আজঃ বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১
শিরোনাম

দেশে করোনায় মৃত্যু-শনাক্ত কিছুটা কমেছে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | ১৩১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু কিছুটা কমেছে। এই সময়ে আরও ২০০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৩২৫ জনে।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১১ হাজার ৫৭৯ জন। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১১ লাখ ২৮ হাজার ৮৮৯ জনে। মঙ্গলবার (২০ জুলাই) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৯ হাজার ৯৯৭ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ৯ লাখ ৫১  হাজার ৩৪০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৯ হাজার ৫১০ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২৯ দশমিক ৩১ শতাংশ।

এর আগে সোমবার (১৯ জুলাই) দেশে সর্বোচ্চ ২৩১ জনের মৃত্যু হয় এবং করোনা শনাক্ত হয় ১৩ হাজার ৩২১ জনের। তারও আগে ১১ জুলাই দেশে ২৩০ জন মারা যান। যা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

এদিকে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার (২০ জুলাই) সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন আরও ৬ হাজার ৮৪০ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ১৮ হাজার ২৭০ জন।

এ নিয়ে বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট করোনায় মৃত্যু হলো ৪১ লাখ ১২ হাজার ৭৯২ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৯ কোটি ১৭ লাখ ১২ হাজার ৯৬৭ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৭ কোটি ৪৫ লাখ ৬৬ হাজার ৩৩৪ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৫০ লাখ ১৮ হাজার ৬০০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ২৪ হাজার ৯৮৩ জনের।

আক্রান্তে দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ১১ লাখ ৭৩ হাজার ১৯ জন এবং এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ১৪ হাজার ৫১৩ জনের।

আক্রান্তে তৃতীয় এবং মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় এক কোটি ৯৩ লাখ ৯১ হাজার ৮৪৫ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৪২ হাজার ৮৭৭ জনের।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে রয়েছে রাশিয়া। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৯ লাখ ৮২ হাজার ৭৬৬ জন। মারা গেছেন এক লাখ ৪৯ হাজার ১৩৮ জন। এ তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫৮ লাখ ৭১ হাজার ৮৮১ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ১১ হাজার ৪৯২ জন।

এদিকে আক্রান্তের তালিকায় তুরস্ক ষষ্ঠ, যুক্তরাজ্য সপ্তম, আর্জেন্টিনা অষ্টম, কলম্বিয়া নবম ও ইতালি দশম স্থানে রয়েছে।

এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ২৬তম, যা গত ৭২ ঘণ্টার তুলনায় চার ধাপ এগিয়েছে। ওয়ার্ল্ডওমিটারের তালিকায় শনিবার পর্যন্ত বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ২৯তম। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।


আরও খবর
করোনায় আরও ২৩৫ জনের মৃত্যু

মঙ্গলবার ০৩ আগস্ট ২০২১




আজও সারা দেশে বৃষ্টি হতে পারে

প্রকাশিত:সোমবার ০২ আগস্ট 2০২1 | হালনাগাদ:সোমবার ০২ আগস্ট 2০২1 | ৪৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় থাকায় সারা দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, বরিশাল ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু স্থানে অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, সুস্পষ্ট লঘুচাপটি উত্তর প্রদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল বিহার, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যস্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দর সমূহের জন্য আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পাবনা, টাঙ্গাইল, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালি, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, ময়মনসিংহ ও সিলেট অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

এসব এলাকার নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। পরবর্তী তিন দিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে। ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আবহাওয়ার পুর্বাভাসে বলা হয়, হালকা থেকে মাঝারী ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া আকাশ আংশিক মেঘলা থেকে অস্থায়ীভাবে মেঘলা থাকতে পারে।

গতকাল রবিবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ৩৩ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা হাতিয়া ও কুতুবদিয়াতে ২৫ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।



আরও খবর



সমুদ্রে তেল, গ্যাস অনুসন্ধানে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তা চায় বাংলাদেশ

প্রকাশিত:সোমবার ০২ আগস্ট 2০২1 | হালনাগাদ:সোমবার ০২ আগস্ট 2০২1 | ৫৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক  উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী বীর বিক্রম বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য, বিশেষ করে সাগরে তেল ও গ্যাস অনুসন্ধানের জন্য বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ বহুজাতিক তেল ও গ্যাস কোম্পানি এক্সনমোবিলের সহযোগিতা চেয়েছে।

ওয়াশিংটন ডিসিতে গত ৩০ জুলাই বাংলাদেশ দূতাবাসে যুক্তরাষ্ট্র-ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান এক্সনমোবিলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী এক্সনমোবিল কর্মকর্তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য উৎসাহিত করেন।

উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী বাংলাদেশে জ্বালানি খাতে মার্কিন কোম্পানিগুলোর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা তুলে ধরেন এবং এতে তাদের অবদানকে স্বাগত জানান।

বাংলাদেশে নবায়নযোগ্য জ্বালানি উৎপাদনে স্টোরেজ সুবিধা গড়ে তোলার ক্ষেত্রে বিনিয়োগের প্রয়োজনীয়তার কথা তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী তুলে ধরেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে বিভিন্ন জ্বালানি উৎসের সুষম ব্যবহার গুরুত্বপূর্ণ।

তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরী এক্সনমোবিলকে গভীর সমুদ্রে অনুসন্ধান ত্বরান্বিত করতে এবং সঞ্চলন লাইন এবং স্থলে অবকাঠামো সুবিধা নির্মাণে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। বাংলাদেশের বর্তমান উন্নয়নের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রয়োজনীয় জ্বালানি চাহিদা নিশ্চিত করতে এক্সনমোবিলের কর্মকর্তারা বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

বৈঠকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ দূতাবাস ও এক্সনমোবিলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরে ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে তৌফিক-ই-এলাহি চৌধুরীর উপস্থিতিতে সামিট অয়েল অ্যান্ড শিপিং কোং লিমিটেড (এসওএসসিএল) ও কমনওয়েলথ এলএনজির মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরিত হয়।

এমওইউ স্বাক্ষরকে স্বাগত জানিয়ে উপদেষ্টা বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বিদ্যমান জ্বালানি সহযোগিতা আরও প্রসারে এ ধরনের পদক্ষেপ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।



আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




তালেবানের হয়ে যুদ্ধ করছে ১০ হাজার পাকিস্তানি

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | ৭৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিদেশে গিয়ে পাকিস্তানকে একহাত নিলেন আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। দেশটিতে চলমান সংঘাতে তালেবানকে সহযোগিতা করার অভিযোগ তুললেন ইমরান খানের দেশের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার উজবেকিস্তানের রাজধানী তাসখন্দে তিনি পাকিস্তানের তীব্র সমালোচনা করেন।

আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনে পাকিস্তানের তীব্র সমালোচনা যেমন করেছেন তেমনই আফগানিস্তানে শান্তি ফেরাতে দেশটির সাহায্যও চান ঘানি।

তিনি পাকিস্তানের প্রতি আহ্বান জানান, দেশটি যেন তার প্রভাবকে যথাযথভাবে কাজে লাগিয়ে এর মাধ্যমে আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠা এবং শত্রুতা দূর করতে সাহায্য করে।

ঘানি তার বক্তব্যে বলেন, গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর ধারণা অনুযায়ী, তালেবানের হয়ে যুদ্ধ করার জন্য গত মাসেই পাকিস্তান এবং অন্যান্য জায়গা থেকে আফগানিস্তানে ১০ হাজারের বেশি মানুষ এসেছেন।

এসময় তালেবানেরও তীব্র সমালোচনা করেন তিনি। তিনি বলেন, তালেবান বলেছিল, তারা শহর এবং প্রাদেশিক রাজধানীগুলোতে হামলা চালাবে না। কিন্তু তারা কথা রাখছে না। তারা শহরে এবং প্রদেশের রাজধানীগুলোতে অব্যাহতভাবে হামলা চালাচ্ছে।

সম্মেলনে তালেবান এবং তার সমর্থকদের প্রতি কঠোর বার্তা দিয়েছেন ঘানি।

তিনি বলেন, আমরা তালেবান এবং তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে প্রস্তুত আছি। রাজনৈতিক সমাধানই এগিয়ে যাওয়ার মূলমন্ত্র- তারা এটা না বোঝার আগ পর্যন্ত আমরা লড়াই চালিয়ে যাব।

এরপর আফগান প্রেসিডেন্ট জানিয়ে দিলেন তিনি শান্তি চান।

যুদ্ধ বন্ধে তালেবানকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ঘানি বলেন, এই যুদ্ধ বন্ধে আফগান সরকারের সঙ্গে কাজ করার পাশাপাশি ধ্বংসাত্মক সাম্প্রতিক হামলা বন্ধে তালেবানের প্রতি আহ্বান জানাই।

আফগান প্রেসিডেন্টের আহ্বানে কতটুকু সাড়া দেবে তালেবান তা এখনো পরিষ্কার নয়। তবে ইতোমধ্যে তালেবানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, দেশটির প্রায় ৮৫ শতাংশ এলাকা এখন তাদের দখলে রয়েছে।  এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন প্রদেশে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে লড়ছে সংগঠনটি।


