আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস আজ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
১৯৪৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে জাতিসংঘ অর্থনীতি ও সমাজ পরিষদ আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের সম্মেলন ডাকার সিদ্ধান্ত নেয়। একই বছরের জুন ও জুলাই মাসে আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়

করোনাভাইরাসের মহামারি তাণ্ডবের মধ্যে ৭ এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস ২০২১ পালিত হবে। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য একটি সুন্দর এবং সুস্থ বিশ্ব গড়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে হবে।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে প্রতি বছরই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং স্বাস্থ্য বিষয়ে কাজ করে এমন বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাসমূহ নানা কর্মসূচি গ্রহণ করে। কিন্তু এবার বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবসে সরকার ঘোষিত লকডাউনের তৃতীয় দিনে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়নি।

তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস ২০২১ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) এর আয়োজনে বুধবার (৭ এপ্রিল) জুম মিটিং অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের চিকিৎসা ও শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলী নূর, সচিব, স্বাস্থ্যেসেবা বিভাগের সচিব মো. লোকমান হোসেন মিয়া। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার টিম লিড, হেলথ সিস্টেম ডা. সাংগে ওয়াংমো।

১৯৪৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে জাতিসংঘ অর্থনীতি ও সমাজ পরিষদ আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের সম্মেলন ডাকার সিদ্ধান্ত নেয়। একই বছরের জুন ও জুলাই মাসে আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সাংগঠনিক আইন গৃহীত হয়, ১৯৪৮ সালের ৭ এপ্রিল এই সংগঠন আইন আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যকর হয়। এইদিন বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস বলে নির্ধারিত হয়। প্রতিবছর সংস্থাটি এমন একটি স্বাস্থ্য ইস্যু বেছে নেয়, যা বিশেষ করে সারা পৃথিবীর জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। সেদিন স্থানীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে পালিত হয় এ দিবসটি।


আরও খবর



নিউজিল্যান্ডের কাছে হোয়াইটওয়াশ বাংলাদেশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ মার্চ ২০২১ | ১০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তিন ম্যাচ ওয়ানডের প্রত্যেকটি ম্যাচই হেরেছে বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওদের মাটিতে ভাগ্য বদলানোর দৃঢ় প্রত্যাশা নিয়ে সফর শুরু করেছিল তামিমরা। তবে খালি হাতে শেষ হলো ওয়ানডে সিরিজ।

ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে হতাশা ছাড়া কিছুই নেই টাইগারদের জন্য। ব্যাটিং ব্যর্থতায় হারতে হয়েছে ১৬৪ রানের বিশাল ব্যবধানে।

শুক্রবার সকালে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। শুরুতে দুই রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমদের তোপে ওপেনার হ্যানরি নিকোলস (১৮) আর মার্টিন গাপটিল (২৬) হতাশ করলেও কিউইরা ঘুরে দাঁড়ায় ডেভন কনওয়ের ব্যাটে।

সিরিজে প্রথম ম্যাচ খেলতে নাম রস টেইলরকে ৭ রানে ফেরান রুবেল, ১৮ রানে টম ল্যাথামকে ফেরান সৌম্য সরকার। দ্রুত উইকেট তুলে ম্যাচ বাংলাদেশের পক্ষে আনলেও নিমেষেই শেষ হয়ে যায় ডেভন কনওয়ে ও ড্যারেল মিচেল। দুইজনের ১৫৯ রানের জুটিতে। ক্যারিয়ারের তৃতীয় ম্যাচেই সেঞ্চুরি তুলে নেন কনওয়ে। দুইজনের জুটি ভাঙে মোস্তাফিজের বলে কনওয়ের ১২৬(১১০) রানে বিদায়ে।

তবে মিচেল খেলেছেন হাত খুলে। যেন যেমন খুশি তেমন খেলো। ৯৮ বলে সেঞ্চুরি তুলে নিয়ে বাংলাদেশকে হতাশায় ভাসান। মিচেল সেঞ্চুরির জন্য কৃতিত্ব দিতে পারেন মুশফিকুর রহিমকেও।

৯৮ রানে থাকা মিচেলের সেঞ্চুরি পেতে ইনিংসের শেষ বলে লাগত ২ রান। মোস্তাফিজুর রহমানের বল ডিপ মিড উইকেটে ঠেলে দিয়ে দ্বিতীয় রান নেয়ার সময় সৌম্য সরকারের থ্রো তালুবন্দী করতে পারেননি মুশফিক। তাতে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিটা পেয়েছেন মিচেল। তাতে কিউইরা সংগ্রহ করে ৬ উইকেটে ৩১৮ রান।

