আজঃ মঙ্গলবার ২০ এপ্রিল ২০21
শিরোনাম

নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৬২৬ জন

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনায় দেশে গেলো ২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় করোনা আক্রান্ত হিসেবে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৬২৬ জন। একদিনে শনাক্তের হিসেবে যা নতুন রেকর্ড।

বুধবার (৭ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গতকাল করোনায় এযাবতকালের সর্বোচ্চ ৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এ সময় করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছিল ৭ হাজার ২১৩ জন।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আজ মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৪৪৭ জন। এ যাবত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৫৯ হাজার ২৭৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৪ হাজার ৬৬৮ জনের। শনাক্তের হার ২২.২। এছাড়া গেলো ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৬৬ জনের মধ্যে ৩৯ জন পুরুষ, বাকি ২৪ জন নারী। গেলো ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ২৫৬ জন। এখন পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৩৮৩ জন।


আরও খবর



অভিজ্ঞতা ছাড়াই নিয়োগ দেবে আকিজ গ্রুপ

প্রকাশিত:রবিবার ২১ মার্চ 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ মার্চ 20২১ | ১১৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে আকিজ গ্রুপ। প্রতিষ্ঠানটিতে কাস্টমার সাপোর্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম: কাস্টমার সাপোর্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ।

পদসংখ্যা: মোট ১৫ জন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা

স্বীকৃত যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে যেকোনো বিষয়ে স্নাতক পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর এক বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। তবে অভিজ্ঞতা ছাড়াও আবেদন করা যাবে। ইংরেজিতে কথা বলার দক্ষতা থাকতে হবে। ভিডিও কলে কথা বলার মনোবল ও আত্মবিশ্বাস থাকতে হবে। ২২ থেকে অনূর্ধ্ব ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। শুধু নারী প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।

কর্মস্থল: ঢাকা।

বেতন: আলোচনা সাপেক্ষে।

আবেদনের পদ্ধতি: আগ্রহী প্রার্থীরা বিডিজবস অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন অথবা সিভি ই-মেইল করতে পারবেন ([email protected]) এই ঠিকানায়।

আবেদনের শেষ তারিখ: ৩১ মার্চ, ২০২১।

সূত্র : বিডিজবস

নিউজ ট্যাগ: আকিজ গ্রুপ

আরও খবর
সারা দেশে নিয়োগ দেবে কাজী ফার্মস

মঙ্গলবার ০৬ এপ্রিল ২০২১




ভার্চুয়ালি দেখে রিমান্ড শুনানি, কারাগারে রেখে জামিন শুনানি

প্রকাশিত:সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় অধস্তন আদালতে আসামিদের শারীরিক উপস্থিতি ছাড়াই জামিন শুনানি চলবে। এক্ষেত্রে কয়েদি/আসামিদের কারাগার থেকে আদালতে আসতে হবে না। কয়েদি আসামিদের রিমান্ড শুনানির ক্ষেত্রে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিচারক আসামিকে দেখতে পারবেন। ভিডিও কনফারেন্সের ব্যবস্থা করবে কারা কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (১২ এপ্রিল) এমন প্রজ্ঞাপন জারি করে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। এতে বলা হয়, উপযুক্ত বিষয়ে নির্দেশিত হয়ে জানানো যাচ্ছে যে, করোনাভাইরাসজনিত (কোভিড-১৯) উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জামিন শুনানিকালে এবং মামলার অন্যান্য কার্যক্রমে কারাগার হতে হাজতি আসামিদের আদালতে হাজির করা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। এমতাবস্থায় জামিন শুনানিকালে এবং মামলার অন্যান্য কার্যক্রমে হাজতি আসামিদের কারাগার থেকে প্রিজনভ্যান বা অন্য কোনোভাবে আদালত কক্ষে হাজির না করে কারাগারে রেখে জামিন শুনানি করতে হবে। অন্যান্য ক্ষেত্রে প্রয়োজনে মামলার কার্যক্রম মুলতবি করতে হবে।

পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত দেশের অধস্তন আদালত ও ট্রাইব্যুনালে জামিন শুনানিকালে এবং মামলার অন্যান্য কার্যক্রমে হাজতি আসামিদের কারাগার থেকে প্রিজনভ্যান বা অন্য কোনোভাবে আদালত কক্ষে হাজির না করার নির্দেশ প্রদান করা হলো।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, হাজতি আসামির রিমান্ড শুনানির ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কারাগারে ভিডিও কনফারেন্সের লিংক পাঠিয়ে শুনানি গ্রহণকারী ম্যাজিস্ট্রেট আসামিকে কারাগার কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় ভার্চুয়ালি দেখে রিমান্ড শুনানি করতে পারবেন। এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে।


