পদায়ন করা চিকিৎসকদের কর্মস্থলে যোগ দিতে হবে। তা না হলে বুধবার (৭ জুলাই) বর্তমান কর্মস্থল থেকে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত হিসেবে গণ্য হবেন।

এই চিকিৎসকেরা আগের কর্মস্থল (মূল কর্মস্থল) থেকে বেতন-ভাতা তুলবেন। কারও বর্তমান কর্মস্থল ঠিক না থাকলে তিনি যেখানে কর্মরত আছেন সেখান থেকে অবমুক্ত হবেন এবং যথাসময়ে পদায়ন করা কর্মস্থলে যোগ দেবেন।

এক্ষেত্রে আদেশ সংশোধনের প্রয়োজন হবে না। পদায়ন হওয়া চিকিৎসকদের একটি বড় অংশ মেডিক্যাল কলেজে কর্মরত ছিলেন। তাদের হাসপাতাল বা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পদায়ন করা হয়েছে।


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




করোনার তৃতীয় ঢেউ শুরু, ডেল্টা নিয়ে সতর্ক করল ডব্লিউএইচও

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | ১১৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ১১১টির বেশি দেশে পৌঁছে গেছে। আমরা ধারণা করছি, এটি শিগগিরই বিশ্বজুড়ে করোনার সবচেয়ে প্রভাবশালী ধরন হিসেবে আবির্ভূত হবে, যদি না তা ইতোমধ্যেই হয়ে গিয়ে থাকে

করোনাভাইরাস মহামারির তৃতীয় ঢেউ শুরু হয়ে গেছে। আমরা এখন এর প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছি বলে সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তারা বলেছে, এবারের ঢেউয়ে বড় আতঙ্কের কারণ হতে পারে অতিসংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট। বার্তা সংস্থা এএনআইয়ের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

গত বুধবার ডব্লিউএইচও প্রধান তেদ্রোস আধানম গ্যাব্রিয়েসুস বলেছেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমরা বর্তমানে করোনা মহামারির তৃতীয় ঢেউয়ের প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছি। তার মতে, করোনায় মৃত্যু ও সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পেছনে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের বিস্তারের পাশাপাশি সামাজিক গতিশীলতা এবং প্রমাণিত স্বাস্থ্য ব্যবস্থার অসামঞ্জস্য ব্যবহার বৃদ্ধির বড় ভূমিকা রয়েছে।

গ্যাব্রিয়েসুস জানান, ভাইরাসটি বিকশিত হওয়া অব্যাহত রেখেছে, যার মাধ্যমে অধিক সংক্রামক ধরনগুলো তৈরি হচ্ছে। তিনি বলেন, ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ১১১টির বেশি দেশে পৌঁছে গেছে। আমরা ধারণা করছি, এটি শিগগিরই বিশ্বজুড়ে করোনার সবচেয়ে প্রভাবশালী ধরন হিসেবে আবির্ভূত হবে, যদি না তা ইতোমধ্যেই হয়ে গিয়ে থাকে।

গত সপ্তাহে টানা চতুর্থ সপ্তাহের মতো বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণের হার বাড়তে দেখা গেছে। এর মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ছয়টি অঞ্চলের মধ্যে একটি বাদে সবগুলোতেই রেকর্ড সংখ্যক সংক্রমণ হয়েছে। টানা ১০ সপ্তাহ কমার পর সম্প্রতি করোনায় মৃত্যুও ফের বাড়তে শুরু করেছে।

করোনার এই ভয়াবহতা ঠেকাতে টিকাদানের বিকল্প নেই বলে মনে করিয়ে দিয়েছেন ডব্লিউএইচও প্রধান। আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে প্রতিটি দেশের অন্তত ১০ শতাংশ মানুষকে করোনা টিকার আওতায় আনতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আহ্বানের কথাও ফের উল্লেখ করেন তিনি।


আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




আশ্রয়ণ প্রকল্পে অনিয়মে ৫ কর্মকর্তা ওএসডি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | ১৫৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আশ্রয়ণ প্রকল্পে অনিয়মের জন্য পাঁচ কর্মকর্তাকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়েছে। গত ৪ ও ৫ জুলাই এই পাঁচ কর্মকর্তাকে ওএসডি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে আদেশ জারি করা হয়।

ওএসডি হওয়া কর্মকর্তারা হলেন- বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত উপ-সচিব মো. শফিকুল ইসলাম। তিনি সিরাজগঞ্জের কাজিপুরের সাবেক ইউএনও। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা হয়েছে বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে।

এছাড়া হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুবায়েত হাসান শিপলুকে ওএসডি করা হয়েছে। তিনি মুন্সীগঞ্জ সদরের সাবেক ইউএনও ছিলেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. লিয়াকত আলী সেখও ওএসডি হয়েছেন। তিনি বগুড়ার শেরপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) দায়িত্বে ছিলেন।

এছাড়া বরগুনার আমতলীর ইউএনও মো. আসাদুজ্জামান এবং মুন্সীগঞ্জ সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) শেখ মেজবাহ-উল-সাবেরিনকে ওএসডি করা হয়েছে।

এই পাঁচ কর্মকর্তা ইউএনও ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়মে জড়িয়েছিলেন বলে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ইতোমধ্যে এক লাখ ১৮ হাজার ৩৮০ জন ভূমিহীনকে দুই কক্ষের ঘর নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে। কিন্তু বিভিন্ন জায়গায় এই ঘর ভেঙে পড়েছে। ঘর নির্মাণ নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

উল্লেখ্য, আশ্রয়ণ হচ্ছে গৃহহীন পরিবারদের জন্য পুনর্বাসনের প্রকল্প। এই প্রকল্পের মূল উদ্দেশ ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্নমূল, অসহায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পুনর্বাসন করা; ঋণ প্রদান ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহে সক্ষম করে তোলা এবং আয়বর্ধক কার্যক্রম সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র্য দূর করা। প্রথম পর্যায় শেষে এখন এই প্রকল্পের দ্বিতীয় পর্যায় চলছে।


আরও খবর
পরীর বাসায় মিলল আইস, এলএসডি

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১