আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন মোদি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৮ এপ্রিল ২০২১ | ১০২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আজ এইমসে কোভিড-১৯ টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলাম। ভাইরাসকে হারানোর যে হাতেগোনা কয়েকটি উপায় আছে, তার অন্যতম হলো টিকাকরণ। আপনি যদি টিকা পাওয়ার যোগ্য হন, তাহলে ডোজ নিন

করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) সকালে তিনি নয়াদিল্লির অল ইন্ডিয়া ইন্সটিটিউট অব মেডিক্যাল সাইন্স (এইমস) হাসপাতালে গিয়ে করোনার টিকা নেন। সেই সঙ্গে তিনি টিকা নেয়ার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে একটি টুইটও করেন।

টুইটবার্তায় মোদি বলেন, আজ এইমসে কোভিড-১৯ টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলাম। ভাইরাসকে হারানোর যে হাতেগোনা কয়েকটি উপায় আছে, তার অন্যতম হলো টিকাকরণ। আপনি যদি টিকা পাওয়ার যোগ্য হন, তাহলে ডোজ নিন। কো-উইনে রেজিস্ট্রার করে টিকা নিন।’

টিকা নেয়ার সময় মোদির সঙ্গে দু’জন নার্স ছিলেন। তাদের মধ্যে একজন পি নিভেদা। যিনি গতবার মোদিকে টিকা দিয়েছিলেন। এবার তাকে টিকা দেন নিশা শর্মা নামের এক নার্স।

এর আগে গত ১ মার্চ এইমসে করোনার টিকা কোভ্যাক্সিনের প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন মোদি। অর্থাৎ প্রথম ডোজ নেয়ার ৩৯ দিনের মাথায় দ্বিতীয় ডোজ নিলেন তিনি।


আরও খবর



ইতিহাসের সেরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও আয়োজন করব আমরা : সৌরভ

প্রকাশিত:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের বিশ্বকাপ আয়োজন করার বার্তা দিয়েছেন সৌরভ গাঙ্গুলি।

টাইমস অব ইন্ডিয়া জানাচ্ছে, সৌরভ চিঠিতে লিখেছেন, আশা করি দেশের পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক হবে। ঘরোয়া ক্রিকেটের সব আসরের সঙ্গে ইতিহাসের সেরা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও আয়োজন করব আমরা।

আগামী অক্টোবর ও নভেম্বরে টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসর বসবে ভারতে। গেল বছর করোনার হানায় মার্চের পর ক্রিকেট স্থগিত করা হয়েছিল দেশটিতে। তবে ঘরোয়া ক্রিকেটে সৈয়দ মুস্তাক আলি এবং বিজয় হাজারে ট্রফি আয়োজন করেছিল। যদিও চলতি বছরের শুরুতে রঞ্জি ট্রফি বাতিল করতে বাধ্য হয় বিসিসিআই।

দেশটিতে বর্তমানে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলছে। এমন অবস্থায় দিনের পর দিন জৈব সুরক্ষা বলয়ে দিন কাটাচ্ছেন ক্রিকেটাররা। প্রতিকূল পরিস্থিতিতে বিশ্বমানের পারফর্ম করায় ভারতীয় ক্রিকেটারদের প্রশংসায় করেছেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক।

সৌরভ গাঙ্গুলি লিখেছেন, আন্তর্জাতিক এবং ঘরোয়া ক্রিকেটাররা সুরক্ষা বলয়ে থেকেও দীর্ঘদিন থেকেও অসাধারণ ক্রিকেট উপহার দিয়ে চলেছেন।

চলমান আইপিএল ৩০ মে শেষ হবে। আট দলের এই বিশাল আয়োজনে বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে ক্রিকেটাররা যোগ দিয়েছেন। টুর্নামেন্টটি সফলভাবে কতটা সফলভাবে আয়োজন করতে পারবে ভারত, তার ওপরেই নির্ভর করছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের বিষয়টি।


