আজঃ বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১
শিরোনাম

করোনার প্রতি টিকায় বেক্সিমকোর মুনাফা

প্রকাশিত:রবিবার ০২ মে 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ মে 2০২1 | ১০৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনার টিকা আমদানি করে প্রতি টিকায় ৭৭ টাকা মুনাফা করেছে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস।

রবিবার (২ মে) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসইর ওয়েবসাইটে উল্লেখ করা হয়, জানুয়ারি-মার্চ সময়ে বেক্সিমকো সরকারকে ৫০ লাখ করোনার টিকা সরবরাহ করে ৩৮ কোটি ৩৭ লাখ টাকা মুনাফা করেছে। সে হিসেবে টিকাপ্রতি কোম্পানি আয় করেছে ৭৬.৭৪ টাকা।

রোববার বেক্সিমকো ফার্মার তৃতীয় প্রান্তিক (জানুয়ারি-মার্চ, ২০২১) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। সেই প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির সমন্বিত শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.২৮ টাকা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে কোম্পানির ইপিএস ছিল ২.০২ টাকা। আর তিন প্রান্তিক মিলে অর্থাৎ ৯ মাসে কোম্পানির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮.২৩ টাকা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫.৮৪ টাকা।

গত জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে এ টিকা সরকারকে সরবরাহ করেছে বেক্সিমকো। ৬ মাসের মধ্যে ৩ কোটি ডোজ করোনার টিকা আনার কথা থাকলেও বর্তমানে ভারত থেকে সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি টিকা দেশে আসা বন্ধ রয়েছে।


আরও খবর



নড়াইলে নদীতে গোসল করতে গিয়ে ৮ বছরের শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৬ এপ্রিল ২০২১ | ১১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নড়াইল থেকে ইমরান হাসান

নড়াইলের লোহাগড়া জয়পুর ইউনিয়নের আমডাঙ্গা গ্রামের শিশু হামিদা (৮), পিতা তারিকুল ইসলাম, নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিশুটির মৃত্যু হয়। বাড়ির পাশে মধুমতি নদীতে চাচির সাথে গোসল করতে গিয়ে শিশু হামিদা খাতুন নিখোঁজ হয়।

নিখোঁজ হওয়ার পর এলাকাবাসী খুঁজতে শুরু করে খুঁজে না পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলকে খবর দেয় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে দীর্ঘ ২০ ঘণ্টা পর শিশুর লাশ নদী থেকে উদ্ধার করা হয়।

শিশু হামিদা কে সাথে নিয়ে তার চাচি বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে মধুমতি নদীর আজিমের ঘাটে গোসল করতে যায়। গোসল শেষে ওই শিশুর চাচি বাড়ি ফিরে আসলে ও হামিদা বাড়ি ফেরেনি। এর কিছুক্ষণ মধ্যেই হামিদা নদীতে ডুবে যায়। ওর চাচি নদীর ঘাটে খুজতে গিয়ে হামিদার কোন সন্ধান না পেয়ে চিৎকার করলে। হামিদার সন্ধানের জন্য এলাকাবাসী নদীতে খোঁজাখুঁজি চালায় পুলিশ প্রশাসন ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরীরা চেষ্টা চালিয়ে আজ শুক্রবার সকালে হামিদার মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবরিদল। নদীর পাড়ে উৎসুক জনতা ভিড় করেছে। হামিদার মৃত্যুতে এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।


আরও খবর
নড়াইলে স্কুলছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণ, আটক ৫

শুক্রবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১




গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৩৮ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ১০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ মে ২০২১ | ৩১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার ৯৭২ জনের।

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৫১৪ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৭৫ হাজার ২৭ জনে। মৃত্যু ৩৮ জনের মধ্যে ২৫ জন পুরুষ ও ১৩ জন নারী।