আরও খবর



আক্রমণে এসেই মেহেদির জোড়া আঘাত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ মার্চ ২০২১ | ৯৬জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দলীয় ২৮ রানে মার্টিন গাপটিলকে ফিরিয়ে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৪৩ ও ৫৩ রানের মাথায় আরও দুটি উইকেটের পতন। হেনরি নিকোলাস ও উইল ইয়ং বিদায় নিয়েছেন মেহেদী হাসানের বলে।

মঙ্গলবার বাংলাদেশের দেয়া ২৭২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পঞ্চম ওভারের শেষ বলে আউট হন গাপটিল। মুস্তাফিজুরের বলে তার হাতে ক্যাচ দেয়ার আগে ২৪ বলে ২০ রান করেন এই ওপেনার।

হেগলি ওভালে নবম ওভারের তৃতীয় বলে অফস্পিনার মেহেদীর বলে বোল্ড হন নিকোলাস। ১৮ বলে ১৩ রান করে মাঠ ছাড়েন ডান-হাতি এই ওপেনার।

ক্রাইস্টচার্চের এই মাঠে ১১তম ওভারের পঞ্চম বলে একই পরিণতি হয় উইল ইয়েংর। বোল্ড হওয়ার আগে ৭ বলে ১ রান করেন তিনি।

১৪ ওভার পর তিন উইকেট হারিয়ে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ৬১ রান। ২৬ বলে ২১ করেছেন ডেভন কনওয়ে। তার সঙ্গে যোগ দেয়া অধিনায়ক টম ল্যাথাম ৯ বলে ৪ রান তুলেছেন।

এদিন টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে বাংলাদেশ। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৭১ রান তুলে টাইগাররা। দলের হয়ে তামিম ইকবাল ৭৮ ও মোহাম্মদ মিঠুনের ৭৩ রান করেন। নিউজিল্যান্ডের হয়ে দুটি উইকেট তুলেন মিচেল স্যান্টনার।

নিউজ ট্যাগ: মেহেদী হাসান

আরও খবর



বিয়ে গোপনে করা যায় না, অ্যানাউন্স করতে হয়: আজহারী

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | ২০১জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আজহারী বলছেন, বিয়ের ঘোষণায় ব্যান্ড পার্টি করতে বলেছেন বিশ্বনবী (সা.)। কারণ বিয়েতে একজন নারী-পুরুষের যে সম্পর্ক হয়, জেনা ও ব্যভিচারে একই সম্পর্ক হয়

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর একটি রিসোর্টে শনিবার (৩ এপ্রিল) হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়। ঘটনার সময় তাকে এক নারীসহ আটক করা হয়েছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে।

মামুনুল হক ওই নারীকে নিজের বিয়ে করা দ্বিতীয় স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দিলেও বিষয়টির পক্ষে-বিপক্ষে বিপুল জনমত তৈরি হয়। বিয়ের ধরন সম্পর্কেও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। এরইমধ্যে পাওয়া গেলো মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর বয়ান।  

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে আজহারী বলছেন,  বিয়ের ঘোষণায় ব্যান্ড পার্টি করতে বলেছেন বিশ্বনবী (সা.)। কারণ বিয়েতে একজন নারী-পুরুষের যে সম্পর্ক হয়, জেনা ও ব্যভিচারে একই সম্পর্ক হয়। পার্থক্য হচ্ছে এটার সামাজিক স্বীকৃতি আছে, জেনার স্বীকৃতি নেই। এজন্য বিয়ে গোপন করে করা যায় না। এটা অ্যানাউন্স করে করতে হয়। 

ইসলামের খলিফাদের জীবন প্রসঙ্গ টেনে এই ইসলামী বক্তা বলেন, ওমর ফারুক (র.) যখন মদিনার খলিফা বলতেন লুকিয়ে লুকিয়ে যদি কেউ বিয়ে করে তাদের প্রতিবেশীরা যদি তাদের দাম্পত্য জীবন সম্পর্কে না জানে তাহলে আমি তাদের দুজনকে জেনার শাস্তি দেবো।

পুরনো এক ওয়াজ মাহফিলের বয়ানের ওই ভিডিওতে আজহারী বলেন, লুকিয়ে বিয়ে করা যায় না, সবাইকে জানিয়ে-শুনিয়ে অ্যানাউন্স করে বিয়ে করতে হয়। এজন্য ইসলাম শুধু হারাম বলে জিকির করে নেই। যেখানেই হারাম তার বিপরীতে ইসলামে হালালের বিকল্প দিয়েছে। 

এদিকে রবিবার সকালে মামুনুল ওই নারীকে বিয়ের বিষয়টি অবতারণা করে বলেন, রাগের মাথায় সংসার ভেঙে গভীর সংকটে পড়ে যান তিনি। ওই পরিস্থিতিতে তার জীবিকা নির্বাহ করা কঠিন হয়ে পড়ে। 