আরও খবর



আজকের রাশিফল: জেনে নিন কেমন কাটবে দিন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | ১০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পুরনো জ্যোতিষশাস্ত্রের এমন একটি ধরন, যার মাধ্যমে বিভিন্ন সময়কাল নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। যেমন দৈনিক রাশিফল প্রতিদিনের ঘটনার ভবিষ্যকথন করে, তেমন সাপ্তাহিক, মাসিক তথা বার্ষিক রাশিফল যথাক্রমে সপ্তাহ, মাস এবং বছরের ভবিষ্যদ্বাণী করে। বৈদিক জ্যোতিষে ১২টি রাশি- মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কট, সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিক, ধনু, মকর, কুম্ভ ও মীন-এর ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। একই রকমভাবে ২৩টি নক্ষত্রেরও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়ে থাকে।

মেষ রাশি:

জনসংযোগ ও প্রচারমূলক কাজে অগ্রগতি। কোনো ইতিবাচক সংবাদে উত্ফুল্ল হবেন। অন্যের ওপর আবেগপ্রসূতভাবে নির্ভর করবেন না। জীবন সম্পর্কে আশাবাদী দৃষ্টিভঙ্গি অব্যাহত রাখুন।

বৃষ রাশি:

বেকারদের কাজের যোগাযোগ আসতে পারে। ভুল তথ্যের কারণে বিভ্রান্ত হতে পারেন। সিদ্ধান্তে স্থির থাকতে পারবেন না। সঠিক প্রচেষ্টায় পরিবর্তন সম্ভব। মনকে প্রফুল্ল রাখুন।

মিথুন রাশি:

আকস্মিক প্রাপ্তির সম্ভাবনা আছে। কর্মসূত্রে উন্নতির যোগ। প্রেমের বাধা মিটবে। প্রতিকূল পরিস্থিতি হঠাত্ পরিবর্তনের ইঙ্গিত রয়েছে। আর্থিক ব্যাপারে সচেতন থাকুন।

কর্কট রাশি:

জমি ও আবাসনসংক্রান্ত আলোচনায় অগ্রগতি। আর্থিক অবস্থা গতানুগতিক। কোনো কিছু নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগতে পারেন। দাম্পত্য জীবন শুভ। সময়ের সঠিক ব্যবহার করুন।

সিংহ রাশি:

কর্মক্ষেত্রে যোগাযোগ বৃদ্ধি ও অর্থোন্নতির ক্ষেত্রে অনুকূল দিন। অযাচিত কিছু অর্থ হাতে আসতে পারে। আত্মীয়ের ব্যাপারে দুশ্চিন্তা বাড়বে। স্বাস্থ্য রক্ষায় মনোযোগ দিন। ভ্রমণ শুভ।

কন্যা রাশি:

কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বাড়বে। আর্থিক অবস্থার উন্নতি। ভবিষ্যত্ পরিকল্পনায় অন্যের সহযোগিতা পাবেন। ব্যবসায় জটিলতা কাটবে। নতুন অভিজ্ঞতা দূর ভবিষ্যতে পুরস্কৃত করবে।

তুলা রাশি:

বিশেষ প্রচেষ্টায় সাফল্যের যোগ। নিজের ওপর আস্থা বাড়বে। আয় কমবেশি বাড়বে। কাজে বাধা থাকলেও দীর্ঘস্থায়ী হবে না। নতুন পরিকল্পনার অগ্রগতি হবে।

বৃশ্চিক রাশি:

কাজের চাপ থাকবে। কোনো কিছু নিয়ে অনিশ্চয়তায় থাকতে পারেন। ব্যয় বাড়বে। কর্মপরিবেশ মাঝেমধ্যে প্রতিকূল হতে পারে। সময়ের সঠিক ব্যবহার করুন। সুস্থ থাকুন।

ধনু রাশি:

কোনো আশা পূরণ হতে পারে। আয়ের নতুন কোনো উত্স খুঁজে পাবেন। বন্ধুর সহযোগিতার আশ্বাস পাবেন। পুরনো সমস্যা কিছুটা মিটবে। শরীরের যত্ন নেবেন। ভালো থাকবেন।

মকর রাশি:

কোনো লাভজনক কাজের সুযোগ আসতে পারে। কর্মক্ষেত্রে সম্মান বৃদ্ধি। প্রেমে হতাশা, নতুন ধ্যান-ধারণা জন্ম নেবে। পাওনা আদায়ে অগ্রগতি। সুযোগের সদ্ব্যবহার করুন।

কুম্ভ রাশি:

