আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

যেখানেই হেফাজত সেখানেই প্রতিরোধ: হানিফ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | ১০৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
যেখানেই সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী হেফাজত ইসলাম ধর্মের নামে অরাজকতা সৃষ্টি করার অপচেষ্টা করবে সেখানেই প্রতিরোধ করতে হবে। যারা এই হামলার সঙ্গে জড়িত তাদের তালিকা করতে হবে

যেখানেই হেফাজত সেখানেই প্রতিরোধ গড়ে তুলতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, হেফাজত কর্মীদের নাম ঠিকানা খুঁজে বের করুন।

আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় কালে এসব কথা বলেন তিনি।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, যেখানেই সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী হেফাজত ইসলাম ধর্মের নামে অরাজকতা সৃষ্টি করার অপচেষ্টা করবে সেখানেই প্রতিরোধ করতে হবে। যারা এই হামলার সঙ্গে জড়িত তাদের তালিকা করতে হবে। এদের বিরুদ্ধে সরকারিভাবে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তিনি বলেন, একজন ধর্ম ব্যবসায়ীকে কেন্দ্র করে যে ঘটনা ঘটেছে। তাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের অফিস ভাঙচুর করা হয়েছে, যুবলীগ-ছাত্রলীগের নেতার বাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে, সাধারণ মানুষের ওপর অত্যাচার নির্যাতন করা হয়েছে। এই বিষয় পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিতে চাই ধর্ম ব্যবসায়ী মামুনুল তার স্ত্রীর নাম দিয়ে এখানে এসেছিলেন এবং অনৈতিক কাজে জড়িত ছিলেন বলেই সাধারণ মানুষ তাকে ধরেছে। এই বিষয়টি কেন্দ্র করে তথাকথিত ধর্ম ব্যবসায়ীরা যে ভাঙচুর ও নির্যাতন করেছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সকলের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করার জন্য আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়ে হানিফ বলেন, যারা আওয়ামী লীগের অফিসে হামলা করেছে, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বাড়িঘরে হামলা করেছে, মানুষের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা করেছে। এসব হামলার সঙ্গে যুক্তদের পরিচয় সংগ্রহ করুন। আমরা চাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণ পরিবেশ উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকুক। কিন্তু ধর্মের নাম করে অধর্মের কাজ করা, ভাঙচুর করা বরদাস্ত করা হবে না।


আরও খবর



৬১ শহিদ পেলেন বীর মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বীর মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেলেন আরো ৬১ জন শহিদ। জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের ৭০তম সভার আলোচ্যসূচির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, গত ২১ মার্চ এই শহিদ বেসামরিক গেজেট জারি করা হয়েছে। এখন শহিদ মুক্তিযোদ্ধাদের সংখ্যা হয়েছে ৩ হাজার ২৯৫ জন।

এ ছাড়াও, কুষ্টিয়া জেলার ১০ মুক্তিযোদ্ধার ভুয়া সনদ বাতিল করা হয়েছে। বেসামরিক এই গেজেট বাতিল করে আরেকটি গেজেট জারি করা হয়েছে। এটাও করা হয়েছে জামুকার ৭০তম সভার আলোচ্যসূচির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী।

বীর মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেলেন যে ৬১ শহিদ https://www.newsg24.com/pdf/Shahid-14744.pdf

যাদের সনদ বাতিল হলো https://www.newsg24.com/pdf/cancel-2-2021.pdf


আরও খবর



শীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবিতে ৫ নারীর মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে বালুবাহী বাল্কহেডের ধাক্কায় অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় আরও চার নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছেন ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা। সন্ধ্যায় এ ঘটনায় এক তরুণীর মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে আনা হলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা। তবে তার পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। এছাড়া এখন পর্যন্ত ২০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

রবিবার (৪ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ তথ্য জানান, নারায়ণগঞ্জ নৌপুলিশের পুলিশ সুপার (এসপি) মীনা মাহমুদা।

তিনি বলেন, কিছুক্ষণ আগে ডুবুরিরা চারজন নারীকে উদ্ধারে করেছে। চারজনই মৃত। তবে প্রাথমিকভাবে তাদের নাম-পরিচয় এখনো জানতে পারেনি আমরা। আরেকজন তরুণীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে তিনি মারা যান। তবে এখনো এ ব্যাপারে তিনি নিশ্চিত নন বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

উদ্ধার অভিযানে এক সঙ্গে কাজ করছে- ফায়ার সার্ভিস, নৌবাহিনী, নৌপুলিশ, কোস্ট গার্ড ও উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয়।

এর আগে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শীতলক্ষ্যা নদীর মদনগঞ্জের কয়লাঘাট এলাকায় লঞ্চডুবির ঘটনা ঘটে।