স্বাভাবিকভাবেই তিনি আমার শরণাপন্ন হন। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে করণীয় বিষয়ে পরামর্শ নেন। আর সেই দুঃসময়ে সহযোগিতা করার মতো আমি ছাড়া আর কেউ ছিল না তার। ইসলামী দৃষ্টিকোণ এবং অভিভাবকত্বের জায়গা থেকে আমি তার অর্থনৈতিক দায়িত্ব গ্রহণ করি। জীবনের করণীয় বিষয়ে দিকনির্দেশনার জন্য নিয়মিতই আমার সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে হয় তাকে।

শরিয়তের দিক থেকে এই সম্পর্ক ঝুঁকিপূর্ণ বলে মনে করেন মামুনুল। তিনি বলেন, এমতাবস্থায় একজন বেগানা নারীর সঙ্গে এভাবে সম্পর্ক রাখাকে শরিয়তের দৃষ্টিকোণ থেকে আমার কাছে ঝুঁকিপূর্ণ মনে হয়। তখন আমি সিদ্ধান্ত নিই, যত দিন তার অভিভাবকত্বের প্রয়োজন হবে আমার, তাকে বেগানা হিসেবে রেখে অভিভাবকত্ব করবো না, বরং ইসলামী শরিয়তের আলোকে বৈধ একটা সম্পর্ক তৈরি করে নেবো। বিষয়টি নিয়ে ঘনিষ্ঠজনদের সঙ্গে কথা বলি এবং এ বিষয়ে তাদের জানিয়ে শরিয়তের বিধান অনুযায়ী বিয়ের কালেমা পড়ে বিয়ে করে নেই। 

মামুনুল বলেন, দুই বছর যাবত এভাবেই মানবিক ও ইসলামী দৃষ্টিভঙ্গির আলোকে আমি তার অভিভাবকত্ব করছি এবং একজন অসহায় নারীর দায়িত্ব গ্রহণ করে একটি পুণ্যের কাজ করেছি বলে বিশ্বাস করি। আমি যা বললাম, এটা আল্লাহর নামে হাজারবার শপথ করে বলতে পারবো। বিষয়টি বিশ্বাসযোগ্য করার জন্য কুল্লামার শপথও করতে পারি।


আরও খবর
শুরু হলো সিয়াম সাধনার মাস

বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১

রোজা শুরু কবে জানা যাবে সন্ধ্যায়

মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১




মানসিক অবসাদে ভুগছেন শ্রীলেখা

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অভিনেত্রী শ্রীলেখা মানসিক অবসাদে ভুগছেন। বিখ্যাত অভিনেত্রী হলেও তার মনে সুখ নেই, সংসারে আনন্দ নেই। একাকীত্বে ভুগতে থাকা শ্রীলেখা একসময় মাদকাসক্তে হয়ে পড়েন। তার জীবনের মোড় ঘুরাতে এগিয়ে আসে শঙ্খ। বদলে যায় সবকিছু।

এমন গল্পে তৈরি হয়েছে সিনেমা লুপ। মৃন্ময় সরকারের পরিচালনায় এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন শ্রীলেখা মিত্র। সম্প্রতি শুটিং শেষ হয়েছে সিনেমাটির। এখন অপেক্ষা মুক্তির।

বাস্তবেও কি অবসাদে ভুগেন শ্রীলেখা? এমন প্রশ্নের উত্তরে এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেন, হুম, ডিপ্রেসন হয় আমার। আমি তো একজন মননশীল মানুষ, আমার মতো একজন সেনসিটিভ মানুষ চারপাশের এত অবক্ষয় দেখে কী করে ঠিক থাকবে? অবসাদে তো আসবেই। আমি চালাক নই, কিন্তু আমি বুদ্ধিমতী। আর বুদ্ধিমতী বলেই চারপাশের মানুষের মুখ আর মুখোশের পার্থক্যটা বুঝি। যত সেই মুখোশগুলো খুলে যাচ্ছে, ততই আমি নিজেকে গুটিয়ে নিচ্ছি। আমি একা হয়ে যাচ্ছি। কিন্তু আমি এতে ভালো আছি। আমার খুব ছোট পৃথিবী, সেই পৃথিবী নিয়ে আমি খুশি।

সিনেমার সঙ্গে বাস্তবের শ্রীলেখার পার্থক্য তুলে ধরে এ অভিনেত্রী আরো বলেন, ছবির শ্রীলেখা অনিশ্চয়তায় ভোগেন। শ্রীলেখার মতো অনেকেই এই ইন্ডাস্ট্রিতে অনিশ্চয়তায় ভোগেন। আর তাই তো তারা আজকাল কোনো না কোনো দলের কাছে নিজেদের বিক্রি করে দিচ্ছেন। শ্রীলেখা মিত্র কিন্তু কোনো অনিশ্চয়তায় ভোগেন না। কারণ আমি আয়-ব্যয়ের মধ্যে ভারসাম্য করতে পারি, বাকিরা পারেন না।

নিউজ ট্যাগ: শ্রীলেখা মিত্র

আরও খবর