আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

সাময়িক স্থগিত জাতীয় ক্রিকেট লিগ : বিসিবি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির উর্ধ্বোগতির কারণে সাময়িক সময়ের জন্য জাতীয় ক্রিকেট লিগের সব খেলা স্থগিত করেছে বিসিবি। বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) গণমাধ্যমকে এ খবর জানান বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সিইও নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন।

তিনি বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই আবারও খেলা মাঠে ফেরানো হবে। বাড়তি সতর্কতার অংশ হিসেবেই আপাতত জাতীয় ক্রিকেট লিগের খেলা স্থগিত করা হয়েছে। যেহেতু আমাদের পরবর্তী রাউন্ডের মধ্যে একটা গ্যাপ আছে সেহেতু এই সিদ্ধান্ত।

বিসিবি সিইও বলেন, খেলা বন্ধ অনির্দিষ্ট কালের জন্য নয়, এটা খুবই সাময়িক। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই খেলা মাঠে ফিরবে। এটা প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট, আটটি দল, একাধীক ভেন্যু ব্যবহৃত হচ্ছে। সে কারণেই এই পরিস্থিতিতে একটু চ্যালেঞ্জিং হয়ে যাচ্ছে। আমাদের দেশে কিন্তু খেলাধুলার কোন কার্যক্রমই বন্ধ নেই। বাংলাদেশ গেমস চলছে।

গত ২২ মার্চ থেকে শুরু হয়েছে জাতীয় ক্রিকেট লিগের খেলা। প্রথম রাউন্ড শেষ হয়েছে ২৫ মার্চ। এরপর ২৯ মার্চ শুরু হয়েছিল দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা যা আজই শেষ হলো। তবে তৃতীয় রাউন্ডের সূচী এখনো প্রকাশ করেনি টাইগার ক্রিকেট প্রশাসন। জানা গেছে ৫ এপ্রিল থেকে এই রাউন্ডের খেলা শুরুর হওয়ার কথা ছিল।


আরও খবর



১ এপ্রিল থেকে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলবে ট্রেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ মার্চ ২০২১ | ৯১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
করোনাভাইরাসের প্রকোপ আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ায় যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখন প্রতিটি ট্রেনের ৫০ ভাগ টিকিট বিক্রি করা হবে

করোনার প্রাদুর্ভাব ফের বাড়তে থাকায় আগামী ১ এপ্রিল থেকে সব ট্রেনে ৫০ ভাগ যাত্রী পরিবহন করা হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ রেলওয়ের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের প্রকোপ আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ায় যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এখন প্রতিটি ট্রেনের ৫০ ভাগ টিকিট বিক্রি করা হবে। যার ২৫ ভাগ কাউন্টারে এবং ২৫ ভাগ অনলাইনে বিক্রি করা হবে। আসনবিহীন কোনো টিকিট থাকবে না।

এ কারণে অযথা কাউন্টারে ভীড় না করার জন্য বলা হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। এতে আরও বলা হয়েছে, এ ছাড়া, যাত্রীদেরকে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। মাস্ক ছাড়া কোনো যাত্রীকে স্টেশনে প্রবেশ বা ট্রেনে ভ্রমণ করতে দেওয়া হবে না।

এর আগে, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর গত বছরের মে মাসে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কারিগরি কমিটি স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন ও ট্রেনে যাত্রী পরিবহনের নির্দেশিকা জারি করে। এতে অর্ধেক আসন খালি রাখা, যাত্রীর শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা, প্রতিবার যাত্রার আগে বাস ও ট্রেন জীবাণুমুক্ত করা, চালক-শ্রমিকদের জীবাণুমুক্ত থাকাসহ ১৪ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল।


আরও খবর



আজ থেকে ট্রেনের টিকিট ইস্যুর নতুন নিয়ম কার্যকর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় ট্রেনের টিকিট ইস্যুর নতুন নিয়ম করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) থেকে টিকিট ইস্যুর নতুন নিয়ম কার্যকর হবে। চলবে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত।