নারায়ণগঞ্জ নৌপুলিশের ইন্সপেক্টর শহিদুল ইসলাম জানান, শীতলক্ষ্যা নদীতে চায়না ব্রিজের নিচে সাবিত আল হাসান নামে একটি লঞ্চ অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে গেছে। ঘটনাস্থলে নৌপুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার কাজে নিয়োজিত রয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি বদিউজ্জামান বাদল জানান, লঞ্চটি সন্ধ্যা ৬টার কিছু সময় পর নারায়ণগঞ্জ ছেড়ে যায়। পথে এটি দুর্ঘটনার শিকার হয়ে ডুবে যায়।

একই ঘটনা প্রসঙ্গে মুন্সিগঞ্জ নৌ-পুলিশের কর্মকর্তা কবির হোসেন খান জানিয়েছেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে যাত্রী নিয়ে নারায়ণগঞ্জ লঞ্চঘাট থেকে মুন্সিগঞ্জ আসছিল লঞ্চটি। মদনগঞ্জের কয়লাঘাট এলাকায় বালুবাহী বাল্কহেড ধাক্কা দিলে লঞ্চটি ডুবে যায়। ইতোমধ্যে উদ্ধারকারী জাহাজ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধারকাজ শুরু করেছেন।

এই দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) পরিচালক (নৌনিরাপত্তা ও ট্রাফিক) মো. রফিকুল ইসলামকে প্রধান করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।


আরও খবর



আগামীকাল এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা: ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস নিষিদ্ধ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীদের মাস্ক পরে কেন্দ্রে আসার জন্য নিদের্শনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রের প্রবেশপথে তাপমাত্রা

সারাদেশে ২ এপ্রিল (শুক্রবার) সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত একযোগে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে পরীক্ষার্থীদের মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। এর পাশাপাশি পরীক্ষা নকলমুক্ত রাখতে কেন্দ্রে সকল ধরনের ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস নিয়ে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষায় ঢাকা মহানগরের ১৫টি কেন্দ্রে ৪৭ হাজার শিক্ষার্থী অংশ নেবেন বলে জানা গেছে।

গতকাল বুধবার (৩১ মার্চ) ডিএমপি সদর দপ্তরে মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষা সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে সমন্বয় সভা করেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম। সভায় পরীক্ষার বিষয়ে বিভিন্ন নির্দেশনা দেওয়া হয়।

ডিএমপি জানায়, করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীদের মাস্ক পরে কেন্দ্রে আসার জন্য নিদের্শনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি পরীক্ষাকেন্দ্রের প্রবেশপথে তাপমাত্রা পরিমাপের জন্যে থার্মাল স্ক্যানার, জীবাণুনাশক, অটো স্প্রে মেশিনসহ হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা থাকবে।

এছাড়া, মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষা স্বচ্ছ ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে বেশ কিছু ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কেন্দ্রগুলোতে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকবে। একই সঙ্গে প্রতিটি কেন্দ্রে থাকবে মোবাইল কোর্ট। পরীক্ষার্থীরা প্রবেশপত্র ছাড়া অন্য কোনো কাগজ সঙ্গে নিতে পারবেন না। কেন্দ্রে প্রবেশের সময় সব পরীক্ষার্থীর দেহ তল্লাশি করে প্রবেশ করানো হবে। কেন্দ্র ইনচার্জ ছাড়া কেউ মোবাইল ফোন কাছে রাখতে পারবে না। তল্লাশি কাজে থাকবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের প্রতিনিধিরা।

ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে সব ধরনের গুজব বা প্রোপাগান্ডা ছড়ানো রোধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন অ্যাপসভিত্তিক (হোয়াটসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার, ভাইভার, ইমো) যোগাযোগ মাধ্যম মনিটরিং করবে ডিএমপির সাইবার সিকিউরিটি বিভাগ।

সভায় ডিএমপি কমিশনার বলেন, একটি স্বচ্ছ মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষা সম্পন্ন করতে আমরা সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছি। যারা যোগ্য তারাই এই পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তির সুযোগ পাবেন। করোনা ভাইরাসের কারণে গণপরিবহনে আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী পরিবহনে সরকারি নির্দেশনা আছে। ফলে পরিবহন সংকট দেখা দিতে পারে। পরিস্থিতি বিবেচনায় পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীরা অবশ্যই পর্যাপ্ত সময় হাতে নিয়ে কেন্দ্রের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিতে হবে। যাতে পরীক্ষার্থীরা সকাল ৮টার মধ্যে পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত থাকতে পারেন।

আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে ডিএমপি কমিশনার বলেন, পুলিশের যে সব সদস্য মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষায় ডিউটিতে নিয়োজিত থাকবেন, তাদেরও অবশ্যই মাস্ক পরাসহ যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।


আরও খবর



মানসিক অবসাদে ভুগছেন শ্রীলেখা

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অভিনেত্রী শ্রীলেখা মানসিক অবসাদে ভুগছেন। বিখ্যাত অভিনেত্রী হলেও তার মনে সুখ নেই, সংসারে আনন্দ নেই। একাকীত্বে ভুগতে থাকা শ্রীলেখা একসময় মাদকাসক্তে হয়ে পড়েন। তার জীবনের মোড় ঘুরাতে এগিয়ে আসে শঙ্খ। বদলে যায় সবকিছু।