সোমবার (১০ মে) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাছিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা সিটিসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ও বাড়িতে উপসর্গ বিহীন রোগীসহ গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ১১৫ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৭ লাখ ১২ হাজার ২৭৭ জন। সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪৫৪টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১২৮টি, জিন এক্সপার্ট ৩৫টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ২৯১টি। এসব ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ১৬ হাজার ৯৬৩টি। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৬ হাজার ৮৪৮টি। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৫৬ লাখ ৪৭ হাজার ১৯৭টি।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ৮ দশমিক ৯৯ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭২ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯১ দশমিক ৯০ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৪ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৩৮ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে রয়েছেন ১৫ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১১ জন, রাজশাহী বিভাগে ৬ জন, সিলেট বিভাগে ৩ জন, বরিশাল বিভাগে ২ জন। এছাড়া রংপুর বিভাগে ১ জন রয়েছেন। এদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ২৬ জন, বেসরকারি হাসপাতালে ১০ জন। আর বাড়িতে মারা গেছেন ২ জন।

মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ৬০ বছরে ঊর্ধ্বে ২৫ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৭ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৫ জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ১ জন রয়েছেন।

এতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে এসেছেন ৩৩৮ জন ও আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৭৫২ জন। এ পর্যন্ত আইসোলেশনে এসেছেন এক লাখ ২৬ হাজার ৪৯১ জন। আইসোলেশন থেকে ছাড়পত্র নিয়েছেন ১ লাখ ৮ হাজার ১৫৯ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৮ হাজার ৩৩২ জন।


আরও খবর



চলছে গণপরিবহন, মানতে হবে যে নির্দেশনা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ মে ২০২১ | ৯২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মাস্ক ছাড়া কোনও যাত্রী গাড়িতে ওঠাতে পারবে না এবং গাড়ির স্টাফদের মালিক মাস্ক সরবরাহ করবেন। গাড়িতে সিটের অর্ধেক যাত্রী বহন করতে হবে। লকডাউনে মালিক-শ্রমিকেরা মানবেতর জীবন-যাপন করছেন

২২ দিন বন্ধ থাকার পর আজ বৃহস্পতিবার (৬ মে) চালু হয়েছে গণপরিবহন। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আজ ভোর থেকে রাজধানী ঢাকাসহ সব জেলায় বাস চালুর ঘোষণা দেয় ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি। তবে আন্তঃজেলা গণপরিবহন বন্ধ থাকছে।

বুধবার (৫ মে) ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির পক্ষ থেকে পরিবহনের মালিক, শ্রমিক ও যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য বেশ কিছু নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে- মাস্ক ছাড়া কোনও যাত্রী গাড়িতে ওঠাতে পারবে না এবং গাড়ির স্টাফদের মালিক মাস্ক সরবরাহ করবেন। গাড়িতে সিটের অর্ধেক যাত্রী বহন করতে হবে। লকডাউনে মালিক-শ্রমিকেরা মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। এ ক্ষেত্রে রুট মালিক সমিতি/পরিবহন কোম্পানির জিপির নামে কোনও ধরনের অর্থ গাড়ি থেকে আদায় করতে পারবে না।

ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বিবৃতিতে জানান, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বৃহস্পতিবার থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঢাকা মহানগরসহ সব জেলা শহরের মধ্যে গণপরিবহন চলবে। আমরা যে সব নির্দেশনা দিয়েছি, সে অনুযয়ী গাড়ি চালানোর জন্য ঢাকা মহানগরে চলাচলকারী সব রুট মালিক সমিতি/পরিবহন কোম্পানির প্রতি আহ্বান জানানো হচ্ছে।


আরও খবর



যত টাকা লাগুক টিকা আনা হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ০২ মে 2০২1 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ মে 2০২1 | ৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যত টাকা লাগুক টিকা আনা হবে। সবাইকে টিকা দেয়া হবে।