আরও খবর
ভারতে আবারও বেড়েছে মৃত্যু

বুধবার ০৪ আগস্ট ২০২১




৫ আগস্টের পর বিধিনিষেধ শিথিলের চিন্তা

প্রকাশিত:শনিবার ৩১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ৩১ জুলাই ২০২১ | ১৯৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির প্রকোপ রোধে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত চলার পর তা শিথিল করার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। মানুষের জীবন-জীবিকার কথা চিন্তা করে এমন সিদ্ধান্তের কথা ভাবা হচ্ছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। তবে সবকিছুই প্রধানমন্ত্রীর দিকনির্দেশনার ওপর নির্ভর করছে বলেও জানান তিনি।

শনিবার দুপুরে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যমান পরিস্থিতিতে করোনার সংক্রমণ কমানো আমাদের মূল লক্ষ্য। কী উপায়ে কাজ ঠিক রাখা যায়, আবার সংক্রমণ কমানো যায়, এমন সব বিকল্প উপায় নিয়ে চিন্তা করা হচ্ছে। ব্যবস্থা নিতে একটু সময় লাগবে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরাধে আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত যে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে, এরপর তা শিথিলের চিন্তা করছে সরকার। মানুষের জীবন-জীবিকার কথা চিন্তা করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

শিল্প, কল-কারখানা আগামীকাল রবিবার থেকে খুলছে। অন্যান্য অফিস খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত আগস্টের ৩ বা ৪ তারিখ আসতে পারে বলে জানান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী।

ফরহাদ হোসেন বলেন, যেহেতু শিল্প কারখানা খুলে দেওয়া হয়েছে, তাহলে তো লকডাউন কঠোর থাকল না। শিল্প কারখানাও ধাপে ধাপে খুলে দেওয়া হবে। অন্যান্য অফিস পুরো খুলবে নাকি সীমিত পরিসরে খোলা রাখা যাবে, সেসব বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। ৩ কিংবা ৪ আগস্ট এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। তবে সবকিছুই নির্ভর করছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার ওপর।

যেসকল কর্মী ঢাকার বাইরে রয়েছেন, তারা এই মুহূর্তে কাজে যোগ না দিলে তাদের চাকরি যাবে না। শিল্প মালিকদের সঙ্গে সরকারের এ ধরনের আলাপ হয়েছে বলে জানান ফরহাদ হোসেন। বলেন, কারখানা খোলার বিষয়ে আমরা শিল্প মালিকদেরকে পরিষ্কার করে বলে দিয়েছি, যেসব কর্মী ঢাকাতে আছে, বিশেষ করে কারখানার আশেপাশে রয়েছেন তাদের দিয়ে কাজ করাবেন। শিল্প মালিকরাও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তারা ঢাকায় থাকা কর্মীদের নিয়ে কাজ শুরু করবেন এবং যারা বাড়িতে গেছেন তারা চাকরি হারাবে না। শিল্প মালিকরা নিজেদের ব্যবস্থাপনায় পর্যায়ক্রমে ওই সকল শ্রমিকদের ঢাকায় নিয়ে আসবেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরামর্শ দেখে সবকিছুর সমন্বয় করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী।


আরও খবর



টিকা না নিয়ে দেওয়া যাবে না পিএসসির পরীক্ষা

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ | ১০৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের মধ্যেও জরুরি নিয়োগ কার্যক্রম চালু রাখছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বিপিএসসি)।

তবে পিএসসির কোনো পদের প্রিলিমিনারি টেস্ট, লিখিত পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে করোনাভাইরাসের টিকা নিতে হবে।

বুধবার (২৮ জুলাই) পিএসসির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (যুগ্ম-সচিব) নূর আহমদ স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জরুরি নিয়োগ কার্যক্রম অক্ষুণ্ণ রাখার স্বার্থে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন বিজ্ঞাপিত কোনো পদের প্রিলিমিনারি টেস্ট, লিখিত পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের পূর্বে পরীক্ষার্থীদের কোভিড-১৯ টিকাগ্রহণ নিশ্চিত করার পরামর্শ দেওয়া হলো।

পরীক্ষার্থীদেরকে নিজ উদ্যোগে টিকাগ্রহণ নিশ্চিত করে এ সংক্রান্ত প্রমাণপত্র বা সনদপত্র সংগ্রহে রাখার কথা বলা হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। 

পরীক্ষার্থী, পরীক্ষক ও পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবার স্বাস্থ্যসুরক্ষার লক্ষ্যে টিকা গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানিয়েছে পিএসসি।


আরও খবর