বাংলাদেশের রুবেল হোসেন ৩টি ও ১টি করে উইকেট নিয়েছেন মোস্তাফিজ, তাসকিন এবং সৌম্য।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে কিউই পেসারদের গতির ঝড়ের কবল থেকে বেরুতেই পারেনি বাংলাদেশ। ম্যাট হেনরির বলে ১ রান করে ক্যাচ দেন তামিম ইকবাল।

সৌম্য সরকারও ১ রান করে বিদায় নেন হ্যানরির বলেই। মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে লিটন দাস যখন বিপদ সামলাতে ব্যস্ত তখনই হ্যানরির বলে আচমকা এক ক্যাচ লুপে নেন ট্রেন্ট বোল্ট। ২১ রান করে ফিরতে হয় সাজঘরে।

মোহাম্মদ মিঠুন এদিন খেলেছেন টেস্ট মেজাজে। ৩৯ বলে ৬ রান করে ক্যাচ দেন জেমিনসনের বলে। মুশফিকুর রহিমও মনে করিয়ে দেন, সফরে টেস্ট ম্যাচ রাখার কথা। ৪৪ বলে ২১ রান করে ফেরেন জিমি নিশামের বলে তার হাতেই ক্যাচ দিয়ে।

এরপর নিশামের মেহেদি মিরাজ ০(১) ও মাহেদি হাসান ৩(৮) রান করে সাজঘরে ফিরলে মাহমুদউল্লা লড়াই চালান হারের ব্যবধান কমানোর। রুবেল হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে তুলে নেন অর্ধশতক।

রুবেল ২৮ বলে ৪ রান করে বিদায় নিলে মোস্তাফিজুর থিতু হতে পারেননি। তার বিদায়ে ৭৬ (৭৩) রানে অপরাজিত থেকেছেন মাহমুদউল্লাহ। ৪২.৪ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রানে তুলে বাংলাদেশ। ১৬৪ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কিউইরা।


আরও খবর



বিশ্ব আবহাওয়া দিবস আজ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ বিশ্ব আবহাওয়া দিবস। জেনেভায় অবস্থিত বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করেছে সমুদ্র, আমাদের জলবায়ু ও আবহাওয়া। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও আজ দিবসটি পালন করছে।

সমুদ্র উপকূলীয় দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বৈরী আবহাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে নিয়মিতই। দিবসটি উপলক্ষ্যে আজ আবহাওয়া অধিদপ্তর বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এদিকে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানায়, বিশ্ব আবহাওয়া দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল প্রধান অতিথি থাকবেন। এ অধিদপ্তরের সদর দপ্তরসহ গুরুত্ব অনুযায়ী দেশের বিভিন্ন শাখা অফিসসমূহ দিবসটি সীমিত আকারে পালনের জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

এ অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে আবহাওয়া সংক্রান্ত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি ও প্রামাণ্য চিত্র স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেলা ৩টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত জনসাধারণের পরিদর্শনের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তা পরিষদ কর্তৃক একটি টেকনিক্যাল সেশনের আয়োজন করা হবে। এছাড়া ঢাকা, কক্সবাজার, খেপুপাড়া, রংপুর ও মৌলভীবাজারের অপারেশনাল ইউনিট ও রাডার স্টেশনসমূহ জনসাধারণের প্রদর্শনের জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে।

একসময় মানুষের ধারণা ছিল- আবহাওয়া অধিদপ্তর যদি বলে বৃষ্টি হবে, সেদিন রোদ ওঠে। এ নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করতেন অনেকে। তবে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রযুক্তিগত অনেক পরিবর্তন এসেছে। সাধারণ মানুষও এখন পূর্বাভাসে বিশ্বাস রাখছেন।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, এখন তাদের প্রতিদিনের পূর্বাভাস অনেকটাই নির্ভুল হয়। শুধু তাই নয়, প্রযুক্তির কল্যাণে আগাম ১০ দিনের পূর্বাভাস দেওয়ার সক্ষমতাও রয়েছে তাদের। কিন্তু দুর্যোগ মোকাবিলায় মানুষকে সতর্ক করতে সারা পৃথিবীতে সংকেত ব্যবস্থার আধুনিকায়ন হলেও, দুর্যোগপ্রবণ বাংলাদেশে এখনও ব্রিটিশ আমলের সেই বন্দরভিত্তিক সংকেত ব্যবস্থাই চালু রয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সনাতনী সতর্ক সংকেত মূলত নদী ও বন্দরকেন্দ্রিক। ঝড়ের কবল থেকে শুধু নৌকা কিংবা জাহাজকে নিরাপদে রাখতে এ ধরনের সংকেত ব্যবস্থা গড়ে ওঠে উপনিবেশিক আমলে। কিন্তু নদী থেকে দূরের এলাকার মানুষের জন্য আলাদা করে সংকেত ব্যবস্থা নেই।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আতিকুল হক বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের জন্য এখন যে ১০টি সতর্ক সংকেত ব্যবস্থা আছে, তা সহজভাবেই মানুষের কাছে উপস্থাপন করা যাচ্ছে। এই সংকেতগুলো দিয়ে কী বোঝানো হচ্ছে, মানুষের কাছে তা স্পষ্ট।