বাংলাদেশ রেলওয়ের উপ-পরিচালক (টিসি) মো. নাহিদ হাসান খান স্বাক্ষর করা এক নির্দেশনাপত্রে এ তথ্য জানানো হয়েছে। আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট ইস্যু পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হবে।

নতুন নিয়মে আন্তঃনগর ট্রেনের মোট আসনের ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি করা হবে। বাকি আসন ফাঁকা রেখেই চলবে ট্রেন। টিকিট বিক্রি হবে অনলাইন, মোবাইল অ্যাপ ও কাউন্টারে। সকাল ৮টা থেকে অগ্রিম ব্যবস্থাপনায় টিকিট ইস্যু করা যাবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিচালক) সরদার শাহাদাত আলী বলেন, দুসপ্তাহের জন্য সরকার ১৮টি নির্দেশনা দিয়েছে। এর মধ্যে গণপরিবহনের ৫০ শতাংশ যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা রয়েছে। আগাম টিকিট বিক্রি হওয়ায় ট্রেনে ৫০ শতাংশ যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা পুরোপুরি কার্যকর করতে একটু জটিলতা তৈরি হয়েছিল। তাই এবার নতুন এই নির্দেশনা দেওয়া হলো।

রেলওয়ের নির্দেশনাপত্রে জানানো হয়, ট্রেনে ক্যাটারিং সেবা ও ট্রেনে রাত্রিকালীন বেডিং সরবরাহের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানা হবে। টিকিট ইস্যু ও স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনের নিয়মাবলী অপরিবর্তিত থাকবে।

নিউজ ট্যাগ: ট্রেনের টিকিট

আরও খবর



রাঙামাটির সকল পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ৩১ মার্চ ২০২১ | ৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
সভায় দুই সপ্তাহের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন এই সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বিবেচনায় বাড়তে পারে বলেও আভাস দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে এই সভায় প্রতিদিন রাত আটটায় জেলার সকল দোকানপাট

মহামারি করোনাভাইরাস রোধে আবারও দুই সপ্তাহের জন্য সাজেকসহ পার্বত্য জেলা রাঙামাটির সকল পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করে বেশ কিছু নির্দেশনা জারি করেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন। বুধবার (৩১ মার্চ) বিকেলে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে কোভিড সংক্রমণে করণীয় নির্ধারণ-শীর্ষক এক জরুরী সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সভায় দুই সপ্তাহের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন এই সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বিবেচনায় বাড়তে পারে বলেও আভাস দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে এই সভায় প্রতিদিন রাত আটটায় জেলার সকল দোকানপাট, ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান ও মার্কেট বন্ধ, গণপরিবহনে সিট ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহন, হোটেল-মোটেলে অর্ধেক টেবিল চেয়ার তুলে রেখে ভোক্তাদের সেবা প্রদান এবং আবাসিক হোটেল বন্ধ রাখার নির্দেশনা জারি করা হয়।

সভায় সিভিল সার্জন ডা. বিপাশ খীসা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান তাপস রঞ্জন ঘোষ, পরিবহন মালিক শ্রমিক প্রতিনিধি ও গণমাধ্যকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



খেলতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার ৮ বছরের শিশুঃ ধর্ষক আটক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাঙামাটি থেকে শহিদুল ইসলাম হৃদয়

রাঙামাটি জেলাধীন কাপ্তাই উপজেলার ওয়াগ্গা ইউনিয়নের তালুকদার পাড়ায় দ্বিতীয় শ্রেণীর শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে উপজাতীয় এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্ত ধর্ষক উক্ত ভিকটিমের চাচা বলে জানাগেছে।

অমল তালুকদার (২২) নামের এই যুবক ওয়াগ্গা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের তালুকদার পাড়া(দ্যোলন্যারমুখ) এলাকার জনৈক শান্তি তালুকদারের সন্তান। রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ ছূফি উল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