কোনো প্রচেষ্টার ফল পেতে পারেন। নতুন কিছু করার সুযোগ আসবে। কর্মক্ষেত্রে দায়িত্ব বৃদ্ধি। ব্যবসায়ীদের বাড়তি আয়ের সম্ভাবনা। গঠনমূলক চিন্তা করুন, ভালো থাকুন।

মীন রাশি:

সামাজিক যোগাযোগ বাড়বে। কোনো সুযোগ হাতছাড়া হতে পারে। প্রত্যাশিত অর্থাগমে বাধা। স্বার্থের পরিপন্থীতে কারো অনুরোধ রক্ষা। মতবিরোধ আছে এমন মানুষ এড়িয়ে চলুন।


আরও খবর
যেভাবে বানাবেন শসার স্মুদি

সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১




বাংলাদেশের লাল-সবুজে আলোকিত অস্ট্রেলিয়ার দুই ব্রিজ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ মার্চ ২০২১ | ৯৮জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনের আলো যখন হারিয়ে যাচ্ছিল ঠিক তখনই মিটমিট করে জ্বলে ওঠে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে পাওয়া লাল-সবুজ পতাকা। তবে বাংলাদেশে নয়, লাল-সবুজে আলোকিত হলো অস্ট্রেলিয়ার দুটি ঐতিহাসিক স্থাপনা স্টোরি ব্রিজ ও ভিক্টোরিয়া ব্রিজ। কুইন্সল্যান্ডে শহর ব্রিসবেনের এ দুটি উল্লেখযোগ্য স্থাপনা শহরের একেবারে প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত। অস্ট্রেলিয়ার কোনো বিশেষ স্থাপনা বাংলাদেশের পতাকার রঙে আলোকিত করার ঘটনা এটাই প্রথম।

আর এ আয়োজনটি সম্ভব হয়েছে ড. জিশু দাস গুপ্ত ও বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন ইন ব্রিসবেন ইনকের (ব্যাব) উদ্যোগে এবং অস্ট্রেলিয়ান লোকাল গভর্নমেন্টের সহযোগিতায়।

স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় পূর্ণভাবে আলো জ্বলে ওঠে এই দুই ব্রিজে। তখন ব্রিসবেন নদীর পানিতে উজ্জ্বলভাবে প্রতিফলিত হয় বাংলাদেশের পতাকার রঙ।

এদিন ব্রিসবেনে বসবাসকারী বাংলাদেশিরা মিলিত হন স্টোরি ব্রিজের নিচে। সারাদিন চলতে থাকা বৃষ্টি উপেক্ষা করে সবাই একসঙ্গে গলা মিলিয়ে গেয়ে ওঠেন- আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালবাসি এ যেন অন্য এক অনুভূতি। বিদেশের মাটিতে নিজের দেশের পতাকা দেখতে পারার আনন্দ উপচে পড়ে সবার চোখেমুখে।

ব্যাবের প্রেসিডেন্ট মুনির রহমান বলেন, একজন গর্বিত বাংলাদেশি হিসেবে এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। আমাদের অনেক দিনের প্রচেষ্টার ফলে এ আয়োজন করা সম্ভব হয়েছে। এটি আমাদের সূচনা মাত্র। আমরা আগামী দিনে ব্রিসবেন তথা গোটা অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশকে তুলে ধরব আরও উঁচু থেকে উঁচুতে, যা হবে আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য দেশের প্রতি দায়িত্ব এবং ভালোবাসার দৃষ্টান্ত।

২০১৮ সাল থেকে এ আয়োজনের চেষ্টা করা হলেও এবারই সম্ভব হলো।

এ আয়োজনের স্বপ্নদ্রষ্টা ড. জিশু দাস গুপ্ত বলেন, ২০১৮ সাল থেকে আমার ও কমিউনিটির সব সদস্যের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ চেষ্টার ফলেই আমাদের এ অর্জন। আমরা চাই এ অর্জন ছড়িয়ে পড়ুক পৃথিবীর আনাচে-কানাচে। জ্বলে উঠুক বাংলাদেশের নাম।

নিউজ ট্যাগ: অস্ট্রেলিয়া

আরও খবর



ঈদের পরে খুলতে পারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান!