তিনি আরও বলেন, পুরোনো সংকেত ব্যবস্থা জনগণকে গভীরভাবে বোঝানোর চেষ্টা চলছে। এজন্য আর্লি ওয়ার্নিং নামে তিনটি প্রকল্প চলমান আছে।

তবে আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলছেন, পূর্বাভাস প্রচারে যুগান্তকারী পরিবর্তন এনেছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট। ঘূর্ণিঝড় ও আকস্মিক বন্যা দেখা দেওয়ার আগেই সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হচ্ছে। ফলে ঘূর্ণিঝড় ও বন্যায় মৃতের হার কমে গেছে।


আরও খবর



দাম কমেছে মুরগির মাংসের, স্থিতিশীল রয়েছে সবজি-পেঁয়াজ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় লকডাউনে গিয়েছে সরকার। এর মধ্যে বেশিরভাগ পণ্যের মূল্য যেমন- পেঁয়াজ, আলু, গরুর মাংসসহ বেশিরভাগ পণ্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে। মুরগির মাংসের দাম কেজিতে কমেছে ২০ টাকা। বুধবার (৭ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে গিয়ে দেখা যায়, আলু ২০ টাকা, পেঁয়াজ ৪০ টাকা, গরুর মাংস ৬০০ টাকা, কাঁচামরিচ ১০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। লকডাউনের আগে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হতো ১৮০ টাকা, এখন তা বেড়ে ১৫০-১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

কারওয়ান বাজারে বাজার করতে আসা ফার্মগেটের ব্যবসায়ী নিজামুল কবির বলেন, সকল পণ্যের দাম একই আছে। কোনও মালের দাম বাড়েনি। তবে লকডাউনের ঘোষণা দেওয়ার আগের দিন ক্রেতারা বেশি বাজার করায় দাম একটু বেড়েছিল।

নিউজ ট্যাগ: বাজার দর

আরও খবর
সব সবজির দাম ঊর্ধ্বমুখী

শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১




বেসরকারি কলেজে অনার্স-মাস্টার্স স্তর ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা

প্রকাশিত:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এমপিওভুক্ত বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স স্তর ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। শিগগিরই একটি কমিটি এ নিয়ে কাজ শুরু করবে। শিক্ষক প্রশিক্ষণ এবং শিক্ষকদের আর্থিক নিরাপত্তা বিবেচনায় রেখে সার্বিক পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

জানতে চাইলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, আমরা কাজ শুরু করেছি। শিগগিরই একটি কমিটি বিষয়টি নিয়ে কাজ করবে।

গত ২৪ জানুয়ারি আন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছিলেন, শিক্ষা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হবে। যেসব বেসরকারি কলেজে অনার্স-মাস্টার্স রয়েছে, পর্যায়ক্রমে সেগুলো বন্ধ করে দেওয়া হবে। কলেজগুলোয় বিভিন্ন ধরনের শর্টকোর্স পড়ানো হবে। কলেজগুলো থেকে যারা বিএ, বিএসসি ও বি-কম পাস করবেন তাদের জন্য ওই কোর্সগুলো থাকবে।

শিক্ষামন্ত্রীর এই নির্দেশনার পর বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স স্তর নিয়ে অভ্যন্তরীণ আলোচনা শুরু করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরই ধারাবাহিকতায় কাজ শুরু করে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মো. মাহবুব হোসেন বলেন, আমরা বেসরকারি কলেজ থেকে অনার্স একবারেই উঠিয়ে দেবো না। অনার্স ডিগ্রিকে উপযোগী করে তোলা হবে। বেসরকারি অনেক কলেজে অনার্স স্তরের ডিগ্রির স্ট্যান্ডার্ড বজায় রাখা হচ্ছে না। ক্ষেত্রবিশেষে অনার্স স্তর নিয়ে আরও গবেষণা হবে। পুরো চিত্রটা এখনই বোঝা যাচ্ছে না। তবে পরিবর্তন আসবে।

এ ক্ষেত্রে উচ্চশিক্ষায় সংকট তৈরি হবে কিনা জানতে চাইলে মো. মাহবুব হোসেন বলেন, আমরা সংকট তৈরি করছি, এমনটা নয়। গ্রামে যত্রতত্র অনার্স স্তর থাকলে স্ট্যান্ডার্ড ঠিক রাখা যাবে না। বাজারের চাহিদার ভিত্তিতে কোর্সটির উন্নয়ন করা হবে। বাজারে কিছু বিষয়ের চাহিদা রয়েছে। সব বিষয়ের নেই। সেসব বিবেচনায় রেখে কমিটি কাজ করবে।