এমন গল্পে তৈরি হয়েছে সিনেমা লুপ। মৃন্ময় সরকারের পরিচালনায় এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন শ্রীলেখা মিত্র। সম্প্রতি শুটিং শেষ হয়েছে সিনেমাটির। এখন অপেক্ষা মুক্তির।

বাস্তবেও কি অবসাদে ভুগেন শ্রীলেখা? এমন প্রশ্নের উত্তরে এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেন, হুম, ডিপ্রেসন হয় আমার। আমি তো একজন মননশীল মানুষ, আমার মতো একজন সেনসিটিভ মানুষ চারপাশের এত অবক্ষয় দেখে কী করে ঠিক থাকবে? অবসাদে তো আসবেই। আমি চালাক নই, কিন্তু আমি বুদ্ধিমতী। আর বুদ্ধিমতী বলেই চারপাশের মানুষের মুখ আর মুখোশের পার্থক্যটা বুঝি। যত সেই মুখোশগুলো খুলে যাচ্ছে, ততই আমি নিজেকে গুটিয়ে নিচ্ছি। আমি একা হয়ে যাচ্ছি। কিন্তু আমি এতে ভালো আছি। আমার খুব ছোট পৃথিবী, সেই পৃথিবী নিয়ে আমি খুশি।

সিনেমার সঙ্গে বাস্তবের শ্রীলেখার পার্থক্য তুলে ধরে এ অভিনেত্রী আরো বলেন, ছবির শ্রীলেখা অনিশ্চয়তায় ভোগেন। শ্রীলেখার মতো অনেকেই এই ইন্ডাস্ট্রিতে অনিশ্চয়তায় ভোগেন। আর তাই তো তারা আজকাল কোনো না কোনো দলের কাছে নিজেদের বিক্রি করে দিচ্ছেন। শ্রীলেখা মিত্র কিন্তু কোনো অনিশ্চয়তায় ভোগেন না। কারণ আমি আয়-ব্যয়ের মধ্যে ভারসাম্য করতে পারি, বাকিরা পারেন না।

নিউজ ট্যাগ: শ্রীলেখা মিত্র

আরও খবর



আগামীকাল দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ মার্চ ২০২১ | ১২৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মুসলমানরা এ রাতে আল্লাহর রহমত ও নৈকট্য লাভের আশায় নফল নামাজ, কোরআন তিলাওয়াত, জিকিরসহ বিভিন্ন ইবাদত বন্দেগির মাধ্যমে অতিবাহিত করেন

আগামীকাল সোমবার (২৯ মার্চ) দিবাগত রাতে পবিত্র শবে বরাত পালিত হবে। যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় সারাদেশে দিনটি পালিত হবে। হিজরি বর্ষের শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটিকে মুসলমানরা সৌভাগ্যের রজনী হিসেবে পালন করে থাকেন। মহিমান্বিত এ রাতে মহান আল্লাহ তার বান্দাদের ভাগ্য নির্ধারণ করেন। মুসলমানরা  এ রাতে আল্লাহর রহমত ও নৈকট্য লাভের আশায় নফল নামাজ, কোরআন তিলাওয়াত, জিকিরসহ বিভিন্ন ইবাদত বন্দেগির মাধ্যমে অতিবাহিত করেন।

১৪ মার্চ বাংলাদেশের আকাশে ১৪৪২ হিজরি সনের পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে ১৫ মার্চ পবিত্র রজব মাস ৩০ দিন পূর্ণ হয়। সে হিসেবে ১৬ মার্চ মঙ্গলবার থেকে পবিত্র শাবান মাস গণনা শুরু হয়। আর ১৪ শাবান হবে ২৯ মার্চ।

করোনা মহামারির কারণে গত বছর ঘরে ইবাদত করার আহ্বান জানিয়েছিল ধর্ম মন্ত্রণালয়। তবে এবার এমন কোনও নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।

শবে বরাত মুসলামানদের কাছে লাইলাতুল বারাত বা সৌভাগ্যের রজনী হিসেবে পরিচিত। আরবি শব্দ লাইলা অর্থ রাত। ফার্সি শব্দ শব অর্থও রাত। আর বরাত অর্থ মুক্তি বা নিষ্কৃতি। শাবান মাসের ১৪ তারিখের এ রাতকে মুক্তির রাত বা নাজাতের রাত হিসেবে অবহিত করা হয়। এ রাতে সৃষ্টিকর্তার আছে পাপ থেকে মুক্তি কামনা করে প্রার্থনা করা হয়। এ রাতে অনেকেই নফল নামাজ, কোরআন তেলওয়াত ও দোয়া করে থাকেন। এছাড়া অনেকেই এ রাতে বাবা-মাসহ আত্মীয়দের কবর জিয়ারত ও দোয়া করেন।

নিউজ ট্যাগ: পবিত্র শবে বরাত

আরও খবর
শুরু হলো সিয়াম সাধনার মাস

বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১

রোজা শুরু কবে জানা যাবে সন্ধ্যায়

মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১