থানা সূত্রে জানাগেছে, রবিবার(৪ এপ্রিল) সকালে নিজ বাড়ির উঠানে খেলা করার সময় বিস্কুট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে নিজ ঘরে নিয়ে যায়। এ সময় আসামি তার নিজ ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং চিৎকার করলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় শিশুটিকে। ধর্ষিতা বাড়িতে এসে খাওয়া-দাওয়া ছেড়ে দিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে সোমবার ০৫ এপ্রিল-২০২১ তারিখ বিকেল তিন টার সময় ধর্ষিতার মা ধর্ষিতাকে বার বার জিজ্ঞাস করলে আসামী অমল তালুকদার তাকে তার নিজ ঘরে ধর্ষণ করেছে বলে শিশুটি তার মাকে জানায়। সাথে সাথেই অসুস্থ ভিকটিমকে কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে শিশুটি।

এই ঘটনায় শিশুটির পিতা বাদী হয়ে সোমবার রাতেই তার শিশু মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে তারই চাচাতো ভাই অমল তালুকদারকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করে। মামলা নং-০২, তারিখঃ ০৫ এপ্রিল-২০২১)ধারাঃ ৯(১), ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী-২০০৩।

রাঙামাটি পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপরাধ) মোঃ ছূফি উল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, অভিযোগ পাওয়ার পরপরই অভিযান পরিচালনা করে মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে কাপ্তাই থানা পুলিশ। এই ঘটনায় মামলাও দায়ের করা হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: ধর্ষণ রাঙামাটি

আরও খবর



হরতালে বাধা দিলে লাগাতার কর্মসূচির হুমকি হেফাজতের

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ মার্চ ২০২১ | ১২১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
নেতা-কর্মী ও প্রতিবাদী মুসল্লিদের হত্যা ও হামলার প্রতিবাদে আজ সারা দেশে বিক্ষোভ এবং কাল রবিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ঘোষণা দেয় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ

হেফাজতে ইসলামের ডাকা রবিবারের হরতালে বাধা দিলে লাগাতার কর্মসূচির হুমকি দিয়েছেন দলটির নেতারা। আজ শনিবার বায়তুল মোকাররম মসজিদের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তারা এ ঘোষণা দেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরকে কেন্দ্র করে গতকাল শুক্রবার ঢাকা, চট্টগ্রাম ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ করেন। বিক্ষোভে অংশ নেওয়া মাদরাসাশিক্ষার্থী, ধর্মভিত্তিক দলের নেতা-কর্মী ও মুসল্লিদের একটি অংশের সঙ্গে পুলিশ, সরকারি দলের ছাত্র-যুবক-স্বেচ্ছাসেবক সংগঠনের কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এতে হাটহাজারীতে চারজন ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একজন নিহত হয়েছেন।

নেতা-কর্মী ও প্রতিবাদী মুসল্লিদের হত্যা ও হামলার প্রতিবাদে আজ সারা দেশে বিক্ষোভ এবং কাল রবিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ঘোষণা দেয় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। গতকাল রাত আটটার দিকে পুরানা পল্টনে সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির আবদুর রব ইউসুফী এ ঘোষণা দেন।

হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই পল্টন, গুলিস্তান ও বায়তুল মোকাররম এলাকায় প্রধান সড়ক ও অলিগলিতে সতর্ক অবস্থান নেয় বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্য। অপরদিকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ বেলা সোয়া ১১টার দিকে হেফাজতে ইসলামের কয়েকশ নেতা-কর্মী বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর পাশের সিঁড়িতে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ দেখায়।

বিক্ষোভ কর্মসূচির সভাপতি হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম বলেন, শান্তিপূর্ণ হরতালে বাধা দিলে আরও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মামুনুল হক বলেন, মসজিদে ঢুকে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছে। হেলমেট বাহিনী মহড়া দিয়ে আতঙ্ক তৈরি করেছে। রাজপথে নেমে এলে হেলমেট বাহিনী পালানোর পথ পাবে না। হেলমেট বাহিনীকে আশ্রয় দিয়েছে পুলিশ।


আরও খবর