শিক্ষকদের আর্থিক নিরাপত্তার বিষয়ে তিনি বলেন, শিক্ষকদের আর্থিক অবস্থান শক্ত না করলে তারা অংশ নেবেন কেন? অভ্যন্তরীণ আলোচনা হয়েছে। বেসরকারি কলেজের অনার্স স্তর নিয়ে যে হতাশা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে রয়েছে, সে জায়গা থেকে বেরিয়ে আসতে চাই।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এমপিওভুক্ত বেসরকারি কলেজের ডিগ্রি স্তরের শিক্ষকরা সরকারি বেতন-ভাতার অংশ পেলেও অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকরা পান না। ২৮ বছরের বঞ্চনার শেষ সমাধান হিসেবে জনবল কাঠামোতে পদ অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানিয়ে আসছিলেন তারা।

শর্টকোর্স চালুর বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রীর আশ্বাসে শিক্ষকদের মধ্যে আর্থিক নিরাপত্তার নিশ্চয়তা তৈরি হলেও নতুন জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা জারির পর আবার হতাশায় পড়েন তারা। কারণ, ২০২১ সালের বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (স্কুল-কলেজ) জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা প্রকাশের পর দেখা যায় কাঠামোতে অনার্স-মাস্টার্স স্তর নেই। তাই অনার্স স্তর ঢেলে সাজানোর কাজ শেষ হলে শিক্ষকদের আর্থিক নিরাপত্তাও নিশ্চিত হবে বলে জানান সচিব।


আরও খবর



মুন্সীগঞ্জে উত্ত্যক্তের অভিযোগে সালিশ, প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ৩

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ মার্চ ২০২১ | ১১৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুন্সীগঞ্জে মেয়ে সংক্রান্ত ঘটনায় সালিশি বৈঠকে প্রতিপক্ষের হামলায় প্রাণ গেলো দুই কলেজ ছাত্রের। পরে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় মারা যান সালিশি বৈঠকের বিচারক মো. আওলাদ হোসেন মিন্টু প্রধান (৪৫)। এ ঘটনায় আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে আরো চারজন। গত বুধবার (২৪ মার্চ) রাত সাড়ে ১১ টার দিকে শহরের উত্তর ইসলামপুর এলাকায় জামালের দোকানের সামনে এ ঘটনার সূত্রপাত ঘটে।

নিহতরা হলেন- উত্তর ইসলামপুর এলাকার কাশেম পাঠানের ছেলে মো. ইমন হোসেন (২২) ও একই এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে মো. সাকিব হোসেন (১৯) ও মৃত আনোয়ার আলীর ছেলে আওলাদ হোসেন মিন্টু প্রধান (৪৫)। এই ঘটনায় পুলিশ পাঁচজনকে আটক করেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইভটিজিং নিয়ে ইমন পাঠান একই এলাকার অভিকে দোষী করে চর থাপ্পর মারে। পরে ইমন পাঠানের পক্ষের বড় ভাই মিন্টু আবার অভিকে ডেকে নিয়ে ধাপ্পর মারে। বুধবার রাত ৯ টার দিকে এই ঘটনা উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরে এই নিয়ে আপোষ-নিস্পত্তিতে সাড়ে ১১ টার দিকে মিন্টুর বাড়ির সামনে জামালের দোকান প্রাঙ্গণে সালিশি বৈঠক হয়। এই বৈঠকেই মিমাংসাও হয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু শেষ পর্যায়ে অভি গুরুপের লোকজন আকস্মিকভাবে তিনজনকে ছুরি দিয়ে আঘাত করে । রক্তাক্ত অবস্থায় তারা মাটিতে লুতিয়ে পড়ে। তখন চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে এবং বৈঠকে থাকা লোকজনকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

মুন্সীগঞ্জ থানার ওসি মো. আবু বকর সিদ্দিক জানান, সৌরভ, অভি ও শামীম গুরুপ এই হামলার সাথে জড়িত। তাদের তিনজনের কাউকে গ্রেফতার করতে না পারলেও এই সাথে সংশ্লিষ্ট পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে। এর মধ্যে বৈঠকে উপস্থিত সৌরভের পিতা জামাল প্রধান রয়েছেন। তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থলে এক জনের মৃত্যু হয়ে। আরেক জন ঢাকা নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায়। আজ বৃহস্পতিবার সকাল দিকে ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মিন্টুর মৃত্যু হয়।

নিউজ ট্যাগ: মুন্সীগঞ্জ

আরও খবর