আজ রোববার (২ মে) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সহায়তা কার্যক্রম উদ্বোধন কালে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সব সময় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেন, আমরা কিন্তু জাতির পিতার হাতে গড়া সংগঠন। আমরা সব সময় চিন্তা করি কীভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াবো। মানুষকে সহযোগিতা করবো। আওয়ামী লীগ তার পদাঙ্ক অনুসরণ করেই কিন্তু কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ সব সময় দুর্গত মানুষের পাশে আছে। ধান কাটার সমস্যা। আমি বলার সঙ্গে সঙ্গে কিন্তু আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ মানুষের ধান কেটে দিয়েছে।



আরও খবর



নিষেধাজ্ঞার পরও শিমুলিয়াঘাট থেকে ফেরি ছাড়লো

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | ১১৪জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মানুষের ঢল দেখে সকাল থেকে কিছু ফেরি মাঝ নদীতে নোঙর করে রাখে। একটি ফেরি ঘাটে ভিড়লে তাতেই মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ে কে কার আগে উঠবে। মাওয়া ঘাট

পাটুরিয়া ও শিমুলিয়া রুটে আজ শনিবার থেকে দিনের বেলায় ফেরি চলাচল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহণ করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)। কিন্তু, সরকারি ঘোষণার তোয়াক্কা না করে করে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলগামী মানুষজন শনিবার সকাল থেকেই শিমুলিয়া ঘাটে পৌঁছায়। ফলে ঘাট এলাকায় কয়েক হাজার মানুষের জনসমাগম হয়ে যায়।

কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স ও জরুরি পণ্যবাহী গাড়ি নিয়ে বাংলাবাজার প্রান্ত থেকে কুঞ্জলতা নামের একটি ফেরি শিমুলিয়া ঘাটে ভিড়ে গাড়িগুলো নামাতেই পড়িমরি করে লোকজন তাতে উঠে পড়ে। সাড়ে ৯টার দিকে ফেরিটি শিমুলিয়া ঘাট ছেড়ে যায়। ফেরিটিকে কিছুক্ষণ মাঝ পদ্মায় থেমে থাকতেও দেখা যায়।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ফেরি ঘাটের ব্যবস্থাপক সাফায়াত আহম্মেদ বলেন, মানুষের ঢল দেখে সকাল থেকে কিছু ফেরি মাঝ নদীতে নোঙর করে রাখে। একটি ফেরি ঘাটে ভিড়লে তাতেই মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ে কে কার আগে উঠবে। মাওয়া ঘাট এলাকায় ঘরমুখো মানুষজনকে ফিরে যাওয়ার জন্য বুঝিয়ে বলা হচ্ছে।

এক যাত্রী জানান, হঠাৎ করে কর্তৃপক্ষের ফেরি বন্ধের সিদ্ধান্তে ভোগান্তি হচ্ছে মানুষের। আমরা ১০০ টাকার ভাড়া ৩০০ টাকা দিয়ে অনেক কষ্টে এসেছি। আবার ফিরে যেতে হচ্ছে আমাদের।

অন্য একজন বলেন, সাহরির সময় নাকি ফেরি বন্ধ করার কথা বলা হয়েছে। এই কথা যদি সন্ধ্যায় বলতো তাহলে তো এতগুলো মানুষ এখানে আসতো না। এখন আর আমাদের কিছু করার নেই। তাই বাধ্য হয়েই ফিরে যাচ্ছি।

মানুষের চাপ সামলাতে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে, মাওয়া চৌরাস্তা ও শিমুলিয়া ঘাটের প্রবেশমুখে টহল চৌকি বসিয়েছে পুলিশ। এসব টহল চৌকি থেকে দক্ষিণবঙ্গগামী যাত্রীদের ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানান ট্রফিক পুলিশের পরিদর্শক (টিআই) মো. বিল্লাল।

টিআই মো. বিল্লাল বলেন, শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় কয়েকশ পণ্যবোঝাই ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। এতদিন লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ ছিল আর আজ শনিবার থেকে দিনের বেলা ফেরি চলাচলও বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে কোনোভাবেই নদী পার হতে পারবেন না কেউ। যাত্রীদের ঘাট এলাকায় ভিড় না করার অনুরোধ করেন তিনি।


আরও খবর