আজঃ বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২
শিরোনাম

করোনা: বিশ্বজুড়ে দৈনিক শনাক্ত ৬ লাখ

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১১ মে ২০২২ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলমান করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা আরও বেড়েছে। একইসঙ্গে আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দেড় হাজারের বেশি মানুষ। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে প্রায় ৬ লাখে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রাণহানির তালিকায় এরপরই রয়েছে জার্মানি, ব্রাজিল, ইতালি, ফ্রান্স, রাশিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৫১ কোটি ৮৩ লাখের ঘর। অন্যদিকে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬২ লাখ ৭৯ হাজার।

বুধবার (১১ মে) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৭০৬ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে সাত শতাধিক। এতে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৬২ লাখ ৭৯ হাজার ৯৮৮ জনে।

একই সময়ের মধ্যে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৯২ হাজার ৯৫৭ জন। অর্থাৎ আগের দিনের তুলনায় নতুন শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় পৌনে তিন লাখ। এতে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত ভাইরাসে আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১ কোটি ৮৩ লাখ ৩৫ হাজার ২৭৯ জনে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৪ হাজার ৪৪৯ জন এবং মারা গেছেন ২০২ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৫৪ লাখ ৯০ হাজার ১৫৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৩৭ হাজার ২২২ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে উঠে এসেছে যুক্তরাষ্ট্র। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৯ হাজার ৯০৭ জন এবং মারা গেছেন ২৭৯ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ৩৭ লাখ ৭৮ হাজার ৭১৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১০ লাখ ২৫ হাজার ১০৪ জন মারা গেছেন।

ফ্রান্সে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ হাজার ৪৪৯ জন এবং মারা গেছেন ১২৩ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৯০ লাখ ২১ হাজার ২২৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৪৬ হাজার ৯৭৯ জন মারা গেছেন। একইসময়ে স্পেনে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১২ হাজার ৪৫৮ জন এবং মারা গেছেন ৬২ জন।

রাশিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১০১ জন এবং নতুন করে ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ৪ হাজার ৫৩১ জন। এছাড়া মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ৮২ লাখ ৩৭ হাজার ২২৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭৭ হাজার ১৫০ জনের। একইসময়ে থাইল্যান্ডে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ২৩০ জন এবং মারা গেছেন ৫৩ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯ হাজার ৮৯৬ জন এবং মারা গেছেন ৬২ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে পূর্ব এশিয়ার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৭৬ লাখ ১৪ হাজার ৮৯৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ২৩ হাজার ৪৬২ জন মারা গেছেন। গত একদিনে অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ২২ জন এবং মারা গেছেন ২২ জন।

ইতালিতে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬ হাজার ১৫ জন এবং মারা গেছেন ১৫৮ জন। করোনা মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ৬৮ লাখ ৭২ হাজার ৬১৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৬৪ হাজার ৭৩১ জন মারা গেছেন। একইসময়ে জাপানে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৩ হাজার ৬৬৪ জন এবং মারা গেছেন ৩০ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১৯৫ জন এবং নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ২০ হাজার ১৪৩ জন। অপরদিকে মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৩ কোটি ৫ লাখ ৯৪ হাজার ৩৮৮ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬৪ হাজার ৪৪৩ জনের।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটির অবস্থান তৃতীয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২ হাজার ৪৯৬ জন। মহামারির শুরু থেকে দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৩১ লাখ ১০ হাজার ১৮৫ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৪ হাজার ১০৩ জন।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় অস্ট্রেলিয়ায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ হাজার ৭২৪ জন এবং মারা গেছেন ৪৩ জন। একই সময়ে কানাডায় নতুন করে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ১০২ জন এবং মারা গেছেন ৬৭ জন। গ্রিসে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৪৫৩ জন এবং মারা গেছেন ২৭ জন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে একই বছরের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করে সংস্থাটি।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



দোকানের সুরঙ্গে লুকানো ছিল ১০৫০ লিটার তেল

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রাম নগরের কর্ণফুলী মার্কেটের খাজা স্টোরে বাড়তি লাভের আশায় দোকানের মধ্যেই সুড়ঙ্গ তৈরি করে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল ১ হাজার ৫০ লিটার তেল।

রোববার বিকেলে প্রতিষ্ঠানটিতে গিয়ে অবৈধভাবে মজুত করে বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির জন্য রাখা এসব তেল জব্দ করেছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের একটি টিম। এভাবে তেল মজুত করার দৃশ্য দেখতে পান কর্মকর্তারা।

এ অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অভিযানে নেতৃত্ব দেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহ। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. আনিছুর রহমান ও নাসরিন আক্তার।

উপ-পরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহ বলেন, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে নগরের কর্ণফুলী মার্কেটের খাজা স্টোরে অভিযান চালানো হয়েছে।

তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রতিষ্ঠানটির সংশ্লিষ্টরা বিষয়টি আমাদের কাছে স্বীকারও করেছেন। এ অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানটিকে সতর্কও করা হয়েছে। জব্দ করা তেল আমরা তাৎক্ষণিকভাবে আশপাশের দোকানে বিক্রির জন্য বিতরণ করে দিয়েছি। এভাবে অবৈধভাবে তেল মজুতকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। অভিযানে এপিবিএন এর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



গ্যাসকে অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করে রাশিয়া: জেলেনস্কি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, গ্যাস এবং যে কোনও ধরনের বাণিজ্যকে অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করে রাশিয়া। বুধবার (২৭ এপ্রিল) স্থানীয় সময় রাতে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে এমন মন্তব্য করেছেন তিনি। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

জেলেনস্কি দাবি করেন, রাশিয়া তার জ্বালানির মাধ্যমে ইউরোপকে ব্ল্যাকমেইল করছেন। পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ার মধ্য দিয়ে মস্কো দেখিয়ে দিয়েছে যে, ইউরোপের কেউ রাশিয়ার সঙ্গে স্বাভাবিক অর্থনৈতিক সহযোগিতা বজায় রাখার আশা করতে পারে না।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, রাশিয়া শুধু গ্যাস নয়, যে কোনও বাণিজ্যকেই তারা অস্ত্র হিসেবে বিবেচনা করে। তিনি আরও বলেন, যত দ্রুত ইউরোপের সবাই স্বীকার করবে যে, বাণিজ্যে রাশিয়ার ওপর নির্ভর করা অগ্রহণযোগ্য, তত দ্রুত ইউরোপের বাজারে স্থিতিশীলতার গ্যারান্টি দেওয়া সম্ভব হবে।


আরও খবর



করোনায় সাংহাইয়ে মৃত বেড়ে ২৫

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ এপ্রিল ২০২২ | ৩৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চীনের সাংহাই শহরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বাড়ছেই। বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) শহরটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে নতুন করে আরও ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে করে সরকারি হিসেবে শহরটিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫ জনে।

চীনের এই শহরটিতে সংক্রমণ সম্প্রতি কমে এসেছে এবং দীর্ঘদিন লকডাউনে ঘরবন্দি থাকার পর সেখানকার কিছু বাসিন্দা বাড়ির বাইরে বের হওয়ার সুযোগও পাচ্ছেন। কিন্তু এরপরও শহরটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

সংবাদমাধ্যম বলছে, গত সপ্তাহ থেকে সাংহাই শহরে করোনা বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল করেছে চীনা প্রশাসন। আর এরপরই গৃহবন্দি ১ কোটি ২০ লাখ মানুষকে বাড়ি থেকে বের হওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া শহরের প্রায় ২ কোটি ৫০ লাখ মানুষের অর্ধেকই এখনও কার্যত নিজেদের ঘরে বন্দি। বুধবার সাংহাইয়ের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ জানায়, শহরের বেশ কয়েকটি জায়গায় এই প্রথমবারের মতো করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে।

এর আগে গত দুই বছরের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ করোনা পরিস্থিতির মুখোমুখি হয় সাংহাই। এতে করে চীনের এই বাণিজ্যিক রাজধানীর ব্যবসা-বাণিজ্য মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। মূলত করোনার ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ার কারণেই সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখা দেয়।

এএফপি বলছে, মার্চ থেকে সাংহাইতে চার লাখেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত বলে শনাক্ত হয়েছেন। তবে এর মধ্যে মারা গেছেন মাত্র ২৫ জন। অবশ্য গত সোমবারই শহরটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছিল বলে জানিয়েছিল স্থানীয় প্রশাসন।


আরও খবর



রাজধানীতে 'চোর সন্দেহে' কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানী ঢাকার ধানমণ্ডিতে এক কিশোরকে চোর সন্দেহে ধাওয়া করে ধরে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) ধানমণ্ডির ৫ নম্বর রোড থেকে গুরুতর অবস্থায় ওই কিশোরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত ওই কিশোরের নাম মো. পলাশ মিয়া (১৯)। সে ময়মনসিংহ জেলার ইশ্বরগঞ্জ উপজেলার মধুপুর গ্রামের রিকশা চালক জয়নাল আবেদিনের ছেলে।

ধানমণ্ডি থানার উপ-পরিদর্শক মোয়াজ্জেম হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, পলাশ রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যান এলাকায় থেকে স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে পলাশ ধানমণ্ডির ৫ নম্বর রোডের একটি বাসায় চুরি করতে ওঠে বলে স্থানীয়দের ভাষ্য। চোর চোর বলে ধাওয়া করে তারা পলাশকে আটক করে এবং গণধোলাই দিয়ে জরুরি সেবার নম্বর ৯৯৯ এ ফোন করে। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলেও বিকালে তার মৃত্যু হয়।


আরও খবর



৩ ঘরোয়া টোটকা: গরমেও ঠোঁট থাকবে কোমল

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৫ এপ্রিল ২০২২ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শীত বিদায় নিয়েছে বেশ কিছু দিন। বঙ্গে এখন গ্রীষ্মের দাপট। তবু শীতকালীন কিছু কিছু সমস্যা দেখা দিচ্ছে গরমেও। তার মধ্যে অন্যতম ঠোঁট ফাটা। আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে শুধু শীতকাল নয়, গ্রীষ্মেও ত্বক ও ঠোঁট রুক্ষ হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যায় ভুগছেন অনেকে। গরমে শরীরে জলের পরিমাণ কম থাকে। ফলে ঠোঁটের জলীয় ভাব ক্রমশ হ্রাস পায়। ঠোঁটের চামড়া খুব পাতলা হয়। ফলে তা অল্পেতেই রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে পড়ে। গরমে ঠোঁট ফাটার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে বাড়িতেই বানিয়ে নিতে পারেন ঘরোয়া স্ক্রাবার।

১) ব্রাউন সুগার স্ক্রাবার : ত্বকের মৃত কোষ দূর করার অন্যতম একটি উপাদান হল ব্রাউন সুগার। শুষ্ক ত্বক কোমল ও মসৃণ করতে ব্রাউন সুগার ব্যবহার করতে পারেন। এক চামচ ব্রাউন সুগার, দু চামচ মধু ও কয়েক ফোঁটা এসেনশিয়াল অয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিন। আঙুল দিয়ে এই মিশ্রণটি আলতো করে ঠোঁটে ঘষে নিন। কিছু ক্ষণ রেখে দিয়ে জলে ভেজানো নরম কাপড় দিয়ে ঠোঁটে বুলিয়ে নিন।

২) স্ট্রবেরি স্ক্রাবার: স্ট্রবেরিতে রয়েছে ভিটামিন সি। ঠোঁটের রক্ষতা দূর করতে দারুণ কাজ করে এই ভিটামিন। গরমেও ঠোঁটের গোলাপি ভাব বজায় রাখতে ব্যবহার করতে পারেন স্ট্রবেরি। একটি পাত্রে এক চামচ অলিভ অয়েল, স্ট্রবেরির কুচি, মধু মিশিয়ে নিন। এ বার মিশ্রণটি ভাল করে ঠোঁটে বুলিয়ে কিছু ক্ষণ রেখে দিন। শুকিয়ে এলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ঠোঁট থাকবে কোমল ও মসৃণ।

৩) কফি স্ক্রাবার: ধোঁয়া ওঠা কফির চাইতে এই গরমে ক্রিম দেওয়া ঠান্ডা কফিতেই গলা ভেজাতে ভালবাসেন অনেকে। গলা ভেজানোর পাশাপাশি ঠোঁটের যত্নেও কাজে লাগাতে পারেন কফি। এক চামচ কফির গুঁড়ো ও দু'চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে ঠোঁটে মেখে নিন। চাইলে এই মিশ্রণটি বানিয়েও রেখে দিতে পারেন। সপ্তাহে তিন-চার দিন মাখতে পারেন। উপকার পাবেন।

 

নিউজ ট্যাগ: কোমল ঠোঁট

আরও খবর
‘আম’ চিনুন তারপর কিনুন

বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২