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ মার্চ ২০২১ | ১১২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ৩০ মার্চ খুলছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দেশে নতুন করে করোনাভাইরসের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় এ ছুটি আরও পিছিয়ে ঈদুল ফিতর পর্যন্ত বাড়ানো হতে পারে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাধিক কর্মকর্তা বলেন, করোনা পরিস্থিতি বেড়ে যাওয়ায় বর্তমানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত পিছিয়ে দেয়ার চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার কথাটি আগে বিবেচনা করে স্কুল-কলেজ খোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এ কারণে পবিত্র ঈদুল ফিতর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটির ঘোষণা দেয়া হতে পারে।

তবে ছুটি বাড়ানোর বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার বিষয়টি বিবেচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। দ্রুত সময়ের মধ্যে এ বিষয়ে ঘোষণা দেয়া হবে।

এর আগে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন ৩০ মার্চ স্কুল-কলেজ খুলে দেয়া হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হলেও প্রাক-প্রাথমিক খুলছে না। এ বিষয়ে পরে জানিয়ে দেয়া হবে। তবে পঞ্চম শ্রেণি, দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রতিদিন ক্লাস নেয়া হবে। অন্যান্য ক্লাসের শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে একদিন ক্লাস নেয়া হবে। পর্যায়ক্রমে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হবে।

এরপরই প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর ও মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতর স্কুল খুলতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রস্তুতি নিতে নির্দেশনা দেয়। ফলে দীর্ঘদিন প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকা স্কুল-কলেজ সংস্কারের উদ্যোগ নেয় কর্তৃপক্ষ। এরপর স্কুল-কলেজ খোলার আগে শিক্ষকদের টিকাগ্রহণ বাধ্যতামূলক করেছে দুই মন্ত্রণালয়। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী প্রায় ৮৫ শতাংশ শিক্ষক করোনা টিকার আওতায় এসেছে।

কিন্তু সম্প্রতি করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের হার ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে জনমনে আবারও প্রশ্ন উঠেছে। তবে এরই মধ্যে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, স্কুল-কলেজ খোলা হলে করোনা পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে।


আরও খবর



পর্যটন এলাকা লকডাউনের ঘোষণা আসতে পারে আজ

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
দিন দিন মানুষের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। কেউই স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। করোনা তো বাড়বেই। দেশে বিভিন্ন টাইপের লকডাউনের ঘোষণা আসতে পারে

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে বিয়ে, ওয়াজ মাহফিল, পিকনিকসহ বেশ কিছু বিষয়ে বিধিনিষেধ আরোপের ইঙ্গিত দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। এর মধ্যে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, বান্দরবান, খাগড়াছড়িএসব এলাকায় যাওয়া-আসা বন্ধ করার কথাও বলেছেন তিনি।

জাহিদ মালেক বলেন, দেশে করোনা সংক্রমণ দিন দিন বাড়ছে। আমরা যদি স্বাস্থ্যবিধি না মানি তাহলে আমাদের দেশের অনেক ক্ষতি হবে। এর অন্যতম কারণ আমাদের হাসপাতালগুলোতে এতো জায়গা নেই। কোথায় চিকিৎসা হবে কে চিকিৎসা দেবে এত মানুষকে?।

জাহিদ মালেক গণমাধ্যমকে বলেন, দিন দিন মানুষের জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। কেউই স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। করোনা তো বাড়বেই। দেশে বিভিন্ন টাইপের লকডাউনের ঘোষণা আসতে পারে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি এলাকায় যাওয়া-আসা বন্ধ করা হতে পারে। বিয়ে, অনুষ্ঠান, ওয়াজ মাহফিল, পিকনিকসহ জনসমাগম হয় এমন সব অনুষ্ঠানে বিধিনিষেধ আসতে পারে। তিনি আরও যোগ করেন, আজ সোমবার থেকে দেশের সব পর্যটন এলাকা বা স্পটে লকডাউনের ঘোষণা আসতে পারে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, সারা দেশে একবারে লকডাউনের চিন্তা করছে না সরকার। তবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কারিগরি কমিটি মনে করছে, লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় এসেছে।

মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবে বলা হয়েছে, সম্ভব হলে কমপ্লিট লকডাউনে যেতে হবে। সম্ভব না হলে অর্থনৈতিক ভারসাম্য রেখে যেকোনও জনসমাগম বন্ধ করতে হবে।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর