আজঃ শনিবার ১৫ জুন ২০২৪
শিরোনাম

সাধারণ মানুষকে সেবা বঞ্চিত করা যাবে না: এস এম নুরে আলম সিদ্দিকী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলায় নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান এস এম নুরে আলম সিদ্দিকী শাহীন বলেছেন, সাধারণ মানুষকে সেবা বঞ্চিত করা যাবে না।

বৃহস্পতিবার নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে মত বিনিময়ের সময় এ কথা বলেন।

নুরে আলম সিদ্দিকী শাহীন বলেন, নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের বাইরে ও ভিতরে যারা আছেন তাদের প্রত্যেককে নিয়ে আগামী দিনের পথ চলতে চাই। নাজিরপুর উপজেলা পরিষদকে একটি পরিবার বানাতে চাই। যে পরিবারে প্রত্যেককেই সমান অধিকারের সদস্য। আপনাদের অধিকারের জায়গা সীমাবদ্ধ নয় প্রসারিত। নাজিরপুরের মানুষ অসহায়, আমি অসহায় মানুষের প্রতিনিধি।

নাজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, থানা, ভূমি অফিস, হাসপাতাল, সাব-রেজিস্ট্রি অফিসসহ বিশেষ কিছু জায়গা আছে যেখানে সাধারণ মানুষের যাতায়াতটা বেশি। আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে সাধারণ মানুষ যেন সেবা বঞ্চিত না হয়। কোনো ভাবেই তাদেরকে সেবা বঞ্চিত করা যাবে না।

নূরে আলম সিদ্দিকী শাহীন স্থানীয়দের উদ্দেশে বলেন, সরকারি কর্মকর্তারা দুরদুরান্ত থেকে এসেছেন। তারা আমাদের মেহমান। আমাদের স্থানীয় মানুষদের আচরণে তারা যেন কষ্ট না পায় সে দিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।

একই অনুষ্ঠানে বিদায়ী উপজেলা চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন খানকে নব-নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম নুরে আলম সিদ্দিকী শাহীন তার তরফ থেকে উপহার সামগ্রী দেন। এসময় তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদ চালানোর জন্য বিদায়ী উপজেলা চেয়ারম্যানের পরামর্শ নেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নাজিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অরুপ রতন সিংহ, নাজিরপুর উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা মাসুম বিল্লাহ, উপজেলা প্রকৌশলী জাকির হোসেন, পিরোজপুর জেলা পরিষদের সদস্য সুলতান মাহমুদ খানসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগন।


আরও খবর



শক্তি সঞ্চয় করে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল, উপকূলে বৃষ্টি

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

প্রবল শক্তি সঞ্চয় করে বাংলাদেশের স্থলভাগের ৩০০ কিলোমিটারের মধ্যে চলে এসেছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল। এরই মধ্যে এর অগ্রভাগের প্রভাবে দেশের উপকূলীয় অঞ্চলে বৃষ্টি হচ্ছে। ঢাকার আকাশও মেঘলা।

মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরে ৭ নম্বর বিপৎসংকেত বহাল রাখা হয়েছে। অন্যদিকে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরে বহাল রয়েছে ৬ নম্বর বিপৎসংকেত।

রবিবার (২৬ মে) আবহাওয়ার বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে (ক্রমিক নম্বর-৯) সব তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর।

এতে বলা হয়, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় রেমাল’ উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি গত মধ্যরাতে চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৪০৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৫৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৩৪০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৩০০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল। এটি আরও উত্তর দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৬২ কিলোমিটার, যা দমকা বা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর খুবই উত্তাল রয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

‘পায়রা ও মোংলা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর এবং চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে ৬ নম্বর বিপৎসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।’

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে উপকূলীয় জেলা সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাট, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বরগুনা, বরিশাল, ভোলা, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৩ থেকে ৫ ফুটের বেশি উচ্চতার বায়ুতাড়িত জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে। ঘূর্ণিঝড়টির প্রভাবে রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ ভারী (৪৪ থেকে ৮৮ মিমি) থেকে অতিভারী (৮৯ মিমির বেশি) বর্ষণ হতে পারে। চট্টগ্রামের পাহাড়ি এলাকায় ভূমিধস হতে পারে বলেও বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

আবহাওয়াবিদরা আরও জানিয়েছেন, উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হলো।


আরও খবর



রাজধানীর যেসব এলাকায় গ্যাস থাকবে না বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে রুট অ্যালাইনমেন্ট প্রকল্পের আওতায় পাইপলাইন অপসারণ বা প্রতিস্থাপন কাজের জন্য বৃহস্পতিবার (২৩ মে) রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ১০ ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। বুধবার (২২ মে) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

এতে বলা হয়, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মোট ১০ ঘণ্টা মগবাজার, নয়াটোলা, মধুবাগ, তেজগাঁও, হাতিরঝিল, মীরেরবাগ, গাবতলা, গ্রিনওয়ে, পেয়ারাবাগ, ইস্কাটন (দিলু রোড) এলাকার সকল আবাসিক ও বাণিজ্যিক শ্রেণির গ্রাহকের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

এ ছাড়া আশেপাশের এলাকায় গ্যাসের স্বল্প চাপ বিরাজ করতে পারে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।


আরও খবর



ঈদের দিন ৬ ঘন্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণের ঘোষণা মেয়র আতিকের

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

এবারের কোরবানি ঈদে ৬ ঘন্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণ করার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। বুধবার (১২ জুন) কোরবানির বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য কেনা নতুন ৪০টি ট্রাক উদ্বোধনকালে এ ঘোষণা দেন তিনি। ট্রাকগুলো নিজস্ব অর্থায়নে ক্রয় করেছে ডিএনসিসি। খরচ হয়েছে ৩০ কোটি টাকা।

মেয়র আতিক বলেন, গত কোরবানির ঈদে তিনদিনে প্রায় ২০ হাজার টন বর্জ্য অপসারণ করে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। নতুন গাড়িগুলোর মাধ্যমে এবার ঈদের দিন ৬ ঘণ্টার মধ্যে কোরবানির সব বর্জ্য অপসারণ করা হবে।

এ সময় ঈদের প্রথম দুই দিনের মধ্যে কোরবানি শেষ করার জন্য নাগরিকদের অনুরোধ করেন ডিএনসিসি মেয়র।

তিনি বলেন, পশুর হাটে ইজরাদাররা ঠিক মতো বর্জ্য অপসারণ করে না। তাই এবার হাটের সব বর্জ্য ডিএসসিসি পরিস্কার করবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এজন্য হাটের ইজারাদারদের কাছ থেকে ১০ শতাংশ টাকা কেটে রাখা হয়েছে।

পরে উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরে রাস্তার উপর হাট বসানো হয়েছে বলে জানানো হয় মেয়র আতিককে। এ ব্যাপারে তিনি জানান, কোনো হাট রাস্তার ওপর বসলে তাদের জামানতের টাকা বাজেয়াপ্ত করা হবে।


আরও খবর



বঙ্গবন্ধু সেতুতে ২৪ ঘণ্টায় আড়াই কোটি টাকার টোল আদায়

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

Image

আসন্ন ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে ঢাকা-টাঙ্গাইল ও বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে কোরবানির পশুবাহী ও পণ্যবাহী যানবাহনের চাপ আগের তুলনায় বেড়েছে। এতে বঙ্গবন্ধু সেতুতে বেড়েছে টোল আদায়ের হার। গত ২৪ ঘণ্টায় সেতুতে টোল আদায় হয়েছে প্রায় আড়াই কোটি। সোমবার (১০ জুন) দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল।

সেতু কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শনিবার (৮ জুন) রাত ১২টা থেকে রোববার (৯ জুন) রাত ১২টা পর্যন্ত পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব-পশ্চিম টোলপ্লাজা দিয়ে ২৫ হাজার ২৫৭টি পরিবহন পারাপার হয়েছে। এতে টোল আদায় হয়েছে ২ কোটি ৪০ লাখ ১৪ হাজার ৫০ টাকা।

গত ২৪ ঘণ্টায় যাত্রীবাহী বাস পারাপার হয়েছে ৪ হাজার ৭৮টি। বাসের তিনগুণ ট্রাক পারাপার হয়েছে। এ সময় সেতু পারাপার হয়েছে ১২ হাজার ৩৯৬টি ট্রাক। এ ছাড়া ছোট-বড় পরিবহন পার হয়েছে ৭ হাজার ৬৯৬টি এবং মোটরসাইকেল পারাপার হয়েছে এক হাজার ৮৭টি।

এ বিষয়ে নির্বাহী প্রকৌশলী আহসানুল কবীর পাভেল বলেন, অন্যান্য দিনের চেয়ে মহাসড়কে পশুবাহী ও পণ্যবাহী যানবাহনের চাপ আগের তুলনায় বেড়েছে। কিন্তু স্বাভাবিকভাবে যানবাহন চলাচল করছে।’


আরও খবর



বেনজীরের দুর্নীতির প্রমাণ মিলেছে, শিগগিরই মামলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

এই মুহূর্তে দেশের যে কয়জন ব্যক্তি আলোচনার শীর্ষে, তার মধ্যে অন্যতম পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। সম্প্রতি ক্ষমতায় থাকাকালীন অবৈধ উপায়ে অঢেল সম্পত্তির মালিক বনে গেছেন বলে অভিযোগ ওঠে বেনজীর ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। তাদের জ্ঞাত আয় বহির্ভূত অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধানে দৌড়ঝাঁপ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ইতোমধ্যে তিন দফায় বেনজীর আহমেদের শত একর জমি ও একাধিক ফ্ল্যাট জব্দ হয়েছে আদালতের নির্দেশে। কিন্তু অবাক করা ব্যাপার, এত সম্পত্তির হদিস মেলার পরও এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি সাবেক এইব আইজিপির বিরুদ্ধে।

তবে এরই মধ্যে বেনজীর আহমেদের দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে জানানো হয়েছে দুদকের পক্ষ থেকে। সেই সূত্র ধরে তার বিরুদ্ধে মামলাও হতে যাচ্ছে শিগগিরই।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান জানান, বেনজীর আহমেদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির প্রমাণ মিলেছে। শিগগিরই মামলা করা হবে। দুদক আইন অনুযায়ী যেগুলোকে অপরাধ ধরা হয় তার সবই করেছেন বেনজীর।

এদিকে সাবেক এই আইজিপি এই মুহূর্তে কোথায় আছেন তা জানেনা সরকার বা প্রশাসনের কেউই।

গত ১৮ এপ্রিল বেনজীর আহমেদের বিরুদ্ধে কোটি কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে অনুসন্ধানে নামে দুদক। পরে সংস্থাটির আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বেনজীর আহমেদ, তার স্ত্রী ও কন্যাদের নামে থাকা স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোক ও ফ্রিজের আদেশ দেন আদালত।

অন্যদিকে, বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের স্থাবর সম্পত্তি দেখভালের জন্য তত্ত্বাবধায়ক নিয়োগের আদেশ দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আশ-শামস জগলুল হোসেন। আদেশ অনুযায়ী, সাবেক এ আইজিপির সাভারের সম্পত্তি দেখভাল করবেন সেখানকার ইউএনও এবং গোপালগঞ্জের মাছের খামার দেখভাল করবেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা। এ ছাড়া মাদারীপুর ও কক্সবাজারের সম্পত্তি দেখাশোনা করবেন সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক।


আরও খবর